নিউইয়র্ক ১০:৪৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

তিন দিনের রিমান্ডে সাংবাদিক শওকত মাহমুদ

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৭:২৭:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৫
  • / ৬৪২ বার পঠিত

ঢাকা: গাড়ি ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের অভিযোগে রমনা থানার একটি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (একাংশ) সভাপতি শওকত মাহমুদের তিন দিন রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।
মঙ্গলবার (১৮ আগষ্ট) বেলা সোয়া ১১টায় রাজধানীর পান্থপথে সামারাই কনভেনশন সেন্টারের গেট থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।
মামলায় তাকে সন্দিগ্ধ আসামি হিসেবে গ্রেফতার দেখিয়ে বুধবার (১৯ আগষ্ট) আদালতে হাজির করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) শফিকুল ইসলাম। ঘটনার রহস্য উদঘাটনের জন্য তিনি আদালতে আসামির ১০ দিনের রিমান্ড চান। এ সময় রিমান্ড বাতিল করে জামিন চান আসামির আইনজীবীরা। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম শাহরিয়ার মাহমুদ আসামির তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
আসামির পক্ষে আদালতে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার ও খোরশেদ আলম।
নথিসূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের ৯ জানুয়ারি রমনা থানার মগবাজার এলাকার সেলিব্রেশন কমিউনিটি সেন্টারের সামনে গাড়ি ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এ অভিযোগে ওই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আতিকুর রহমান মামলাটি দায়ের করেন। উল্লেখ্য, পেট্রলবোমা মেরে জানুয়ারিতে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে মানুষ হত্যা ও বিশৃংখলা সৃষ্টির অভিযোগে দায়ের করা দুই মামলার চার্জশিটভুক্ত পলাতক আসামি শওকত মাহমুদ।
এদিকে শওকত মাহমুদের মুক্তির দাবিতে বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) একাংশ ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) একাংশের নেতা-কর্মীরা। বিএফইউজের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম আবদুল্লাহর সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথির ছিলেন সংগঠনটির সাবেক সভাপতি ও সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক রুহুল আমিন গাজী। তিনি তার বক্তব্যে রিমান্ডের নামে শওকত মাহমুদকে হত্যার ষড়যন্ত্র চলছে বলে দাবি করেন। অসুস্থ সাংবাদিক নেতা শওকত মাহমুদের মুক্তি দাবি করে তিনি বলেন, তাদের শীর্ষ নেতাকে মুক্ত না করা পর্যন্ত তারা রাজপথ ছাড়বে না। বিক্ষোভ সমাবেশে বিএফইউজের মহাসচিব এমএ আজিজ, ডিইউজে সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, সিনিয়র সহ-সভাপতি আনওয়ারুল কবীর বুলুসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। (দৈনিক যুগান্তর)

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

তিন দিনের রিমান্ডে সাংবাদিক শওকত মাহমুদ

প্রকাশের সময় : ০৭:২৭:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৫

ঢাকা: গাড়ি ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের অভিযোগে রমনা থানার একটি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (একাংশ) সভাপতি শওকত মাহমুদের তিন দিন রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।
মঙ্গলবার (১৮ আগষ্ট) বেলা সোয়া ১১টায় রাজধানীর পান্থপথে সামারাই কনভেনশন সেন্টারের গেট থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।
মামলায় তাকে সন্দিগ্ধ আসামি হিসেবে গ্রেফতার দেখিয়ে বুধবার (১৯ আগষ্ট) আদালতে হাজির করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) শফিকুল ইসলাম। ঘটনার রহস্য উদঘাটনের জন্য তিনি আদালতে আসামির ১০ দিনের রিমান্ড চান। এ সময় রিমান্ড বাতিল করে জামিন চান আসামির আইনজীবীরা। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম শাহরিয়ার মাহমুদ আসামির তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
আসামির পক্ষে আদালতে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার ও খোরশেদ আলম।
নথিসূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের ৯ জানুয়ারি রমনা থানার মগবাজার এলাকার সেলিব্রেশন কমিউনিটি সেন্টারের সামনে গাড়ি ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এ অভিযোগে ওই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আতিকুর রহমান মামলাটি দায়ের করেন। উল্লেখ্য, পেট্রলবোমা মেরে জানুয়ারিতে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে মানুষ হত্যা ও বিশৃংখলা সৃষ্টির অভিযোগে দায়ের করা দুই মামলার চার্জশিটভুক্ত পলাতক আসামি শওকত মাহমুদ।
এদিকে শওকত মাহমুদের মুক্তির দাবিতে বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) একাংশ ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) একাংশের নেতা-কর্মীরা। বিএফইউজের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম আবদুল্লাহর সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথির ছিলেন সংগঠনটির সাবেক সভাপতি ও সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক রুহুল আমিন গাজী। তিনি তার বক্তব্যে রিমান্ডের নামে শওকত মাহমুদকে হত্যার ষড়যন্ত্র চলছে বলে দাবি করেন। অসুস্থ সাংবাদিক নেতা শওকত মাহমুদের মুক্তি দাবি করে তিনি বলেন, তাদের শীর্ষ নেতাকে মুক্ত না করা পর্যন্ত তারা রাজপথ ছাড়বে না। বিক্ষোভ সমাবেশে বিএফইউজের মহাসচিব এমএ আজিজ, ডিইউজে সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, সিনিয়র সহ-সভাপতি আনওয়ারুল কবীর বুলুসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। (দৈনিক যুগান্তর)