নিউইয়র্ক ১১:২৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

এফবিআইয়ের চার্জশিটে জয় অপহরণ প্রসঙ্গে কোনো কথা নেই, এমনকি জয়ের নামও নেই

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৭:৩৬:১০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ মার্চ ২০১৫
  • / ৩০৯ বার পঠিত

ঢাকা: এফবিআই সদস্যকে পাঁচ লাখ ডলার ঘুষ দিয়ে তথ্য নেয়ার চেষ্টা প্রমাণিত হওয়ায় বিএনপি নেতার ছেলের শাস্তি সঠিক সংবাদ। এফবিআই এর দেয়া চার্জশিটে তার বিস্তারিত উল্লেখ আছে। কিছুই উল্লেখ নেই প্রধানমন্ত্রীর পুত্র-উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের অপহরণ প্রসঙ্গটির। চার্জশিটে যে এই বিষয়টি উল্লেখ নেই, তা নিয়ে প্রথম লিখলেন কানাডা প্রবাসী সাংবাদিক সাগর ভাই। আরও নিশ্চিত হওয়ার জন্য সাগর ভাইয়ের সঙ্গে কথা বললাম। তার থেকে ১১ পৃষ্ঠার এফবিআই-এর দেয়া চার্জশিট এবং ইউএস এটর্নি জেনারেলের অফিস থেকে পাঠানো প্রেস রিলিজ সংগ্রহ করলাম। এটা গোপন কিছু নয় ,যে কেউ ওয়েবসাইট থেকে সংগ্রহ করতে পারেন। রাতে একাত্তর টেলিভিশনে যেতে যেতে এবং অনুষ্ঠান শুরুর আগে পুরোটা পড়লাম। বিশ্ময়করভাবে দেখলাম, সেখানে জয় অপহরণ প্রসঙ্গে কোনো কথা নেই। এমনকি জয়ের নামও নেই। বলা হয়েছে একজন ‘প্রমিনেন্ট ফিগার’। যার থেকে ধারণা করা হচ্ছে তিনি জয়। এটা সঠিক বলেই মনে করি। সকল পত্র-পত্রিকা জয় অপহরণের প্রসঙ্গটি নিয়ে শিরোনাম করছে। গত ৯ মার্চ জাতীয় সংসদে আলোচনা পর্যন্ত হয়েছে। কিন্তু তথ্য সূত্র কী? কোথা থেকে পাওয়া গেল এই তথ্য? যতদূর জানতে পারলাম, ‘বাসস’ নাকি প্রথম এই সংবাদটি প্রচার করেছে। তারপর থেকে অন্য পত্রিকা শিরোনাম করছে, এমন কী জাতীয় সংসদে পর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। গণমাধ্যম, নেতা-নেত্রী, এমপি মন্ত্রী, কেউ একবার এফবিআই-এর চার্জশিট পড়ে দেখার প্রয়োজন মনে করছেন না। বিএনপি যে ঘুষ বিষয়টিকে আমেরিকা পর্যন্ত নিয়ে গেছে, এর সমালোচনা করে, বিচার-শাস্তি দাবি করেই তো সংসদে আলোচনা হতে পারত। যা সঠিক নয়, তা নিয়ে আলোচনা করে খালেদা-তারেককে অভিযুক্ত করে, সরকার কিছু অর্জন করলেন না হারালেন? সত্যি আজব এক দেশ আমাদের! একদলের নেতা ঘুষ দিয়ে, আরেক দলের নেতার তথ্য বের করার চেষ্টা করে বিদেশে ধরা পড়ছেন, শাস্তি হচ্ছে!! শুধু চেষ্টা নয়, এফবিআই-এর চার্জশিট বলছে, ঘুষ নেয়া সেই এফবিআই সদস্য এফবিআই ডাটাবেজ থেকে ৩০০ মিলিয়ন ডলারের একটি তথ্য সরিয়ে নিয়েছেন। সেই তথ্যটি কার, ঘুষ প্রদানকারীকে সেই তথ্য সরবারাহ করেছেন কিনা- তা অবশ্য উল্লেখ নেই চার্জশিটে। বোঝা যাচ্ছে এফবিআই-এর এই বিষয়টি আগামী কিছুদিন আমাদের রাজনীতির আলোচনার বিষয় হয়ে থাকবে।-দৈনিক আমার দেশ

Tag :

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

এফবিআইয়ের চার্জশিটে জয় অপহরণ প্রসঙ্গে কোনো কথা নেই, এমনকি জয়ের নামও নেই

প্রকাশের সময় : ০৭:৩৬:১০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ মার্চ ২০১৫

ঢাকা: এফবিআই সদস্যকে পাঁচ লাখ ডলার ঘুষ দিয়ে তথ্য নেয়ার চেষ্টা প্রমাণিত হওয়ায় বিএনপি নেতার ছেলের শাস্তি সঠিক সংবাদ। এফবিআই এর দেয়া চার্জশিটে তার বিস্তারিত উল্লেখ আছে। কিছুই উল্লেখ নেই প্রধানমন্ত্রীর পুত্র-উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের অপহরণ প্রসঙ্গটির। চার্জশিটে যে এই বিষয়টি উল্লেখ নেই, তা নিয়ে প্রথম লিখলেন কানাডা প্রবাসী সাংবাদিক সাগর ভাই। আরও নিশ্চিত হওয়ার জন্য সাগর ভাইয়ের সঙ্গে কথা বললাম। তার থেকে ১১ পৃষ্ঠার এফবিআই-এর দেয়া চার্জশিট এবং ইউএস এটর্নি জেনারেলের অফিস থেকে পাঠানো প্রেস রিলিজ সংগ্রহ করলাম। এটা গোপন কিছু নয় ,যে কেউ ওয়েবসাইট থেকে সংগ্রহ করতে পারেন। রাতে একাত্তর টেলিভিশনে যেতে যেতে এবং অনুষ্ঠান শুরুর আগে পুরোটা পড়লাম। বিশ্ময়করভাবে দেখলাম, সেখানে জয় অপহরণ প্রসঙ্গে কোনো কথা নেই। এমনকি জয়ের নামও নেই। বলা হয়েছে একজন ‘প্রমিনেন্ট ফিগার’। যার থেকে ধারণা করা হচ্ছে তিনি জয়। এটা সঠিক বলেই মনে করি। সকল পত্র-পত্রিকা জয় অপহরণের প্রসঙ্গটি নিয়ে শিরোনাম করছে। গত ৯ মার্চ জাতীয় সংসদে আলোচনা পর্যন্ত হয়েছে। কিন্তু তথ্য সূত্র কী? কোথা থেকে পাওয়া গেল এই তথ্য? যতদূর জানতে পারলাম, ‘বাসস’ নাকি প্রথম এই সংবাদটি প্রচার করেছে। তারপর থেকে অন্য পত্রিকা শিরোনাম করছে, এমন কী জাতীয় সংসদে পর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। গণমাধ্যম, নেতা-নেত্রী, এমপি মন্ত্রী, কেউ একবার এফবিআই-এর চার্জশিট পড়ে দেখার প্রয়োজন মনে করছেন না। বিএনপি যে ঘুষ বিষয়টিকে আমেরিকা পর্যন্ত নিয়ে গেছে, এর সমালোচনা করে, বিচার-শাস্তি দাবি করেই তো সংসদে আলোচনা হতে পারত। যা সঠিক নয়, তা নিয়ে আলোচনা করে খালেদা-তারেককে অভিযুক্ত করে, সরকার কিছু অর্জন করলেন না হারালেন? সত্যি আজব এক দেশ আমাদের! একদলের নেতা ঘুষ দিয়ে, আরেক দলের নেতার তথ্য বের করার চেষ্টা করে বিদেশে ধরা পড়ছেন, শাস্তি হচ্ছে!! শুধু চেষ্টা নয়, এফবিআই-এর চার্জশিট বলছে, ঘুষ নেয়া সেই এফবিআই সদস্য এফবিআই ডাটাবেজ থেকে ৩০০ মিলিয়ন ডলারের একটি তথ্য সরিয়ে নিয়েছেন। সেই তথ্যটি কার, ঘুষ প্রদানকারীকে সেই তথ্য সরবারাহ করেছেন কিনা- তা অবশ্য উল্লেখ নেই চার্জশিটে। বোঝা যাচ্ছে এফবিআই-এর এই বিষয়টি আগামী কিছুদিন আমাদের রাজনীতির আলোচনার বিষয় হয়ে থাকবে।-দৈনিক আমার দেশ