নিউইয়র্ক ১২:০৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

গাজীপুরের ট্যাম্পাকো ট্র্যাজেডি : নিহতের সংখ্যা ৩৩

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৯:১৫:৫২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৬
  • / ৫৫২ বার পঠিত

গাজীপুর: গাজীপুরের টঙ্গীর ট্যাম্পাকো কারখানায় বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৩ জনে দাঁড়িয়েছে। ১২ সেপ্টেম্বর সোমবার বেলা ২টার দিকে বিধ্বস্ত কারখানা থেকে আরো একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। এরআগে সকাল ৭টার দিকে দুটি এবং দুপুর ১টার দিকে একটি লাশ উদ্ধার করা হয়। গাজীপুর জেলা ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক আখতারুজ্জামান এবং জেলা প্রশাসক এসএম আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। উল্লেখ্য, ১০ সেপ্টেম্বর শনিবার ভোরে টঙ্গীর ট্যাম্পাকো কারখানায় বিস্ফোরণে আগুন ধরে যায়।এতে ঘটনার দিনই নিহত হন ২৪ জন।
সর্বশেষ প্রাপ্ত খবরে জানা যায়, বয়লার বিস্ফোরণ নয়, কারখানার গ্যাস লাইন লিক হয়ে বিস্ফোরণের ঘটনাটি ঘটে। এদিকে ফায়ার সার্ভিস টিম ৪৮ ঘন্টায়ও কারখানার আগুণ নিয়ন্ত্রনে আনতে পারেনি।
জানা গেছে, ১১ সেপ্টেম্বর রোববার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজন মারা যান। একই দিন বিকালে ধ্বংস্তুপের নিচ থেকে উদ্ধার করা হয় আরও চারজনের লাশ। সব মিলিয়ে নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৩ জনে। ধারণা করা হচ্ছে, ভবনের ভেতরে আরও শ্রমিকের মরদেহ থাকতে পারে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

গাজীপুরের ট্যাম্পাকো ট্র্যাজেডি : নিহতের সংখ্যা ৩৩

প্রকাশের সময় : ০৯:১৫:৫২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৬

গাজীপুর: গাজীপুরের টঙ্গীর ট্যাম্পাকো কারখানায় বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৩ জনে দাঁড়িয়েছে। ১২ সেপ্টেম্বর সোমবার বেলা ২টার দিকে বিধ্বস্ত কারখানা থেকে আরো একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। এরআগে সকাল ৭টার দিকে দুটি এবং দুপুর ১টার দিকে একটি লাশ উদ্ধার করা হয়। গাজীপুর জেলা ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক আখতারুজ্জামান এবং জেলা প্রশাসক এসএম আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। উল্লেখ্য, ১০ সেপ্টেম্বর শনিবার ভোরে টঙ্গীর ট্যাম্পাকো কারখানায় বিস্ফোরণে আগুন ধরে যায়।এতে ঘটনার দিনই নিহত হন ২৪ জন।
সর্বশেষ প্রাপ্ত খবরে জানা যায়, বয়লার বিস্ফোরণ নয়, কারখানার গ্যাস লাইন লিক হয়ে বিস্ফোরণের ঘটনাটি ঘটে। এদিকে ফায়ার সার্ভিস টিম ৪৮ ঘন্টায়ও কারখানার আগুণ নিয়ন্ত্রনে আনতে পারেনি।
জানা গেছে, ১১ সেপ্টেম্বর রোববার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজন মারা যান। একই দিন বিকালে ধ্বংস্তুপের নিচ থেকে উদ্ধার করা হয় আরও চারজনের লাশ। সব মিলিয়ে নিহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৩ জনে। ধারণা করা হচ্ছে, ভবনের ভেতরে আরও শ্রমিকের মরদেহ থাকতে পারে।