নিউইয়র্ক ০৬:৪৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীকে রাজনৈতিক হত্যার দায়ে শেখ হাসিনার বিচার হবে

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৯:৩৯:৩০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০১৫
  • / ৭৯৪ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী হত্যার প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, সালাউদ্দিন কাদের সহ সকল হত্যাকান্ডের বিচার বাংলার মাটিতে দেশপ্রেমিক জনতা করবে ইনশাল্লাহ। ‘নব্য স্বৈরশাসক’ হাসিনার মিথ্যা প্রহসনের বিচারিক হত্যাকান্ড, গুম ও খুন, মিথ্যা মামলা, জেল-জুলুম ও হুলিয়ার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ করা হয় সভায়।
সিটির ব্রুকলীনস্থ পাঞ্জাব রেস্টুরেন্ট পার্টি হলে ২২ নভেম্বর রোববার সন্ধ্যায় আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ডা. মজিবুর রহমান মজুমদার। সভায় বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র সাবেক সহ সভাপতি ইলিয়াস আহমেদ মাস্টার, মনজুর আহমেদ চৌধুরী, সামসুল ইসলাম মজনু, মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, নিয়াজ আহমেদ জুয়েল, আবুল কাশেম, মমিনুল হক, এডভোকেট জামাল আহমেদ জনি ও এমদাদুল হক কামাল, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি নেতা বাকির আজাদ, ডা. জাহিদ দেওয়ন শামীম প্রমুখ।
পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াতের মধ্যদিয়ে সভা শুরু হয়। সভায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য শহীদ সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর রুহের মাগফিরাত ও শাহাদাত কামানায় দোয়া ও মুনাজাত করা হয়। সভা পরিচালনা করেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি নেতা ড. গিয়াস মজুমদার।
সভায় বক্তারা বলেন, ইসলামী মুল্যবোধ ও বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদী আদর্শ ধংস করে দেশে এক ব্যক্তির শাসন কায়েম করার জন্য সরকারি ষড়যন্ত্র ও নীলনকশার অংশ হিসেবেই এই বরেণ্য প্রতিভাবান রাজনীতিক ও জাতীয় নেতাকে হত্যা করা হয়েছে। শহীদ সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে আনিত সব অভিযোগই কল্পিত ও বানোয়াট। রাষ্ট্রপক্ষ তার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ প্রমাণ করতে পারেনি। মূলত: বিএনপি ও বিরোধী দলকে নেতৃত্ব শুন্য করে সরকার অবৈধ ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করতেই একজন বরেণ্য জাতীয় নেতাকে হত্যা করা হয়েছে। তিনি রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা করেননি। একজন মু’মিন কখনো কোন মানুষের কাছে প্রাণভিক্ষার প্রশ্নই ওঠে না। তার পরিবারের পক্ষেও প্রাণভিক্ষার বিষয়টি দৃঢ়ভাবে প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। মূলত: সরকার শহীদ সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর আপোষহীন চেতনা ও ঈমানী দৃঢ়তাকে বিতর্কিত করার অপপ্রয়াস চালিয়েছে। কিন্তু এতে সরকার সফল হয়নি।
সভাপতির বক্তব্যে ডা. মজিবুর রহমান মজুমদার কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী হত্যাকান্ডকে পুর্ব পরিকল্পিত উল্লেখ করে বলেন, এই হত্যার জন্য অবৈধ হাসিনার বিচার করা হবে। সকল দেশপ্রেমিক জনতাকে ইসলামি মুল্যবোধ ও জাতীয়তাবাদী চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে সব ধরনের জাতিঘাতী এবং রাষ্ট্রঘাতী অপকৌশলের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে এবং হাসিনার একদলীয় শাসনের পতন ঘটাতে হবে।
সভায় যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র উল্লেখযোগ্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে মাহমুদুর রহমান চৌধুরী, খাইরুল বাশার, নাজমুল হাসান মানিক, শাজাহান শেখ, জাফর তালুকদার, সফি আলম লাল, সৈয়দুল হক, শাজাহান শেখ, জাফর তালুকদার, ডা. তারেক, সুরুজ্জামান, ফারুক হোসেন মজুমদার, আমিনুল ইসলাম চৌধুরী, ডা. মাহবুবুর রহমান লিপন, পারভেজ সাজ্জাদ, বদরুল হক আজাদ, শরীফ চৌধুরী, নাসির উদ্দিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীকে রাজনৈতিক হত্যার দায়ে শেখ হাসিনার বিচার হবে

প্রকাশের সময় : ০৯:৩৯:৩০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০১৫

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী হত্যার প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, সালাউদ্দিন কাদের সহ সকল হত্যাকান্ডের বিচার বাংলার মাটিতে দেশপ্রেমিক জনতা করবে ইনশাল্লাহ। ‘নব্য স্বৈরশাসক’ হাসিনার মিথ্যা প্রহসনের বিচারিক হত্যাকান্ড, গুম ও খুন, মিথ্যা মামলা, জেল-জুলুম ও হুলিয়ার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ করা হয় সভায়।
সিটির ব্রুকলীনস্থ পাঞ্জাব রেস্টুরেন্ট পার্টি হলে ২২ নভেম্বর রোববার সন্ধ্যায় আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ডা. মজিবুর রহমান মজুমদার। সভায় বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র সাবেক সহ সভাপতি ইলিয়াস আহমেদ মাস্টার, মনজুর আহমেদ চৌধুরী, সামসুল ইসলাম মজনু, মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, নিয়াজ আহমেদ জুয়েল, আবুল কাশেম, মমিনুল হক, এডভোকেট জামাল আহমেদ জনি ও এমদাদুল হক কামাল, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি নেতা বাকির আজাদ, ডা. জাহিদ দেওয়ন শামীম প্রমুখ।
পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াতের মধ্যদিয়ে সভা শুরু হয়। সভায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য শহীদ সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর রুহের মাগফিরাত ও শাহাদাত কামানায় দোয়া ও মুনাজাত করা হয়। সভা পরিচালনা করেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি নেতা ড. গিয়াস মজুমদার।
সভায় বক্তারা বলেন, ইসলামী মুল্যবোধ ও বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদী আদর্শ ধংস করে দেশে এক ব্যক্তির শাসন কায়েম করার জন্য সরকারি ষড়যন্ত্র ও নীলনকশার অংশ হিসেবেই এই বরেণ্য প্রতিভাবান রাজনীতিক ও জাতীয় নেতাকে হত্যা করা হয়েছে। শহীদ সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে আনিত সব অভিযোগই কল্পিত ও বানোয়াট। রাষ্ট্রপক্ষ তার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ প্রমাণ করতে পারেনি। মূলত: বিএনপি ও বিরোধী দলকে নেতৃত্ব শুন্য করে সরকার অবৈধ ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করতেই একজন বরেণ্য জাতীয় নেতাকে হত্যা করা হয়েছে। তিনি রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা করেননি। একজন মু’মিন কখনো কোন মানুষের কাছে প্রাণভিক্ষার প্রশ্নই ওঠে না। তার পরিবারের পক্ষেও প্রাণভিক্ষার বিষয়টি দৃঢ়ভাবে প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। মূলত: সরকার শহীদ সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর আপোষহীন চেতনা ও ঈমানী দৃঢ়তাকে বিতর্কিত করার অপপ্রয়াস চালিয়েছে। কিন্তু এতে সরকার সফল হয়নি।
সভাপতির বক্তব্যে ডা. মজিবুর রহমান মজুমদার কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী হত্যাকান্ডকে পুর্ব পরিকল্পিত উল্লেখ করে বলেন, এই হত্যার জন্য অবৈধ হাসিনার বিচার করা হবে। সকল দেশপ্রেমিক জনতাকে ইসলামি মুল্যবোধ ও জাতীয়তাবাদী চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে সব ধরনের জাতিঘাতী এবং রাষ্ট্রঘাতী অপকৌশলের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে এবং হাসিনার একদলীয় শাসনের পতন ঘটাতে হবে।
সভায় যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র উল্লেখযোগ্য নেতৃবৃন্দের মধ্যে মাহমুদুর রহমান চৌধুরী, খাইরুল বাশার, নাজমুল হাসান মানিক, শাজাহান শেখ, জাফর তালুকদার, সফি আলম লাল, সৈয়দুল হক, শাজাহান শেখ, জাফর তালুকদার, ডা. তারেক, সুরুজ্জামান, ফারুক হোসেন মজুমদার, আমিনুল ইসলাম চৌধুরী, ডা. মাহবুবুর রহমান লিপন, পারভেজ সাজ্জাদ, বদরুল হক আজাদ, শরীফ চৌধুরী, নাসির উদ্দিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।