নিউইয়র্ক ০১:০৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজ জিততে বাংলাদেশের দরকার ১৯৯ রান

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ১০:৫৫:১০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ জুন ২০১৫
  • / ৭২৮ বার পঠিত

ঢাকা: বাংলাদেশের তরুণ পেসার মুস্তাফিজুর রহমানের বোলিং তোপে ৪৫ ওভারে ২০০ রানে অল আউট হয়েছে ধোনির ভারত। অভিষেক ম্যাচে ৬ উইকেট নিয়ে একাই ভারতের ব্যাটিং লাইনকে গুড়িয়ে দেন তরুণ এ পেসার। এদিকে ১৯৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। আর ১৯৯ রান করতে পারলেই সিরিজ জিতবে টাইগাররা রোববার (২১ জুন) মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জিতে ব্যাট করতে নেমে ৪৫ ওভারে ২০০ রানে অলআউট হয়ে যায় ভারত। ভারত ইনিংসের ৪৪তম ওভারে বৃষ্টি নামলে প্রায় দুই ঘণ্টা খেলা বন্ধ থাকে। আবার খেলা শুরু হলে ম্যাচের দৈর্ঘ্য নেমে আসে ৪৭ ওভারে। আর ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে জয়ের জন্য বাংলাদেশের লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৯৯ রান।
সর্বশেষ ১ উইকেট হারিয়ে ৭ ওভার ২ বলে ৩৯ রান সংগ্রহ করেছে টাইগাররা। ১৩ রান করে সাজঘরে ফিরে গেছেন তামিম ইকবাল। এদিকে সৌম্য সরকারের ব্যাট থেকে এসেছে ১৭ রান। আর লিটন দাশ করেছে ৫ রান।
মিরপুরে রোহিত শর্মাকে শূন্য রানে আউট করে উইকেট শিকারের মিশনে নামে ১৯ বছর বয়সী পেসার মুস্তাফিজ। প্রথম স্পেলে ওই একটি উইকেটই লাভ করেন তিনি। তবে দ্বিতীয় স্পেলে এসেই যেন আগুন ঝরতে থাকে তার বলে। আউট করেন সেট ব্যাটসম্যান রায়নাকে। ব্যক্তিগত ৩২ রান করে উইকেট রক্ষক লিটনের হাতে ধরা পড়েন রায়না। রায়নাকে আউট করার পরের ওভারেই আগের ম্যাচে ধাক্কা দেয়া ভারতের দলপতিকে সাজঘরে ফেরান মুস্তাফিজ। ধোনি ৪৭ রান করে আউট হয়ে যান। পরের বলেই প্যাটেলকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে হ্যাটট্রিকের সম্ভবনা জাগান বাংলাদেশের সম্ভাবনাময়ী এ পেসার। তবে হ্যাটট্রিক করতে না পারলেও পরের ওভারেই অশ্বিনকে সাজঘরে ফিরিয়ে টানা দুই ম্যাচে ৫ উইকেট লাভের গৌরব অর্জন করেন মুস্তাফিজ। নিজের ব্যাক্তিগত শেষ ওভারে রবিন্দ্র জাদেজাকে ১৯ রানে বোল্ড করে ৬ষ্ঠ উইকেট তুলে নেন।
এদিন রাহানের পরিবর্তে দলে জায়গা পাওয়া রাইডু কোনো রান না করেই রুবেলের বলে আউট হয়ে যান। শেষ দিকে ভুবেনেশ্বর কুমারকে আউট করে নিজের দ্বিতীয় শিকার তুলে নেন রুবেল। এর আগে শেখর ধাওয়ানকে আউট করে নিজের দ্বিতীয় উইকেট তুলে নেন নাসির হোসেন। বিরাট কোহলির পর বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম অর্ধশতক করা শেখর ধাওয়ানকে আউট করেন তিনি। ৫৩ রান করা ধাওয়ান উইকেট রক্ষক লিটনের হাতে ধরা পড়েন। এর আগে ধাওয়ান-কোহলির মধ্যে গড়ে ওঠা ৭৪ রানের এক বিপদজনক জুটি ভাঙেন নাসির হোসেন। বিরাট কোহলিকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে সাজঘরে পাঠান নাসির। আউট হওয়ার আগে ব্যক্তিগত ২৩ রান সংগ্রহ করেন কোহলি।
রোববার মিরপুরে শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের বিপক্ষে দ্বিতীয় একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় ভারত। এদিকে বৃষ্টির কারণে ৩ ওভার কমিয়ে ৪৭ ওভারে ম্যাচ নির্ধারণ করে আম্পায়াররা।
প্রথম ওয়ানডেতে ভারতকে ৭৯ রানে হারিয়ে ১-০ তে এগিয়ে রয়েছে টাইগাররা। আজ জিতলেই প্রথমবারের মতো ভারতের বিপক্ষে সিরিজ জিতবে বাংলাদেশ। (দৈনিক যুগান্তর)

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজ জিততে বাংলাদেশের দরকার ১৯৯ রান

প্রকাশের সময় : ১০:৫৫:১০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ জুন ২০১৫

ঢাকা: বাংলাদেশের তরুণ পেসার মুস্তাফিজুর রহমানের বোলিং তোপে ৪৫ ওভারে ২০০ রানে অল আউট হয়েছে ধোনির ভারত। অভিষেক ম্যাচে ৬ উইকেট নিয়ে একাই ভারতের ব্যাটিং লাইনকে গুড়িয়ে দেন তরুণ এ পেসার। এদিকে ১৯৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। আর ১৯৯ রান করতে পারলেই সিরিজ জিতবে টাইগাররা রোববার (২১ জুন) মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জিতে ব্যাট করতে নেমে ৪৫ ওভারে ২০০ রানে অলআউট হয়ে যায় ভারত। ভারত ইনিংসের ৪৪তম ওভারে বৃষ্টি নামলে প্রায় দুই ঘণ্টা খেলা বন্ধ থাকে। আবার খেলা শুরু হলে ম্যাচের দৈর্ঘ্য নেমে আসে ৪৭ ওভারে। আর ডাকওয়ার্থ ও লুইস পদ্ধতিতে জয়ের জন্য বাংলাদেশের লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৯৯ রান।
সর্বশেষ ১ উইকেট হারিয়ে ৭ ওভার ২ বলে ৩৯ রান সংগ্রহ করেছে টাইগাররা। ১৩ রান করে সাজঘরে ফিরে গেছেন তামিম ইকবাল। এদিকে সৌম্য সরকারের ব্যাট থেকে এসেছে ১৭ রান। আর লিটন দাশ করেছে ৫ রান।
মিরপুরে রোহিত শর্মাকে শূন্য রানে আউট করে উইকেট শিকারের মিশনে নামে ১৯ বছর বয়সী পেসার মুস্তাফিজ। প্রথম স্পেলে ওই একটি উইকেটই লাভ করেন তিনি। তবে দ্বিতীয় স্পেলে এসেই যেন আগুন ঝরতে থাকে তার বলে। আউট করেন সেট ব্যাটসম্যান রায়নাকে। ব্যক্তিগত ৩২ রান করে উইকেট রক্ষক লিটনের হাতে ধরা পড়েন রায়না। রায়নাকে আউট করার পরের ওভারেই আগের ম্যাচে ধাক্কা দেয়া ভারতের দলপতিকে সাজঘরে ফেরান মুস্তাফিজ। ধোনি ৪৭ রান করে আউট হয়ে যান। পরের বলেই প্যাটেলকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে হ্যাটট্রিকের সম্ভবনা জাগান বাংলাদেশের সম্ভাবনাময়ী এ পেসার। তবে হ্যাটট্রিক করতে না পারলেও পরের ওভারেই অশ্বিনকে সাজঘরে ফিরিয়ে টানা দুই ম্যাচে ৫ উইকেট লাভের গৌরব অর্জন করেন মুস্তাফিজ। নিজের ব্যাক্তিগত শেষ ওভারে রবিন্দ্র জাদেজাকে ১৯ রানে বোল্ড করে ৬ষ্ঠ উইকেট তুলে নেন।
এদিন রাহানের পরিবর্তে দলে জায়গা পাওয়া রাইডু কোনো রান না করেই রুবেলের বলে আউট হয়ে যান। শেষ দিকে ভুবেনেশ্বর কুমারকে আউট করে নিজের দ্বিতীয় শিকার তুলে নেন রুবেল। এর আগে শেখর ধাওয়ানকে আউট করে নিজের দ্বিতীয় উইকেট তুলে নেন নাসির হোসেন। বিরাট কোহলির পর বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম অর্ধশতক করা শেখর ধাওয়ানকে আউট করেন তিনি। ৫৩ রান করা ধাওয়ান উইকেট রক্ষক লিটনের হাতে ধরা পড়েন। এর আগে ধাওয়ান-কোহলির মধ্যে গড়ে ওঠা ৭৪ রানের এক বিপদজনক জুটি ভাঙেন নাসির হোসেন। বিরাট কোহলিকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে সাজঘরে পাঠান নাসির। আউট হওয়ার আগে ব্যক্তিগত ২৩ রান সংগ্রহ করেন কোহলি।
রোববার মিরপুরে শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের বিপক্ষে দ্বিতীয় একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় ভারত। এদিকে বৃষ্টির কারণে ৩ ওভার কমিয়ে ৪৭ ওভারে ম্যাচ নির্ধারণ করে আম্পায়াররা।
প্রথম ওয়ানডেতে ভারতকে ৭৯ রানে হারিয়ে ১-০ তে এগিয়ে রয়েছে টাইগাররা। আজ জিতলেই প্রথমবারের মতো ভারতের বিপক্ষে সিরিজ জিতবে বাংলাদেশ। (দৈনিক যুগান্তর)