নিউইয়র্ক ১১:১৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

রাজ্জাক খান ও জাকিয়া খানের পুত্র জুবিন রাজ্জাকের অকাল মৃত্যু

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ১১:৩৮:৫৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ ডিসেম্বর ২০১৪
  • / ২১৬৬ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: যদি প্রশ্ন করা হয় পৃথিবীতে সবচেয়ে ভারী বস্তু কি? তার উত্তর হবে ‘পিতার কাঁধে পুত্রের লাশ’। এমনি ভারী বস্তু কাঁধে নিতে হচ্ছে কমিউনিটির পরিচিত মুখ, সর্বজন শ্রদ্ধেয় সাবেক কূটনীতিক আব্দুর রাজ্জাক খানকে। ষাটোর্ধ রাজ্জাক খান ও নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের অন্যতম উপদেষ্টা জাকিয়া খানের একমাত্র পুত্র জুবিন রাজ্জাক খান (৪৪) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নাল্লিাহি……..রাজেউন)। গত ২০ ডিসেম্বর শনিবার ভোরে জুবিন খান ম্যানহাটানস্থ নিজ অ্যাপার্টমেন্টে হার্ট অ্যাটাকের শিকার হয়ে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন বলে জানা গেছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে প্যানক্রিয়াটিক ক্যান্সারে ভুগছিলেন। জুবিনের অকাল মৃত্যুতে কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। বিভিন্ন মহল থেকে গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করা হয়েছে ।
জানা গেছে, বৃহত্তর রাজশাহী এসোসিয়েশন ইন্্ক (ইউএসএ)-এর সিনিয়র উপদেষ্টা আব্দুর রাজ্জাক খান ও ভয়েস অব আমেরিকা (ভোয়া)-এর সাংবাদিক জাকিয়া খানের পুত্র জুবিন রাজ্জাক খান দীর্ঘদিন ধরে ম্যানহাটানে বসবাস করছিলেন। তার একমাত্র বোন ডা. জেরিন খান মন্টিফেয়ার হাসপাতালের ডিরেক্টর হিসাবে কর্মরত । শনিবার ভোরে তার রুমমেট জুবিনকে বাসার ফ্লোরে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশ কল করে। পরে পুলিশ তার মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার পর ভোর রাতেই লং আইল্যান্ডস্থ রাজ্জাক খান ও জাকিয়া খানের বাসায় গিয়ে তাদের মর্মান্তিক খবরটি জানায়। আকস্মিক এই খবরে খান দম্পতির মাথায় বাজ পড়ে। কিংকর্তব্যবিমূর হয়ে পড়েন তারা। আরো জানা গেছে মা-বাবা আর বোন কষ্ট পাবেন ভেবে জুবিন খান তার অসুস্থ্যতার খবর কাউকে জানাননি। তার অ্যাপার্টমেন্টেও মা-বাবার যাতায়াতে বারণ ছিলো। তবে কতদিন আগে জুবিন মরণব্যাধী প্যানক্রিয়াটিক ক্যান্সারে আক্রান্ত হন তা জানা না গেলেও গত সপ্তাহে তার মা-বাবা তার অসুস্থ্যতার কথা জানতে পারেন। কিন্তু ততদিনে সময় শেষ। ধারণা করা হচ্ছে হার্ট অ্যাটাকের শিকার হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে। তিনি ম্যানহাটানের একটি ফার্মেসীতে কর্মরত ছিলেন।
IMG_8234জুবিন রাজ্জাকের নামাজে জানাজা ২১ ডিসেম্বর রোববার বাদ জোহর জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার (জেএমসি) অনুষ্ঠিত হয়।  জেএমসি’র পেশ ইমাম মওলানা মির্জা আবু জাফর বেগ তার নামাজে জানাজায় ইমামতি করেন। জানাজা নামাজের আগে মরহুমের পিতা রাজ্জাক খান, জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. একে আব্দুল মোমেন, জেএমসি পরিচালনা কমিটির সভাপতি ডা. ওয়াহিদুর রহমান ও মরহুমের চাচা উপস্থিত মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন।
নিউইয়র্কের বিভিন্ন মিডিয়ার সম্পাদক ও সাংবাদিক এবং কমিউনিটির সর্বস্তরের নেতৃবৃন্দসহ বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী জুবির রাজ্জাক খানের জানাজায় অংশ নেন। এরপর প্রবাসীরা শেষবারের মতো তার মুখ দেখতে চাইলে পারিবারিক সিদ্ধান্তের কারণে তা সম্ভব হয়নি। তার মরদেহ রিজউডের পাক ফিউনেরাল হোমে রাখা হয় এবং ২২ ডিসেম্বর সোমবার অপরাহ্নে তার মরদেহ লং আইল্যান্ডস্থ ওয়াশিংটন মেমোরিয়াল গোরস্থানে দাফন করা হয়।
IMG_8237জুবিন খানের নামাজে জানাজায় অংশগ্রহণ ছাড়াও কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের মধ্যে নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি আবু তাহের ও সাধারণ সম্পাদক এবিএম সালাহউদ্দন আহমেদ সহ যারা জেএমসিতে এসে রাজ্জাক খানকে সমবেদনা জানান তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্যরা হলেন নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কন্স্যুলেটে নিযুক্ত সাবেক কনসাল জেনারেল রফিক আহমেদ খান, সাপ্তাহিক ঠিকানা’র প্রধান সম্পাদক মুহাম্মদ ফজলুর রহমান, সাপ্তাহিক বাঙালী সম্পাদক কৌশিক আহমেদ, সাপ্তাহিক বাংলাদেশ সম্পাদক ডা. ওয়াজেদ এ খান, সাপ্তাহিক দর্পণ সম্পাদক জাভেদ খসরু, সাপ্তাহিক রানার-এর প্রধান সম্পাদক তাসের মাহমুদ, রানার সম্পাদক এনামুর রেজা দিপু, আইঅন বাংলাদেশ টিভি’র পরিচালক রিমন ইসলাম, অধ্যাপক মাহফুজ চৌধুরী, চলচ্চিত্র নির্মাতা কবীর আনোয়ার, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফখরুল আলম, বিশিষ্ট শিল্পী তাজুল ইমাম, সোসাইটির সাবেক কোষাধ্যক্ষ আবুল কালাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশন ইউএসএ’র সভাপতি তাজুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক এস আলম, জেএমসি পরিচালনা কমিটির সেক্রেটারী আখতার হোসেন, কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট নাসির আলী খান পল, হামিদ রেজা খান, বাংলাদেশ সোসাইটির সিনিয়র সহ সভাপতি মহিউদ্দিন দেওয়ান, উত্তরবঙ্গ ফাউন্ডেশনের সভাপতি হাসানুজ্জামান হাসান, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের অন্যতম সভাপতি স্বপন বড়–য়া প্রমুখ। তাদের সমবেদনায় আবেগে অপ্লুত হয়ে পড়েন রাজ্জাক খান। এসময় অনেকেরই চোখে পানি এসে যায়।
শোক প্রকাশ: কমিউনিটির পরিচিত মুখ আব্দুর রাজ্জাক খান ও জাকিয়া খানের একমাত্র পুত্র জুবিন রাজ্জাক খানের অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করে মরহুমের বিদেহী আতœার শান্তি কামনা করেছেন নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি আবু তাহের ও সাধারণ সম্পাদক এবিএম সালাহউদ্দিন আহমেদ। আরো শোক প্রকাশ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশন ইউএসএ’র সভাপতি তাজুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক এস আলম, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সভাপতি নার্গিস আহমেদ, বৃহত্তর রাজশাহী এসোসিয়েশন ইন্্ক’র সাধারণ সম্পাদক মোখলেস খন্দকার। শোক প্রকাশ করা হয়েছে সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা ও টাইম টেলিভিশন পরিবোরের পক্ষ থেকেও।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

রাজ্জাক খান ও জাকিয়া খানের পুত্র জুবিন রাজ্জাকের অকাল মৃত্যু

প্রকাশের সময় : ১১:৩৮:৫৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ ডিসেম্বর ২০১৪

নিউইয়র্ক: যদি প্রশ্ন করা হয় পৃথিবীতে সবচেয়ে ভারী বস্তু কি? তার উত্তর হবে ‘পিতার কাঁধে পুত্রের লাশ’। এমনি ভারী বস্তু কাঁধে নিতে হচ্ছে কমিউনিটির পরিচিত মুখ, সর্বজন শ্রদ্ধেয় সাবেক কূটনীতিক আব্দুর রাজ্জাক খানকে। ষাটোর্ধ রাজ্জাক খান ও নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের অন্যতম উপদেষ্টা জাকিয়া খানের একমাত্র পুত্র জুবিন রাজ্জাক খান (৪৪) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নাল্লিাহি……..রাজেউন)। গত ২০ ডিসেম্বর শনিবার ভোরে জুবিন খান ম্যানহাটানস্থ নিজ অ্যাপার্টমেন্টে হার্ট অ্যাটাকের শিকার হয়ে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন বলে জানা গেছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে প্যানক্রিয়াটিক ক্যান্সারে ভুগছিলেন। জুবিনের অকাল মৃত্যুতে কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। বিভিন্ন মহল থেকে গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করা হয়েছে ।
জানা গেছে, বৃহত্তর রাজশাহী এসোসিয়েশন ইন্্ক (ইউএসএ)-এর সিনিয়র উপদেষ্টা আব্দুর রাজ্জাক খান ও ভয়েস অব আমেরিকা (ভোয়া)-এর সাংবাদিক জাকিয়া খানের পুত্র জুবিন রাজ্জাক খান দীর্ঘদিন ধরে ম্যানহাটানে বসবাস করছিলেন। তার একমাত্র বোন ডা. জেরিন খান মন্টিফেয়ার হাসপাতালের ডিরেক্টর হিসাবে কর্মরত । শনিবার ভোরে তার রুমমেট জুবিনকে বাসার ফ্লোরে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশ কল করে। পরে পুলিশ তার মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার পর ভোর রাতেই লং আইল্যান্ডস্থ রাজ্জাক খান ও জাকিয়া খানের বাসায় গিয়ে তাদের মর্মান্তিক খবরটি জানায়। আকস্মিক এই খবরে খান দম্পতির মাথায় বাজ পড়ে। কিংকর্তব্যবিমূর হয়ে পড়েন তারা। আরো জানা গেছে মা-বাবা আর বোন কষ্ট পাবেন ভেবে জুবিন খান তার অসুস্থ্যতার খবর কাউকে জানাননি। তার অ্যাপার্টমেন্টেও মা-বাবার যাতায়াতে বারণ ছিলো। তবে কতদিন আগে জুবিন মরণব্যাধী প্যানক্রিয়াটিক ক্যান্সারে আক্রান্ত হন তা জানা না গেলেও গত সপ্তাহে তার মা-বাবা তার অসুস্থ্যতার কথা জানতে পারেন। কিন্তু ততদিনে সময় শেষ। ধারণা করা হচ্ছে হার্ট অ্যাটাকের শিকার হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে। তিনি ম্যানহাটানের একটি ফার্মেসীতে কর্মরত ছিলেন।
IMG_8234জুবিন রাজ্জাকের নামাজে জানাজা ২১ ডিসেম্বর রোববার বাদ জোহর জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার (জেএমসি) অনুষ্ঠিত হয়।  জেএমসি’র পেশ ইমাম মওলানা মির্জা আবু জাফর বেগ তার নামাজে জানাজায় ইমামতি করেন। জানাজা নামাজের আগে মরহুমের পিতা রাজ্জাক খান, জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. একে আব্দুল মোমেন, জেএমসি পরিচালনা কমিটির সভাপতি ডা. ওয়াহিদুর রহমান ও মরহুমের চাচা উপস্থিত মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন।
নিউইয়র্কের বিভিন্ন মিডিয়ার সম্পাদক ও সাংবাদিক এবং কমিউনিটির সর্বস্তরের নেতৃবৃন্দসহ বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী জুবির রাজ্জাক খানের জানাজায় অংশ নেন। এরপর প্রবাসীরা শেষবারের মতো তার মুখ দেখতে চাইলে পারিবারিক সিদ্ধান্তের কারণে তা সম্ভব হয়নি। তার মরদেহ রিজউডের পাক ফিউনেরাল হোমে রাখা হয় এবং ২২ ডিসেম্বর সোমবার অপরাহ্নে তার মরদেহ লং আইল্যান্ডস্থ ওয়াশিংটন মেমোরিয়াল গোরস্থানে দাফন করা হয়।
IMG_8237জুবিন খানের নামাজে জানাজায় অংশগ্রহণ ছাড়াও কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের মধ্যে নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি আবু তাহের ও সাধারণ সম্পাদক এবিএম সালাহউদ্দন আহমেদ সহ যারা জেএমসিতে এসে রাজ্জাক খানকে সমবেদনা জানান তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্যরা হলেন নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কন্স্যুলেটে নিযুক্ত সাবেক কনসাল জেনারেল রফিক আহমেদ খান, সাপ্তাহিক ঠিকানা’র প্রধান সম্পাদক মুহাম্মদ ফজলুর রহমান, সাপ্তাহিক বাঙালী সম্পাদক কৌশিক আহমেদ, সাপ্তাহিক বাংলাদেশ সম্পাদক ডা. ওয়াজেদ এ খান, সাপ্তাহিক দর্পণ সম্পাদক জাভেদ খসরু, সাপ্তাহিক রানার-এর প্রধান সম্পাদক তাসের মাহমুদ, রানার সম্পাদক এনামুর রেজা দিপু, আইঅন বাংলাদেশ টিভি’র পরিচালক রিমন ইসলাম, অধ্যাপক মাহফুজ চৌধুরী, চলচ্চিত্র নির্মাতা কবীর আনোয়ার, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফখরুল আলম, বিশিষ্ট শিল্পী তাজুল ইমাম, সোসাইটির সাবেক কোষাধ্যক্ষ আবুল কালাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশন ইউএসএ’র সভাপতি তাজুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক এস আলম, জেএমসি পরিচালনা কমিটির সেক্রেটারী আখতার হোসেন, কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট নাসির আলী খান পল, হামিদ রেজা খান, বাংলাদেশ সোসাইটির সিনিয়র সহ সভাপতি মহিউদ্দিন দেওয়ান, উত্তরবঙ্গ ফাউন্ডেশনের সভাপতি হাসানুজ্জামান হাসান, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের অন্যতম সভাপতি স্বপন বড়–য়া প্রমুখ। তাদের সমবেদনায় আবেগে অপ্লুত হয়ে পড়েন রাজ্জাক খান। এসময় অনেকেরই চোখে পানি এসে যায়।
শোক প্রকাশ: কমিউনিটির পরিচিত মুখ আব্দুর রাজ্জাক খান ও জাকিয়া খানের একমাত্র পুত্র জুবিন রাজ্জাক খানের অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করে মরহুমের বিদেহী আতœার শান্তি কামনা করেছেন নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি আবু তাহের ও সাধারণ সম্পাদক এবিএম সালাহউদ্দিন আহমেদ। আরো শোক প্রকাশ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশন ইউএসএ’র সভাপতি তাজুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক এস আলম, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সভাপতি নার্গিস আহমেদ, বৃহত্তর রাজশাহী এসোসিয়েশন ইন্্ক’র সাধারণ সম্পাদক মোখলেস খন্দকার। শোক প্রকাশ করা হয়েছে সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা ও টাইম টেলিভিশন পরিবোরের পক্ষ থেকেও।