নিউইয়র্ক ০৬:৩৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

টাইম টেলিভিশনের পরিচালকের ভাতিজা স্পেন প্রবাসী টিটু’র ইন্তেকাল

ইউএনএ, নিউইয়র্ক
  • প্রকাশের সময় : ০১:৩২:৩৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৬ জুলাই ২০২৪
  • / ৯০ বার পঠিত

ছবি: সৈয়দ শামীম আহমেদ টিটু

নিউইয়র্কের টাইম টেলিভিশনের পরিচালক ও যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বিশিষ্ট সংগঠক সৈয়দ ইলিয়াছ খছরুর ভাইয়ের পুত্র স্পেন প্রবাসী সৈয়দ শামীম আহমেদ টিটু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছেন। তিনি স্পেনের বার্সেলোনার একটি হাসপাতালে ফুসফুসের ব্যাধিতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মাত্র ৩৭ বছর বয়সে বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) নিউইয়র্ক সময় ভোর ৫:৩০ মিনিটে মারা যান। খবর ইউএনএ’র।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, সৈয়দ শামীম আহমেদ টিটু বাংলাদেশের মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার ভাটেরার কৃষ্ণপুর গ্রামের বাসিন্দা সৈয়দ সিরাজুল ইসলামের বড় পুত্র। তার মৃত্যুর খবরে নিউইয়র্ক প্রবাসী মৌলভীবাজারবাসীদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

সৈয়দ শামীম আহমেদ টিটু চার ভাই-বোনের মধ্যে সবার বড়। ১৪ বছর ধরে তিনি স্ব-স্ত্রীক স্পেনের বার্সেলোনা বসবাস করে আসছিলেন। ২০২০ সালের মহামারী করোনার সময় কোভিডে তাঁর ফুসফুস আক্রান্ত হয়। পরবর্তীতে স্পেনের হাসপাতালের চিকিৎসকরা অস্ত্রপাচারের মাধ্যমে ফুসফুস ট্রান্সপ্লারেন্ট করেন। স্পেনে থাকাবস্থায় এ বছরে ঈদুল আযহার আগের দিন হঠাৎ তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁকে সেখানকার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এসময় ট্রান্সপ্লারেন্টকৃত তার ফুসফুসে আবারো ইনফেকশন ধরা পড়ে। এ অবস্থায় আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় না ফেরার দেশে চলে গেলেন টিটু। তার মৃত্যুতে নিউইয়র্ক প্রবাসী কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা ও টিটুর আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন।

সৈয়দ ইলিয়াস খসরু জানান, পারিবারিক সিদ্ধান্তে নি:সন্তান টিটুর মরদেহ বাংলাদেশ তার গ্রামে দাফন করা হবে। এজন্য মরদেহ দেশে পাঠানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

Tag :

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

টাইম টেলিভিশনের পরিচালকের ভাতিজা স্পেন প্রবাসী টিটু’র ইন্তেকাল

প্রকাশের সময় : ০১:৩২:৩৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৬ জুলাই ২০২৪

নিউইয়র্কের টাইম টেলিভিশনের পরিচালক ও যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বিশিষ্ট সংগঠক সৈয়দ ইলিয়াছ খছরুর ভাইয়ের পুত্র স্পেন প্রবাসী সৈয়দ শামীম আহমেদ টিটু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছেন। তিনি স্পেনের বার্সেলোনার একটি হাসপাতালে ফুসফুসের ব্যাধিতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মাত্র ৩৭ বছর বয়সে বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) নিউইয়র্ক সময় ভোর ৫:৩০ মিনিটে মারা যান। খবর ইউএনএ’র।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, সৈয়দ শামীম আহমেদ টিটু বাংলাদেশের মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার ভাটেরার কৃষ্ণপুর গ্রামের বাসিন্দা সৈয়দ সিরাজুল ইসলামের বড় পুত্র। তার মৃত্যুর খবরে নিউইয়র্ক প্রবাসী মৌলভীবাজারবাসীদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

সৈয়দ শামীম আহমেদ টিটু চার ভাই-বোনের মধ্যে সবার বড়। ১৪ বছর ধরে তিনি স্ব-স্ত্রীক স্পেনের বার্সেলোনা বসবাস করে আসছিলেন। ২০২০ সালের মহামারী করোনার সময় কোভিডে তাঁর ফুসফুস আক্রান্ত হয়। পরবর্তীতে স্পেনের হাসপাতালের চিকিৎসকরা অস্ত্রপাচারের মাধ্যমে ফুসফুস ট্রান্সপ্লারেন্ট করেন। স্পেনে থাকাবস্থায় এ বছরে ঈদুল আযহার আগের দিন হঠাৎ তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁকে সেখানকার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এসময় ট্রান্সপ্লারেন্টকৃত তার ফুসফুসে আবারো ইনফেকশন ধরা পড়ে। এ অবস্থায় আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় না ফেরার দেশে চলে গেলেন টিটু। তার মৃত্যুতে নিউইয়র্ক প্রবাসী কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা ও টিটুর আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন।

সৈয়দ ইলিয়াস খসরু জানান, পারিবারিক সিদ্ধান্তে নি:সন্তান টিটুর মরদেহ বাংলাদেশ তার গ্রামে দাফন করা হবে। এজন্য মরদেহ দেশে পাঠানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।