নিউইয়র্ক ০১:০১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

প্যানথেরা ফাউন্ডেশন’র বাংলাদেশের সুন্দরবনে বাঘ রক্ষণাবেক্ষণে আগ্রহ প্রকাশ

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৬:২৯:২৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩ মার্চ ২০১৫
  • / ৯১৫ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: প্যানথেরা ফাউন্ডেশনের সিওই ড. এলান রবিনওটিজ ও জাতিসংঘের প্রতিনিধি জ টি উইন গত ২ মার্চ অপরাহ্নে জাতিসংঘে বাংলাদেশ মিশনের স্থায়ী প্রতিনিধি ড. এ. কে. আব্দুল মোমেনের সাথে তাঁর অফিসকক্ষে এক সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন। উল্লেখ্য যে, ড. রবিনওটিজ বিশ্বের অন্যতম একজন শ্রেষ্ঠ প্রাণীবিদ বিশেষজ্ঞ।
এ সময় স্থায়ী প্রতিনিধি তাদেরকে বাংলাদেশের উন্নয়নের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন এবং এ সংস্থার বাংলাদেশে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেন।নএলান রবিনওটিজ স্থায়ী প্রতিনিধিকে বলেন, তিনি বিশ্বের বহু দেশে পরিবেশ উন্নয়নে বাঘ রক্ষণাবেক্ষণের কাজ করে থাকেন এবং তাঁর প্রতিষ্ঠানটি বিশ্বের শীর্ষ বাঘ রক্ষনাবেক্ষন প্রতিষ্ঠান।
রবিনওটিজ স্থায়ী প্রতিনিধিকে আরো বলেন, বাংলাদেশের সুন্দরবনের পরিবেশ বাঘ রক্ষণাবেক্ষণে খুবই উপযোগী এবং তারা তাতে বিনিয়োগ এবং প্রশিক্ষণ দিতে আগ্রহী।
ড. মোমেন প্রতিনিধি দলকে জাতিসংঘে বাংলাদেশ মিশনের কর্মকান্ড সংক্রান্ত বই উপহার দেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

প্যানথেরা ফাউন্ডেশন’র বাংলাদেশের সুন্দরবনে বাঘ রক্ষণাবেক্ষণে আগ্রহ প্রকাশ

প্রকাশের সময় : ০৬:২৯:২৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩ মার্চ ২০১৫

নিউইয়র্ক: প্যানথেরা ফাউন্ডেশনের সিওই ড. এলান রবিনওটিজ ও জাতিসংঘের প্রতিনিধি জ টি উইন গত ২ মার্চ অপরাহ্নে জাতিসংঘে বাংলাদেশ মিশনের স্থায়ী প্রতিনিধি ড. এ. কে. আব্দুল মোমেনের সাথে তাঁর অফিসকক্ষে এক সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হন। উল্লেখ্য যে, ড. রবিনওটিজ বিশ্বের অন্যতম একজন শ্রেষ্ঠ প্রাণীবিদ বিশেষজ্ঞ।
এ সময় স্থায়ী প্রতিনিধি তাদেরকে বাংলাদেশের উন্নয়নের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন এবং এ সংস্থার বাংলাদেশে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেন।নএলান রবিনওটিজ স্থায়ী প্রতিনিধিকে বলেন, তিনি বিশ্বের বহু দেশে পরিবেশ উন্নয়নে বাঘ রক্ষণাবেক্ষণের কাজ করে থাকেন এবং তাঁর প্রতিষ্ঠানটি বিশ্বের শীর্ষ বাঘ রক্ষনাবেক্ষন প্রতিষ্ঠান।
রবিনওটিজ স্থায়ী প্রতিনিধিকে আরো বলেন, বাংলাদেশের সুন্দরবনের পরিবেশ বাঘ রক্ষণাবেক্ষণে খুবই উপযোগী এবং তারা তাতে বিনিয়োগ এবং প্রশিক্ষণ দিতে আগ্রহী।
ড. মোমেন প্রতিনিধি দলকে জাতিসংঘে বাংলাদেশ মিশনের কর্মকান্ড সংক্রান্ত বই উপহার দেন।