নিউইয়র্ক ১১:৩৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

অবিলম্বে সালাহউদ্দিন-ইলিয়াসকে উদ্ধার আর পিন্টু হত্যার বিচার দাবী

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৩:৪০:৪২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ মে ২০১৫
  • / ৮৭১ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি’র কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব, সাবেক প্রতিমন্ত্রী সালাহউদ্দিন আহমেদ ও কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক, সাবেক এমপি ইলিয়াস আলীর সন্ধান দাবী এবং কেন্দ্রীয় বিএনপি’র সহ সাংগঠনিক সম্পাদক, সাবেক এমপি ও জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি নাসির উদ্দিন পিন্টুকে ‘পরিকল্পিতভাবে হত্যা’র অভিযোগে নিউইয়র্কে যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদল বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। সমাবেশে বক্তারা ক্ষমতাসীন শেখ হাসিনা সরকারকে স্বৈরাচারী সরকার আখ্যায়িত করে বলেন, কোনকালেই কোন স্বৈরাচার চিরদিন ক্ষমতায় থাকতে পারেনি। বিএনপি চেয়ারপার্সন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্বে গণ আন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারকে বিদায় করা হবে। বক্তারা দীর্ঘ দিনেও ইলিয়াস আলী নিখোঁজ থাকার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ এবং সালাহউদ্দিন আহমেদ সরকারের এজেন্টের কাছেই আটক এবং পিন্টুকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবী করে অবিলম্বে সালাহউদ্দিন-ইলিয়াসকে উদ্ধার এবং পিন্টু হত্যার বিচার দাবী করেন।
সিটির জ্যাকসন হাইটস্থ ব্রডওয়ে ও ৩৬ ষ্ট্রীটের কর্ণারস্থ এস্টোরিয়া ফেডারেল ব্যাংকের সামনে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব এবং সভা পরিচালনা করেন যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদলের সভাপতি এম এ বাছিত। সভায় আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ডা. মজিবর রহমান মজুমদার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান জিল্লু, যুক্তরাষ্ট্র যুবদলের সভাপতি জাকির এইচ চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক আবু সাইদ আহমেদ ও সালাহউদ্দিন মুক্তি আন্দোলন, যুক্তরাষ্ট্রের সদস্য সচিব ডা. শামীম দেওয়ান। সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ছাত্রদল নেতা শহীদ আহমদ।
সমাবেশে ডা. মজিবর রহমান মজুমদার বলেন, দেশের জাতীয়তাবাদী শক্তি বিএনপি আর বিএনপির রাজনীতি ধ্বংস করতেই সরকার দলীয় নেতা-কর্মীদের উপর স্বৈরাচারী কায়দায় নিপীড়ণ-নির্যাতন চালাচ্ছে। মিথ্যা মামলা করে হয়রানী, গ্রেফতার করা হচ্ছে। তিনি আওয়ামী লীগ সরকারকে ‘স্বৈরাচারী সরকার’ আখ্যায়িত করে বলেন, কোনকালেই কোন স্বৈরাচার চিরদিন ক্ষমতায় থাকতে পারেনি, শেখ হাসিনাও পারবে না। বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক জিয়ার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারের পতন ঘটাতে হবে।
জিল্লুর রহমান জিল্লু বলেন, দলের কেন্দ্রীয় নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদ ও ইলিয়াস আলীসহ দলীয় নেতা-কর্মীদের নিখোঁজ-গুমের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ ও তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, দীর্ঘদিন হয়ে গেলো ইলিয়াস আলীর কোন সন্ধান মিলছে না। সালাহউদ্দিন আহমেদ সরকারের এজেন্টের কাছেই রয়েছে দাবী করে তিনি বলেন, আমরা অবিলম্বে তাদের সন্ধান চাই। জিল্লু বলেন, নাসির উদ্দিন পিন্টুকে পরিকল্পিতভাবে কারাগারে হত্যা করা হয়েছে। এই হত্যার বিচার একদিন হবেই।
জাকির এইচ চৌধুরী বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম বৃহৎ ও শক্তিশালী যুব সংগঠন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদলের সাবেক সভাপতি ও কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা নাসির উদ্দিন পিন্টুকে সরকার পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। এই সরকারের হাতে জনগণের নিরাপত্তা নেই। তিনি সরকারের পতন আন্দোলন জোরদার করার জন্য দলীয় নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।
আবু সাইদ আহমেদ বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের নেতৃত্বে অবশ্যই দেশে গণতন্ত্র ফিরে আসবে, হাসিনার পতন ঘটবে।
ডা. শামীম দেওয়ান বলেন, হামলা-মামলা, নিপীড়ন-নির্যাতন, গুম-খুন করে ক্ষমতায় টিকে থাকা যাবে না। তিনি অবিলম্বে সালাহউদ্দিন আহমেদকে পরিবারের কাছে ফেরৎ দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি দাবী জানান।
সমাবেশে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি, যুবদল, মহিলাদল ও ছাত্রদলের অর্ধ শতাধিক নেতা-কর্মী অংশ নেন। এসময় উল্লেখযোগ্য নেতা-কর্মীর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র নেতা ছৈয়দুল হক, শরীফ আহমেদ লস্কর, এবাদ চৌধুরী, এটিএম হেলালুর রহমান, নিউইয়র্ক ষ্টেট যুবদলের সভাপতি কাজী আমিনুল ইসলাম স্বপন ও সাধারণ সম্পাদক রেজাউল আজাদ ভূঁইয়া, নিউইয়র্ক সিটি যুবদলের সভাপতি বিলাল চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক শেখ হায়দার আলী, জাতীয়তাবাদী মহিলা দল নেত্রী শাহানা খানম, যুবদল নেতা এএফ মিসবাহউজ্জামান, এডভোকেট মোত্তাসিম বিল্লাহ লোটাস, মোহাম্মদ আলী রাজা, কায়েস আহমেদ চৌধুরী, যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক জাহিদ খান ও সহ সাধারণ সম্পাদক শোয়েব আহমদ চৌধুরীসহ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল নেতা আসফাক চৌধুরী জামি, ইমরান রহীম লালু, তানভীর রায়হান সিদ্দিকী সাব্বির, আব্দুল মান্নান তাজু, দেওয়ান রকি আহমদ চৌধুরী, দেওয়ান রানা আহমদ চৌধুরী, সাকিব চৌধুরী, নাজমুস সাকিব, তাইফ আহমেদ, নাজিম চৌধুরী রিংকু, সাইবুব চৌধুরী, আব্দুল হাই, সামছুল হক, এস এম মিজানুর রহমান, মোহাম্মদ আলী রাজা, মোহাম্মদ মজিবুর রহমান, আনোয়ারুল হক, সৈয়দ তৌফিকুল আম্বীয়া, তানভির চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
সমাবেশে অংশগ্রহণকারী সংগঠনের ব্যানার ছাড়াও তাদের দাবী-দাওয়া সম্বলিত পোস্টার বহন এবং সরকার বিরোধী নানা শ্লোগান দেয়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

অবিলম্বে সালাহউদ্দিন-ইলিয়াসকে উদ্ধার আর পিন্টু হত্যার বিচার দাবী

প্রকাশের সময় : ০৩:৪০:৪২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ মে ২০১৫

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি’র কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব, সাবেক প্রতিমন্ত্রী সালাহউদ্দিন আহমেদ ও কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক, সাবেক এমপি ইলিয়াস আলীর সন্ধান দাবী এবং কেন্দ্রীয় বিএনপি’র সহ সাংগঠনিক সম্পাদক, সাবেক এমপি ও জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি নাসির উদ্দিন পিন্টুকে ‘পরিকল্পিতভাবে হত্যা’র অভিযোগে নিউইয়র্কে যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদল বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। সমাবেশে বক্তারা ক্ষমতাসীন শেখ হাসিনা সরকারকে স্বৈরাচারী সরকার আখ্যায়িত করে বলেন, কোনকালেই কোন স্বৈরাচার চিরদিন ক্ষমতায় থাকতে পারেনি। বিএনপি চেয়ারপার্সন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্বে গণ আন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারকে বিদায় করা হবে। বক্তারা দীর্ঘ দিনেও ইলিয়াস আলী নিখোঁজ থাকার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ এবং সালাহউদ্দিন আহমেদ সরকারের এজেন্টের কাছেই আটক এবং পিন্টুকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবী করে অবিলম্বে সালাহউদ্দিন-ইলিয়াসকে উদ্ধার এবং পিন্টু হত্যার বিচার দাবী করেন।
সিটির জ্যাকসন হাইটস্থ ব্রডওয়ে ও ৩৬ ষ্ট্রীটের কর্ণারস্থ এস্টোরিয়া ফেডারেল ব্যাংকের সামনে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব এবং সভা পরিচালনা করেন যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদলের সভাপতি এম এ বাছিত। সভায় আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ডা. মজিবর রহমান মজুমদার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান জিল্লু, যুক্তরাষ্ট্র যুবদলের সভাপতি জাকির এইচ চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক আবু সাইদ আহমেদ ও সালাহউদ্দিন মুক্তি আন্দোলন, যুক্তরাষ্ট্রের সদস্য সচিব ডা. শামীম দেওয়ান। সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ছাত্রদল নেতা শহীদ আহমদ।
সমাবেশে ডা. মজিবর রহমান মজুমদার বলেন, দেশের জাতীয়তাবাদী শক্তি বিএনপি আর বিএনপির রাজনীতি ধ্বংস করতেই সরকার দলীয় নেতা-কর্মীদের উপর স্বৈরাচারী কায়দায় নিপীড়ণ-নির্যাতন চালাচ্ছে। মিথ্যা মামলা করে হয়রানী, গ্রেফতার করা হচ্ছে। তিনি আওয়ামী লীগ সরকারকে ‘স্বৈরাচারী সরকার’ আখ্যায়িত করে বলেন, কোনকালেই কোন স্বৈরাচার চিরদিন ক্ষমতায় থাকতে পারেনি, শেখ হাসিনাও পারবে না। বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক জিয়ার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারের পতন ঘটাতে হবে।
জিল্লুর রহমান জিল্লু বলেন, দলের কেন্দ্রীয় নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদ ও ইলিয়াস আলীসহ দলীয় নেতা-কর্মীদের নিখোঁজ-গুমের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ ও তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, দীর্ঘদিন হয়ে গেলো ইলিয়াস আলীর কোন সন্ধান মিলছে না। সালাহউদ্দিন আহমেদ সরকারের এজেন্টের কাছেই রয়েছে দাবী করে তিনি বলেন, আমরা অবিলম্বে তাদের সন্ধান চাই। জিল্লু বলেন, নাসির উদ্দিন পিন্টুকে পরিকল্পিতভাবে কারাগারে হত্যা করা হয়েছে। এই হত্যার বিচার একদিন হবেই।
জাকির এইচ চৌধুরী বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম বৃহৎ ও শক্তিশালী যুব সংগঠন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদলের সাবেক সভাপতি ও কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা নাসির উদ্দিন পিন্টুকে সরকার পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। এই সরকারের হাতে জনগণের নিরাপত্তা নেই। তিনি সরকারের পতন আন্দোলন জোরদার করার জন্য দলীয় নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।
আবু সাইদ আহমেদ বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের নেতৃত্বে অবশ্যই দেশে গণতন্ত্র ফিরে আসবে, হাসিনার পতন ঘটবে।
ডা. শামীম দেওয়ান বলেন, হামলা-মামলা, নিপীড়ন-নির্যাতন, গুম-খুন করে ক্ষমতায় টিকে থাকা যাবে না। তিনি অবিলম্বে সালাহউদ্দিন আহমেদকে পরিবারের কাছে ফেরৎ দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি দাবী জানান।
সমাবেশে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি, যুবদল, মহিলাদল ও ছাত্রদলের অর্ধ শতাধিক নেতা-কর্মী অংশ নেন। এসময় উল্লেখযোগ্য নেতা-কর্মীর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র নেতা ছৈয়দুল হক, শরীফ আহমেদ লস্কর, এবাদ চৌধুরী, এটিএম হেলালুর রহমান, নিউইয়র্ক ষ্টেট যুবদলের সভাপতি কাজী আমিনুল ইসলাম স্বপন ও সাধারণ সম্পাদক রেজাউল আজাদ ভূঁইয়া, নিউইয়র্ক সিটি যুবদলের সভাপতি বিলাল চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক শেখ হায়দার আলী, জাতীয়তাবাদী মহিলা দল নেত্রী শাহানা খানম, যুবদল নেতা এএফ মিসবাহউজ্জামান, এডভোকেট মোত্তাসিম বিল্লাহ লোটাস, মোহাম্মদ আলী রাজা, কায়েস আহমেদ চৌধুরী, যুক্তরাষ্ট্র ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক জাহিদ খান ও সহ সাধারণ সম্পাদক শোয়েব আহমদ চৌধুরীসহ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল নেতা আসফাক চৌধুরী জামি, ইমরান রহীম লালু, তানভীর রায়হান সিদ্দিকী সাব্বির, আব্দুল মান্নান তাজু, দেওয়ান রকি আহমদ চৌধুরী, দেওয়ান রানা আহমদ চৌধুরী, সাকিব চৌধুরী, নাজমুস সাকিব, তাইফ আহমেদ, নাজিম চৌধুরী রিংকু, সাইবুব চৌধুরী, আব্দুল হাই, সামছুল হক, এস এম মিজানুর রহমান, মোহাম্মদ আলী রাজা, মোহাম্মদ মজিবুর রহমান, আনোয়ারুল হক, সৈয়দ তৌফিকুল আম্বীয়া, তানভির চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
সমাবেশে অংশগ্রহণকারী সংগঠনের ব্যানার ছাড়াও তাদের দাবী-দাওয়া সম্বলিত পোস্টার বহন এবং সরকার বিরোধী নানা শ্লোগান দেয়।