নিউইয়র্ক ১১:২১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

যুক্তরাষ্ট্র আ. লীগ নেতা মিঠুর নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত ॥ মরদেহ দেশে প্রেরণ ॥ হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যু

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৮:২৪:৩৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • / ৭৬৮ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: নিউইয়র্কে বাংলাদেশী কমিউনিটির পরিচিত মুখ, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির অন্যতম সদস্য জসিম উদ্দিন খান মিঠুর নামাজে জানাজা গত ৯ ফেব্রুয়ারী সোমবার বাদ এশা জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারে (জেএমসি) অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় ইমামতি এবং দোয়া পাঠ করেন জেএমসি’র ইমাম জুনায়েদ জাফর। এদিকে মরহুম মিঠুর মরদেহ ১০ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার বিকালে অ্যামিরাত এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে করে বাংলাদেশে প্রেরণ করা হয়। অপরদিকে মিঠুর ময়নাতদন্ত শেষে মেডিকেল রিপোর্টে বলা হয়েছে সে হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যুবরণ করেছেন। তার হার্টে একাধিক ব্লক দেখা যায়।
জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত ড. এ কে আব্দুল মোমেন, নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কন্স্যুলেটে নিযুক্ত কন্সাল জেনারেল শামীম আহসান, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আকতার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদুর রহমান সাজ্জাদ সহ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষকলীগ প্রভৃতি অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বহু নেতাকর্মী, ব্রক্ষণবাড়িয়া সমিতি ইউএসএ সহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ অংশগ্রহণ এবং মরহুম মিঠুর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।
জানাজায় জসিম উদ্দিন খান মিঠুর নিউইয়র্ক প্রবাসী খালু সাঈদ আলম ভাগিনার জন্য সবার কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন। এছাড়াও রাষ্ট্রদূত ড. আব্দুল মোমেন, কনসাল জেনারেল শামীম আহসান, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আকতার হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদুর রহমান সাজ্জাদ সহ কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট বাহলুল সৈয়দ উজ্জল, মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার ও সাইফুল্লাহ ভূঁইয়া মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদা জ্ঞাপন করেন।
মরহুম মিঠুর মরদেহ ১০ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার বিকালে অ্যামিরাত এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে করে বাংলাদেশে প্রেরণ করা হয়। নিউইয়র্কের জেএফকে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মরহুম জসিম উদ্দিন খান মিঠুকে চির বিদায় জানাতে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ, এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত থাকবেন। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, মিঠুর মৃতদেহ ঢাকাস্থ হযরত শাহ জালাল বিমানবন্দরে পৌছানের পর বাংলাদেশে অবস্থানরত যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান মিঠুর লাশ গ্রহণ করে তার দেশের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়ীয়া নিয়ে যাবেন। দেশে তার বাবা, মা এবং ভাই বোন রয়েছেন। নিজ এলাকায়ই মিঠুর মরদেহ দাফন করা হবে।
উল্লেখ্য, পাঁচ দিন নিখোঁজ থাকার পর গত ৮ ফেব্রুয়ারী রোববার দুপুরে কুইন্সের জামাইকার বাসা থেকে জসিম উদ্দিন খান মিঠুর (৩৮) মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। ঐ বাসায় তিনি একাকী বসবাস করছিলেন। ফলে মিঠু কবে, কিভাবে মারা যান তার কোন সঠিক তথ্য পাওয়া যায়নি। বিছানায় উপুর হয়ে শুয়ে থাকাবস্থায় মিঠুর মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। মিঠু যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় ছাড়াও প্রবাসের বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে জড়িত ছিলেন। ১৯৯৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসী হন। ছিলেন ব্রক্ষণবাড়িয়া সরকারী কলেজ ছাত্র সংসদের নির্বাচিত জিএস।
এদিকে মিঠুর মরদেহ তদন্ত শেষে প্রাপ্ত মেডিক্যাল রিপোর্টের বরাত দিয়ে কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট ডা. মাসুদুর রহমান ও ব্রাক্ষণবাড়িয়া সোসাইটি ইউএসএ ইন্ক’র সাধারণ সম্পাদক ইকবাল আহমেদ ইউএনএ প্রতিনিধিকে জানান, ম্যাসিব হার্ট অ্যাটাকের শিকার হয়ে মিঠু মৃত্যুবরণ করেছে। তার হার্টে তিনটি ব্লক দেখা যায়। তবে কখন, কবে, কিভাবে, কোন সময় মিঠু হার্ট অ্যাটাকের শিকার এবং মৃত্যুবরণ করেন তা জানা যায়নি। তবে ১ ফেব্রুয়ারী রোববার মধ্য রাতের পর থেকে তার খোঁজ-খবর পাওয়া যাচ্ছিলো না।
অপরদিকে কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট বাহালুল সৈয়দ উজ্জল ইউএনএ প্রতিনিধিকে জানান, জ্যামাইকার পরিচিত মুখ জসিম উদ্দিন খান মিঠু’র মৃত্যুর খবর পাওয়ার পর পরই ৮ ফেব্রয়ারী রোববার সন্ধ্যায় হিলসাইডস্থ স্টার কাবাব রেষ্টুরেন্টে জ্যামাইকাবাসী সর্বস্তরের প্রবাসীদের এক সভায় মিঠুর মৃত্যু পরবতীয় যাবতীয় দেখভালো করতে তিন সদস্যের এক কমিটি গঠন করা হয়। সরাফ সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় গঠিত কমিটির সদস্যরা হচ্ছেন রেজাউল করীম চৌধুরী, বাহলুল সৈয়দ উজ্জল ও সাইফুল্লাহ ভূঁইয়া। তিনি বলেন, মিঠুর শোকহত পরিবারের পাশে দাঁড়াতে সংগৃহিত অর্থ তার (মিঠু) মা-এর কাছে প্রেরণ করা হবে।
যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপ প্রচার সম্পাদক তৈয়বুর রহমান টনি ইউএনএ-কে জানান, জসিম উদ্দিন খান মিঠুর জানাজায় অংশগ্রহণকারী দলের উল্লেখযোগ্য নেতা-কর্মীর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি সৈয়দ বসারত আলী, মাহবুবুর রহমান, সামসুদ্দিন আজাদ ও মোহাম্মদ লুৎফুল করিম, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক আহমেদ, মহিউদ্দিন দেওয়ান, আব্দুল হাসিব মামুন ও আব্দুর রহিম বাদশা, প্রচার সম্পাদক হাজী এনাম, জনসংযোগ সম্পাদক কাজী কয়েস, কোষাধ্যক্ষ আবুল মনসুর খান, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলাম, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক এম এ করিম জাহাঙ্গীর, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আশরাফুজ্জামান, উপ প্রচার সম্পাদক তৈয়বুর রহমান টনি, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের সভাপতি মিসবাহ আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক ফরিদ আলম, যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নূরুজ্জামান সরদার ছাড়াও আওয়ামী লীগ নেতা জালাল উদ্দিন রুমী, এডভোকেট আব্দুর রহমান মামুন, নূরে আলম চৌধুরী, জাহাঙ্গীর আলম, যুবলীগ নেতা সাইফুল্লাহ ভূঁইয়া, সেবুল মিয়া প্রমুখ ছাড়াও নিউইয়র্ক স্টেট আওয়ামী লীগ, সিটি আওয়ামী লীগ, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ, নিউইয়র্ক স্টেট যুবলীগ, যুক্তরাষ্ট্র শ্রমিক লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগের নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।
নিউইয়র্কের বিভিন্ন সামাজিক ও সামাজিক সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী এবং কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গও মিঠুর জানাজায় অংশ নেন। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিলেন জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার পরিচালনা কমিটির সভাপতি ডা. ওয়াহিদুর রহমান, জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব আমেরিকার সভাপতি বদরুল হোসেন খান, ব্রক্ষণবাড়িয়া সোসাইটির সভাপতি সৈয়দ এম কে জামান, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল আহমেদ, কমিউনিটি নেতা নাসির আলী খান পল, মুকিত চৌধুরী, আতাউর রহমান সেলিম, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, সাবেক সভাপতি মনির হোসেন, উপদেষ্টা রেজাউল করীম চৌধুরী, কসবা সোসাইটি ইউএসএ ইন্্ক’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি একেএম সফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

Tag :

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

যুক্তরাষ্ট্র আ. লীগ নেতা মিঠুর নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত ॥ মরদেহ দেশে প্রেরণ ॥ হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যু

প্রকাশের সময় : ০৮:২৪:৩৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

নিউইয়র্ক: নিউইয়র্কে বাংলাদেশী কমিউনিটির পরিচিত মুখ, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির অন্যতম সদস্য জসিম উদ্দিন খান মিঠুর নামাজে জানাজা গত ৯ ফেব্রুয়ারী সোমবার বাদ এশা জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারে (জেএমসি) অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় ইমামতি এবং দোয়া পাঠ করেন জেএমসি’র ইমাম জুনায়েদ জাফর। এদিকে মরহুম মিঠুর মরদেহ ১০ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার বিকালে অ্যামিরাত এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে করে বাংলাদেশে প্রেরণ করা হয়। অপরদিকে মিঠুর ময়নাতদন্ত শেষে মেডিকেল রিপোর্টে বলা হয়েছে সে হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যুবরণ করেছেন। তার হার্টে একাধিক ব্লক দেখা যায়।
জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত ড. এ কে আব্দুল মোমেন, নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কন্স্যুলেটে নিযুক্ত কন্সাল জেনারেল শামীম আহসান, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আকতার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদুর রহমান সাজ্জাদ সহ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষকলীগ প্রভৃতি অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বহু নেতাকর্মী, ব্রক্ষণবাড়িয়া সমিতি ইউএসএ সহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ অংশগ্রহণ এবং মরহুম মিঠুর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।
জানাজায় জসিম উদ্দিন খান মিঠুর নিউইয়র্ক প্রবাসী খালু সাঈদ আলম ভাগিনার জন্য সবার কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন। এছাড়াও রাষ্ট্রদূত ড. আব্দুল মোমেন, কনসাল জেনারেল শামীম আহসান, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আকতার হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদুর রহমান সাজ্জাদ সহ কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট বাহলুল সৈয়দ উজ্জল, মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার ও সাইফুল্লাহ ভূঁইয়া মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদা জ্ঞাপন করেন।
মরহুম মিঠুর মরদেহ ১০ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার বিকালে অ্যামিরাত এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে করে বাংলাদেশে প্রেরণ করা হয়। নিউইয়র্কের জেএফকে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মরহুম জসিম উদ্দিন খান মিঠুকে চির বিদায় জানাতে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ, এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত থাকবেন। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, মিঠুর মৃতদেহ ঢাকাস্থ হযরত শাহ জালাল বিমানবন্দরে পৌছানের পর বাংলাদেশে অবস্থানরত যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান মিঠুর লাশ গ্রহণ করে তার দেশের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়ীয়া নিয়ে যাবেন। দেশে তার বাবা, মা এবং ভাই বোন রয়েছেন। নিজ এলাকায়ই মিঠুর মরদেহ দাফন করা হবে।
উল্লেখ্য, পাঁচ দিন নিখোঁজ থাকার পর গত ৮ ফেব্রুয়ারী রোববার দুপুরে কুইন্সের জামাইকার বাসা থেকে জসিম উদ্দিন খান মিঠুর (৩৮) মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। ঐ বাসায় তিনি একাকী বসবাস করছিলেন। ফলে মিঠু কবে, কিভাবে মারা যান তার কোন সঠিক তথ্য পাওয়া যায়নি। বিছানায় উপুর হয়ে শুয়ে থাকাবস্থায় মিঠুর মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। মিঠু যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় ছাড়াও প্রবাসের বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে জড়িত ছিলেন। ১৯৯৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের অভিবাসী হন। ছিলেন ব্রক্ষণবাড়িয়া সরকারী কলেজ ছাত্র সংসদের নির্বাচিত জিএস।
এদিকে মিঠুর মরদেহ তদন্ত শেষে প্রাপ্ত মেডিক্যাল রিপোর্টের বরাত দিয়ে কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট ডা. মাসুদুর রহমান ও ব্রাক্ষণবাড়িয়া সোসাইটি ইউএসএ ইন্ক’র সাধারণ সম্পাদক ইকবাল আহমেদ ইউএনএ প্রতিনিধিকে জানান, ম্যাসিব হার্ট অ্যাটাকের শিকার হয়ে মিঠু মৃত্যুবরণ করেছে। তার হার্টে তিনটি ব্লক দেখা যায়। তবে কখন, কবে, কিভাবে, কোন সময় মিঠু হার্ট অ্যাটাকের শিকার এবং মৃত্যুবরণ করেন তা জানা যায়নি। তবে ১ ফেব্রুয়ারী রোববার মধ্য রাতের পর থেকে তার খোঁজ-খবর পাওয়া যাচ্ছিলো না।
অপরদিকে কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট বাহালুল সৈয়দ উজ্জল ইউএনএ প্রতিনিধিকে জানান, জ্যামাইকার পরিচিত মুখ জসিম উদ্দিন খান মিঠু’র মৃত্যুর খবর পাওয়ার পর পরই ৮ ফেব্রয়ারী রোববার সন্ধ্যায় হিলসাইডস্থ স্টার কাবাব রেষ্টুরেন্টে জ্যামাইকাবাসী সর্বস্তরের প্রবাসীদের এক সভায় মিঠুর মৃত্যু পরবতীয় যাবতীয় দেখভালো করতে তিন সদস্যের এক কমিটি গঠন করা হয়। সরাফ সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় গঠিত কমিটির সদস্যরা হচ্ছেন রেজাউল করীম চৌধুরী, বাহলুল সৈয়দ উজ্জল ও সাইফুল্লাহ ভূঁইয়া। তিনি বলেন, মিঠুর শোকহত পরিবারের পাশে দাঁড়াতে সংগৃহিত অর্থ তার (মিঠু) মা-এর কাছে প্রেরণ করা হবে।
যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপ প্রচার সম্পাদক তৈয়বুর রহমান টনি ইউএনএ-কে জানান, জসিম উদ্দিন খান মিঠুর জানাজায় অংশগ্রহণকারী দলের উল্লেখযোগ্য নেতা-কর্মীর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি সৈয়দ বসারত আলী, মাহবুবুর রহমান, সামসুদ্দিন আজাদ ও মোহাম্মদ লুৎফুল করিম, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক আহমেদ, মহিউদ্দিন দেওয়ান, আব্দুল হাসিব মামুন ও আব্দুর রহিম বাদশা, প্রচার সম্পাদক হাজী এনাম, জনসংযোগ সম্পাদক কাজী কয়েস, কোষাধ্যক্ষ আবুল মনসুর খান, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলাম, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক এম এ করিম জাহাঙ্গীর, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আশরাফুজ্জামান, উপ প্রচার সম্পাদক তৈয়বুর রহমান টনি, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের সভাপতি মিসবাহ আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক ফরিদ আলম, যুক্তরাষ্ট্র স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নূরুজ্জামান সরদার ছাড়াও আওয়ামী লীগ নেতা জালাল উদ্দিন রুমী, এডভোকেট আব্দুর রহমান মামুন, নূরে আলম চৌধুরী, জাহাঙ্গীর আলম, যুবলীগ নেতা সাইফুল্লাহ ভূঁইয়া, সেবুল মিয়া প্রমুখ ছাড়াও নিউইয়র্ক স্টেট আওয়ামী লীগ, সিটি আওয়ামী লীগ, যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগ, নিউইয়র্ক স্টেট যুবলীগ, যুক্তরাষ্ট্র শ্রমিক লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগের নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।
নিউইয়র্কের বিভিন্ন সামাজিক ও সামাজিক সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী এবং কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গও মিঠুর জানাজায় অংশ নেন। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিলেন জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার পরিচালনা কমিটির সভাপতি ডা. ওয়াহিদুর রহমান, জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব আমেরিকার সভাপতি বদরুল হোসেন খান, ব্রক্ষণবাড়িয়া সোসাইটির সভাপতি সৈয়দ এম কে জামান, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল আহমেদ, কমিউনিটি নেতা নাসির আলী খান পল, মুকিত চৌধুরী, আতাউর রহমান সেলিম, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, সাবেক সভাপতি মনির হোসেন, উপদেষ্টা রেজাউল করীম চৌধুরী, কসবা সোসাইটি ইউএসএ ইন্্ক’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি একেএম সফিকুল ইসলাম প্রমুখ।