নিউইয়র্ক ১২:১৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

অচিরেই কমিউনিটি সেন্টার প্রতিষ্ঠা হবে

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৮:৪৫:২২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৩ মে ২০১৫
  • / ৬২৫ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: নিউইয়র্ক তথা উত্তর আমেরিকা স্বনামধন্য সামাজিক সংগঠন জামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি ইন্্ক’র বাংলা বর্ষ উদযাপন তথা ‘সিতারা বৈশাখী মেলা’ সফল হওয়ার প্রেক্ষিতে সংগঠনের পক্ষ থেকে মতবিনিময় সভা ও নৈশভোজের আয়োজন করা হয়। সভায় বক্তারা প্রতিবছরের মতো এবারের মেলাসহ সকল কর্মকান্ড সফল করায় প্রবাসের মিডিয়াসহ সংশ্লিষ্ট সকল প্রবাসী বাংলাদেশীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ এবং এই ধারা অব্যাহত রাখতে সবার সহযোগিতা কামনা করা হয়। সভায় সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও কমিউনিটি বোর্ড মেম্বার মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার বলেন, প্রবাসীদের দীর্ঘদিনের দাবী কমিউনিটি সেন্টার প্রতিষ্ঠার জন্য ফ্রেন্ডস সোসাইটির পক্ষ থেকে অনেক আগেই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এব্যাপারে কাজও চলছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে অচিরেই কমিউনিটি সেন্টার প্রতিষ্ঠা হবে। তিনি ফ্রেন্ডস সোসাইটি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সহ নানা কর্মকান্ডের বিবরণ তুলে ধরে বলেন, আজ থেকে ১৫ বছর আগে জ্যামাইকা এলাকায় সন্ত্রাসীদের হাত থেকে বাংলাদেশী সমাজকে রক্ষা করতেই ২০০০ সালে ফ্রেন্ডস সোসাইটি প্রতিষ্ঠা করা হয়। তিনি বলেন, জ্যামাইকা হাই স্কুলের মাঠ থেকে কতিপয় তরুণের উদ্যোগ আজকের ফ্রেন্ডস সোসাইটি সর্বস্তরের প্রবাসী বাংলাদেশীদের সংগঠনে পরিণত হয়েছে। সবার আন্তরিকতা ছাড়া আমাদের পথ চলা কঠিন। সোসাইটির আগামী দিনের চলার পথেও তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। খবর ইউএনএ’র।
JBFS_18 May'2015 Pic-Misbahuzzamanনিউইয়র্কের বাংলাদেশী অধুষ্যিত জামাইকার হিলসাইড এভিনিউস্থ স্টার কাবাব রেষ্টুরেন্টে গত ১৮ মে সোমবার সন্ধ্যায় এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন সোসাইটির সভাপতি বিলাল আহমেদ চৌধুরী এবং যৌথভাবে সভা পরিচালনা করেন সিতরা বৈশাখী মেলা কমিটির সদস্য সচিব এএফ মিসবাহউজ্জামান ও যুগ্ম সদস্য সচিব রেজাউল আজাদ ভূইয়া। সভায় বিভিন্ন মিডিয়ার সম্পাদক ও সাংবাদিক ছাড়াও জামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির উপদেষ্টা ও কর্মকর্তাবৃন্দ এবং মেলা কমিটির কর্মকর্তা ও সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
সভায় বক্তব্য রাখেন ফ্রেন্ডস সোসাইটির অন্যতম উপদেষ্টা ও মেলা কমিটির আহ্বায়ক রেজাউল করিম চৌধুরী, ফ্রেন্ডস সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও মেলা কমিটির প্রধান সমন্বয়কারী মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, বিশিষ্ট সমাজসেবী ও মুলধারার রাজনীতিবীদ সালেহ আহমদ এবং নিউইয়র্কের ডিষ্ট্রিক্ট ২৩ এর সিটি কাউন্সিলওম্যান পদপ্রার্থী বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত সিলিয়া দোসামান্তেস।
সভায় বিলাল আহমেদ চৌধুরী বলেন, প্রবাসে বড় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা সত্যিই কঠিন কাজ। মিডিয়াসহ কমিউনিটির সবার সহযোগিতা না পেলে সিতারা বৈশাখী মেলার মতো এতো বড় আয়োজন সম্ভব ও সফল হতো না। তারপরও এই সংগঠনের কর্মীদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় আমরা প্রতি বছরের মতো এবারও সফল হয়েছি।
JBFS_18 May'2015 Pic-Siliaসিলিয়া দোসামান্তেস সিটির আগামী নির্বাচনে নিউইয়র্কের ডিষ্ট্রিক্ট ২৩ এলাকা থেকে সিটি কাউন্সিলওম্যান পদের প্রার্থী হওয়ার প্রত্যাশা ব্যক্ত এবং নির্বাচিত হলে বাংলাদেশীদের কল্যাণে কাজ করার অঙ্গীকার করেন। তিনি বলেন, নিউইয়র্কে চাইনিজ বংশোদ্ভূত মহিলা কংগ্রেসওমেন নির্বাচিত হতে পারলে, বাংলাদেশী হিসেবে আমিও সিটি কাউন্সিলর নির্বাচিত হতে পারবো। এজন্য তিনি সকল প্রবাসী বাংলাদেশীদের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।
সভায় ফ্রেন্ডস সোসাইটির উপদেষ্টাদের মধ্যে নাসির আলী খান পল, ডা. ওয়াজেদ এ খান, ছদরুন নূর, এবিএম ওসমান গনি, মঞ্জুর আহমেদ চৌধুরী, অধ্যাপিকা হুসনে আরা বেগম ও মোস্তফা কামাল, কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের মধ্যে বদরুন নাহার মিতা, বেদারুল ইসলাম বাবলা, জাকারিয়া চৌধুরী, শাহীন চৌধুরী, মিজানুর রহমান সেফাজ, আমানত হোসেন, জিয়াউদ্দিন, সাজ্জাদ হোসাইন, ফ্রেন্ডস সোসাইটির কর্মকর্তাদের মধ্যে সাবেক সভাপতি ও মেলা কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ মনির হোসেন সহ মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, মোক্তার হোসেন, সৈয়দ আতিকুর রহমান, গিয়াস উদ্দিন মঞ্জু, শেখ হায়দার আলী, রিজু মোহাম্মদ, ইফজাল আহমেদ চৌধুরী, এডভোকেট কামরুজ্জামান বাবু, সহদেব তালুকদার, শফিকুল ইসলাম, মাহবুবুল হক মোকাদ্দেস, আব্দুল মান্নাফ তালুকদার, হুমায়ুন কবির, লিটন আহমদ, লিটন মিয়া, জুয়েল মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

অচিরেই কমিউনিটি সেন্টার প্রতিষ্ঠা হবে

প্রকাশের সময় : ০৮:৪৫:২২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৩ মে ২০১৫

নিউইয়র্ক: নিউইয়র্ক তথা উত্তর আমেরিকা স্বনামধন্য সামাজিক সংগঠন জামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি ইন্্ক’র বাংলা বর্ষ উদযাপন তথা ‘সিতারা বৈশাখী মেলা’ সফল হওয়ার প্রেক্ষিতে সংগঠনের পক্ষ থেকে মতবিনিময় সভা ও নৈশভোজের আয়োজন করা হয়। সভায় বক্তারা প্রতিবছরের মতো এবারের মেলাসহ সকল কর্মকান্ড সফল করায় প্রবাসের মিডিয়াসহ সংশ্লিষ্ট সকল প্রবাসী বাংলাদেশীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ এবং এই ধারা অব্যাহত রাখতে সবার সহযোগিতা কামনা করা হয়। সভায় সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও কমিউনিটি বোর্ড মেম্বার মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার বলেন, প্রবাসীদের দীর্ঘদিনের দাবী কমিউনিটি সেন্টার প্রতিষ্ঠার জন্য ফ্রেন্ডস সোসাইটির পক্ষ থেকে অনেক আগেই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এব্যাপারে কাজও চলছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে অচিরেই কমিউনিটি সেন্টার প্রতিষ্ঠা হবে। তিনি ফ্রেন্ডস সোসাইটি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সহ নানা কর্মকান্ডের বিবরণ তুলে ধরে বলেন, আজ থেকে ১৫ বছর আগে জ্যামাইকা এলাকায় সন্ত্রাসীদের হাত থেকে বাংলাদেশী সমাজকে রক্ষা করতেই ২০০০ সালে ফ্রেন্ডস সোসাইটি প্রতিষ্ঠা করা হয়। তিনি বলেন, জ্যামাইকা হাই স্কুলের মাঠ থেকে কতিপয় তরুণের উদ্যোগ আজকের ফ্রেন্ডস সোসাইটি সর্বস্তরের প্রবাসী বাংলাদেশীদের সংগঠনে পরিণত হয়েছে। সবার আন্তরিকতা ছাড়া আমাদের পথ চলা কঠিন। সোসাইটির আগামী দিনের চলার পথেও তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। খবর ইউএনএ’র।
JBFS_18 May'2015 Pic-Misbahuzzamanনিউইয়র্কের বাংলাদেশী অধুষ্যিত জামাইকার হিলসাইড এভিনিউস্থ স্টার কাবাব রেষ্টুরেন্টে গত ১৮ মে সোমবার সন্ধ্যায় এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন সোসাইটির সভাপতি বিলাল আহমেদ চৌধুরী এবং যৌথভাবে সভা পরিচালনা করেন সিতরা বৈশাখী মেলা কমিটির সদস্য সচিব এএফ মিসবাহউজ্জামান ও যুগ্ম সদস্য সচিব রেজাউল আজাদ ভূইয়া। সভায় বিভিন্ন মিডিয়ার সম্পাদক ও সাংবাদিক ছাড়াও জামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির উপদেষ্টা ও কর্মকর্তাবৃন্দ এবং মেলা কমিটির কর্মকর্তা ও সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
সভায় বক্তব্য রাখেন ফ্রেন্ডস সোসাইটির অন্যতম উপদেষ্টা ও মেলা কমিটির আহ্বায়ক রেজাউল করিম চৌধুরী, ফ্রেন্ডস সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও মেলা কমিটির প্রধান সমন্বয়কারী মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, বিশিষ্ট সমাজসেবী ও মুলধারার রাজনীতিবীদ সালেহ আহমদ এবং নিউইয়র্কের ডিষ্ট্রিক্ট ২৩ এর সিটি কাউন্সিলওম্যান পদপ্রার্থী বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত সিলিয়া দোসামান্তেস।
সভায় বিলাল আহমেদ চৌধুরী বলেন, প্রবাসে বড় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা সত্যিই কঠিন কাজ। মিডিয়াসহ কমিউনিটির সবার সহযোগিতা না পেলে সিতারা বৈশাখী মেলার মতো এতো বড় আয়োজন সম্ভব ও সফল হতো না। তারপরও এই সংগঠনের কর্মীদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় আমরা প্রতি বছরের মতো এবারও সফল হয়েছি।
JBFS_18 May'2015 Pic-Siliaসিলিয়া দোসামান্তেস সিটির আগামী নির্বাচনে নিউইয়র্কের ডিষ্ট্রিক্ট ২৩ এলাকা থেকে সিটি কাউন্সিলওম্যান পদের প্রার্থী হওয়ার প্রত্যাশা ব্যক্ত এবং নির্বাচিত হলে বাংলাদেশীদের কল্যাণে কাজ করার অঙ্গীকার করেন। তিনি বলেন, নিউইয়র্কে চাইনিজ বংশোদ্ভূত মহিলা কংগ্রেসওমেন নির্বাচিত হতে পারলে, বাংলাদেশী হিসেবে আমিও সিটি কাউন্সিলর নির্বাচিত হতে পারবো। এজন্য তিনি সকল প্রবাসী বাংলাদেশীদের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।
সভায় ফ্রেন্ডস সোসাইটির উপদেষ্টাদের মধ্যে নাসির আলী খান পল, ডা. ওয়াজেদ এ খান, ছদরুন নূর, এবিএম ওসমান গনি, মঞ্জুর আহমেদ চৌধুরী, অধ্যাপিকা হুসনে আরা বেগম ও মোস্তফা কামাল, কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের মধ্যে বদরুন নাহার মিতা, বেদারুল ইসলাম বাবলা, জাকারিয়া চৌধুরী, শাহীন চৌধুরী, মিজানুর রহমান সেফাজ, আমানত হোসেন, জিয়াউদ্দিন, সাজ্জাদ হোসাইন, ফ্রেন্ডস সোসাইটির কর্মকর্তাদের মধ্যে সাবেক সভাপতি ও মেলা কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ মনির হোসেন সহ মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, মোক্তার হোসেন, সৈয়দ আতিকুর রহমান, গিয়াস উদ্দিন মঞ্জু, শেখ হায়দার আলী, রিজু মোহাম্মদ, ইফজাল আহমেদ চৌধুরী, এডভোকেট কামরুজ্জামান বাবু, সহদেব তালুকদার, শফিকুল ইসলাম, মাহবুবুল হক মোকাদ্দেস, আব্দুল মান্নাফ তালুকদার, হুমায়ুন কবির, লিটন আহমদ, লিটন মিয়া, জুয়েল মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।