নিউইয়র্ক ০৭:২৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

ধর্মীয় ভাব গম্ভীর পরিবেশে জালালাবাদ এসোসিয়েশনের ইফতার পার্টি অনুষ্ঠিত

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ১০:০৪:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন ২০১৫
  • / ১৪৩৮ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: ধর্মীয় ভাব গম্ভীর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হলো জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব আমেরিকার বার্ষিক ইফতার পার্টি। গত ২২ জুন রোববার সিটির উডসাইডস্থ গুলশান ট্যারেসে আয়োজিত জমজমাট এই ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ড. একেএম আব্দুল মোমেন। খবর ইউএনএ’র।
এসোসিয়েশনের সভাপতি বদরুল হোসেন খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন সাপ্তাহিক ঠিকানা’র সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি, সাবেক এমপি এম এম শাহীন, বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্ক নিউইয়র্কের সভাপতি আজমল হোসেন কুনু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহীম হাওলাদার, সাবেক সভাপতি নার্গিস আহমেদ, অধুনালুপ্ত সাপ্তাহিক সংবাদ সম্পাদক সৈয়দ গজনফর আলী, এসোসিয়েশনের উপদেষ্টা তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী ও আব্দুল হাসিম হাসনু, সাবেক সভাপতি সৈয়দ শওকত আলী, এম এ কাইয়্যুম, মাহবুবুর রহমান, এম এ বাসিত ও বদরুন নাহার খান মিতা, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মিসবাহ মজিদ, আতাউর রহমান সেলিম ও আব্দুল হাসিব মামুন।
Jalabad Asso. Ifterএসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল চৌধুরীর পরিচালনায় ইফতার মাহফিলের শুরুতে নতুন প্রজন্মের নাইম উদ্দিন, জাকি রহমান, ইয়াকুব খান ও নাজিফা ইসলাম সহ হামদ-নাত পরিবেশন করেন এটর্নী মঈন চৌধুরী, আতাউর রহমান ও তোতা মিয়া। এরপর প্রধান অতিথি ড. মোমেনসহ সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সাবেক এমপি এম এম শাহীন, বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি আজমল হোসেন কুনু, বাপাফ সভাপতি ও হেলথ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী ওয়েল কেয়ারের সিনিয়র ম্যানেজার সালেহ আহমেদ এবং নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধি তাসফিয়া চৌধুরী।
ইফতার মাহফিলে বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন বাংলাদেশ থেকে আগত ছারছিনার হুজুর মাওলানা শাহ মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ সিদ্দিকী। এছাড়া পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন এসোসিয়েশনের সাবেক সহ সভাপতি মাওলানা ছায়ফুল আলম সিদ্দিকী।
অনুষ্ঠানে ড. একে আব্দুল মোমেন তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে জালালাবাদ এসোসিয়েশনের কর্মকান্ডের প্রশংসা এবং সিয়াম সাধনার মাধ্যমে আতœশুদ্ধি অর্জনের উপর গুরুতারোপ করে বলেন, পবিত্র রমজান মাস হচ্ছে মুসলিম সম্প্রদায়ের জন্য খুশি, ত্যাগ ও আতœশুদ্ধির মাস। এই রমজান মাসেই আমরা খুশির খবর পেয়েছি, আমরা ক্রিকেটে ভারতকে হারিয়েছি। তিনি বলেন, রমজানের শিক্ষা থেকে আমরা আমাদের জীবন ও সমাজকে সুন্দরভাবে গড়তে পারি। উল্লেখ্য, ড. মোমেন ‘জয় বাংলা’ বলে তার বক্তব্য শেষ করলে দর্শক সারি থেকে একজন তার প্রতিবাদ করে বলেন ‘নো জয় বাংলা’।
Jalabad Asso. Ifter-2সভাপতি বদরুল হোসেন খান তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে উপস্থিত সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং গভীর শ্রদ্ধার সাথে সংগঠনের সাবেক সভাপতি মরহুম সিরাজউদ্দিন আহমেদ সহ সদ্য প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা রশীদ আহমেদকে স্মরণ করে বলেন, যাদের উদ্যোগ ও প্রচেষ্টায় জালালাবাদ এসোসিয়েশন প্রতিষ্ঠা হয়েছে এবং আজ এই পর্যায়ে এসেছে আমি তাদের সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।
Jalabad Asso. Ifter-4মাহফিলে নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি আবু তাহের ও সাধারণ সম্পাদক এবিএম সালাহউদ্দিন আহমেদ এবং আমেরিকা-বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি নাজমুল আহসান সহ বিভিন্ন মিডিয়ার সম্পাদক ও সাংবাদিক এবং যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ যোগ দেন। কমিউনিটির উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিবর্গের মধ্যে এই ইফতার পার্টিতে যারা উপস্থিত ছিলেন তারা হলেন: মুক্তিযোদ্ধা ওয়াহিদুর রহমান মুক্তা, আব্দুল মুকিত চৌধুরী ও মুজাহিদুল ইসলাম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সাঈদ রহমান মান্নান, সৈয়দ আবু লেইস, বিএনপি নেতা জিল্লুর রহমান জিল্লু, মনজুর আহমেদ চৌধুরী, আনোয়ার হোসেন, এবাদ চৌধুরী, আতিকুল ইসলাম, আনোয়ার হোসাইন, আহবাব চৌধুরী খোকন, আওয়ামী লীগ নেতা সাইফুল ইসলাম রহীম, ফারুক আহমেদ, জাতীয় পার্টি নেতা আব্দুর নূর বড় ভূঁইয়া, যুবদল নেতা জাকির এইচ চৌধুরী, আতিকুল হক আহাদ, আবু সাঈদ আহমেদ, শেখ হায়দার আলী, সোহরাব হোসেন, কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এম এ বাতেন, ছাত্রদল নেতা আতাউর রহমান আতা ও মাজহারুল হক জনি, বিয়ানীবাজার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতির সভাপতি আজিমুর রহমান বুরহান, কমিউনিটি নেতা আব্দুস শহীদ, আব্দুল বাছির খান, চৌধুরী সালেহ, আবু সুফিয়ান, ছদরুন নূর, জাকির খান, গিয়াস উদ্দিন, তোফাজ্জল করিম, নূরুল আম্বীয়া, নূরুল হক, বেলাল উদ্দিন, মখন মিয়া, দরুদ মিয়া রনেল, রাসেল কবীর, সিলেট সদর সমিতির সাবেক সভাপতি ইয়ামির রশীদ, সুনামগঞ্জ জেলা সমিতির সভাপতি জোসেফ চৌধুরী, ওসমানী স্মৃতি পরিষদের সভাপতি নজমুল ইসলাম চৌধুরী, কুলাউড়া বাংলাদেশী এসোসিয়েশনের সভাপতি আতিকুল হক শাহীন, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও কমিউনিটি বোর্ড মেম্বার ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, ফ্রেন্ডস সোসাইটির সভাপতি বিলাল আহমেদ চৌধুরী, এসোসিয়েশনের সাবেক কর্মকর্তা মির্জা মামুন রশীদ, এডভোকেট নাসির উদ্দিন, এম এ করীম প্রমুখ সহ সর্বস্তরের বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী ও জালালাবাদবাসী উপস্থিত ছিলেন।
Jalabad Asso. Ifter-5এছাড়াও বাংলাদেশ সোসাইটির কর্মকর্তরা যথাক্রমে সহ সভাপতি ফারুক হোসেন মজুমদার, সহ সাধারণ ওসমান চৌধুরী, কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এম কে জামান, ক্রীড়া সম্পাদক সৈয়দ এনায়েত আলী, প্রচার সম্পাদক মোহাম্মদ রুমী, সমাজকল্যাণ সম্পাদক কাজী তোফায়েল ইসলাম, কার্যকরী পরিষদ সদস্য রফিকুল ইসলাম ডালিম, সিরাজুল হক জামাল, নাদের এ আইয়ুব, আবুল কাশেম ও নাসির উদ্দিন অতিথি হিসেবে এই ইফতার মাহফিলে অংশ নেন।
জালালাবাদ এসোসিয়েশনের ইফতার মাহফিল সফল করতে বিশেষ সহযোগিতায় ছিলেন মাহবুব এ চৌধুরী, আনোয়ারুল হক চৌধুরী (পারেক), সাব্বির হোসেন, মোশাররফ আলম, মিজানুর রহমান চৌধুরী (শেফাজ), আতাউল গণি আসাদ, লোকমান হোসোইন, মোহাম্মদ ফখর উদ্দিন, আশফাক চৌধুরী জামি, আবুল কালাম মতিন, আবুল কালাম, মোহাম্মদ আব্দুল মতিন, সাজিয়া রহমান, জ্যোতির্ময় দত্ত নিশু, মঈনুল ইসলাম, আকবর হোসেন স্বপন ও মোশাহিদ আলী।
উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানটি ছিলো অত্যন্ত সাজানো-গুছানো এবং ধর্মীয় আবহে পূর্ণ। অনুষ্ঠানের ফাঁকে ফাঁকে অতিথিদের উদ্দেশ্যে ছিটানো হয় গোলাপ জল। এছাড়াও গুলশান ট্যারেস-এর মূল গেটের সামনে নির্মাণ করা হয় আকর্ষনীয় তোরণ। যা সকলের দৃষ্টি কাড়ে। আরো উল্লেখ্য, প্রবাসের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বিয়ানীবাজারের সন্তান আব্দুল হাই’র সৌজন্যে ইফতারী পরিবেশন করা হয়। এছাড়াও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সামসুল আবদীন ও মতিন রেষ্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ ইফতার মাহফিল সফল করতে বিশেষ অবদান রাখায় তাদের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

ধর্মীয় ভাব গম্ভীর পরিবেশে জালালাবাদ এসোসিয়েশনের ইফতার পার্টি অনুষ্ঠিত

প্রকাশের সময় : ১০:০৪:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন ২০১৫

নিউইয়র্ক: ধর্মীয় ভাব গম্ভীর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হলো জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব আমেরিকার বার্ষিক ইফতার পার্টি। গত ২২ জুন রোববার সিটির উডসাইডস্থ গুলশান ট্যারেসে আয়োজিত জমজমাট এই ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ড. একেএম আব্দুল মোমেন। খবর ইউএনএ’র।
এসোসিয়েশনের সভাপতি বদরুল হোসেন খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন সাপ্তাহিক ঠিকানা’র সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি, সাবেক এমপি এম এম শাহীন, বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্ক নিউইয়র্কের সভাপতি আজমল হোসেন কুনু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহীম হাওলাদার, সাবেক সভাপতি নার্গিস আহমেদ, অধুনালুপ্ত সাপ্তাহিক সংবাদ সম্পাদক সৈয়দ গজনফর আলী, এসোসিয়েশনের উপদেষ্টা তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী ও আব্দুল হাসিম হাসনু, সাবেক সভাপতি সৈয়দ শওকত আলী, এম এ কাইয়্যুম, মাহবুবুর রহমান, এম এ বাসিত ও বদরুন নাহার খান মিতা, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মিসবাহ মজিদ, আতাউর রহমান সেলিম ও আব্দুল হাসিব মামুন।
Jalabad Asso. Ifterএসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল চৌধুরীর পরিচালনায় ইফতার মাহফিলের শুরুতে নতুন প্রজন্মের নাইম উদ্দিন, জাকি রহমান, ইয়াকুব খান ও নাজিফা ইসলাম সহ হামদ-নাত পরিবেশন করেন এটর্নী মঈন চৌধুরী, আতাউর রহমান ও তোতা মিয়া। এরপর প্রধান অতিথি ড. মোমেনসহ সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সাবেক এমপি এম এম শাহীন, বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি আজমল হোসেন কুনু, বাপাফ সভাপতি ও হেলথ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী ওয়েল কেয়ারের সিনিয়র ম্যানেজার সালেহ আহমেদ এবং নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধি তাসফিয়া চৌধুরী।
ইফতার মাহফিলে বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন বাংলাদেশ থেকে আগত ছারছিনার হুজুর মাওলানা শাহ মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ সিদ্দিকী। এছাড়া পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন এসোসিয়েশনের সাবেক সহ সভাপতি মাওলানা ছায়ফুল আলম সিদ্দিকী।
অনুষ্ঠানে ড. একে আব্দুল মোমেন তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে জালালাবাদ এসোসিয়েশনের কর্মকান্ডের প্রশংসা এবং সিয়াম সাধনার মাধ্যমে আতœশুদ্ধি অর্জনের উপর গুরুতারোপ করে বলেন, পবিত্র রমজান মাস হচ্ছে মুসলিম সম্প্রদায়ের জন্য খুশি, ত্যাগ ও আতœশুদ্ধির মাস। এই রমজান মাসেই আমরা খুশির খবর পেয়েছি, আমরা ক্রিকেটে ভারতকে হারিয়েছি। তিনি বলেন, রমজানের শিক্ষা থেকে আমরা আমাদের জীবন ও সমাজকে সুন্দরভাবে গড়তে পারি। উল্লেখ্য, ড. মোমেন ‘জয় বাংলা’ বলে তার বক্তব্য শেষ করলে দর্শক সারি থেকে একজন তার প্রতিবাদ করে বলেন ‘নো জয় বাংলা’।
Jalabad Asso. Ifter-2সভাপতি বদরুল হোসেন খান তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে উপস্থিত সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং গভীর শ্রদ্ধার সাথে সংগঠনের সাবেক সভাপতি মরহুম সিরাজউদ্দিন আহমেদ সহ সদ্য প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা রশীদ আহমেদকে স্মরণ করে বলেন, যাদের উদ্যোগ ও প্রচেষ্টায় জালালাবাদ এসোসিয়েশন প্রতিষ্ঠা হয়েছে এবং আজ এই পর্যায়ে এসেছে আমি তাদের সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।
Jalabad Asso. Ifter-4মাহফিলে নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি আবু তাহের ও সাধারণ সম্পাদক এবিএম সালাহউদ্দিন আহমেদ এবং আমেরিকা-বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভাপতি নাজমুল আহসান সহ বিভিন্ন মিডিয়ার সম্পাদক ও সাংবাদিক এবং যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ যোগ দেন। কমিউনিটির উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিবর্গের মধ্যে এই ইফতার পার্টিতে যারা উপস্থিত ছিলেন তারা হলেন: মুক্তিযোদ্ধা ওয়াহিদুর রহমান মুক্তা, আব্দুল মুকিত চৌধুরী ও মুজাহিদুল ইসলাম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সাঈদ রহমান মান্নান, সৈয়দ আবু লেইস, বিএনপি নেতা জিল্লুর রহমান জিল্লু, মনজুর আহমেদ চৌধুরী, আনোয়ার হোসেন, এবাদ চৌধুরী, আতিকুল ইসলাম, আনোয়ার হোসাইন, আহবাব চৌধুরী খোকন, আওয়ামী লীগ নেতা সাইফুল ইসলাম রহীম, ফারুক আহমেদ, জাতীয় পার্টি নেতা আব্দুর নূর বড় ভূঁইয়া, যুবদল নেতা জাকির এইচ চৌধুরী, আতিকুল হক আহাদ, আবু সাঈদ আহমেদ, শেখ হায়দার আলী, সোহরাব হোসেন, কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এম এ বাতেন, ছাত্রদল নেতা আতাউর রহমান আতা ও মাজহারুল হক জনি, বিয়ানীবাজার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতির সভাপতি আজিমুর রহমান বুরহান, কমিউনিটি নেতা আব্দুস শহীদ, আব্দুল বাছির খান, চৌধুরী সালেহ, আবু সুফিয়ান, ছদরুন নূর, জাকির খান, গিয়াস উদ্দিন, তোফাজ্জল করিম, নূরুল আম্বীয়া, নূরুল হক, বেলাল উদ্দিন, মখন মিয়া, দরুদ মিয়া রনেল, রাসেল কবীর, সিলেট সদর সমিতির সাবেক সভাপতি ইয়ামির রশীদ, সুনামগঞ্জ জেলা সমিতির সভাপতি জোসেফ চৌধুরী, ওসমানী স্মৃতি পরিষদের সভাপতি নজমুল ইসলাম চৌধুরী, কুলাউড়া বাংলাদেশী এসোসিয়েশনের সভাপতি আতিকুল হক শাহীন, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও কমিউনিটি বোর্ড মেম্বার ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, ফ্রেন্ডস সোসাইটির সভাপতি বিলাল আহমেদ চৌধুরী, এসোসিয়েশনের সাবেক কর্মকর্তা মির্জা মামুন রশীদ, এডভোকেট নাসির উদ্দিন, এম এ করীম প্রমুখ সহ সর্বস্তরের বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী ও জালালাবাদবাসী উপস্থিত ছিলেন।
Jalabad Asso. Ifter-5এছাড়াও বাংলাদেশ সোসাইটির কর্মকর্তরা যথাক্রমে সহ সভাপতি ফারুক হোসেন মজুমদার, সহ সাধারণ ওসমান চৌধুরী, কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এম কে জামান, ক্রীড়া সম্পাদক সৈয়দ এনায়েত আলী, প্রচার সম্পাদক মোহাম্মদ রুমী, সমাজকল্যাণ সম্পাদক কাজী তোফায়েল ইসলাম, কার্যকরী পরিষদ সদস্য রফিকুল ইসলাম ডালিম, সিরাজুল হক জামাল, নাদের এ আইয়ুব, আবুল কাশেম ও নাসির উদ্দিন অতিথি হিসেবে এই ইফতার মাহফিলে অংশ নেন।
জালালাবাদ এসোসিয়েশনের ইফতার মাহফিল সফল করতে বিশেষ সহযোগিতায় ছিলেন মাহবুব এ চৌধুরী, আনোয়ারুল হক চৌধুরী (পারেক), সাব্বির হোসেন, মোশাররফ আলম, মিজানুর রহমান চৌধুরী (শেফাজ), আতাউল গণি আসাদ, লোকমান হোসোইন, মোহাম্মদ ফখর উদ্দিন, আশফাক চৌধুরী জামি, আবুল কালাম মতিন, আবুল কালাম, মোহাম্মদ আব্দুল মতিন, সাজিয়া রহমান, জ্যোতির্ময় দত্ত নিশু, মঈনুল ইসলাম, আকবর হোসেন স্বপন ও মোশাহিদ আলী।
উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানটি ছিলো অত্যন্ত সাজানো-গুছানো এবং ধর্মীয় আবহে পূর্ণ। অনুষ্ঠানের ফাঁকে ফাঁকে অতিথিদের উদ্দেশ্যে ছিটানো হয় গোলাপ জল। এছাড়াও গুলশান ট্যারেস-এর মূল গেটের সামনে নির্মাণ করা হয় আকর্ষনীয় তোরণ। যা সকলের দৃষ্টি কাড়ে। আরো উল্লেখ্য, প্রবাসের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বিয়ানীবাজারের সন্তান আব্দুল হাই’র সৌজন্যে ইফতারী পরিবেশন করা হয়। এছাড়াও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সামসুল আবদীন ও মতিন রেষ্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ ইফতার মাহফিল সফল করতে বিশেষ অবদান রাখায় তাদের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয়।