নিউইয়র্ক ০১:৪৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

দৈনিক ইনকিলাব-এর খবর : তুষারে সয়লাব ওয়াশিংটন : বড় ঝড়ের শঙ্কা

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৬:৫২:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০১৬
  • / ১২৯৪ বার পঠিত

ঢাকা: বড় ধরনের তুষারঝড়ের আলামত শুরু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতে। গোটা এলাকা এরই মধ্যে তুষারাবৃত হয়ে গেছে। যে কোনো মুহূর্তে হতে পারে বড় ধরনের তুষারঝড়। খবরে বলা হয়, বড় তুষারঝড়ের পরিস্থিতি তৈরি যুক্তরাষ্ট্রের মধ্য আটলান্টিক অঞ্চলে। এ অঞ্চলগুলো তিন ফুট পর্যন্ত বরফে সয়লাব হয়ে যেতে পারে বলে আশকা করা হচ্ছে। গত শুক্রবার (২২ জানুয়ারী) বিকেলে ওয়াশিংটনে তুষারপাত শুরু হয়। এদিকে তুষারপাতের কারণে এরই মধ্যে গাড়ি দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের আরকানসাস, টিনেসি ও কেনটাকি অঞ্চলে এসব প্রাণহানি হয়। যুক্তরাষ্ট্রের আবহাওয়ার পূর্বাভাস থেকে জানা গেছে, তুষারঝড়ে মেরিল্যান্ডের বাল্টিমোর এবং ওয়াশিংটন ডিসিতে ২ থেকে ৩ ফুট বরফ জমতে পারে। আর ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ হতে পারে ৪০ থেকে ৬০ মাইল। এ ছাড়া ফিলাডেলফিয়া ও নিউইয়র্কে ১২ থেকে ১৮ ইঞ্চি (এক থেকে দেড় ফুট) পর্যন্ত তুষার জমতে পারে। এ পর্যন্ত ৬ হাজারের বেশি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে।
এর আগে স্থানীয় ওয়েদার চ্যানেল জানিয়েছে, অন্তত ২০টি রাজ্যের সাড়ে আট কোটি মানুষ এখন তুষারঝড়ের কবলে রয়েছে। টেনেসি এবং নর্থ ক্যারোলাইনাকে ক্ষত-বিক্ষত করে ভয়াবহ তুষারঝড় ভার্জিনিয়া এবং ওয়াশিংটন ডিসিতে হামলে পড়ে। টেনেসি এবং নর্থ ক্যারোলাইনায় তুষারঝড়ে ৮ জনের মৃত্যুর খবর দিয়েছে রাজ্য প্রশাসন। তুষারপাতের কারণে গাড়ি দুর্ঘটনায় পাঁচজনের মৃত্যুর খবর দিয়েছেন নর্থ ক্যারোলাইনার গভনর প্যাট ম্যাককরি। বরফে পিছলে গিয়ে টেনেসির পূর্বাঞ্চলে আরেক গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা গেছেন এক নারী। বরফে আটকে দুজনের মৃত্যুর খবর মিলেছে এই দুই রাজ্যে। তুষারঝড়ের কারণে বিদ্যুৎ সরবরাহ বিঘিœত হচ্ছে। দুই লাখ মানুষ বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে বলে রাজ্যগুলোর প্রশাসন জানিয়েছে। ৬০ থেকে ৬৫ মাইল বেগে তুষারঝড়ের আশংকায় মেরিল্যান্ড, নর্থ ক্যারোলাইনা, ভার্জিনিয়া ও পেনসিলভেনিয়া অঙ্গরাজ্যে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। ওয়াশিংটন ডিসি, ফিলাডেলফিয়া এবং নিউইয়র্ক অঞ্চলে বিশেষ সতর্কাবস্থা অবলম্বন করা হয়েছে। খবরে বলা হয়, ভয়াবহ তুষারঝড়ে বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন, নিউইয়র্কসহ পূর্ব উপকূল। দুই থেকে আড়াই ফুট তুষারের চাদরে চাপা পড়তে পারে ওয়াশিংটন, এমন আশঙ্কা করছে যুক্তরাষ্ট্রের আবহাওয়া বিভাগ। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে গত শুক্রবার ও শনিবার ৬,৩০০ ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। এর অধিকাংশই নিউইয়র্ক ও ফিলাডেলফিয়ার বিমানবন্দরের। শুধু শুক্রবারই বিলম্বিত হয়েছে ৭,০০০ ফ্লাইট। ওয়াশিংটন ডিসির মেয়র মুরিয়েল ই বাউসার বলেছেন, জনজীবনের জন্যে মারাত্মক হুমকিস্বরূপ এ তুষারঝড়ের কারণে রাজধানীর সব রেল চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার ভোর পর্যন্ত তা বন্ধ থাকবে। এই তুষারঝড়ের মাত্রা আগের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে বলে শঙ্কা প্রকাশ করা হচ্ছে। নিউ ইয়র্কের সব বাসিন্দাদের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে, জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ যেন ঘরের বাইরে বের না হয়।
দেশটির আবহাওয়া বিষয়ক চ্যানেল জানায়, কমপক্ষে ২০টি রাজ্যের সাড়ে ৮কোটি মানুষ এখন তুষারঝড়ের কবলে রয়েছে। টেনেসি এবং নর্থ ক্যারোলাইনাকে ক্ষত-বিক্ষত করে ভয়াবহ তুষারঝড় ভার্জিনিয়া এবং ওয়াশিংটন ডিসিতে আছড়ে পড়ে গত শুক্রবার দুপুরে। টেনেসি এবং নর্থ ক্যারোলাইনায় এদিন সকাল থেকে তুষারঝড়ে ৮জনের মৃত্যুর খবর জানিয়েছে রাজ্য প্রশাসন। তুষারঝড়ের কারণে বিদ্যুৎ সরবরাহ বিঘিœত হচ্ছে। দুই লাখ মানুষ বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে। ৬০ থেকে ৬৫ মাইল বেগে তুষারঝড়ের আশংকায় মেরিল্যান্ড, নর্থ ক্যারোলাইনা, ভার্জিনিয়া ও পেনসিলভেনিয়া অঙ্গরাজ্যে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। ওয়াশিংটন ডিসি, ফিলাডেলফিয়া এবং নিউইয়র্ক অঞ্চলে বিশেষ সতর্কাবস্থা অবলম্বন করা হয়েছে। মেরিল্যান্ডের গভর্নর ল্যারি হগ্যান বলেন, ৯০ বছরের মধ্যে এমন প্রাকৃতিক দুর্যোগ এ এলাকার মানুষ দেখেনি। ১৯২২ সালের পর এটি হচ্ছে সবচেয়ে মারাত্মক তুষারঝড়। ওয়াশিংটন ডিসিতে ৩০০ এবং নিউইয়র্ক সিটিতে ন্যাশনাল গার্ডের ৬০০ সদস্যকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে যে কোনো ধরনের প্রয়োজনে সাড়া দেওয়ার জন্যে। পুলিশ এবং দমকল বাহিনীতে ছুটি বাতিল করা হয়েছে। ওয়াশিংটন ডিসির মেয়র ম্যুরিয়েল ই বাউসার বলেছেন, জনজীবনের জন্যে মারাত্মক হুমকিস্বরূপ এ তুষারঝড়ের কারণে রাজধানীর সব রেল চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার ভোর পর্যন্ত তা বন্ধ থাকবে। মেরিল্যান্ডের গভর্নর ল্যারি হগ্যান বলেন, ৯০ বছরের মধ্যে এমন প্রাকৃতিক দুর্যোগ এ এলাকার মানুষ দেখেনি। ১৯২২ সালের পর এটি হচ্ছে সবচেয়ে মারাত্মক তুষারঝড়। ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিসের পরিচালক লুইস উসেলিনি এ ঝড়কে খুবই বিপজ্জনক বলে বর্ণনা করেছেন। ওয়াশিংটন ডিসিতে ৩০০ এবং নিউইয়র্ক সিটিতে ন্যাশনাল গার্ডের ৬০০ সদস্যকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে যে কোনো ধরনের প্রয়োজনে সাড়া দেওয়ার জন্যে। পুলিশ এবং দমকল বাহিনীতে ছুটি বাতিল করা হয়েছে। বাল্টিমোর এবং ওয়াশিংটন ডিসিতে শনিবার (২৩ জানুয়ারী) রাত পর্যন্ত ৩০ ইঞ্চির বেশি বরফ পড়তে পারে বলে ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস জানিয়েছে।
১৯২২ সালে ওয়াশিংটন ডিসিতে ২৮ ইঞ্চি বরফ জমেছিল, তা ছিল এযাবতকালের রেকর্ড। আটলান্টিক সিটি, ফিলাডেলফিয়া এবং নিউইয়র্ক সিটিসহ পূর্ব উপকূলীয় শহরগুলোতে ঝড়ের শঙ্কা রয়েছে। নিউইয়র্ক সিটির ব্রুকলিন, কুইন্সের সঙ্গে স্ট্যাটেন আইল্যান্ডে বন্যা সতর্কতা জারি করেছে ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস। এএফপি, রয়টার্স, সিএনএন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

দৈনিক ইনকিলাব-এর খবর : তুষারে সয়লাব ওয়াশিংটন : বড় ঝড়ের শঙ্কা

প্রকাশের সময় : ০৬:৫২:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০১৬

ঢাকা: বড় ধরনের তুষারঝড়ের আলামত শুরু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতে। গোটা এলাকা এরই মধ্যে তুষারাবৃত হয়ে গেছে। যে কোনো মুহূর্তে হতে পারে বড় ধরনের তুষারঝড়। খবরে বলা হয়, বড় তুষারঝড়ের পরিস্থিতি তৈরি যুক্তরাষ্ট্রের মধ্য আটলান্টিক অঞ্চলে। এ অঞ্চলগুলো তিন ফুট পর্যন্ত বরফে সয়লাব হয়ে যেতে পারে বলে আশকা করা হচ্ছে। গত শুক্রবার (২২ জানুয়ারী) বিকেলে ওয়াশিংটনে তুষারপাত শুরু হয়। এদিকে তুষারপাতের কারণে এরই মধ্যে গাড়ি দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের আরকানসাস, টিনেসি ও কেনটাকি অঞ্চলে এসব প্রাণহানি হয়। যুক্তরাষ্ট্রের আবহাওয়ার পূর্বাভাস থেকে জানা গেছে, তুষারঝড়ে মেরিল্যান্ডের বাল্টিমোর এবং ওয়াশিংটন ডিসিতে ২ থেকে ৩ ফুট বরফ জমতে পারে। আর ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ হতে পারে ৪০ থেকে ৬০ মাইল। এ ছাড়া ফিলাডেলফিয়া ও নিউইয়র্কে ১২ থেকে ১৮ ইঞ্চি (এক থেকে দেড় ফুট) পর্যন্ত তুষার জমতে পারে। এ পর্যন্ত ৬ হাজারের বেশি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে।
এর আগে স্থানীয় ওয়েদার চ্যানেল জানিয়েছে, অন্তত ২০টি রাজ্যের সাড়ে আট কোটি মানুষ এখন তুষারঝড়ের কবলে রয়েছে। টেনেসি এবং নর্থ ক্যারোলাইনাকে ক্ষত-বিক্ষত করে ভয়াবহ তুষারঝড় ভার্জিনিয়া এবং ওয়াশিংটন ডিসিতে হামলে পড়ে। টেনেসি এবং নর্থ ক্যারোলাইনায় তুষারঝড়ে ৮ জনের মৃত্যুর খবর দিয়েছে রাজ্য প্রশাসন। তুষারপাতের কারণে গাড়ি দুর্ঘটনায় পাঁচজনের মৃত্যুর খবর দিয়েছেন নর্থ ক্যারোলাইনার গভনর প্যাট ম্যাককরি। বরফে পিছলে গিয়ে টেনেসির পূর্বাঞ্চলে আরেক গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা গেছেন এক নারী। বরফে আটকে দুজনের মৃত্যুর খবর মিলেছে এই দুই রাজ্যে। তুষারঝড়ের কারণে বিদ্যুৎ সরবরাহ বিঘিœত হচ্ছে। দুই লাখ মানুষ বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে বলে রাজ্যগুলোর প্রশাসন জানিয়েছে। ৬০ থেকে ৬৫ মাইল বেগে তুষারঝড়ের আশংকায় মেরিল্যান্ড, নর্থ ক্যারোলাইনা, ভার্জিনিয়া ও পেনসিলভেনিয়া অঙ্গরাজ্যে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। ওয়াশিংটন ডিসি, ফিলাডেলফিয়া এবং নিউইয়র্ক অঞ্চলে বিশেষ সতর্কাবস্থা অবলম্বন করা হয়েছে। খবরে বলা হয়, ভয়াবহ তুষারঝড়ে বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন, নিউইয়র্কসহ পূর্ব উপকূল। দুই থেকে আড়াই ফুট তুষারের চাদরে চাপা পড়তে পারে ওয়াশিংটন, এমন আশঙ্কা করছে যুক্তরাষ্ট্রের আবহাওয়া বিভাগ। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে গত শুক্রবার ও শনিবার ৬,৩০০ ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। এর অধিকাংশই নিউইয়র্ক ও ফিলাডেলফিয়ার বিমানবন্দরের। শুধু শুক্রবারই বিলম্বিত হয়েছে ৭,০০০ ফ্লাইট। ওয়াশিংটন ডিসির মেয়র মুরিয়েল ই বাউসার বলেছেন, জনজীবনের জন্যে মারাত্মক হুমকিস্বরূপ এ তুষারঝড়ের কারণে রাজধানীর সব রেল চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার ভোর পর্যন্ত তা বন্ধ থাকবে। এই তুষারঝড়ের মাত্রা আগের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে বলে শঙ্কা প্রকাশ করা হচ্ছে। নিউ ইয়র্কের সব বাসিন্দাদের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে, জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ যেন ঘরের বাইরে বের না হয়।
দেশটির আবহাওয়া বিষয়ক চ্যানেল জানায়, কমপক্ষে ২০টি রাজ্যের সাড়ে ৮কোটি মানুষ এখন তুষারঝড়ের কবলে রয়েছে। টেনেসি এবং নর্থ ক্যারোলাইনাকে ক্ষত-বিক্ষত করে ভয়াবহ তুষারঝড় ভার্জিনিয়া এবং ওয়াশিংটন ডিসিতে আছড়ে পড়ে গত শুক্রবার দুপুরে। টেনেসি এবং নর্থ ক্যারোলাইনায় এদিন সকাল থেকে তুষারঝড়ে ৮জনের মৃত্যুর খবর জানিয়েছে রাজ্য প্রশাসন। তুষারঝড়ের কারণে বিদ্যুৎ সরবরাহ বিঘিœত হচ্ছে। দুই লাখ মানুষ বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে। ৬০ থেকে ৬৫ মাইল বেগে তুষারঝড়ের আশংকায় মেরিল্যান্ড, নর্থ ক্যারোলাইনা, ভার্জিনিয়া ও পেনসিলভেনিয়া অঙ্গরাজ্যে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। ওয়াশিংটন ডিসি, ফিলাডেলফিয়া এবং নিউইয়র্ক অঞ্চলে বিশেষ সতর্কাবস্থা অবলম্বন করা হয়েছে। মেরিল্যান্ডের গভর্নর ল্যারি হগ্যান বলেন, ৯০ বছরের মধ্যে এমন প্রাকৃতিক দুর্যোগ এ এলাকার মানুষ দেখেনি। ১৯২২ সালের পর এটি হচ্ছে সবচেয়ে মারাত্মক তুষারঝড়। ওয়াশিংটন ডিসিতে ৩০০ এবং নিউইয়র্ক সিটিতে ন্যাশনাল গার্ডের ৬০০ সদস্যকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে যে কোনো ধরনের প্রয়োজনে সাড়া দেওয়ার জন্যে। পুলিশ এবং দমকল বাহিনীতে ছুটি বাতিল করা হয়েছে। ওয়াশিংটন ডিসির মেয়র ম্যুরিয়েল ই বাউসার বলেছেন, জনজীবনের জন্যে মারাত্মক হুমকিস্বরূপ এ তুষারঝড়ের কারণে রাজধানীর সব রেল চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার ভোর পর্যন্ত তা বন্ধ থাকবে। মেরিল্যান্ডের গভর্নর ল্যারি হগ্যান বলেন, ৯০ বছরের মধ্যে এমন প্রাকৃতিক দুর্যোগ এ এলাকার মানুষ দেখেনি। ১৯২২ সালের পর এটি হচ্ছে সবচেয়ে মারাত্মক তুষারঝড়। ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিসের পরিচালক লুইস উসেলিনি এ ঝড়কে খুবই বিপজ্জনক বলে বর্ণনা করেছেন। ওয়াশিংটন ডিসিতে ৩০০ এবং নিউইয়র্ক সিটিতে ন্যাশনাল গার্ডের ৬০০ সদস্যকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে যে কোনো ধরনের প্রয়োজনে সাড়া দেওয়ার জন্যে। পুলিশ এবং দমকল বাহিনীতে ছুটি বাতিল করা হয়েছে। বাল্টিমোর এবং ওয়াশিংটন ডিসিতে শনিবার (২৩ জানুয়ারী) রাত পর্যন্ত ৩০ ইঞ্চির বেশি বরফ পড়তে পারে বলে ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস জানিয়েছে।
১৯২২ সালে ওয়াশিংটন ডিসিতে ২৮ ইঞ্চি বরফ জমেছিল, তা ছিল এযাবতকালের রেকর্ড। আটলান্টিক সিটি, ফিলাডেলফিয়া এবং নিউইয়র্ক সিটিসহ পূর্ব উপকূলীয় শহরগুলোতে ঝড়ের শঙ্কা রয়েছে। নিউইয়র্ক সিটির ব্রুকলিন, কুইন্সের সঙ্গে স্ট্যাটেন আইল্যান্ডে বন্যা সতর্কতা জারি করেছে ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস। এএফপি, রয়টার্স, সিএনএন।