নিউইয়র্ক ১২:০০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় কিংবদন্তি মুষ্টিযোদ্ধা মুহাম্মদ আলীকে চির বিদায় ॥ লুইভিলে দাফন

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ১০:১৭:১৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১২ জুন ২০১৬
  • / ৮১৭ বার পঠিত

কেন্টাকি: কিংবদন্তি মুষ্টিযোদ্ধা মুহাম্মদ আলীকে শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় লুইভিলে শেষ বিদায় জানিয়েছেন চৌদ্দ হাজারের বেশি মানুষ। যুক্তরাষ্ট্রের কেন্টাকির লুইভিলে ওই অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ধর্ম ও বর্ণের মানুষ অংশ নেন। এর আগে পরিবার ও ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের উপস্থিতিতে তাকে দাফন করা হয়। লুইভিলের রাস্তায় মুহাম্মদ আলীর কফিন বহনকারী গাড়ী দেখতে দাঁড়িয়ে ছিলেন অসংখ্য মানুষ।
পবিত্র কোরান পাঠ দিয়ে শুরু হয় মুহাম্মদ আলীকে শ্রদ্ধা আর স্মরণের অনুষ্ঠান। এরপর মুসলিম, খৃষ্টান, ইহুদিসহ বিভিন্ন ধর্ম ও বর্ণের মানুষ অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন। তারা বক্তব্যে মুহাম্মদ আলীর খেলা, সামাজিক আর রাজনৈতিক অর্জন, শান্তি আর মানবাধিকার অর্জনে তার ভূমিকার কথা তুলে ধরেন।
M. Ali Biday-02_10 June'2016সবসময় ন্যায় ও নীতির পক্ষে তার শক্ত অবস্থান নেয়ার কথাও সেখানে উঠে আসে। পঞ্চাশটির বেশি দেশ থেকে মানুষ এই অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন। অনুষ্ঠানে থাকতে না পারলেও, এক বিবৃতিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা আলীকে বিশাল, উজ্জ্বল আর তার যুগের সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তি বলে বর্ণনা করেছেন। বিশ্বের সব প্রান্তে তিনি ছিলেন সমান জনপ্রিয়।
এর আগে লুইভিলের রাস্তাগুলোর দুই পাশে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে হাজার হাজার মানুষ আলীকে শেষবারের মতো দেখে নেন। শুক্রবার সকাল থেকেই লুইভিলের রাস্তার দুধারে ছিল ভক্তদের ভিড়। এ শহরেই জন্মগ্রহণ করেন তিনি, বেড়ে উঠেছেন এখানেই।
বৃহস্পতিবার ইসলামী রীতি অনুযায়ী মুহাম্মদ আলীর শেষকৃত্যানুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। যে বাড়িতে তার জন্ম হয়েছে, যে স্কুলে তিনি পড়েছেন, যেসব এলাকায় তিনি বড় হয়ে উঠেছে, এসব রাস্তা সামনে দিয়ে তার ফুলে সাজানো কফিন নিয়ে একটি গাড়ী শহরের প্রায় উনিশ কিলোমিটার রাস্তা প্রদক্ষিণ করে।
শুধুমাত্র তার পরিবার আর ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের উপস্থিতিতে কেভ হিলের কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়। উল্লেখ্য, গত ৩ জুন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ৭৪ বছর বয়সী মুহাম্মদ আলী।-বিবিসি

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় কিংবদন্তি মুষ্টিযোদ্ধা মুহাম্মদ আলীকে চির বিদায় ॥ লুইভিলে দাফন

প্রকাশের সময় : ১০:১৭:১৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১২ জুন ২০১৬

কেন্টাকি: কিংবদন্তি মুষ্টিযোদ্ধা মুহাম্মদ আলীকে শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় লুইভিলে শেষ বিদায় জানিয়েছেন চৌদ্দ হাজারের বেশি মানুষ। যুক্তরাষ্ট্রের কেন্টাকির লুইভিলে ওই অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ধর্ম ও বর্ণের মানুষ অংশ নেন। এর আগে পরিবার ও ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের উপস্থিতিতে তাকে দাফন করা হয়। লুইভিলের রাস্তায় মুহাম্মদ আলীর কফিন বহনকারী গাড়ী দেখতে দাঁড়িয়ে ছিলেন অসংখ্য মানুষ।
পবিত্র কোরান পাঠ দিয়ে শুরু হয় মুহাম্মদ আলীকে শ্রদ্ধা আর স্মরণের অনুষ্ঠান। এরপর মুসলিম, খৃষ্টান, ইহুদিসহ বিভিন্ন ধর্ম ও বর্ণের মানুষ অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন। তারা বক্তব্যে মুহাম্মদ আলীর খেলা, সামাজিক আর রাজনৈতিক অর্জন, শান্তি আর মানবাধিকার অর্জনে তার ভূমিকার কথা তুলে ধরেন।
M. Ali Biday-02_10 June'2016সবসময় ন্যায় ও নীতির পক্ষে তার শক্ত অবস্থান নেয়ার কথাও সেখানে উঠে আসে। পঞ্চাশটির বেশি দেশ থেকে মানুষ এই অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন। অনুষ্ঠানে থাকতে না পারলেও, এক বিবৃতিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা আলীকে বিশাল, উজ্জ্বল আর তার যুগের সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তি বলে বর্ণনা করেছেন। বিশ্বের সব প্রান্তে তিনি ছিলেন সমান জনপ্রিয়।
এর আগে লুইভিলের রাস্তাগুলোর দুই পাশে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে হাজার হাজার মানুষ আলীকে শেষবারের মতো দেখে নেন। শুক্রবার সকাল থেকেই লুইভিলের রাস্তার দুধারে ছিল ভক্তদের ভিড়। এ শহরেই জন্মগ্রহণ করেন তিনি, বেড়ে উঠেছেন এখানেই।
বৃহস্পতিবার ইসলামী রীতি অনুযায়ী মুহাম্মদ আলীর শেষকৃত্যানুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। যে বাড়িতে তার জন্ম হয়েছে, যে স্কুলে তিনি পড়েছেন, যেসব এলাকায় তিনি বড় হয়ে উঠেছে, এসব রাস্তা সামনে দিয়ে তার ফুলে সাজানো কফিন নিয়ে একটি গাড়ী শহরের প্রায় উনিশ কিলোমিটার রাস্তা প্রদক্ষিণ করে।
শুধুমাত্র তার পরিবার আর ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের উপস্থিতিতে কেভ হিলের কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়। উল্লেখ্য, গত ৩ জুন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ৭৪ বছর বয়সী মুহাম্মদ আলী।-বিবিসি