নিউইয়র্ক ০৬:০৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

বাংলাদেশ সোসাইটির সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরু

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৯:৫২:০১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ অক্টোবর ২০১৫
  • / ৫১১ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশ সোসাইটি ইনক নিউইয়র্ক’র নব-নির্বাচিত কমিটির নেতৃত্বে সোসাইটির সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরু হয়েছে। সোসাইটির সভাপতি আজমল হোসেন কুনু ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহীম হাওলাদারের নেতৃত্বে কার্যকরী পরিষদের বর্তমান ও সাবেক কমিটির নেতারা এই অভিযানে নেমেছেন। সোসাইটির বিদায়ী সভাপিত কামাল আহমদ সহ গত কমিটির নেতারাও এই অভিযানে অংশ নিচ্ছেন।
প্রবাসী বাংলাদেশীদের প্রাণকেন্দ্র হিসেবে পরিচিত জ্যাকসন হাইটস থেকে ৩ অক্টোবর শনিবার শুরু হওয়া সোসাইটির সদস্য সংগ্রহ অভিযান চলবে ৮ নভেম্বর পর্যন্ত। ৪ অক্টোবর রোববার ব্রঙ্কসে সদস্য সংগ্রহ করা হয়। সোসাইটির কর্মকতারা জানিয়েছেন সিটির পাঁচটি ব্যুরোতেই এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। সংগঠনের কর্মকর্তারা বলেন, সদস্য সংগ্রহ অভিযানে ভালো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে।
উল্লেখ্য, চলতি বছরের শুরুতে অর্থাৎ জানুয়ারী মাসে অনুষ্ঠেয় বাংলাদেশ সোসাইটির নব-নির্বাচিত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠানে বক্তাদের মুখে সোসাইটির সদস্য সংখ্যা নিয়ে প্রশ্ন উঠে। এই অনুষ্ঠানেই নবনির্বাচিত কমিটি তাদের নির্বাচনী ওয়াদা ‘সোসাইটির সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধি’ করার অঙ্গীকার করেন। তারই ধারাবাহিকতায় চলতি মাস থেকে সোসাইটির সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধিতে মাঠে নেমেছেন কর্মকর্তারা। মাত্র ২০ ডলারের বিনিময়ে সোসাইটির প্রাথমিক সদস্য পদ গ্রহণের সুযোগ রয়েছে। এছাড়াও সংগঠনের গর্বিত আজীবন সদস্য হওয়া যায় ৫০০ ডলারের বিনিময়ে। উল্লেখ্য, আগামী ৮ নভেম্বর পর্যন্ত সপ্তাহের প্রতি শনি ও রোববার সদস্য সংগ্রহ অভিযান চলবে।
এব্যাপারে সোসাইটির সভাপতি আজমল হোসেন কুনু বলেন, বাংলাদেশ সোসাইটি হচ্ছে প্রবাসী বাংলাদেশীদের ‘মাদার অর্গানাইজেশন’ যাকে আমরা আমব্রেলা সংগঠন’ও বলি। আমামাদের নতুন কমিটির নির্বাচনী ওয়াদা ছিল সোসাইটির সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধির। সোসাইটির বৃহত্তর স্বার্থে আমরা সেই প্রতিশ্রুতি রক্ষায় কাজ করছি।
সোসাইটির সাবেক সভাপতি কামাল আহমেদ বলেন, অতীতের ধারাবাহিকতায় এবারো শুরু হয়েছে সদস্য সংগ্রহ অভিযান। তিনি বলেন, নানা সীমাবদ্ধতার জন্য এতদিন সোসাইটির সদস্য সংখ্যা বাড়ানো যায়নি। আমরা আশা করছি বাংলাদেশ সোসাইটি সবদিক থেকেই প্রবাসীদের কল্যাণে কাজ করে যাবে। তাই ঐক্যবদ্ধভাবে মাঠে নেমেছি।
সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহীম হাওলাদার বলেন, প্রবাসীদের কল্যাণে কাজ করাই সোসাইটির লক্ষ-উদ্দেশ্য। আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে বাংলাদেশ সোসাইটিকে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য করে গড়ে তোলা। যাতে করে যে কোন অঞ্চলের প্রবাসীরা বাংলাদেশ সোসাইটির সদস্য পদ গ্রহণ করে সবার স্বার্থ রক্ষায় কাজ করতে পারেন।
সোসাইটির সদস্য সংগ্রহ অভিযানের দ্বিতীয় দিন ৪ অক্টোবর রোববার ব্রঙ্কসের স্টারলিং এাভিনিউয়ের নীরব রেস্টুরেন্টের সামনে বিকাল তিনটায় সদস্য সংগ্রহ শুরু করা হয়। এতে বিপুল পরিমান সাড়া পাওয়া যায়। এসময় বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি আজমল হোসেন কুনু, সহ-সভাপতি ফারুক হোসেন মজুমদার, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহীম হাওলাদার, সহ-সাধারণ সম্পাদক ওসমান চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমকে জামান, প্রচার ও গণযোগাযোগ সম্পাদক মফিজুল ইসলাম ভূইয়া রুমি, সাহিত্য সম্পাদক ওয়াহিদ কাজি এলিন, ব্রঙ্কসের কমিউনিটি অ্যাক্টিভিষ্ট এডভোকেট এন মজুদমার, আব্দুস শহীদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

বাংলাদেশ সোসাইটির সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরু

প্রকাশের সময় : ০৯:৫২:০১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ অক্টোবর ২০১৫

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশ সোসাইটি ইনক নিউইয়র্ক’র নব-নির্বাচিত কমিটির নেতৃত্বে সোসাইটির সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরু হয়েছে। সোসাইটির সভাপতি আজমল হোসেন কুনু ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহীম হাওলাদারের নেতৃত্বে কার্যকরী পরিষদের বর্তমান ও সাবেক কমিটির নেতারা এই অভিযানে নেমেছেন। সোসাইটির বিদায়ী সভাপিত কামাল আহমদ সহ গত কমিটির নেতারাও এই অভিযানে অংশ নিচ্ছেন।
প্রবাসী বাংলাদেশীদের প্রাণকেন্দ্র হিসেবে পরিচিত জ্যাকসন হাইটস থেকে ৩ অক্টোবর শনিবার শুরু হওয়া সোসাইটির সদস্য সংগ্রহ অভিযান চলবে ৮ নভেম্বর পর্যন্ত। ৪ অক্টোবর রোববার ব্রঙ্কসে সদস্য সংগ্রহ করা হয়। সোসাইটির কর্মকতারা জানিয়েছেন সিটির পাঁচটি ব্যুরোতেই এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। সংগঠনের কর্মকর্তারা বলেন, সদস্য সংগ্রহ অভিযানে ভালো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে।
উল্লেখ্য, চলতি বছরের শুরুতে অর্থাৎ জানুয়ারী মাসে অনুষ্ঠেয় বাংলাদেশ সোসাইটির নব-নির্বাচিত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠানে বক্তাদের মুখে সোসাইটির সদস্য সংখ্যা নিয়ে প্রশ্ন উঠে। এই অনুষ্ঠানেই নবনির্বাচিত কমিটি তাদের নির্বাচনী ওয়াদা ‘সোসাইটির সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধি’ করার অঙ্গীকার করেন। তারই ধারাবাহিকতায় চলতি মাস থেকে সোসাইটির সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধিতে মাঠে নেমেছেন কর্মকর্তারা। মাত্র ২০ ডলারের বিনিময়ে সোসাইটির প্রাথমিক সদস্য পদ গ্রহণের সুযোগ রয়েছে। এছাড়াও সংগঠনের গর্বিত আজীবন সদস্য হওয়া যায় ৫০০ ডলারের বিনিময়ে। উল্লেখ্য, আগামী ৮ নভেম্বর পর্যন্ত সপ্তাহের প্রতি শনি ও রোববার সদস্য সংগ্রহ অভিযান চলবে।
এব্যাপারে সোসাইটির সভাপতি আজমল হোসেন কুনু বলেন, বাংলাদেশ সোসাইটি হচ্ছে প্রবাসী বাংলাদেশীদের ‘মাদার অর্গানাইজেশন’ যাকে আমরা আমব্রেলা সংগঠন’ও বলি। আমামাদের নতুন কমিটির নির্বাচনী ওয়াদা ছিল সোসাইটির সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধির। সোসাইটির বৃহত্তর স্বার্থে আমরা সেই প্রতিশ্রুতি রক্ষায় কাজ করছি।
সোসাইটির সাবেক সভাপতি কামাল আহমেদ বলেন, অতীতের ধারাবাহিকতায় এবারো শুরু হয়েছে সদস্য সংগ্রহ অভিযান। তিনি বলেন, নানা সীমাবদ্ধতার জন্য এতদিন সোসাইটির সদস্য সংখ্যা বাড়ানো যায়নি। আমরা আশা করছি বাংলাদেশ সোসাইটি সবদিক থেকেই প্রবাসীদের কল্যাণে কাজ করে যাবে। তাই ঐক্যবদ্ধভাবে মাঠে নেমেছি।
সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহীম হাওলাদার বলেন, প্রবাসীদের কল্যাণে কাজ করাই সোসাইটির লক্ষ-উদ্দেশ্য। আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে বাংলাদেশ সোসাইটিকে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য করে গড়ে তোলা। যাতে করে যে কোন অঞ্চলের প্রবাসীরা বাংলাদেশ সোসাইটির সদস্য পদ গ্রহণ করে সবার স্বার্থ রক্ষায় কাজ করতে পারেন।
সোসাইটির সদস্য সংগ্রহ অভিযানের দ্বিতীয় দিন ৪ অক্টোবর রোববার ব্রঙ্কসের স্টারলিং এাভিনিউয়ের নীরব রেস্টুরেন্টের সামনে বিকাল তিনটায় সদস্য সংগ্রহ শুরু করা হয়। এতে বিপুল পরিমান সাড়া পাওয়া যায়। এসময় বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি আজমল হোসেন কুনু, সহ-সভাপতি ফারুক হোসেন মজুমদার, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহীম হাওলাদার, সহ-সাধারণ সম্পাদক ওসমান চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমকে জামান, প্রচার ও গণযোগাযোগ সম্পাদক মফিজুল ইসলাম ভূইয়া রুমি, সাহিত্য সম্পাদক ওয়াহিদ কাজি এলিন, ব্রঙ্কসের কমিউনিটি অ্যাক্টিভিষ্ট এডভোকেট এন মজুদমার, আব্দুস শহীদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।