নিউইয়র্ক ০৬:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

আইসিটি পুরস্কার তরুণদের উৎসর্গ করলেন প্রধানমন্ত্রী

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০২:৩৩:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৫
  • / ৮২৫ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের মাঝে তথ্যপ্রযুক্তি প্রসারের স্বীকৃতিস্বরূপ আন্তর্জাতিক টেলিযোগাযোগ ইউনিয়নের (আইটিইউ) কাছ থেকে ‘আইসিটি টেকসই উন্নয়ন পুরস্কার’ গ্রহণ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পুরস্কারটি গ্রহণের পর তিনি বাংলাদেশের তরুণদের তা উৎসর্গ করেছেন।
নিউইয়র্কে স্থানীয় সময় শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় আইটিইউ’র মহাসচিব হুলিন ঝাও এই পুরস্কার তুলে দেন শেখ হাসিনার হাতে। জাতিসংঘ সদর দফতরে পুরস্কারজয়ীদের সম্মানে আয়োজন করা হয় বিশেষ নৈশভোজেরও।পুরস্কার গ্রহণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার যে কাজ করছি, তার তাৎপর্যপূর্ণ স্বীকৃতি এই পুরস্কার। আইটিইউকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, পুরস্কৃত হয়ে আমি গভীরভাবে সম্মানিত বোধ করছি।’
প্রধানমন্ত্রী বলেন, কেউ যাতে পিছিয়ে না পড়ে, সে জন্য দেশের সব নাগরিকের তথ্য-প্রযুক্তিতে প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করতে তাঁর সরকার কাজ করছে। তিনি জ্ঞানভিত্তিক একটি টেকসই ভবিষ্যৎ গড়ার ক্ষেত্রে সব বাধা দূর করতে সবার সহযোগিতা চান।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকার দেশের প্রতিটি নাগরিকের কাছে তথ্য প্রযুক্তির সেবা পৌঁছে দিতে কাজ করছে, যাতে কেউ একজনও পিছিয়ে না থাকে। একটি টেকসই উন্নত ভবিষ্যত বিনির্মাণে সবাইকে হাতে হাত ধরে কাজ করে যাওয়ার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।
আইটিইউ’র ১৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এবছরই প্রথম আইসিটি অ্যাওয়ার্ড দেয়া হলো। জাতিসংঘে নতুনভাবে গৃহীত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনকে তরান্বিত করতে যাদের কার্যক্রম পাথেয় হয়ে থাকবে তাদেরই পুরস্কৃত করলো আইটিইউ। বিশ্বের আরো কয়েকটি দেশের রাষ্ট্র বা সরকার প্রধান, জাতিসংঘের বর্তমান ও অতীতের নেতৃত্বরা রয়েছেন এই তালিকায়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

আইসিটি পুরস্কার তরুণদের উৎসর্গ করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশের সময় : ০২:৩৩:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৫

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের মাঝে তথ্যপ্রযুক্তি প্রসারের স্বীকৃতিস্বরূপ আন্তর্জাতিক টেলিযোগাযোগ ইউনিয়নের (আইটিইউ) কাছ থেকে ‘আইসিটি টেকসই উন্নয়ন পুরস্কার’ গ্রহণ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পুরস্কারটি গ্রহণের পর তিনি বাংলাদেশের তরুণদের তা উৎসর্গ করেছেন।
নিউইয়র্কে স্থানীয় সময় শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় আইটিইউ’র মহাসচিব হুলিন ঝাও এই পুরস্কার তুলে দেন শেখ হাসিনার হাতে। জাতিসংঘ সদর দফতরে পুরস্কারজয়ীদের সম্মানে আয়োজন করা হয় বিশেষ নৈশভোজেরও।পুরস্কার গ্রহণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার যে কাজ করছি, তার তাৎপর্যপূর্ণ স্বীকৃতি এই পুরস্কার। আইটিইউকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, পুরস্কৃত হয়ে আমি গভীরভাবে সম্মানিত বোধ করছি।’
প্রধানমন্ত্রী বলেন, কেউ যাতে পিছিয়ে না পড়ে, সে জন্য দেশের সব নাগরিকের তথ্য-প্রযুক্তিতে প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করতে তাঁর সরকার কাজ করছে। তিনি জ্ঞানভিত্তিক একটি টেকসই ভবিষ্যৎ গড়ার ক্ষেত্রে সব বাধা দূর করতে সবার সহযোগিতা চান।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকার দেশের প্রতিটি নাগরিকের কাছে তথ্য প্রযুক্তির সেবা পৌঁছে দিতে কাজ করছে, যাতে কেউ একজনও পিছিয়ে না থাকে। একটি টেকসই উন্নত ভবিষ্যত বিনির্মাণে সবাইকে হাতে হাত ধরে কাজ করে যাওয়ার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।
আইটিইউ’র ১৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এবছরই প্রথম আইসিটি অ্যাওয়ার্ড দেয়া হলো। জাতিসংঘে নতুনভাবে গৃহীত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনকে তরান্বিত করতে যাদের কার্যক্রম পাথেয় হয়ে থাকবে তাদেরই পুরস্কৃত করলো আইটিইউ। বিশ্বের আরো কয়েকটি দেশের রাষ্ট্র বা সরকার প্রধান, জাতিসংঘের বর্তমান ও অতীতের নেতৃত্বরা রয়েছেন এই তালিকায়।