নিউইয়র্ক ০৮:১৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

মূলধারার সাথে কমিউনিটির সেতু বন্ধনই মূল লক্ষ্য

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৬:২২:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৬
  • / ৬২৯ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশী-আমেরিকান ফ্রেন্ডশীপ সোসাইটি (বাফস) ও ৬৬ প্রিসিঙ্কট কমিউনিটি কাউন্সিলের আয়োজনে আগামী ১ মে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘টাইম টেলিভিশন বৈশাখী পথমেলা’। নিউইয়র্ক সিটির ব্রুকলীনস্থ চার্চ-ম্যাকডোনাল্ড এভিনিউতে অনুষ্ঠিতব্য এই মেলার সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। মূলধারার সাথে কমিউনিটির সেতু বন্ধনই মেলার মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। মেলার গ্র্যান্ড স্পন্সর হচ্ছেন কমিউনিটির পরিচিত মুখ, বিশিষ্ট রিয়েল এস্টেট ইনভেস্টর ও সমাজসেবী মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন। মেলার মুল অনুষ্ঠান সাংস্কৃতিক পর্বে বাংলাদেশের জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী রন্টি দাস ছাড়াও দেশ ও প্রবাসের জনপ্রিয় শিল্পীরা সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশন করবেন। অনুষ্ঠানমালার মধ্যে আরো থাকবে ফ্যাশন শো, রকমারী পণ্যের স্টল, আকর্ষনীয় পুরষ্কার প্রভৃতি।
‘টাইম টেলিভিশন বৈশাখী পথমেলা’ উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে উপরোক্ত তথ্য জানানো হয়েছে। গত ২২ এপ্রিল শুক্রবার বিকেলে টাইম টেলিভিশন ও সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা’র বার্তা কক্ষে অনুষ্ঠিত সাংবাদিক সম্মেলনে মেলা সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরেন টাইম টিভি’র সিইও আবু তাহের এবং আয়োজক সংগঠন বাফস’র সাধারণ সম্পাদক মাকসুদুল হক চৌধুরী। এসময় বাফস’র সভাপতি কাজী আজম সহ বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এম নুরুল আমীন, মেলার উপস্থাপক আশরাফুল হাসান বুলবুল ও আনতাকী রাইসা এবং সঙ্গীত শিল্পী রোকসানা মির্জা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশী-আমেরিকান ফ্রেন্ডশীপ সোসাইটি (বাফস) ও ৬৬ প্রিসিঙ্কট কমিউনিটি কাউন্সিলের আয়োজনে গতবছর প্রথম বৈশাখী মেলা অনুষ্ঠিত হয়। এবার হচ্ছে দ্বিতীয় বৈশাখী মেলা। খবর ইউএনএ’র।
সাংবাদিক সম্মেলনে আয়োজকরা দাবী করে বলেন, ‘টাইম টেলিভিশন বৈশাখী পথমেলা’ আয়োজনে সকল মহল থেকে ব্যাপক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। মূলধারায় এই মেলার ব্যাপারে আগ্রহ লক্ষ্য করা গেছে। নেতৃবৃন্দ বলেন, বাংলা নববর্ষ কি, কেন বৈশাখী মেলার আয়োজন তা এখন মূলধারার লোকজন জানেন, বুঝেন। সিটির বিভিন্ন স্থানে বৈশাখী মেলা আয়োজনের জন্যই আমাদের এই অর্জন হয়েছে। মেলাটি সফল করতে আয়োজকদের পক্ষ থেকে মিডিয়াসহ সকল প্রবাসীর সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।
এক প্রশ্নের উত্তরে নেতৃবৃন্দ বলেন, নিউইয়র্ক তথা উত্তর আমেরিকায় বাংলাদেশী কমিউনিটি বৃদ্ধির ফলে অনুষ্ঠানও বাড়ছে। তবে সবাই মিলে নিউইয়র্কের পাঁচ বরোতে ব্যাপক আয়োজনে মেলা করা অসম্ভব কিছু না।
অপর এক প্রশ্নের উত্তরে নেতৃবৃন্দ বলেন, আমাদের প্রত্যাশা প্রবাসীদেরকে পরিচ্ছন্ন মেলা উপহার দেয়া। মেলার ফ্লায়ার বা বিজ্ঞাপনে যাদের নাম প্রকাশ করা হয়েছে তারাই মেলায় পারফর্ম করবেন। শিল্পীদের মধ্যে বাংলাদেশের জনপ্রিয় শিল্পী রন্টি দাস অন্যতম। প্রবাসীদের কাছ থেকে সাড়াও মিলছে ব্যাপক।
অপর এক প্রশ্নের উত্তরে আয়োজকরা জানান, ‘টাইম টেলিভিশন বৈশাখী পথমেলা’য় পারফর্মকারী শিল্পীদের সাধ্যমত সম্মান জানানো হবে। শিল্পীরা যাতে অসম্মানিত না হন সেটিকে সজাগ দৃষ্টি রাখা হবে। এজন্য শিল্পীদের সম্মানি প্রদানের বিষয়টিও আলোচনা করে নেয়া হয়েছে।
সাংবাদিক সম্মেলনে টাইম টিভি’র সিইও আবু তাহের বলেন, দর্শক-শ্রোতাদের কাছে টাইম টেলিভিশন-কে ব্যান্ড করতেই ব্রুকলীনের বৈশাখী মেলায় টাইম টেলিভিশন টাইটেল স্পন্সর হয়েছে। এছাড়া অন্য কোন বাণিজ্যিক উদ্দেশ্য নেই। মেলার সার্বিক দায়-দায়িত্ব আয়োজক কমিটির থাকলেও টাইম টিভি’র পক্ষ থেকে সাধ্যমত সহযোগিতা করা হচ্ছে।
‘টাইম টেলিভিশন বৈশাখী পথমেলা’র আয়োজনের নেপথ্যে দায়িত্ব পালন করছেন যথাক্রমে কাজী আশরাফ হোসেন নয়ন, সাহাব উদ্দিন চৌধুরী লিটন, জসিম মাহমুদ, আশরাফুল ইসলাম, এম এ লতিফ, মনির আহমদ, এমদাদুল হক কামাল, আবুল কাশেম, ফিরোজ আহমদ, সেলিম চৌধুরী বাবুল, কামাল হোসেন মিঠু, মিনহাজ উদ্দিন বাবর, জাহাঙ্গীর আলম, খালেক আকন্দ, কাউছার চৌধুরী, আসিফুর রহমান, মোহাম্মদ হারুন অর রশিদ, মোহাম্মদ আবু তালেব, নাজমুল আলম, সেলিম চৌধুরী, আবু তাহের, আব্দুল মান্নান, জাফর ইসলাম, রফিক উদ্দিন, মোতাহার হোসেন, ইকবাল হায়দার প্রমুখ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

মূলধারার সাথে কমিউনিটির সেতু বন্ধনই মূল লক্ষ্য

প্রকাশের সময় : ০৬:২২:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৬

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশী-আমেরিকান ফ্রেন্ডশীপ সোসাইটি (বাফস) ও ৬৬ প্রিসিঙ্কট কমিউনিটি কাউন্সিলের আয়োজনে আগামী ১ মে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘টাইম টেলিভিশন বৈশাখী পথমেলা’। নিউইয়র্ক সিটির ব্রুকলীনস্থ চার্চ-ম্যাকডোনাল্ড এভিনিউতে অনুষ্ঠিতব্য এই মেলার সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। মূলধারার সাথে কমিউনিটির সেতু বন্ধনই মেলার মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। মেলার গ্র্যান্ড স্পন্সর হচ্ছেন কমিউনিটির পরিচিত মুখ, বিশিষ্ট রিয়েল এস্টেট ইনভেস্টর ও সমাজসেবী মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন। মেলার মুল অনুষ্ঠান সাংস্কৃতিক পর্বে বাংলাদেশের জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী রন্টি দাস ছাড়াও দেশ ও প্রবাসের জনপ্রিয় শিল্পীরা সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশন করবেন। অনুষ্ঠানমালার মধ্যে আরো থাকবে ফ্যাশন শো, রকমারী পণ্যের স্টল, আকর্ষনীয় পুরষ্কার প্রভৃতি।
‘টাইম টেলিভিশন বৈশাখী পথমেলা’ উপলক্ষ্যে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে উপরোক্ত তথ্য জানানো হয়েছে। গত ২২ এপ্রিল শুক্রবার বিকেলে টাইম টেলিভিশন ও সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা’র বার্তা কক্ষে অনুষ্ঠিত সাংবাদিক সম্মেলনে মেলা সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরেন টাইম টিভি’র সিইও আবু তাহের এবং আয়োজক সংগঠন বাফস’র সাধারণ সম্পাদক মাকসুদুল হক চৌধুরী। এসময় বাফস’র সভাপতি কাজী আজম সহ বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এম নুরুল আমীন, মেলার উপস্থাপক আশরাফুল হাসান বুলবুল ও আনতাকী রাইসা এবং সঙ্গীত শিল্পী রোকসানা মির্জা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশী-আমেরিকান ফ্রেন্ডশীপ সোসাইটি (বাফস) ও ৬৬ প্রিসিঙ্কট কমিউনিটি কাউন্সিলের আয়োজনে গতবছর প্রথম বৈশাখী মেলা অনুষ্ঠিত হয়। এবার হচ্ছে দ্বিতীয় বৈশাখী মেলা। খবর ইউএনএ’র।
সাংবাদিক সম্মেলনে আয়োজকরা দাবী করে বলেন, ‘টাইম টেলিভিশন বৈশাখী পথমেলা’ আয়োজনে সকল মহল থেকে ব্যাপক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে। মূলধারায় এই মেলার ব্যাপারে আগ্রহ লক্ষ্য করা গেছে। নেতৃবৃন্দ বলেন, বাংলা নববর্ষ কি, কেন বৈশাখী মেলার আয়োজন তা এখন মূলধারার লোকজন জানেন, বুঝেন। সিটির বিভিন্ন স্থানে বৈশাখী মেলা আয়োজনের জন্যই আমাদের এই অর্জন হয়েছে। মেলাটি সফল করতে আয়োজকদের পক্ষ থেকে মিডিয়াসহ সকল প্রবাসীর সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।
এক প্রশ্নের উত্তরে নেতৃবৃন্দ বলেন, নিউইয়র্ক তথা উত্তর আমেরিকায় বাংলাদেশী কমিউনিটি বৃদ্ধির ফলে অনুষ্ঠানও বাড়ছে। তবে সবাই মিলে নিউইয়র্কের পাঁচ বরোতে ব্যাপক আয়োজনে মেলা করা অসম্ভব কিছু না।
অপর এক প্রশ্নের উত্তরে নেতৃবৃন্দ বলেন, আমাদের প্রত্যাশা প্রবাসীদেরকে পরিচ্ছন্ন মেলা উপহার দেয়া। মেলার ফ্লায়ার বা বিজ্ঞাপনে যাদের নাম প্রকাশ করা হয়েছে তারাই মেলায় পারফর্ম করবেন। শিল্পীদের মধ্যে বাংলাদেশের জনপ্রিয় শিল্পী রন্টি দাস অন্যতম। প্রবাসীদের কাছ থেকে সাড়াও মিলছে ব্যাপক।
অপর এক প্রশ্নের উত্তরে আয়োজকরা জানান, ‘টাইম টেলিভিশন বৈশাখী পথমেলা’য় পারফর্মকারী শিল্পীদের সাধ্যমত সম্মান জানানো হবে। শিল্পীরা যাতে অসম্মানিত না হন সেটিকে সজাগ দৃষ্টি রাখা হবে। এজন্য শিল্পীদের সম্মানি প্রদানের বিষয়টিও আলোচনা করে নেয়া হয়েছে।
সাংবাদিক সম্মেলনে টাইম টিভি’র সিইও আবু তাহের বলেন, দর্শক-শ্রোতাদের কাছে টাইম টেলিভিশন-কে ব্যান্ড করতেই ব্রুকলীনের বৈশাখী মেলায় টাইম টেলিভিশন টাইটেল স্পন্সর হয়েছে। এছাড়া অন্য কোন বাণিজ্যিক উদ্দেশ্য নেই। মেলার সার্বিক দায়-দায়িত্ব আয়োজক কমিটির থাকলেও টাইম টিভি’র পক্ষ থেকে সাধ্যমত সহযোগিতা করা হচ্ছে।
‘টাইম টেলিভিশন বৈশাখী পথমেলা’র আয়োজনের নেপথ্যে দায়িত্ব পালন করছেন যথাক্রমে কাজী আশরাফ হোসেন নয়ন, সাহাব উদ্দিন চৌধুরী লিটন, জসিম মাহমুদ, আশরাফুল ইসলাম, এম এ লতিফ, মনির আহমদ, এমদাদুল হক কামাল, আবুল কাশেম, ফিরোজ আহমদ, সেলিম চৌধুরী বাবুল, কামাল হোসেন মিঠু, মিনহাজ উদ্দিন বাবর, জাহাঙ্গীর আলম, খালেক আকন্দ, কাউছার চৌধুরী, আসিফুর রহমান, মোহাম্মদ হারুন অর রশিদ, মোহাম্মদ আবু তালেব, নাজমুল আলম, সেলিম চৌধুরী, আবু তাহের, আব্দুল মান্নান, জাফর ইসলাম, রফিক উদ্দিন, মোতাহার হোসেন, ইকবাল হায়দার প্রমুখ।