নিউইয়র্ক ১১:৫১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

বাংলাদেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতা ও সুশীল সমাজ আক্রান্ত : জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক কমিশন

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৮:১৬:০৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৬ মার্চ ২০১৫
  • / ৪৯৯ বার পঠিত

ঢাকা: বাংলাদেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতা ও সুশীল সমাজ আক্রান্ত। মত প্রকাশের স্বাধীনতা ও গণতান্ত্রিক সুযোগকে বাধাগ্রস্ত করে এমন পদক্ষেপের ব্যাপারে গভীর উদ্বেগ জানিয়ে এ কথা বলেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার যেইদ রা’আদ আল হুসেন। গত ৫ সার্চ জেনেভায় হাই কমিশনারের বার্ষিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন তিনি। এতে বাংলাদেশসহ বেশ কয়েকটি দেশের বিষয়ে তিনি উদ্বেগ জানান। এ সময় তিনি বলেন, কেবল চরমপন্থীদের দ্বারাই নয়, সরকারের তরফ থেকে কঠোর প্রতিক্রিয়ার কারণেও বাংলাদেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতা ও সুশীল সমাজ আক্রান্ত। জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক সহযোগী সংস্থাটির প্রধান বলেন, আমি জাতিসংঘ মহাসচিবের সঙ্গে একযোগে সব রাজনৈতিক নেতার প্রতি সহিংসতা বন্ধ, রাজনৈতিক সংলাপের পথ খোঁজা ও মানবাধিকারের প্রতি সম্মান নিশ্চিতের আহ্বান জানাচ্ছি। তিনি বলেন, বাংলাদেশে চলমান রাজনৈতিক সহিংসতার ফলে সৃষ্ট ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে গত সপ্তাহে এক মুক্তমনা ব্লগার ও তার স্ত্রীর ওপর হামলার ঘটনা সর্বশেষ বেদনাদায়ক ঘটনা। তিনি আরও বলেন, অনেক শিশুসহ কমপক্ষে ৮০ জন মানুষ পেট্রলবোমা হামলা, রাজনৈতিক দলসমূহ ও নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন। তিনি আহ্বান জানান, সমাজ যেখানে সন্ত্রাসী কট্টরপন্থার বিরুদ্ধে লড়াই করছে সেখানে মানবাধিকারের নীতিতে অবহেলা করা উচিত নয় রাষ্ট্রের। যুদ্ধের ভয়াবহতা এড়ানোর জন্য জাতিসমূহ ৭০ বছর আগে বৈশ্বিক নিরাপত্তার জন্য একটি নীতি গ্রহণ করে। সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে যেসব ব্যবস্থা গৃহীত হচ্ছে তাতে ওই নীতির ওপর থেকে নীতিনির্ধারকরা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলবেন। এটা সত্যিকার অর্থে একটি মারাত্মক ঝুঁকি।(দৈনিক মানবজমিন)

Tag :

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

বাংলাদেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতা ও সুশীল সমাজ আক্রান্ত : জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক কমিশন

প্রকাশের সময় : ০৮:১৬:০৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৬ মার্চ ২০১৫

ঢাকা: বাংলাদেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতা ও সুশীল সমাজ আক্রান্ত। মত প্রকাশের স্বাধীনতা ও গণতান্ত্রিক সুযোগকে বাধাগ্রস্ত করে এমন পদক্ষেপের ব্যাপারে গভীর উদ্বেগ জানিয়ে এ কথা বলেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার যেইদ রা’আদ আল হুসেন। গত ৫ সার্চ জেনেভায় হাই কমিশনারের বার্ষিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন তিনি। এতে বাংলাদেশসহ বেশ কয়েকটি দেশের বিষয়ে তিনি উদ্বেগ জানান। এ সময় তিনি বলেন, কেবল চরমপন্থীদের দ্বারাই নয়, সরকারের তরফ থেকে কঠোর প্রতিক্রিয়ার কারণেও বাংলাদেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতা ও সুশীল সমাজ আক্রান্ত। জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক সহযোগী সংস্থাটির প্রধান বলেন, আমি জাতিসংঘ মহাসচিবের সঙ্গে একযোগে সব রাজনৈতিক নেতার প্রতি সহিংসতা বন্ধ, রাজনৈতিক সংলাপের পথ খোঁজা ও মানবাধিকারের প্রতি সম্মান নিশ্চিতের আহ্বান জানাচ্ছি। তিনি বলেন, বাংলাদেশে চলমান রাজনৈতিক সহিংসতার ফলে সৃষ্ট ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে গত সপ্তাহে এক মুক্তমনা ব্লগার ও তার স্ত্রীর ওপর হামলার ঘটনা সর্বশেষ বেদনাদায়ক ঘটনা। তিনি আরও বলেন, অনেক শিশুসহ কমপক্ষে ৮০ জন মানুষ পেট্রলবোমা হামলা, রাজনৈতিক দলসমূহ ও নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন। তিনি আহ্বান জানান, সমাজ যেখানে সন্ত্রাসী কট্টরপন্থার বিরুদ্ধে লড়াই করছে সেখানে মানবাধিকারের নীতিতে অবহেলা করা উচিত নয় রাষ্ট্রের। যুদ্ধের ভয়াবহতা এড়ানোর জন্য জাতিসমূহ ৭০ বছর আগে বৈশ্বিক নিরাপত্তার জন্য একটি নীতি গ্রহণ করে। সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে যেসব ব্যবস্থা গৃহীত হচ্ছে তাতে ওই নীতির ওপর থেকে নীতিনির্ধারকরা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলবেন। এটা সত্যিকার অর্থে একটি মারাত্মক ঝুঁকি।(দৈনিক মানবজমিন)