নিউইয়র্ক ০৪:০০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

প্রবাসে দেশীয় রাজনীতি করার কোন মানে নেই অর্থও নেই : খোকা

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ১০:১৭:২১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ মার্চ ২০১৫
  • / ৬৯০ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিশিষ্ট রাজনীতিক, সাবেক মন্ত্রী ও ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা প্রবাসী বাংলাদেশীদের যুক্তরাষ্ট্রের মূলধারার রাজনীতি করার উপর গুরুত্বারোপ করে বলেছেন, প্রবাসে দেশীয় রাজনীতি করার কোন মানে নেই, অর্থও নেই। প্রবাসে থেকে মূলধারার রাজনীতি করাই ভালো। তিনি বলেন, প্রবাসে দেশের রাজনীতি নিয়ে হানাহানি, দ্বিধা-বিভক্তি দেশের জন্য সম্মানজনক নয়। এসব থেকে আমাদেরকে বেরিয়ে আসতে হবে।
প্রবাসের অন্যতম আঞ্চলিক সংগঠন মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুর এসোসিয়েশন ইন্ক-এর ২০১৫-২০১৬ সালের নতুন কার্যকরী কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাদেক হোসেন খোকা উপরোক্ত কথা বলেন। সিটির উডসাইডস্থ কুইন্স প্যালেসে গত ৬ মার্চ শুক্রবার সন্ধ্যায় এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্্ক নিউইয়র্কের সভাপতি আজমল হোসেন কুনু, সোসাইটির সাবেক সভাপতি ও এসোসিয়েশনের প্রধান উপদেষ্টা এম আজীজ, সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহীম হাওলাদার ও সোসাইটির সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি ওয়াসি চৌধুরী। অতিথিদের সাথে মঞ্চে উপবিষ্ট ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা যথাক্রমে আলাউদ্দিন ভুলু, ইঞ্জিনিয়ার নূরুল হক, এম এ সিদ্দিক পল্লব, শহিদুল আলম খান, মাহমুদ খান তাসের, এডভোকেট আজিজুর রহমান, কাজী আজহারুল হক মিলন, আব্দুল বাতেন সরকার মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন ও মোহাম্মদ আতাউর রহমান। উল্লেখ্য, সাদেক হোসেন খোকা মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুরের কৃতি সন্তান।
তিন পর্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে ছিলো নতুন কর্মকর্তাদের শপথ ও দায়িত্ব গ্রহণ, দ্বিতীয় পর্বে ছিলো আলোচনা এবং তৃতীয় পর্বে ছিলো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। প্রথম পর্বে সভাপতিত্ব করে সংগঠনের বিদায়ী সভাপতি মহিউদ্দিন দেওয়ান। এই পর্বে সভাপতি মহিউদ্দিন দেওয়ান ও বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক মিঠু হামিদ নবনির্বাচিত সভাপতি রুহুল আমীন সিদ্দিকী ও নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নওশেদ হোসেন সিদ্দিকীর কাছে দায়িত্ব হস্তান্তরের করেন। এরপর অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এসোসিয়েশনের নবনির্বাচিত কর্মকর্তাদের শপথ বাক্য পাঠ করান। এই পর্ব পরিচালনা করেন মিঠু হামিদ ও আতাউর রহমান আতা।
অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে সভাপতিত্ব করেন এসোসিয়েশনের নব নির্বাচিত সভাপতি রুহুল আমীন সিদ্দিকী। এই পর্বে অতিথিবৃন্দ ছাড়াও শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন এম আজীজ, ইঞ্জিনিয়ার নূরুল হক, এম এ সিদ্দিক পল্লব, এডভোকেট আজিজুর রহমান, সহ সভাপতি সোহরাব হোসেন, অভিষেক অনুষ্ঠানের আহ্বায়ক জয়নাল আবেদীন আমান, প্রধান সমন্বয়কারী আবু রব বাবুল, বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক ও অভিষেক অনুষ্ঠানের সদস্য সচিব মিঠু হামিদ প্রমুখ। এই পর্ব পরিচালনা করেন নব নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নওশেদ হোসেন সিদ্দিক।
অনুষ্ঠানে সাদেক হোসেন খোকা আরো বলেন, আমার জন্ম বিক্রমপুরের মাটিতে। এজন্য বিক্রমপুরের কোনো অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ করলে সবসময় আমি সেখানে যাই। জন্মস্থান হিসাবে নাড়ির টান থাকবেই। আর রাজনীতি করার কারণে বিভিন্ন সময় সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছি। দেশ-বিদেশে বিভিন্ন সভা-সমাবেশে যোগ দিয়েছি। এটি অরাজনৈতিক সংগঠন তাই এখানে রাজনৈতিক বক্তব্য দেওয়া উচিত হবে না। তিনি বলেন, বিক্রমপুরের অনেক ঐতিহ্য রয়েছে। একসময় ব্রিটিশ-ভারতের নেতৃত্ব দেওয়া অনেক বিশিষ্ট ব্যক্তির জন্ম এই বিক্রমপুরে। বাংলাদেশের শিল্প, সাহিত্য ও সংস্কৃতিসহ এমন কোনো ক্ষেত্র নাই যেখানে বিক্রমপুরের মানুষের দাপট নেই। তিনি মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুরের ওপর গবেষণামূলক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য প্রবাসী মুন্সীগঞ্জবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, দল নিরপেক্ষভাবে আদিকাল থেকে মুন্সীগঞ্জের কীর্তিমান মানুষের কথা বইয়ের মাধ্যমে তুলে আনতে হবে।
সাদেক হোসেন খোকা বলেন, আমরা সকলের প্রত্যাশা আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশ একটি শান্ত-সুন্দর, সকলের বসবাস উপযোগী একটি দেশ হিসাবে দ্রুত প্রতিষ্ঠিত হবে। এজন্য যার যার অবস্থান থেকে সবার ভূমিকা রাখা উচিত। তিনি সমিতির নিজস্ব ভবন নির্মাণের উদ্যোগকে স্বাগত জানানোর পাশাপাশি সংগঠনকে ঐক্যবদ্ধ করার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, দু’টি সংগঠনকে এক করার পদক্ষেপ নিতে হবে। দ্বিধা-বিভক্তি ভুলে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তিনি বলেন, আমি চিকিতসার জন্য নিউইয়র্কে এসেছি। যাতে দ্রুত সুস্থ হয়ে দেশে ফিরে যেতে পারি এজন্য সকল প্রবাসীর দোয়া কামনা করেন।
অনুষ্ঠানে মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুর এসোসিয়েশনের ভবন নির্মাণের জন্য সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এম আজীজ এক লক্ষ ডলার অনুদান দেয়ার ঘোষণা দিলে উপস্থিত সকলে করতালির মাধ্যমে স্বাগত জানান। অন্যান্য বক্তারা এসোসিয়েশনের কর্মকান্ডের প্রশংসা করেন। এছাড়া নব নির্বাচিত সভাপতি রুহুল আমীন সিদ্দিকী ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নওশেদ হোসেন সিদ্দিক তাদের বক্তব্যে সংগঠনের ভবন নির্মাণসহ কমিউনিটির কল্যাণে বিভিন্ন কর্মসুচী ও পদক্ষেপ গ্রহণের প্রতিশ্রুতি দেন এবং অনুষ্ঠানটি সফল করার জন্য সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
অনুষ্ঠানের তৃতীয় পর্বের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠারে প্রবাসের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী শাহ মাহবুব, করিম হাওলাদার, কামাল, নাদিয়া মজুমদার, মনিকা রায় প্রমুখ সঙ্গীত পরিবেশন করেন। এ পর্ব সঞ্চালনায় ছিলেন বাংলাদেশ সোসাইটির সাংস্কৃতিক সম্পাদক মনিকা রায় ও এসোসিয়েশনের সাংস্কৃতিক সম্পাদক করিম হাওলাদার। সহযোগিতায় ছিলেন কামাল হোসেন। অভিষেক অনুষ্ঠান উপলক্ষে এম এ সিদ্দিক পল্লবের সম্পাদনায় ‘বিক্রমপুর’ নামে একটি স্মরণিকা প্রকাশ করা হয়। অনুষ্ঠানে কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গসহ বিপুল সংখ্যক প্রবাসী মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুরবাসী উপস্থিত ছিলেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

প্রবাসে দেশীয় রাজনীতি করার কোন মানে নেই অর্থও নেই : খোকা

প্রকাশের সময় : ১০:১৭:২১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ মার্চ ২০১৫

নিউইয়র্ক: বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিশিষ্ট রাজনীতিক, সাবেক মন্ত্রী ও ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা প্রবাসী বাংলাদেশীদের যুক্তরাষ্ট্রের মূলধারার রাজনীতি করার উপর গুরুত্বারোপ করে বলেছেন, প্রবাসে দেশীয় রাজনীতি করার কোন মানে নেই, অর্থও নেই। প্রবাসে থেকে মূলধারার রাজনীতি করাই ভালো। তিনি বলেন, প্রবাসে দেশের রাজনীতি নিয়ে হানাহানি, দ্বিধা-বিভক্তি দেশের জন্য সম্মানজনক নয়। এসব থেকে আমাদেরকে বেরিয়ে আসতে হবে।
প্রবাসের অন্যতম আঞ্চলিক সংগঠন মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুর এসোসিয়েশন ইন্ক-এর ২০১৫-২০১৬ সালের নতুন কার্যকরী কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাদেক হোসেন খোকা উপরোক্ত কথা বলেন। সিটির উডসাইডস্থ কুইন্স প্যালেসে গত ৬ মার্চ শুক্রবার সন্ধ্যায় এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্্ক নিউইয়র্কের সভাপতি আজমল হোসেন কুনু, সোসাইটির সাবেক সভাপতি ও এসোসিয়েশনের প্রধান উপদেষ্টা এম আজীজ, সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহীম হাওলাদার ও সোসাইটির সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি ওয়াসি চৌধুরী। অতিথিদের সাথে মঞ্চে উপবিষ্ট ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা যথাক্রমে আলাউদ্দিন ভুলু, ইঞ্জিনিয়ার নূরুল হক, এম এ সিদ্দিক পল্লব, শহিদুল আলম খান, মাহমুদ খান তাসের, এডভোকেট আজিজুর রহমান, কাজী আজহারুল হক মিলন, আব্দুল বাতেন সরকার মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন ও মোহাম্মদ আতাউর রহমান। উল্লেখ্য, সাদেক হোসেন খোকা মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুরের কৃতি সন্তান।
তিন পর্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে ছিলো নতুন কর্মকর্তাদের শপথ ও দায়িত্ব গ্রহণ, দ্বিতীয় পর্বে ছিলো আলোচনা এবং তৃতীয় পর্বে ছিলো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। প্রথম পর্বে সভাপতিত্ব করে সংগঠনের বিদায়ী সভাপতি মহিউদ্দিন দেওয়ান। এই পর্বে সভাপতি মহিউদ্দিন দেওয়ান ও বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক মিঠু হামিদ নবনির্বাচিত সভাপতি রুহুল আমীন সিদ্দিকী ও নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নওশেদ হোসেন সিদ্দিকীর কাছে দায়িত্ব হস্তান্তরের করেন। এরপর অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এসোসিয়েশনের নবনির্বাচিত কর্মকর্তাদের শপথ বাক্য পাঠ করান। এই পর্ব পরিচালনা করেন মিঠু হামিদ ও আতাউর রহমান আতা।
অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে সভাপতিত্ব করেন এসোসিয়েশনের নব নির্বাচিত সভাপতি রুহুল আমীন সিদ্দিকী। এই পর্বে অতিথিবৃন্দ ছাড়াও শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন এম আজীজ, ইঞ্জিনিয়ার নূরুল হক, এম এ সিদ্দিক পল্লব, এডভোকেট আজিজুর রহমান, সহ সভাপতি সোহরাব হোসেন, অভিষেক অনুষ্ঠানের আহ্বায়ক জয়নাল আবেদীন আমান, প্রধান সমন্বয়কারী আবু রব বাবুল, বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক ও অভিষেক অনুষ্ঠানের সদস্য সচিব মিঠু হামিদ প্রমুখ। এই পর্ব পরিচালনা করেন নব নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নওশেদ হোসেন সিদ্দিক।
অনুষ্ঠানে সাদেক হোসেন খোকা আরো বলেন, আমার জন্ম বিক্রমপুরের মাটিতে। এজন্য বিক্রমপুরের কোনো অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ করলে সবসময় আমি সেখানে যাই। জন্মস্থান হিসাবে নাড়ির টান থাকবেই। আর রাজনীতি করার কারণে বিভিন্ন সময় সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছি। দেশ-বিদেশে বিভিন্ন সভা-সমাবেশে যোগ দিয়েছি। এটি অরাজনৈতিক সংগঠন তাই এখানে রাজনৈতিক বক্তব্য দেওয়া উচিত হবে না। তিনি বলেন, বিক্রমপুরের অনেক ঐতিহ্য রয়েছে। একসময় ব্রিটিশ-ভারতের নেতৃত্ব দেওয়া অনেক বিশিষ্ট ব্যক্তির জন্ম এই বিক্রমপুরে। বাংলাদেশের শিল্প, সাহিত্য ও সংস্কৃতিসহ এমন কোনো ক্ষেত্র নাই যেখানে বিক্রমপুরের মানুষের দাপট নেই। তিনি মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুরের ওপর গবেষণামূলক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য প্রবাসী মুন্সীগঞ্জবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, দল নিরপেক্ষভাবে আদিকাল থেকে মুন্সীগঞ্জের কীর্তিমান মানুষের কথা বইয়ের মাধ্যমে তুলে আনতে হবে।
সাদেক হোসেন খোকা বলেন, আমরা সকলের প্রত্যাশা আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশ একটি শান্ত-সুন্দর, সকলের বসবাস উপযোগী একটি দেশ হিসাবে দ্রুত প্রতিষ্ঠিত হবে। এজন্য যার যার অবস্থান থেকে সবার ভূমিকা রাখা উচিত। তিনি সমিতির নিজস্ব ভবন নির্মাণের উদ্যোগকে স্বাগত জানানোর পাশাপাশি সংগঠনকে ঐক্যবদ্ধ করার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, দু’টি সংগঠনকে এক করার পদক্ষেপ নিতে হবে। দ্বিধা-বিভক্তি ভুলে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তিনি বলেন, আমি চিকিতসার জন্য নিউইয়র্কে এসেছি। যাতে দ্রুত সুস্থ হয়ে দেশে ফিরে যেতে পারি এজন্য সকল প্রবাসীর দোয়া কামনা করেন।
অনুষ্ঠানে মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুর এসোসিয়েশনের ভবন নির্মাণের জন্য সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এম আজীজ এক লক্ষ ডলার অনুদান দেয়ার ঘোষণা দিলে উপস্থিত সকলে করতালির মাধ্যমে স্বাগত জানান। অন্যান্য বক্তারা এসোসিয়েশনের কর্মকান্ডের প্রশংসা করেন। এছাড়া নব নির্বাচিত সভাপতি রুহুল আমীন সিদ্দিকী ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নওশেদ হোসেন সিদ্দিক তাদের বক্তব্যে সংগঠনের ভবন নির্মাণসহ কমিউনিটির কল্যাণে বিভিন্ন কর্মসুচী ও পদক্ষেপ গ্রহণের প্রতিশ্রুতি দেন এবং অনুষ্ঠানটি সফল করার জন্য সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
অনুষ্ঠানের তৃতীয় পর্বের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠারে প্রবাসের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী শাহ মাহবুব, করিম হাওলাদার, কামাল, নাদিয়া মজুমদার, মনিকা রায় প্রমুখ সঙ্গীত পরিবেশন করেন। এ পর্ব সঞ্চালনায় ছিলেন বাংলাদেশ সোসাইটির সাংস্কৃতিক সম্পাদক মনিকা রায় ও এসোসিয়েশনের সাংস্কৃতিক সম্পাদক করিম হাওলাদার। সহযোগিতায় ছিলেন কামাল হোসেন। অভিষেক অনুষ্ঠান উপলক্ষে এম এ সিদ্দিক পল্লবের সম্পাদনায় ‘বিক্রমপুর’ নামে একটি স্মরণিকা প্রকাশ করা হয়। অনুষ্ঠানে কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গসহ বিপুল সংখ্যক প্রবাসী মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুরবাসী উপস্থিত ছিলেন।