নিউইয়র্ক ০৯:৫২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

বিশ্বকাপ মিশন শেষে ঢাকায় টাইগাররা ॥ ভালোবাসায় সিক্ত মাশরাফিরা

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ১১:৪৮:০৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৩ মার্চ ২০১৫
  • / ৬৯৫ বার পঠিত

ঢাকা: মাথার ওপর বসন্তের গগনে সূর্য। পিচ ঢালা পথে সে সূয্যরশ্মি জন্ম দিচ্ছে উত্তপ্ত আগুনের। তারই মাঝে রাস্তার দু’ধারে দাঁড়িয়ে সারি সারি মানুষ। ছেলে-বুড়ো, শিশু-কিশোর, নারী-পুরুষ। প্রায় প্রত্যেকের হাতেই শোভা পাচ্ছে ‘শাবাস বাংলাদেশ’ জাতীয় লেখা সম্বলিত প্লেকার্ড, মুখে মুখে স্লোগানে মুখরিত হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকাজুড়ে। বিমান বন্দরে অভ্যন্তরে মিডিয়া কর্মীদের অবস্থান বদলে দিয়েছে দৃশ্যপট। পুরো বিমানবন্দর জুড়ে জনসমুদ্র। সবারই দৃষ্টিতে ভালোবাসা আর শ্রদ্ধা। শরীর ঘামে সিক্ত যেন ভ্রƒক্ষেপই করছে না কেউ। অন্যান্য ফ্লাইটে করে আসা দেশি-বিদেশি সকলের মনেই তখন সেই প্রশ্নের উত্তর, ‘এজন্যই ক্রিকেটপাগল জাতি বলে বাংলাদেশকে’। হ্যাঁ, এই জমায়েত, ভিড়, গরমে গাদাগাদি আর চোখেমুখে প্রশান্তির ছাপ নিয়ে রাস্তায় দাঁড়ানো হাজারো বাঙালি আজ সেই বীর ক্রিকেটারদের বরণের জন্যই।
কখন বিমান থেকে নামবেন মাশরাফি-মুশফিকরা? যেন তর সইছিলনা কারো। অবশেষে এল সেই মহেন্দ্রক্ষণ, শেষ হলো অপেক্ষার প্রহর। উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্যে রোববার (২২ মার্চ) রাত পৌনে ৮ টার দিকে দেশের মাটিতে পা রাখেন মাশরাফিরা। বিমানবন্দরেই ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয় বিশ্বকাপে মন জয়কার বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে। বীর ক্রিকেটারদের বরণ করে নিতে এ সময় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কয়েকজন পরিচালক ও মিডিয়া কর্মীদের পাশাপাশি বিপুল সংখ্যক ভক্ত ভিড় জমিয়েছেন বিমান বন্দরে; উষ্ণ অভ্যর্থনায় বীর ক্রিকেটারদের বরণ করে নিয়েছেন তারা। দুই ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ও এনামুল হক বিজয় অবশ্য দলের সঙ্গে না এসে আগেই দেশে ফিরেছেন।
এর আগে বহুবার বিদেশ থেকে দেশে ফিরেছিলেন ক্রিকেটাররা। কিন্তু তখন অপেক্ষার রূপ ছিলো ভিন্ন। অথচ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে বড় ব্যবধানে হেরে ও ক্রিকেটারদের প্রতি ভালো বাসার বহিঃপ্রকাশ এর আগে খুবই কম দেখা গেছে। মাশরাফির নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ ক্রিকেট দল কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের কাছে রেফারিদের বিতর্কিত সিদ্ধান্তে পরাজয়ে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়ে। তবে এই পরাজয়ে নেই কোন লজ্জা। তাদের এই হার উল্টো ক্রিকেট সমর্থকদের মধ্যে বাড়িয়ে দিয়েছে আকর্ষণ। রোববার বিমান বন্দরে নারী-পুরুষ ক্রিকেট সমর্থকদের অপেক্ষাতেই সেটা পরিস্কার। ভারতের কাছে হারলেও প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার যোগ্যতাই বা কম কিসের। যা কিনা বাংলাদেশের প্রথম অর্জন। (দৈনিক ইনকিলাব)

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

বিশ্বকাপ মিশন শেষে ঢাকায় টাইগাররা ॥ ভালোবাসায় সিক্ত মাশরাফিরা

প্রকাশের সময় : ১১:৪৮:০৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৩ মার্চ ২০১৫

ঢাকা: মাথার ওপর বসন্তের গগনে সূর্য। পিচ ঢালা পথে সে সূয্যরশ্মি জন্ম দিচ্ছে উত্তপ্ত আগুনের। তারই মাঝে রাস্তার দু’ধারে দাঁড়িয়ে সারি সারি মানুষ। ছেলে-বুড়ো, শিশু-কিশোর, নারী-পুরুষ। প্রায় প্রত্যেকের হাতেই শোভা পাচ্ছে ‘শাবাস বাংলাদেশ’ জাতীয় লেখা সম্বলিত প্লেকার্ড, মুখে মুখে স্লোগানে মুখরিত হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকাজুড়ে। বিমান বন্দরে অভ্যন্তরে মিডিয়া কর্মীদের অবস্থান বদলে দিয়েছে দৃশ্যপট। পুরো বিমানবন্দর জুড়ে জনসমুদ্র। সবারই দৃষ্টিতে ভালোবাসা আর শ্রদ্ধা। শরীর ঘামে সিক্ত যেন ভ্রƒক্ষেপই করছে না কেউ। অন্যান্য ফ্লাইটে করে আসা দেশি-বিদেশি সকলের মনেই তখন সেই প্রশ্নের উত্তর, ‘এজন্যই ক্রিকেটপাগল জাতি বলে বাংলাদেশকে’। হ্যাঁ, এই জমায়েত, ভিড়, গরমে গাদাগাদি আর চোখেমুখে প্রশান্তির ছাপ নিয়ে রাস্তায় দাঁড়ানো হাজারো বাঙালি আজ সেই বীর ক্রিকেটারদের বরণের জন্যই।
কখন বিমান থেকে নামবেন মাশরাফি-মুশফিকরা? যেন তর সইছিলনা কারো। অবশেষে এল সেই মহেন্দ্রক্ষণ, শেষ হলো অপেক্ষার প্রহর। উৎসবমুখর পরিবেশের মধ্যে রোববার (২২ মার্চ) রাত পৌনে ৮ টার দিকে দেশের মাটিতে পা রাখেন মাশরাফিরা। বিমানবন্দরেই ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয় বিশ্বকাপে মন জয়কার বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে। বীর ক্রিকেটারদের বরণ করে নিতে এ সময় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কয়েকজন পরিচালক ও মিডিয়া কর্মীদের পাশাপাশি বিপুল সংখ্যক ভক্ত ভিড় জমিয়েছেন বিমান বন্দরে; উষ্ণ অভ্যর্থনায় বীর ক্রিকেটারদের বরণ করে নিয়েছেন তারা। দুই ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ও এনামুল হক বিজয় অবশ্য দলের সঙ্গে না এসে আগেই দেশে ফিরেছেন।
এর আগে বহুবার বিদেশ থেকে দেশে ফিরেছিলেন ক্রিকেটাররা। কিন্তু তখন অপেক্ষার রূপ ছিলো ভিন্ন। অথচ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে বড় ব্যবধানে হেরে ও ক্রিকেটারদের প্রতি ভালো বাসার বহিঃপ্রকাশ এর আগে খুবই কম দেখা গেছে। মাশরাফির নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ ক্রিকেট দল কোয়ার্টার ফাইনালে ভারতের কাছে রেফারিদের বিতর্কিত সিদ্ধান্তে পরাজয়ে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়ে। তবে এই পরাজয়ে নেই কোন লজ্জা। তাদের এই হার উল্টো ক্রিকেট সমর্থকদের মধ্যে বাড়িয়ে দিয়েছে আকর্ষণ। রোববার বিমান বন্দরে নারী-পুরুষ ক্রিকেট সমর্থকদের অপেক্ষাতেই সেটা পরিস্কার। ভারতের কাছে হারলেও প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার যোগ্যতাই বা কম কিসের। যা কিনা বাংলাদেশের প্রথম অর্জন। (দৈনিক ইনকিলাব)