নিউইয়র্ক ১২:১০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

দৈনিক জনকণ্ঠের সম্পাদক ও নির্বাহী সম্পাদককে অর্থদন্ড

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৭:০৬:০৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ অগাস্ট ২০১৫
  • / ৭৫১ বার পঠিত

ঢাকা: আদলত অবমাননার দায়ে দৈনিক জনকণ্ঠের সম্পাদক আতিকুল্লাহ মাসুদ ও নির্বাহী সম্পাদক স্বদেশ রায়কে দোষী সাব্যস্ত করেছে আদালত। একই সংগে আদালতের কার্যক্রম শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের এজলাস কক্ষে অবস্থানের দন্ড দেয়া হয়। আদালত অবমাননা আপিল বিভাগে প্রমাণিত হওয়ায় তাদের ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। এই টাকা কোনো দাতব্য সংস্থাকে প্রদান করার আদেশ দেয় আপিল বিভাগ। ১৩ আগষ্ট বৃহস্পতিাবার সকাল ৯টা ৫৭ মিনিটে আপিল বিভাগের ছয় বিচারপতির বৃহত্তর বেঞ্চ এই আদেশ দেয়।
গত ২৯ জুলাই স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে জনকণ্ঠের সম্পাদক ও প্রকাশক মোহাম্মদ আতিক উল্লাহ খান মাসুদ ও নির্বাহী সম্পাদক স্বদেশ রায়ের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল জারি করে আপিল বিভাগ। ‘সাকার পরিবারের তৎপরতা : পালাবার পথ কমে গেছে’ শিরোনামে গত ১৬ জুলাই প্রকাশিত নিবন্ধের জন্য তাদের তলবের পাশাপাশি রুল জারি করা হয়। এই রুলের উপর রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও জনকণ্ঠের পক্ষে অ্যাডভোকেট সালাউদ্দিন দোলন শুনানি করেন।
এদিকে আদালত রায়ে বলেছে, ১৯২৬ সালের প্রণীত আদালত অবমাননার আইন যুগোপযোগী করতে হবে। একই সঙ্গে বলা হয়, এই সময়ে বিভিন্ন গণমাধ্যম ও টকশোতে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হচ্ছে। এই বিষয়গুলোর পরিপ্রেক্ষিতে আদালত মনে করে যে, গঠনমূলক সমালোচনা করা যাবে। কিন্তু দেখতে হবে কোনো আইন যেন ভঙ্গ না হয়।(দৈনিক ইত্তেফাক)

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

দৈনিক জনকণ্ঠের সম্পাদক ও নির্বাহী সম্পাদককে অর্থদন্ড

প্রকাশের সময় : ০৭:০৬:০৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ অগাস্ট ২০১৫

ঢাকা: আদলত অবমাননার দায়ে দৈনিক জনকণ্ঠের সম্পাদক আতিকুল্লাহ মাসুদ ও নির্বাহী সম্পাদক স্বদেশ রায়কে দোষী সাব্যস্ত করেছে আদালত। একই সংগে আদালতের কার্যক্রম শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের এজলাস কক্ষে অবস্থানের দন্ড দেয়া হয়। আদালত অবমাননা আপিল বিভাগে প্রমাণিত হওয়ায় তাদের ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। এই টাকা কোনো দাতব্য সংস্থাকে প্রদান করার আদেশ দেয় আপিল বিভাগ। ১৩ আগষ্ট বৃহস্পতিাবার সকাল ৯টা ৫৭ মিনিটে আপিল বিভাগের ছয় বিচারপতির বৃহত্তর বেঞ্চ এই আদেশ দেয়।
গত ২৯ জুলাই স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে জনকণ্ঠের সম্পাদক ও প্রকাশক মোহাম্মদ আতিক উল্লাহ খান মাসুদ ও নির্বাহী সম্পাদক স্বদেশ রায়ের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল জারি করে আপিল বিভাগ। ‘সাকার পরিবারের তৎপরতা : পালাবার পথ কমে গেছে’ শিরোনামে গত ১৬ জুলাই প্রকাশিত নিবন্ধের জন্য তাদের তলবের পাশাপাশি রুল জারি করা হয়। এই রুলের উপর রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও জনকণ্ঠের পক্ষে অ্যাডভোকেট সালাউদ্দিন দোলন শুনানি করেন।
এদিকে আদালত রায়ে বলেছে, ১৯২৬ সালের প্রণীত আদালত অবমাননার আইন যুগোপযোগী করতে হবে। একই সঙ্গে বলা হয়, এই সময়ে বিভিন্ন গণমাধ্যম ও টকশোতে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হচ্ছে। এই বিষয়গুলোর পরিপ্রেক্ষিতে আদালত মনে করে যে, গঠনমূলক সমালোচনা করা যাবে। কিন্তু দেখতে হবে কোনো আইন যেন ভঙ্গ না হয়।(দৈনিক ইত্তেফাক)