নিউইয়র্ক ১০:৩৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

সাংবাদিক ফাহিম মুনয়েম আর নেই

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৬:২১:৪৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১ জুন ২০১৬
  • / ৬৫১ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: সাবেক তত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখরুদ্দীন আহমেদের প্রেস সচিব এবং বেসরকারি মাছরাঙা টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী ও প্রধান সম্পাদক সৈয়দ ফাহিম মুনয়েম আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি ১ জুন বুধবার সকাল সোয়া ছয়টার দিকে (বাংলাদেশ সময়) রাজধানীর গুলশানে নিজ বাসভবনে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। সহকর্মীদের অনেকের কাছে তিনি ‘টিপু ভাই’ হিসেব পরিচিত ছিলেন। তিনি মরহুম সাংবাদিক সৈয়দ নুরুদ্দিনের পুত্র। ফাহিম মুনয়েম স্ত্রী, তিন ছেলে ও অসংখ্য শুভানুধ্যায়ী রেখে গেছেন।
মাছরাঙা টেলিভিশনের সর্বশেষ খবরে বলা হয়েছে, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ফাহিম মুনয়েম-এর মৃত্যু হয়। তার বয়স হয়েছিল প্রায় ৬৩ বছর। ফাহিম মুনয়েম ইতিপূর্বে ঢাকার বাংলা দৈনিক সংবাদ, ইংরেজী দৈনিক মর্নিং সান ও বার্তা সংস্থা ইউএনবিতে দীর্ঘদিন সাংবাদিকতা করেছেন। পরে তিনি ডেইলি স্টারের ব্যবস্থাপনা সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করেন। ২০০৭ সালে তিনি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের তৎকালীন প্রধান উপদেষ্টা ফখরুদ্দীন আহমেদের প্রেস সচিবের দায়িত্ব পান। দায়িত্ব শেষে আবার ডেইলি স্টারে ফেরেন। ২০১০ সালে মাছরাঙ্গা টেলিভিশনের যাত্রা শুরুর সময় তিনি সেখানে যোগ দেন।
সাংবাদিক ফাহিম মুনয়েম-এর মৃত্যুতে নিউইয়র্কে বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে সভাপতি আবু তাহের ও সাধারণ সম্পাদক এবিএম সালাহউদ্দিন আহমেদ এক বার্তায় গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করে মরহুমের বিদেহী আতœার শান্তি কামনা করেছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

সাংবাদিক ফাহিম মুনয়েম আর নেই

প্রকাশের সময় : ০৬:২১:৪৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১ জুন ২০১৬

নিউইয়র্ক: সাবেক তত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখরুদ্দীন আহমেদের প্রেস সচিব এবং বেসরকারি মাছরাঙা টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী ও প্রধান সম্পাদক সৈয়দ ফাহিম মুনয়েম আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি ১ জুন বুধবার সকাল সোয়া ছয়টার দিকে (বাংলাদেশ সময়) রাজধানীর গুলশানে নিজ বাসভবনে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। সহকর্মীদের অনেকের কাছে তিনি ‘টিপু ভাই’ হিসেব পরিচিত ছিলেন। তিনি মরহুম সাংবাদিক সৈয়দ নুরুদ্দিনের পুত্র। ফাহিম মুনয়েম স্ত্রী, তিন ছেলে ও অসংখ্য শুভানুধ্যায়ী রেখে গেছেন।
মাছরাঙা টেলিভিশনের সর্বশেষ খবরে বলা হয়েছে, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ফাহিম মুনয়েম-এর মৃত্যু হয়। তার বয়স হয়েছিল প্রায় ৬৩ বছর। ফাহিম মুনয়েম ইতিপূর্বে ঢাকার বাংলা দৈনিক সংবাদ, ইংরেজী দৈনিক মর্নিং সান ও বার্তা সংস্থা ইউএনবিতে দীর্ঘদিন সাংবাদিকতা করেছেন। পরে তিনি ডেইলি স্টারের ব্যবস্থাপনা সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করেন। ২০০৭ সালে তিনি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের তৎকালীন প্রধান উপদেষ্টা ফখরুদ্দীন আহমেদের প্রেস সচিবের দায়িত্ব পান। দায়িত্ব শেষে আবার ডেইলি স্টারে ফেরেন। ২০১০ সালে মাছরাঙ্গা টেলিভিশনের যাত্রা শুরুর সময় তিনি সেখানে যোগ দেন।
সাংবাদিক ফাহিম মুনয়েম-এর মৃত্যুতে নিউইয়র্কে বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে সভাপতি আবু তাহের ও সাধারণ সম্পাদক এবিএম সালাহউদ্দিন আহমেদ এক বার্তায় গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করে মরহুমের বিদেহী আতœার শান্তি কামনা করেছেন।