নিউইয়র্ক ১১:১৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বিশিষ্ট ব্যক্তিদের বিবৃতি : টাঙ্গাইল জেলাকে ঢাকা বিভাগেই রাখার দাবী

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ১১:০৬:৪৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১ ফেব্রুয়ারী ২০১৫
  • / ৬১৮ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: টাঙ্গাইল জেলাকে ঢাকা বিভাগেই রাখার দাবী জানিয়ে টাঙ্গাইলবাসীদের চলমান আন্দোলনের সাথে একাত্বতা ঘোষণা করেছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী টাঙ্গাইলের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। ১ ফেব্রুয়ারী এক বিবৃতিতে তারা বলেন, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার ময়মনসিংহ-কে বিভাগ করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এজন্য সরকারকে স্বাগত জানাই। কিন্তু আমরা টাঙ্গাইলবাসীরা প্রস্তাবিত ময়মনসিংহ নয়, ঢাকার বিভাগের সাথে থাকতে চাই। বিবৃতিতে বলা হয়: টাঙ্গাইল তথা টাঙ্গাইলবাসীরা ঐতিহাসিকভাবে ঢাকার সঙ্গেই যুক্ত। টাঙ্গাইলবাসীদের শিক্ষা থেকে শুরু করে ব্যবসা-বাণিজ্য সব ধরনের কাজই ঢাকামুখী। তাছাড়া মহান মুক্তিযুদ্ধ থেকে শুরু করে দেশের রাজনীতি, শিক্ষা, সাহিত্য, শিল্প, সংস্কৃতি, ব্যবসা-বাণিজ্য সকল ক্ষেত্রে টাঙ্গাইলের অবদান বিবেচনায় টাঙ্গাইল বিভাগ হওয়ার দাবী রাখে এবং প্রয়োজনে টাঙ্গাইলকে বিভাগ করা হলে টাঙ্গাইলবাসী সরকারকে স্বাগত জানাবে।
এদিকে টাঙ্গাইল জেলাকে ঢাকা বিভাগেই রাখার দাবীতে টাঙ্গাইল ও ঢাকায় সভা-সমাবেশ, মানববন্ধন, গণ স্বাক্ষর প্রভৃতি কর্মসূচী অব্যাহত রয়েছে। টাঙ্গাইলে গঠিত হয়েছে সর্বদলীয় সংগ্রাম কমিটি তথা টাঙ্গাইল জেলাকে ঢাকা বিভাগেই রাখার দাবী বাস্তবায়ন কমিটি। কমিটির আহ্বায়ক টাঙ্গাইল জেলা পরিষদের প্রশাসক, সাবেক এমপি ফজলুর রহমান ফারুক এবং সদস্য সচিব টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাফর আহমেদ। ইতিমধ্যেই টাঙ্গাইলবাসীদের দাবী জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। ঢাকাস্থ জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘টাঙ্গাইলবাসী ঢাকার সাথেই থাকতে চায়’ শীর্ষক মানবন্ধন করেছে ঢাকাস্থ টাঙ্গাইল জেলার ছাত্র/ছাত্রী ও জন সাধারণবৃন্দ।
প্রস্তাবিত ময়মনসিংহ বিভাগ নয়, টাঙ্গাইল জেলাকে ঢাকা বিভাগেই রাখার দাবী জানিয়ে টাঙ্গাইলবাসীদের চলমান আন্দোলনের সাথে একাত্বতা ঘোষণাকারী যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী টাঙ্গাইলবাসীদের মধ্যে রয়েছেন: মুক্তিযোদ্ধা ও বিজ্ঞানী, নিউজার্সী অঙ্গরাজ্যের প্লেইসবুরো সিটির কাউন্সিলম্যান ড. নূরুন্নবী, আন্তর্জাতিক ফারাক্কা কমিটির চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান সালু, ডা. এম এম বিল্লাহ, সাপ্তাহিক বাংলাদেশ সম্পাদক ডা. ওয়াজেদ এ খান, ড. জিনাত নবী, ডা. মুনিবুর রহমান. ডা. আব্দুল বাসেত খান, ফার্মাসিস্ট হামিদ রেজা খান, ফার্মাসিস্ট মোহাম্মেদ সালেহ, লেখক-সাংবাদিক ড. মাহবুব হাসান, কৃষিবীদ আব্দুর রহমান, হককথা.কম-এর সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান, বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্্ক নিউইয়র্কের সাবেক সহ সভাপতি মনিরুল ইসলাম, ফার্মাসিস্ট ড. রাশেদ রানা, নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও বার্তা সংস্থা ইউএনএ সম্পাদক এবিএম সালাহউদ্দিন আহমেদ, সাংবাদিক ফরিদ আলম, গণমাধ্যম কর্মী শাহাদৎ হোসেন সবুজ, টাঙ্গাইল জেলা সমিতি ইউএসএ ইনক’র সভাপতি মিজানুর রহমান খান আপেল, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন ও যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ শিহাব উদ্দিন, প্রবাসী টাঙ্গাইলবাসী ইউএসএ ইন্্ক’র সভাপতি ফরিদ খান, সাবেক সভাপতি ফরহাদ তালুকদার ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হাকিম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর গোলাম মোস্তফা, সঙ্গীত শিল্পী মন্টু কাউসার, স্বপ্না কাউসার ও মাহবুবুল আলম ফিরোজ, সেন্ট্রাল ফ্লোরিডা বিএনপি’র সভাপতি নাসিম এ খান, ট্রাভেল ব্যবসায়ী কাজী সিরাজ, আবৃত্তিকার গোপন সাহা, কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার শাহেদ খান নিবির ও তরুণ ব্যবসায়ী সাজ্জাদ হোসেন।

Tag :

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বিশিষ্ট ব্যক্তিদের বিবৃতি : টাঙ্গাইল জেলাকে ঢাকা বিভাগেই রাখার দাবী

প্রকাশের সময় : ১১:০৬:৪৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১ ফেব্রুয়ারী ২০১৫

নিউইয়র্ক: টাঙ্গাইল জেলাকে ঢাকা বিভাগেই রাখার দাবী জানিয়ে টাঙ্গাইলবাসীদের চলমান আন্দোলনের সাথে একাত্বতা ঘোষণা করেছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী টাঙ্গাইলের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। ১ ফেব্রুয়ারী এক বিবৃতিতে তারা বলেন, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার ময়মনসিংহ-কে বিভাগ করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এজন্য সরকারকে স্বাগত জানাই। কিন্তু আমরা টাঙ্গাইলবাসীরা প্রস্তাবিত ময়মনসিংহ নয়, ঢাকার বিভাগের সাথে থাকতে চাই। বিবৃতিতে বলা হয়: টাঙ্গাইল তথা টাঙ্গাইলবাসীরা ঐতিহাসিকভাবে ঢাকার সঙ্গেই যুক্ত। টাঙ্গাইলবাসীদের শিক্ষা থেকে শুরু করে ব্যবসা-বাণিজ্য সব ধরনের কাজই ঢাকামুখী। তাছাড়া মহান মুক্তিযুদ্ধ থেকে শুরু করে দেশের রাজনীতি, শিক্ষা, সাহিত্য, শিল্প, সংস্কৃতি, ব্যবসা-বাণিজ্য সকল ক্ষেত্রে টাঙ্গাইলের অবদান বিবেচনায় টাঙ্গাইল বিভাগ হওয়ার দাবী রাখে এবং প্রয়োজনে টাঙ্গাইলকে বিভাগ করা হলে টাঙ্গাইলবাসী সরকারকে স্বাগত জানাবে।
এদিকে টাঙ্গাইল জেলাকে ঢাকা বিভাগেই রাখার দাবীতে টাঙ্গাইল ও ঢাকায় সভা-সমাবেশ, মানববন্ধন, গণ স্বাক্ষর প্রভৃতি কর্মসূচী অব্যাহত রয়েছে। টাঙ্গাইলে গঠিত হয়েছে সর্বদলীয় সংগ্রাম কমিটি তথা টাঙ্গাইল জেলাকে ঢাকা বিভাগেই রাখার দাবী বাস্তবায়ন কমিটি। কমিটির আহ্বায়ক টাঙ্গাইল জেলা পরিষদের প্রশাসক, সাবেক এমপি ফজলুর রহমান ফারুক এবং সদস্য সচিব টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাফর আহমেদ। ইতিমধ্যেই টাঙ্গাইলবাসীদের দাবী জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। ঢাকাস্থ জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘টাঙ্গাইলবাসী ঢাকার সাথেই থাকতে চায়’ শীর্ষক মানবন্ধন করেছে ঢাকাস্থ টাঙ্গাইল জেলার ছাত্র/ছাত্রী ও জন সাধারণবৃন্দ।
প্রস্তাবিত ময়মনসিংহ বিভাগ নয়, টাঙ্গাইল জেলাকে ঢাকা বিভাগেই রাখার দাবী জানিয়ে টাঙ্গাইলবাসীদের চলমান আন্দোলনের সাথে একাত্বতা ঘোষণাকারী যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী টাঙ্গাইলবাসীদের মধ্যে রয়েছেন: মুক্তিযোদ্ধা ও বিজ্ঞানী, নিউজার্সী অঙ্গরাজ্যের প্লেইসবুরো সিটির কাউন্সিলম্যান ড. নূরুন্নবী, আন্তর্জাতিক ফারাক্কা কমিটির চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান সালু, ডা. এম এম বিল্লাহ, সাপ্তাহিক বাংলাদেশ সম্পাদক ডা. ওয়াজেদ এ খান, ড. জিনাত নবী, ডা. মুনিবুর রহমান. ডা. আব্দুল বাসেত খান, ফার্মাসিস্ট হামিদ রেজা খান, ফার্মাসিস্ট মোহাম্মেদ সালেহ, লেখক-সাংবাদিক ড. মাহবুব হাসান, কৃষিবীদ আব্দুর রহমান, হককথা.কম-এর সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান, বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্্ক নিউইয়র্কের সাবেক সহ সভাপতি মনিরুল ইসলাম, ফার্মাসিস্ট ড. রাশেদ রানা, নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও বার্তা সংস্থা ইউএনএ সম্পাদক এবিএম সালাহউদ্দিন আহমেদ, সাংবাদিক ফরিদ আলম, গণমাধ্যম কর্মী শাহাদৎ হোসেন সবুজ, টাঙ্গাইল জেলা সমিতি ইউএসএ ইনক’র সভাপতি মিজানুর রহমান খান আপেল, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন ও যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ শিহাব উদ্দিন, প্রবাসী টাঙ্গাইলবাসী ইউএসএ ইন্্ক’র সভাপতি ফরিদ খান, সাবেক সভাপতি ফরহাদ তালুকদার ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হাকিম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর গোলাম মোস্তফা, সঙ্গীত শিল্পী মন্টু কাউসার, স্বপ্না কাউসার ও মাহবুবুল আলম ফিরোজ, সেন্ট্রাল ফ্লোরিডা বিএনপি’র সভাপতি নাসিম এ খান, ট্রাভেল ব্যবসায়ী কাজী সিরাজ, আবৃত্তিকার গোপন সাহা, কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার শাহেদ খান নিবির ও তরুণ ব্যবসায়ী সাজ্জাদ হোসেন।