নিউইয়র্ক ১০:১৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

লন্ডনে বিনিয়োগে সম্পদ বিবরণী প্রকাশ করতে হবে

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ১১:৫৬:২২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৫ মে ২০১৬
  • / ৭৩৪ বার পঠিত

ঢাকা: যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন বলেছেন, বিদেশ থেকে তাঁর দেশে ‘নোংরা অর্থ’ আসা বন্ধে তিনি বদ্ধপরিকর। যদি কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান লন্ডনে অর্থ বিনিয়োগ করতে চায়, তবে তাদের অবশ্যই সম্পদের বিবরণী প্রকাশ করতে হবে। বৃহস্পতিবার লন্ডনে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী সম্মেলনে ক্যামেরন এই হুঁশিয়ারি দেন। ডেভিড ক্যামেরন এই সম্মেলনের আয়োজক।
যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বলেন, সন্ত্রাসবাদ রুখতে এখনই দুর্নীতির বিরুদ্ধে সাঁড়াশি অভিযান চালাতে হবে। উন্নয়শীল বিশ্বের অধিবাসীরা নিরাপদ পানি ও স্বাস্থ্যসেবা যতটা চায়, ঠিক ততটাই চায় ন্যায়বিচার।
ক্যামেরন বলেন, বর্তমানে যেসব বিদেশি প্রতিষ্ঠান যুক্তরাজ্যে রয়েছে তাদেরও জনসম্মুখে সম্পদের বিবরণী প্রকাশ করতে হবে। ক্যামেরন বলেন, দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যক্তি ও রাষ্ট্র ভবিষ্যতে কোনোভাবে লন্ডনের বাজারে প্রবেশ করতে পারবে না।
অর্থপাচার রোধে যুক্তরাজ্য নতুন পরিকল্পনা করছে। এর আওতায় বিদেশি কোম্পানিকে প্রতিষ্ঠানের আসল মালিকের নাম প্রকাশ করতে হবে। সরকার আশা করছে, এর মাধ্যমে অর্থপাচার রোধ করা সম্ভব হবে।
সম্মেলনে অংশ নিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি বলেন, দুর্নীতি একটি রাষ্ট্রের অন্যতম শত্রু। কেননা, এটি জাতিরাষ্ট্রকে ধ্বংস করে দেয়। দুর্নীতি অপরাধ ও সন্ত্রাসবাদকে চাঙা করে।
এর আগে বাকিংহাম প্যালেসে একটি অনুষ্ঠানে আফগানিস্তান ও নাইজেরিয়া ‘দারুণভাবে দুর্নীতিগ্রস্ত’ বলে মন্তব্য করেছিলেন ক্যামেরন। তবে নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ বুহারি সম্মেলনে দেওয়া বক্তব্যে সেই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি। বুহারি বলেন, অর্থ পাচারের স্বর্গগুলো বন্ধ করতে এবং দেশগুলোর সম্পদ তাদের ফিরিয়ে দিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এগিয়ে আসতে হবে।
পানামা পেপারস ফাঁস হওয়া এবং সেখানে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধান, রাজনীতিবিদসহ নানা পেশার লোকদের নাম থাকার পরিপ্রেক্ষিতে এ ধরনের দুর্নীতিবিরোধী সম্মেলনের আয়োজন করা হলো।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

লন্ডনে বিনিয়োগে সম্পদ বিবরণী প্রকাশ করতে হবে

প্রকাশের সময় : ১১:৫৬:২২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৫ মে ২০১৬

ঢাকা: যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন বলেছেন, বিদেশ থেকে তাঁর দেশে ‘নোংরা অর্থ’ আসা বন্ধে তিনি বদ্ধপরিকর। যদি কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান লন্ডনে অর্থ বিনিয়োগ করতে চায়, তবে তাদের অবশ্যই সম্পদের বিবরণী প্রকাশ করতে হবে। বৃহস্পতিবার লন্ডনে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী সম্মেলনে ক্যামেরন এই হুঁশিয়ারি দেন। ডেভিড ক্যামেরন এই সম্মেলনের আয়োজক।
যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বলেন, সন্ত্রাসবাদ রুখতে এখনই দুর্নীতির বিরুদ্ধে সাঁড়াশি অভিযান চালাতে হবে। উন্নয়শীল বিশ্বের অধিবাসীরা নিরাপদ পানি ও স্বাস্থ্যসেবা যতটা চায়, ঠিক ততটাই চায় ন্যায়বিচার।
ক্যামেরন বলেন, বর্তমানে যেসব বিদেশি প্রতিষ্ঠান যুক্তরাজ্যে রয়েছে তাদেরও জনসম্মুখে সম্পদের বিবরণী প্রকাশ করতে হবে। ক্যামেরন বলেন, দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যক্তি ও রাষ্ট্র ভবিষ্যতে কোনোভাবে লন্ডনের বাজারে প্রবেশ করতে পারবে না।
অর্থপাচার রোধে যুক্তরাজ্য নতুন পরিকল্পনা করছে। এর আওতায় বিদেশি কোম্পানিকে প্রতিষ্ঠানের আসল মালিকের নাম প্রকাশ করতে হবে। সরকার আশা করছে, এর মাধ্যমে অর্থপাচার রোধ করা সম্ভব হবে।
সম্মেলনে অংশ নিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি বলেন, দুর্নীতি একটি রাষ্ট্রের অন্যতম শত্রু। কেননা, এটি জাতিরাষ্ট্রকে ধ্বংস করে দেয়। দুর্নীতি অপরাধ ও সন্ত্রাসবাদকে চাঙা করে।
এর আগে বাকিংহাম প্যালেসে একটি অনুষ্ঠানে আফগানিস্তান ও নাইজেরিয়া ‘দারুণভাবে দুর্নীতিগ্রস্ত’ বলে মন্তব্য করেছিলেন ক্যামেরন। তবে নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ বুহারি সম্মেলনে দেওয়া বক্তব্যে সেই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি। বুহারি বলেন, অর্থ পাচারের স্বর্গগুলো বন্ধ করতে এবং দেশগুলোর সম্পদ তাদের ফিরিয়ে দিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এগিয়ে আসতে হবে।
পানামা পেপারস ফাঁস হওয়া এবং সেখানে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধান, রাজনীতিবিদসহ নানা পেশার লোকদের নাম থাকার পরিপ্রেক্ষিতে এ ধরনের দুর্নীতিবিরোধী সম্মেলনের আয়োজন করা হলো।