নিউইয়র্ক ০৭:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

বদরুল-জুয়েল’র নেতৃত্বেই নতুন কমিটি!

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৭:১৬:৪৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ এপ্রিল ২০১৬
  • / ৭২৫ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী জালালাবাদবাসী তথা বৃহত্তর সিলেটের প্রবাসী বাংলাদেশীদের সর্ববৃৎ সামাজিক সংগঠন জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব আমেরিকা ইনক’র আসন্ন নির্বাচন ঘিরে সংশ্লিষ্ট মহলে আলোচনা চলছে। এই নির্বাচন পরিচালনার জন্য নির্বাচন কমিশন গঠন করা হলেও ঘোষিত হয়নি নির্বাচনী তফসিল। তবে চলছে প্রক্রিয়া। এদিকে সংগঠনের আগামী নির্বাচনে বর্তমান সভাপতি বদরুল হোসেন খান ও সাধারণ সম্পাদক জুয়েল চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন কমিটিরকর্মকান্ড আর ভবিষ্যৎ কর্মসূচী বাস্তবায়নের লক্ষ্যে অনেকেই ‘বদরুল-জুয়েল’র নেতৃত্বেই নতুন কমিটি গঠন বা বহাল রাখার উপর চাপ রয়েছে বলে অনুসন্ধানে জানা গেছে।
সংশ্লিষ্টদের মতে, জালালাবাদ এসোসিয়েশনের অতীত নেতৃত্বে সংগঠনটি ‘চাড়া গাছ থেকে বটবৃক্ষ’-এ পরিণত হয়েছে। বেড়েছে সংগঠনের সদস্য, কর্মকান্ড, দায়-দায়িত্ব। বাস্তব প্রেক্ষিতে এসোসিয়েশনের কর্মকান্ড প্রবাস পেরিয়ে বাংলাদেশের বৃহত্তর সিলেটের চারটি জেলায় ছড়িয়ে পড়েছে। সেই সাথে দাবী উঠেছে নিউইয়র্কে ‘জালালাবাদ ভবন’ প্রতিষ্ঠার। এই দাবী বাস্তবায়নে এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। গঠিত হয়েছে ভবন বাস্তবায়ন কমিটি। ফান্ড রেইজ করার পাশাপাশি অব্যাহত রয়েছে ভবন প্রতিষ্ঠার জন্য ফান্ড রেইজিং। ‘বদরুল-জুয়েল’ নেতৃত্বাধীন কমিটির উদ্যোগে ইতিমধ্যেই অর্জিত ফান্ড দিয়ে পৃথক ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে। অপরদিকে সিলেটে ডায়ালাইসিস ও হাইপারটেশন সেন্টার’ প্রতিষ্ঠার কাজ এগিয়ে চলছে। এজন্য প্রবাস থেকে ২৯টি ডায়ালাইসি মেশিন সংগ্রহ (ডেনেশন) করা হয়েছে এবং ইতিমধ্যেই ২১টি মেশিন বাংলাদেশে প্রেরণ করা হয়েছে।
জালালাবাদ এসোসিয়েশনের চলমান কর্মকান্ড বিবেচনায় প্রবাসী জালালাবাদবাসীদের অনেকেই ‘বদরুল-জুয়েল’-এর নেতৃত্বে নতুন কমিটি গঠনের চিন্তা-ভাবনা করছেন। উল্লেখ্য, বিগত নির্বাচনে ‘বদরুল-জুয়েল’ প্যানেল জয়লাভ করে। এই প্যানেলের সাথে সংশ্লিস্টরা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, সভাপতি পদে বদরুল হোসেন খান দ্বিতীয়বারের মতো প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে আগ্রহী থাকলেও সাধারণ সম্পাদক পদে জুয়েল চৌধুরী নতুন করে গুরু দায়িত্ব নিতে ইচ্ছুক নন। ব্যক্তিগত, পারিবারিক আর ব্যবসায়িক দায়-দায়িত্ব সহ শারীরিক দিক বিবেচনায় জুয়েল চৌধুরী তার স্থলে যোগ্য নতুন মুখ খুঁজছেন বলে জানা গেছে। তবে জুয়েল চৌধুরীর সমর্থকরা এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পদক পদে তাকেই চাচ্ছেন।
অপরদিকে ‘বদরুল-জুয়েল’ নির্বাচনে না আসলে সে ক্ষেত্রে সভাপতি পদে বাংলাদেশ বিয়ানীবাজার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতি ইউএসএ’র দুই দুইবারের সাবেক সভাপতি এবং বর্তমানে সিলেট গণদাবী পরিষদের সভাপতি আজিমুর রহমান বুরহান, বিয়ানীবাজার সমিতির সাবেক সভাপতি বুরহান উদ্দিন কফিল আর সাধারণ সম্পাদক পদে কমিউনিটির পরিচিত মুখ, সংগঠনের বর্তমান কোষাধ্যক্ষ আতাউল গণি আসাদ, সাবেক সহ সাধারণ সম্পাদক মো: ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার প্রমুখের কথাও ভাবছেন। তবে সংশ্লিষ্টরা এব্যাপারে প্রকাশ্যে এখনো মুখ খুলছেন না। (সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা)

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

বদরুল-জুয়েল’র নেতৃত্বেই নতুন কমিটি!

প্রকাশের সময় : ০৭:১৬:৪৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ এপ্রিল ২০১৬

নিউইয়র্ক: যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী জালালাবাদবাসী তথা বৃহত্তর সিলেটের প্রবাসী বাংলাদেশীদের সর্ববৃৎ সামাজিক সংগঠন জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব আমেরিকা ইনক’র আসন্ন নির্বাচন ঘিরে সংশ্লিষ্ট মহলে আলোচনা চলছে। এই নির্বাচন পরিচালনার জন্য নির্বাচন কমিশন গঠন করা হলেও ঘোষিত হয়নি নির্বাচনী তফসিল। তবে চলছে প্রক্রিয়া। এদিকে সংগঠনের আগামী নির্বাচনে বর্তমান সভাপতি বদরুল হোসেন খান ও সাধারণ সম্পাদক জুয়েল চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন কমিটিরকর্মকান্ড আর ভবিষ্যৎ কর্মসূচী বাস্তবায়নের লক্ষ্যে অনেকেই ‘বদরুল-জুয়েল’র নেতৃত্বেই নতুন কমিটি গঠন বা বহাল রাখার উপর চাপ রয়েছে বলে অনুসন্ধানে জানা গেছে।
সংশ্লিষ্টদের মতে, জালালাবাদ এসোসিয়েশনের অতীত নেতৃত্বে সংগঠনটি ‘চাড়া গাছ থেকে বটবৃক্ষ’-এ পরিণত হয়েছে। বেড়েছে সংগঠনের সদস্য, কর্মকান্ড, দায়-দায়িত্ব। বাস্তব প্রেক্ষিতে এসোসিয়েশনের কর্মকান্ড প্রবাস পেরিয়ে বাংলাদেশের বৃহত্তর সিলেটের চারটি জেলায় ছড়িয়ে পড়েছে। সেই সাথে দাবী উঠেছে নিউইয়র্কে ‘জালালাবাদ ভবন’ প্রতিষ্ঠার। এই দাবী বাস্তবায়নে এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। গঠিত হয়েছে ভবন বাস্তবায়ন কমিটি। ফান্ড রেইজ করার পাশাপাশি অব্যাহত রয়েছে ভবন প্রতিষ্ঠার জন্য ফান্ড রেইজিং। ‘বদরুল-জুয়েল’ নেতৃত্বাধীন কমিটির উদ্যোগে ইতিমধ্যেই অর্জিত ফান্ড দিয়ে পৃথক ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে। অপরদিকে সিলেটে ডায়ালাইসিস ও হাইপারটেশন সেন্টার’ প্রতিষ্ঠার কাজ এগিয়ে চলছে। এজন্য প্রবাস থেকে ২৯টি ডায়ালাইসি মেশিন সংগ্রহ (ডেনেশন) করা হয়েছে এবং ইতিমধ্যেই ২১টি মেশিন বাংলাদেশে প্রেরণ করা হয়েছে।
জালালাবাদ এসোসিয়েশনের চলমান কর্মকান্ড বিবেচনায় প্রবাসী জালালাবাদবাসীদের অনেকেই ‘বদরুল-জুয়েল’-এর নেতৃত্বে নতুন কমিটি গঠনের চিন্তা-ভাবনা করছেন। উল্লেখ্য, বিগত নির্বাচনে ‘বদরুল-জুয়েল’ প্যানেল জয়লাভ করে। এই প্যানেলের সাথে সংশ্লিস্টরা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, সভাপতি পদে বদরুল হোসেন খান দ্বিতীয়বারের মতো প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে আগ্রহী থাকলেও সাধারণ সম্পাদক পদে জুয়েল চৌধুরী নতুন করে গুরু দায়িত্ব নিতে ইচ্ছুক নন। ব্যক্তিগত, পারিবারিক আর ব্যবসায়িক দায়-দায়িত্ব সহ শারীরিক দিক বিবেচনায় জুয়েল চৌধুরী তার স্থলে যোগ্য নতুন মুখ খুঁজছেন বলে জানা গেছে। তবে জুয়েল চৌধুরীর সমর্থকরা এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পদক পদে তাকেই চাচ্ছেন।
অপরদিকে ‘বদরুল-জুয়েল’ নির্বাচনে না আসলে সে ক্ষেত্রে সভাপতি পদে বাংলাদেশ বিয়ানীবাজার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতি ইউএসএ’র দুই দুইবারের সাবেক সভাপতি এবং বর্তমানে সিলেট গণদাবী পরিষদের সভাপতি আজিমুর রহমান বুরহান, বিয়ানীবাজার সমিতির সাবেক সভাপতি বুরহান উদ্দিন কফিল আর সাধারণ সম্পাদক পদে কমিউনিটির পরিচিত মুখ, সংগঠনের বর্তমান কোষাধ্যক্ষ আতাউল গণি আসাদ, সাবেক সহ সাধারণ সম্পাদক মো: ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার প্রমুখের কথাও ভাবছেন। তবে সংশ্লিষ্টরা এব্যাপারে প্রকাশ্যে এখনো মুখ খুলছেন না। (সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা)