নিউইয়র্ক ০১:০০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

এবার আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘নিলুফার’

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ১১:১২:২১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ অক্টোবর ২০১৪
  • / ১০৬১ বার পঠিত

এবার ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় নিলুফার। এর থাবা থেকে রক্ষা পেতে ভারত ঘূর্ণিঝড়ের আঘাত হানার সম্ভাব্য স্থান থেকে হাজার হাজার মানুষ সরিয়ে নিচ্ছে। পাকিস্তানও অনেক লোকজনকে সরিয়ে নেয়ার প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে।

নিলুফার ভারত সাগরে ঘন্টায় ২২০ কিলোমিটার বেগে বায়ু সঞ্চয় করে অগ্রসর হচ্ছে। গুজরাট থেকে এটি ৮৮০ কিলোমটিার দূরে অবস্থান করছে। গুজরাটের কুচ জেলার উপকূলে আঘাত হানতে পারে এই ঝড়।

শনিবার এটি ভারতের গুজরাট উপকূলে পৌঁছতে পৌঁছতে দুর্বল হয়ে পড়বে বলে জানিয়েছে ভারতের আবহাওয়া দপ্তর। দপ্তরের ওয়েবসাইটে বলা হয়, নিলুফার ঘন্টায় ৬০ থেকে ৭০ মাইল গতিবেগে উপকূল অতিক্রম করবে। ভারতীয় কর্মকর্তারা বলেছেন, তারা কোনো ঝুঁকি নিতে চান না।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, নিলুফারের প্রভাবে প্রবল বর্ষণ হতে পারে। ইতিমধ্যে পশ্চিম রাজস্থানে বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। এছাড়া জয়সলমির, বারমার ও জোধপুরেও ব্যাপক বর্ষণ হবে বলে জয়পুর আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে।

কুচ জেলার কর্মকর্তা এন এম প্যাটেল এএফপিকে বলেন, ‘আমরা ৩০ হাজার ৪শ’ লোককে সনাক্ত করেছি। তাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে।’ ভারতের জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘প্রয়োজনে ৫০ হাজার লোককে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিতে হতে পারে।’
ডন জানিয়েছে, পাকিস্তানে নিলুফারের মোকাবেলায় ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। সিন্ধুতে বিভিন্ন জেলায় জরুরি অবস্থা ঘোষনা করেছে রাজ্য সরকার। করাচির উপকুলীয় এলাকা থেকে লোকজনকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয়ার প্রস্তুতি নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

এবার আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘নিলুফার’

প্রকাশের সময় : ১১:১২:২১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ অক্টোবর ২০১৪

এবার ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় নিলুফার। এর থাবা থেকে রক্ষা পেতে ভারত ঘূর্ণিঝড়ের আঘাত হানার সম্ভাব্য স্থান থেকে হাজার হাজার মানুষ সরিয়ে নিচ্ছে। পাকিস্তানও অনেক লোকজনকে সরিয়ে নেয়ার প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে।

নিলুফার ভারত সাগরে ঘন্টায় ২২০ কিলোমিটার বেগে বায়ু সঞ্চয় করে অগ্রসর হচ্ছে। গুজরাট থেকে এটি ৮৮০ কিলোমটিার দূরে অবস্থান করছে। গুজরাটের কুচ জেলার উপকূলে আঘাত হানতে পারে এই ঝড়।

শনিবার এটি ভারতের গুজরাট উপকূলে পৌঁছতে পৌঁছতে দুর্বল হয়ে পড়বে বলে জানিয়েছে ভারতের আবহাওয়া দপ্তর। দপ্তরের ওয়েবসাইটে বলা হয়, নিলুফার ঘন্টায় ৬০ থেকে ৭০ মাইল গতিবেগে উপকূল অতিক্রম করবে। ভারতীয় কর্মকর্তারা বলেছেন, তারা কোনো ঝুঁকি নিতে চান না।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, নিলুফারের প্রভাবে প্রবল বর্ষণ হতে পারে। ইতিমধ্যে পশ্চিম রাজস্থানে বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। এছাড়া জয়সলমির, বারমার ও জোধপুরেও ব্যাপক বর্ষণ হবে বলে জয়পুর আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে।

কুচ জেলার কর্মকর্তা এন এম প্যাটেল এএফপিকে বলেন, ‘আমরা ৩০ হাজার ৪শ’ লোককে সনাক্ত করেছি। তাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে।’ ভারতের জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘প্রয়োজনে ৫০ হাজার লোককে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিতে হতে পারে।’
ডন জানিয়েছে, পাকিস্তানে নিলুফারের মোকাবেলায় ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। সিন্ধুতে বিভিন্ন জেলায় জরুরি অবস্থা ঘোষনা করেছে রাজ্য সরকার। করাচির উপকুলীয় এলাকা থেকে লোকজনকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয়ার প্রস্তুতি নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।