নিউইয়র্ক ০৮:০৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরে হামলার প্রতিবাদে নিউইয়র্কে সমাবেশ

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৫:৪৭:০৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ এপ্রিল ২০১৫
  • / ৪৭৩ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনী প্রচারণাকালে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরে হামলা প্রতিবাদে নিউইয়র্কে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে গ্রেটার ঢাকা জাতীয়তাবাদী ফোরাম ও যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র একাংশের নেতা-কর্মীরা। এদিকে ফোরামের সমাবেশ থেকে ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী মির্জা আব্বাস এবং তাবিথ আওয়ালকে বিজয়ী করার জন্য দেশে প্রবাসীদের স্বজনদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।
সিটির জ্যাকসন হাইটসস্থ ফুডকোর্ট রেস্টুরেন্টে ১৩ এপ্রিল সোমবার রাতে অনুষ্ঠিত গ্রেটার ঢাকা জাতীয়তাবাদী ফোরামের প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি কাজী আজহারুল হক মিলন। সভায় বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি ও মূলধারার রাজনীতিক গিয়াস আহমেদ, বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্্ক নিউইয়র্কের কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী, ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এম এ বাতিন, ফারুক মজুমদার প্রমুখ।
যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদলের সভাপতি আতাউর রহমান আতার পরিচালনায় সভায় বিএনপি নেতা সৈয়দ আকিকুর রহমান ফারুক, ওয়েস আহমেদ, আব্দুল করিম, মনিরুল ইসলাম, সাবেক ছাত্রনেতা মাইনুল ইসলাম মুহিত, যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম জনি, মতিউর রহমান লিটু, জাহাঙ্গীর সোহরাওয়ার্দী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
সভায় বক্তারা বেগম খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরে হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, বিএনপি নির্বাচনে বিশ্বাস করে বলেই শত প্রতিকুলতার মধ্যে সিটি নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে। এই নির্বাচনে বিএনপির জয় নিশ্চিত জেনেই সরকার খালেদা জিয়ার নির্বাচনী প্রচারণার সময় গাড়ী হামলা চালিয়েছে। বক্তারা বলেন হরতাল-অবরোধের মাধ্যমে আন্দোলন করলে বিএনপির বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অপরাদ দেওয়া হয়, আবার শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতেও আওয়ামী সন্ত্রাসীরা হামলা চালাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে সুষ্ঠু, অবাধ ও নিপেক্ষ নির্বাচন হবে না বলে তা আশংকা ব্যক্ত করেন। বক্তারা বলেন, আওয়ামী সরকারের অগণতান্ত্রিক আচরণ অতীতের যে কোনো স্বৈরাচারি সরকারকে হার মানিয়েছে। খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে সরকারের বিরুদ্ধে দেশের মানুষ ঐক্যদ্ধ হচ্ছে। ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে জনগণ বিএনপির প্রার্থীদের বিজয়ী করে সরকারের স্বৈরাচারী কার্যকলাপের বিরুদ্ধে ভোটের মাধ্যমে জবাব দেবে।
এদিকে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরে হামলার প্রতিবাদে সোমবার সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসের ৩৬ স্ট্রীটস্থ খাবার বাড়ী রেষ্টুরেন্টের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশে করেছে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির একাংশের নেতা-কর্মীরা। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক কোষাধ্যক্ষ জসিম ভূঁইয়া। বক্তব্য রাখেন নিউইয়র্ক ষ্টেট বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি এমএ খালেক আকন্দ, সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান সাইদ, সাবেক ছাত্রনেতা জীবন সফিক, হাবিবুর রহমান সেলিম রেজা, রুহুল আমীন নাসির, নাসিম আহমেদ, জাফর তালুকদার, নূরে আলম প্রমুখ।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীদের বিজয়ের জন্য জোয়ার উঠেছে। পাল্টা হামলা নয়, ব্যালটের মাধ্যমে খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরে হামলার সমুচিত জবাব দেয়া হবে। তারা বলেন, সরকার যে কোনো প্রকারেই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিজয় ছিনিয়ে নিতে চায়। এ কারণেই সরকারের নির্দেশে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা খালেদা জিয়ার নির্বাচনী প্রচারণার সময় তার গাড়ী বহরে হামলা চালিয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরে হামলার প্রতিবাদে নিউইয়র্কে সমাবেশ

প্রকাশের সময় : ০৫:৪৭:০৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ এপ্রিল ২০১৫

নিউইয়র্ক: ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনী প্রচারণাকালে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরে হামলা প্রতিবাদে নিউইয়র্কে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে গ্রেটার ঢাকা জাতীয়তাবাদী ফোরাম ও যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র একাংশের নেতা-কর্মীরা। এদিকে ফোরামের সমাবেশ থেকে ঢাকা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী মির্জা আব্বাস এবং তাবিথ আওয়ালকে বিজয়ী করার জন্য দেশে প্রবাসীদের স্বজনদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।
সিটির জ্যাকসন হাইটসস্থ ফুডকোর্ট রেস্টুরেন্টে ১৩ এপ্রিল সোমবার রাতে অনুষ্ঠিত গ্রেটার ঢাকা জাতীয়তাবাদী ফোরামের প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি কাজী আজহারুল হক মিলন। সভায় বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি ও মূলধারার রাজনীতিক গিয়াস আহমেদ, বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্্ক নিউইয়র্কের কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী, ফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এম এ বাতিন, ফারুক মজুমদার প্রমুখ।
যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদলের সভাপতি আতাউর রহমান আতার পরিচালনায় সভায় বিএনপি নেতা সৈয়দ আকিকুর রহমান ফারুক, ওয়েস আহমেদ, আব্দুল করিম, মনিরুল ইসলাম, সাবেক ছাত্রনেতা মাইনুল ইসলাম মুহিত, যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম জনি, মতিউর রহমান লিটু, জাহাঙ্গীর সোহরাওয়ার্দী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
সভায় বক্তারা বেগম খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরে হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, বিএনপি নির্বাচনে বিশ্বাস করে বলেই শত প্রতিকুলতার মধ্যে সিটি নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে। এই নির্বাচনে বিএনপির জয় নিশ্চিত জেনেই সরকার খালেদা জিয়ার নির্বাচনী প্রচারণার সময় গাড়ী হামলা চালিয়েছে। বক্তারা বলেন হরতাল-অবরোধের মাধ্যমে আন্দোলন করলে বিএনপির বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অপরাদ দেওয়া হয়, আবার শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতেও আওয়ামী সন্ত্রাসীরা হামলা চালাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে সুষ্ঠু, অবাধ ও নিপেক্ষ নির্বাচন হবে না বলে তা আশংকা ব্যক্ত করেন। বক্তারা বলেন, আওয়ামী সরকারের অগণতান্ত্রিক আচরণ অতীতের যে কোনো স্বৈরাচারি সরকারকে হার মানিয়েছে। খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে সরকারের বিরুদ্ধে দেশের মানুষ ঐক্যদ্ধ হচ্ছে। ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে জনগণ বিএনপির প্রার্থীদের বিজয়ী করে সরকারের স্বৈরাচারী কার্যকলাপের বিরুদ্ধে ভোটের মাধ্যমে জবাব দেবে।
এদিকে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরে হামলার প্রতিবাদে সোমবার সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসের ৩৬ স্ট্রীটস্থ খাবার বাড়ী রেষ্টুরেন্টের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশে করেছে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির একাংশের নেতা-কর্মীরা। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক কোষাধ্যক্ষ জসিম ভূঁইয়া। বক্তব্য রাখেন নিউইয়র্ক ষ্টেট বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি এমএ খালেক আকন্দ, সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান সাইদ, সাবেক ছাত্রনেতা জীবন সফিক, হাবিবুর রহমান সেলিম রেজা, রুহুল আমীন নাসির, নাসিম আহমেদ, জাফর তালুকদার, নূরে আলম প্রমুখ।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, ঢাকা ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীদের বিজয়ের জন্য জোয়ার উঠেছে। পাল্টা হামলা নয়, ব্যালটের মাধ্যমে খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরে হামলার সমুচিত জবাব দেয়া হবে। তারা বলেন, সরকার যে কোনো প্রকারেই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিজয় ছিনিয়ে নিতে চায়। এ কারণেই সরকারের নির্দেশে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা খালেদা জিয়ার নির্বাচনী প্রচারণার সময় তার গাড়ী বহরে হামলা চালিয়েছে।