নিউইয়র্ক ১০:১৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

২ মিনিটেই ব্যাটারি চার্জ, চলবে ২০ বছর

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ১১:২৩:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ অক্টোবর ২০১৪
  • / ১০৬৮ বার পঠিত

প্রতিদিন স্মার্ট ফোনের ঘন ঘন চার্জ দেয়াই যেন সবচেয়ে মাথা ব্যাথা অধিকাংশ ব্যবহারকারীর কাছে। আর তাই এবার এমন এক প্রযুক্তি আবিষ্কার করা হয়েছে যাতে ২ মিনিটেই চার্জ করা যাবে আপনার স্মার্ট ফোন ব্যাটারির ৭০ শতাংশ।

এটি আবিষ্কার করেছে সিঙ্গাপুরের ন্যানিয়াং টেকনোলজি ইউনিভার্সিটির গবেষকরা।

তারা জানান, সাধারণ সানস্ক্রিনের মধ্যে থাকা জেল জাতীয় এক ধরনের রাসায়নিক উপাদান ব্যবহার করে ফোনের চার্জের গতি বাড়ানো যেতে পারে। আর সে কারণেই সাধারণ ব্যাটারির অ্যানোড থেকে গ্রাফাইটের পরিবর্তে টাইটানিয়াম ডাই-অক্সাইডের জেল ব্যবহার করা হয় এ স্মার্ট ব্যাটারিতে। এই পদার্থ ব্যাটারিতে রাসায়নিক বিক্রিয়ার মাত্রা বাড়িয়ে দেবে বলে দাবি গবেষকদের।

ব্যাটারির চার্জ যদি বেশিক্ষণ ধরে রাখা সম্ভব হয়, তাহলে কী কী উপকার হবে তা বলাই বাহুল্য। কিন্তু একটা ব্যাপারে দৃষ্টি আকর্ষণ করা যেতে পারে। বেশিরভাগ স্মার্টফোন ও ট্যাব নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এমনভাবে ফোনসেটটি বানিয়েছে যে পৃথকভাবে ব্যাটারি বদলানো অসম্ভব, অগত্যা পুরো সেটটিই বদলাতে হয়। দেখা যায় মাত্র ৫০০ বার বা তার বেশি চার্জ দেয়া হলেই ব্যাটারির সক্ষমতা কমতে থাকে, যা খুব বিপাকে ফেলে দেয় ব্যবহারকারীকে।

এ অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি থেকে স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট ব্যবহারকারীদের মুক্তি দিতে পারে এ ব্যাটারি। এই পদ্ধতিতে ব্যাটারি ১০ হাজার বার চার্জ দেয়া যাবে। অন্তত ২০ বছর চলবে সেই ব্যাটারি। আগামী ২ বছরের মধ্যে বাজারে আসছে এটি।

Tag :

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

২ মিনিটেই ব্যাটারি চার্জ, চলবে ২০ বছর

প্রকাশের সময় : ১১:২৩:৫৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ অক্টোবর ২০১৪

প্রতিদিন স্মার্ট ফোনের ঘন ঘন চার্জ দেয়াই যেন সবচেয়ে মাথা ব্যাথা অধিকাংশ ব্যবহারকারীর কাছে। আর তাই এবার এমন এক প্রযুক্তি আবিষ্কার করা হয়েছে যাতে ২ মিনিটেই চার্জ করা যাবে আপনার স্মার্ট ফোন ব্যাটারির ৭০ শতাংশ।

এটি আবিষ্কার করেছে সিঙ্গাপুরের ন্যানিয়াং টেকনোলজি ইউনিভার্সিটির গবেষকরা।

তারা জানান, সাধারণ সানস্ক্রিনের মধ্যে থাকা জেল জাতীয় এক ধরনের রাসায়নিক উপাদান ব্যবহার করে ফোনের চার্জের গতি বাড়ানো যেতে পারে। আর সে কারণেই সাধারণ ব্যাটারির অ্যানোড থেকে গ্রাফাইটের পরিবর্তে টাইটানিয়াম ডাই-অক্সাইডের জেল ব্যবহার করা হয় এ স্মার্ট ব্যাটারিতে। এই পদার্থ ব্যাটারিতে রাসায়নিক বিক্রিয়ার মাত্রা বাড়িয়ে দেবে বলে দাবি গবেষকদের।

ব্যাটারির চার্জ যদি বেশিক্ষণ ধরে রাখা সম্ভব হয়, তাহলে কী কী উপকার হবে তা বলাই বাহুল্য। কিন্তু একটা ব্যাপারে দৃষ্টি আকর্ষণ করা যেতে পারে। বেশিরভাগ স্মার্টফোন ও ট্যাব নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এমনভাবে ফোনসেটটি বানিয়েছে যে পৃথকভাবে ব্যাটারি বদলানো অসম্ভব, অগত্যা পুরো সেটটিই বদলাতে হয়। দেখা যায় মাত্র ৫০০ বার বা তার বেশি চার্জ দেয়া হলেই ব্যাটারির সক্ষমতা কমতে থাকে, যা খুব বিপাকে ফেলে দেয় ব্যবহারকারীকে।

এ অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি থেকে স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট ব্যবহারকারীদের মুক্তি দিতে পারে এ ব্যাটারি। এই পদ্ধতিতে ব্যাটারি ১০ হাজার বার চার্জ দেয়া যাবে। অন্তত ২০ বছর চলবে সেই ব্যাটারি। আগামী ২ বছরের মধ্যে বাজারে আসছে এটি।