নিউইয়র্ক ০৭:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

আন্তর্জাতিক ফারাক্কা কমিটি’র বিশেষ সভায় ছিটমহল সমস্যা সমাধানের পাশাপাশি তিস্তা চুক্তি স্বাক্ষরের প্রত্যাশা

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০২:১৮:৩৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুন ২০১৫
  • / ৬৮০ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: আন্তর্জাতিক ফারাক্কা কমিটি (আই.এফ.সি)-এর এক বিশেষ সভায় আশা প্রকাশ করা হয় বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে দীর্ঘদিনের ছিটমহল সমস্যা সমাধানের পরে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফরের সময় বন্ধু প্রতিম দুই দেশের মধ্যে তিস্তা চুক্তিটিও স্বাক্ষরিত হবে। গত ৩১ মে রোববার জ্যাকসন হাইটসের ৭২-২৬ রুজভেল্ট এভিনিউ-তে অনুষ্ঠিত আই.এফ.সি’র বিশেষ সভায় বক্তাগন এই আশাবাদ প্রকাশ করেন।
আই.এফ.সি’র চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান সালুর সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারী জেনারেল সৈয়দ টিপু সুলতানের পরিচালনায় বিশেষ সভায় অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের ভাইস প্রেসিডেন্ট আলহাজ্ব সোলায়মান ভূইয়া, প্রখ্যাত লেখক ও সাংবাদিক আহমেদ মূসা, সাংগঠনিক সম্পাদক আতাউর রহমান আতা, লাগোর্ডিয়া কলেজ ছাত্র সংসদের প্রাক্তন সভাপতি শাহ ফয়সল মাজহার ও মীর হাসান।
সভায় বক্তাগন আরো আশা প্রকাশ করেন যে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদীর সক্রিয় উদ্যোগে টিপাই মুখ বাধ প্রকল্প, গঙ্গায় নতুন করে ১৬ ব্যারেজ নির্মান বন্ধ ও আন্ত নদী সংযোগ প্রকল্প বাতিল ঘোষনা করে সার্কের চেতনায় ও আঞ্চলিক সহযোগিতার ভিত্তিতে বাংলাদেশের পানির ন্যায্য হিস্যা নিশ্চিত করা হবে। এর মাধ্যমে অত্র অঞ্চলের পানি প্রবাহের উন্নয়ন সম্ভব বলে আইএফসি মনে করে।
সভায় আই.এফ.সি’র কমিটিতে নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধি হিসাবে শাহ ফয়সল মাজহারকে অর্ন্তভূক্ত করা হয়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

আন্তর্জাতিক ফারাক্কা কমিটি’র বিশেষ সভায় ছিটমহল সমস্যা সমাধানের পাশাপাশি তিস্তা চুক্তি স্বাক্ষরের প্রত্যাশা

প্রকাশের সময় : ০২:১৮:৩৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুন ২০১৫

নিউইয়র্ক: আন্তর্জাতিক ফারাক্কা কমিটি (আই.এফ.সি)-এর এক বিশেষ সভায় আশা প্রকাশ করা হয় বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে দীর্ঘদিনের ছিটমহল সমস্যা সমাধানের পরে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফরের সময় বন্ধু প্রতিম দুই দেশের মধ্যে তিস্তা চুক্তিটিও স্বাক্ষরিত হবে। গত ৩১ মে রোববার জ্যাকসন হাইটসের ৭২-২৬ রুজভেল্ট এভিনিউ-তে অনুষ্ঠিত আই.এফ.সি’র বিশেষ সভায় বক্তাগন এই আশাবাদ প্রকাশ করেন।
আই.এফ.সি’র চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান সালুর সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারী জেনারেল সৈয়দ টিপু সুলতানের পরিচালনায় বিশেষ সভায় অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের ভাইস প্রেসিডেন্ট আলহাজ্ব সোলায়মান ভূইয়া, প্রখ্যাত লেখক ও সাংবাদিক আহমেদ মূসা, সাংগঠনিক সম্পাদক আতাউর রহমান আতা, লাগোর্ডিয়া কলেজ ছাত্র সংসদের প্রাক্তন সভাপতি শাহ ফয়সল মাজহার ও মীর হাসান।
সভায় বক্তাগন আরো আশা প্রকাশ করেন যে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদীর সক্রিয় উদ্যোগে টিপাই মুখ বাধ প্রকল্প, গঙ্গায় নতুন করে ১৬ ব্যারেজ নির্মান বন্ধ ও আন্ত নদী সংযোগ প্রকল্প বাতিল ঘোষনা করে সার্কের চেতনায় ও আঞ্চলিক সহযোগিতার ভিত্তিতে বাংলাদেশের পানির ন্যায্য হিস্যা নিশ্চিত করা হবে। এর মাধ্যমে অত্র অঞ্চলের পানি প্রবাহের উন্নয়ন সম্ভব বলে আইএফসি মনে করে।
সভায় আই.এফ.সি’র কমিটিতে নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধি হিসাবে শাহ ফয়সল মাজহারকে অর্ন্তভূক্ত করা হয়।