নিউইয়র্ক ০৯:৫৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

জার্মানির মন্ত্রীকে চুমু খেয়ে বিপাকে ক্রোয়েশিয়ার মন্ত্রী

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৪:৫৮:২৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ নভেম্বর ২০২৩
  • / ৯৪ বার পঠিত

ছবি: সংগৃহীত

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক : গত সপ্তাহে বার্লিনে ইউরোপীয় ইউনিয়ন সদস্য ও প্রার্থী দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে চুমু খেয়ে বিপাকে পড়েছেন ক্রোয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী। চুমু কাণ্ডে ক্ষমা চেয়েও পার পাননি ঐ মন্ত্রী। ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২ নভেম্বর) বৈঠকে অংশগ্রহণকারী মন্ত্রীরা একপর্যায়ে দলবদ্ধ ছবি তোলার জন্য এক জায়গায় জড়ো হন। সেখানে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, পাশাপাশি দাঁড়িয়েছিলেন ৪২ বছর বয়সী জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যানালেনা বেয়ারবক এবং ৬৫ বছর বয়সী ক্রোয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী গর্ডান গ্রিলিক-রাডম্যান।

ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যায়, অ্যানালেনাকে দেখে প্রথমে করমর্দনের জন্য হাত বাড়িয়ে দেন গর্ডান। এরপরেই তাকে চুমু খাওয়ার জন্য মুখ এগিয়ে দেন গর্ডান। সঙ্গে সঙ্গে মুখ ঘুরিয়ে নেন জার্মান মন্ত্রী, ফলে তার ঠোঁটের পরিবর্তে গালে চুমু খান গর্ডান গ্রিলিক-রাডম্যান।এতে কিছুটা বিব্রত হলেও হাসিমুখে পরিস্থিতি সামাল দেন আনালেনা। তবে ততক্ষণে পুরো ঘটনা ক্যামেরাবন্দি হয়ে গেছে।

এই ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার পর জার্মানি এবং ক্রোয়েশিয়া উভয় দেশেই তুমুল সমালোচনা শুরু হয়। গর্ডান গ্রিলিক-রাডম্যানের সমালোচনা করেছেন ক্রোয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী জাদরাঙ্কা কোসোরও। সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এক্সে তিনি লিখেছেন, নারীদের জোর করে চুমু খাওয়াকেও সহিংসতা বলা হয়, তাই না?

ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে শেষ পর্যন্ত গত শনিবার ক্ষমা চেয়ে ক্রোয়েট পররাষ্ট্রমন্ত্রী স্থানীয় দৈনিক সংবাদপত্র ভেচের্নজি লিস্টকে বলেন, আমরা মন্ত্রীরা সবসময় একে অপরকে আন্তরিকভাবে অভিবাদন জানাই। কিন্তু কেউ যদি এই ঘটনায় খারাপ কিছু দেখে থাকেন, তাহলে তার কাছে আমি ক্ষমাপ্রার্থী। সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল

হককথা/নাছরিন

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

জার্মানির মন্ত্রীকে চুমু খেয়ে বিপাকে ক্রোয়েশিয়ার মন্ত্রী

প্রকাশের সময় : ০৪:৫৮:২৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ নভেম্বর ২০২৩

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক : গত সপ্তাহে বার্লিনে ইউরোপীয় ইউনিয়ন সদস্য ও প্রার্থী দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে চুমু খেয়ে বিপাকে পড়েছেন ক্রোয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী। চুমু কাণ্ডে ক্ষমা চেয়েও পার পাননি ঐ মন্ত্রী। ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২ নভেম্বর) বৈঠকে অংশগ্রহণকারী মন্ত্রীরা একপর্যায়ে দলবদ্ধ ছবি তোলার জন্য এক জায়গায় জড়ো হন। সেখানে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, পাশাপাশি দাঁড়িয়েছিলেন ৪২ বছর বয়সী জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যানালেনা বেয়ারবক এবং ৬৫ বছর বয়সী ক্রোয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী গর্ডান গ্রিলিক-রাডম্যান।

ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যায়, অ্যানালেনাকে দেখে প্রথমে করমর্দনের জন্য হাত বাড়িয়ে দেন গর্ডান। এরপরেই তাকে চুমু খাওয়ার জন্য মুখ এগিয়ে দেন গর্ডান। সঙ্গে সঙ্গে মুখ ঘুরিয়ে নেন জার্মান মন্ত্রী, ফলে তার ঠোঁটের পরিবর্তে গালে চুমু খান গর্ডান গ্রিলিক-রাডম্যান।এতে কিছুটা বিব্রত হলেও হাসিমুখে পরিস্থিতি সামাল দেন আনালেনা। তবে ততক্ষণে পুরো ঘটনা ক্যামেরাবন্দি হয়ে গেছে।

এই ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার পর জার্মানি এবং ক্রোয়েশিয়া উভয় দেশেই তুমুল সমালোচনা শুরু হয়। গর্ডান গ্রিলিক-রাডম্যানের সমালোচনা করেছেন ক্রোয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী জাদরাঙ্কা কোসোরও। সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এক্সে তিনি লিখেছেন, নারীদের জোর করে চুমু খাওয়াকেও সহিংসতা বলা হয়, তাই না?

ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে শেষ পর্যন্ত গত শনিবার ক্ষমা চেয়ে ক্রোয়েট পররাষ্ট্রমন্ত্রী স্থানীয় দৈনিক সংবাদপত্র ভেচের্নজি লিস্টকে বলেন, আমরা মন্ত্রীরা সবসময় একে অপরকে আন্তরিকভাবে অভিবাদন জানাই। কিন্তু কেউ যদি এই ঘটনায় খারাপ কিছু দেখে থাকেন, তাহলে তার কাছে আমি ক্ষমাপ্রার্থী। সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল

হককথা/নাছরিন