নিউইয়র্ক ০৩:৪৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

বিদায়ে শিরোপার উৎসব

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ১১:০৮:৪৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৩ মে ২০১৬
  • / ৮৭৬ বার পঠিত

ঢাকা: চার দেশে ভিন্ন চারটি কাপ ফাইনাল, ম্যাচের আগে তিনটিকেই ঘিরে বাজছিল বিদায়রাগিণী। কারও কোচ, কারও প্রিয় খেলোয়াড়ের বিদায়ী ম্যাচ। অদ্ভুত সুন্দর একটা মিল ছিল শেষেও। তিনটিতেই হাসি ফুটেছে বিদায় নিতে যাওয়া কোচ বা খেলোয়াড়ের মুখে।
সবচেয়ে বেশি আলোচনা ছিল জার্মান কাপ ফাইনালকে ঘিরে। সেটিই স্বাভাবিক, বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে ম্যাচটি ছিল বায়ার্ন মিউনিখের ডাগ-আউটে পেপ গার্দিওলার শেষ। লিগ আগেই জেতা হয়ে গিয়েছিল, টাইব্রেকারে ডর্টমুন্ডকে ৪-৩ গোলে হারিয়ে ‘ডাবল’ জয়ের আনন্দ নিয়ে জার্মানি ছাড়লেন স্প্যানিশ কোচ। তিন বছরে সাতটি ট্রফি জয়ের আনন্দ নিয়ে তাঁর নতুন গন্তব্য ম্যানচেস্টার সিটি।
উৎসবে শেষ হলেও ম্যাচটা গার্দিওলার বায়ার্ন-রাজত্বের সঙ্গে মেলেনি। জার্মান দুই পরাশক্তির ম্যাড়মেড়ে ফাইনালটা ১২০ মিনিট পরও রইল গোলশূন্য। গার্দিওলা তবু নির্বিকার, নিয়মিত ছোটাছুটি নেই, নেই নোটবইয়ে টুকে রাখার ব্যস্ততা। এই খেলোয়াড়দের আর কিছু শেখানোর নেই তাঁর! বিজয়ের আনন্দে গার্দিওলার কান্নাতেও হয়তো মিশে ছিল এই শূন্যতার অনুভূতি। ম্যাচ শেষে স্কাই স্পোর্টসকে বললেনও, ‘অসাধারণ তিনটি বছর কাটিয়েছি ক্লাবটিতে। এই খেলোয়াড়দের অনেক মনে পড়বে।’
গার্দিওলার মতো মোটেই ভালো যায়নি তাঁর সময়টা, তবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে সম্ভাব্য বিদায়ী ম্যাচটা এফএ কাপের শিরোপা উৎসবে রাঙিয়েছেন লুই ফন গালও। দুই বছরে ইউনাইটেডে এটিই ডাচ কোচের প্রথম শিরোপা। ক্রিস্টাল প্যালেসের সঙ্গে নির্ধারিত ৯০ মিনিট ১-১ গোলে সমতা, অতিরিক্ত সময়ে জেসি লিনগার্ডের গোলে নিশ্চিত হয় জয়। তবে রঙিন উৎসবটাও একটু বিবর্ণ হয়ে গেছে তাঁর বিদায়ের খবরে।
বিদায়ের কথা হচ্ছে, সেখানে ইব্রাহিমোভিচের কথা না এসে পারে! নিজের মতো করেই ইব্রাহিমোভিচ জানিয়েছিলেন, ‘কিংবদন্তি’র মতো পিএসজি ছাড়বেন। কথা রেখেছেন সুইডিশ স্ট্রাইকার, মার্শেইয়ের বিপক্ষে ক্যুপ দো ফ্রান্সের ফাইনালে পিএসজির ৪-২ গোলে জয়ে করেছেন জোড়া গোল।
এই তিন মহারথীর বিদায়ের আবহে একটু আড়ালে চলে গিয়েছিল ইতালিয়ান কাপ ফাইনাল। যদিও সেখানে নীরবে বাজছিল একটি ‘বিদায়ের’ সুর ছিল। এসি মিলানের বিপক্ষে অতিরিক্ত সময়ে গোল করে জুভেন্টাসকে জিতিয়েছেন আলভারো মোরাতা (১-০)। ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নদের জার্সিতে স্প্যানিশ স্ট্রাইকারের শেষ ম্যাচ হতে পারে এটি। যাওয়ার আগে ক্লাবকে ‘ইতালিয়ান ডাবল’ জিতিয়েই তিনি বিদায় নিলেন। ইএসপিএন।

Tag :

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

বিদায়ে শিরোপার উৎসব

প্রকাশের সময় : ১১:০৮:৪৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৩ মে ২০১৬

ঢাকা: চার দেশে ভিন্ন চারটি কাপ ফাইনাল, ম্যাচের আগে তিনটিকেই ঘিরে বাজছিল বিদায়রাগিণী। কারও কোচ, কারও প্রিয় খেলোয়াড়ের বিদায়ী ম্যাচ। অদ্ভুত সুন্দর একটা মিল ছিল শেষেও। তিনটিতেই হাসি ফুটেছে বিদায় নিতে যাওয়া কোচ বা খেলোয়াড়ের মুখে।
সবচেয়ে বেশি আলোচনা ছিল জার্মান কাপ ফাইনালকে ঘিরে। সেটিই স্বাভাবিক, বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে ম্যাচটি ছিল বায়ার্ন মিউনিখের ডাগ-আউটে পেপ গার্দিওলার শেষ। লিগ আগেই জেতা হয়ে গিয়েছিল, টাইব্রেকারে ডর্টমুন্ডকে ৪-৩ গোলে হারিয়ে ‘ডাবল’ জয়ের আনন্দ নিয়ে জার্মানি ছাড়লেন স্প্যানিশ কোচ। তিন বছরে সাতটি ট্রফি জয়ের আনন্দ নিয়ে তাঁর নতুন গন্তব্য ম্যানচেস্টার সিটি।
উৎসবে শেষ হলেও ম্যাচটা গার্দিওলার বায়ার্ন-রাজত্বের সঙ্গে মেলেনি। জার্মান দুই পরাশক্তির ম্যাড়মেড়ে ফাইনালটা ১২০ মিনিট পরও রইল গোলশূন্য। গার্দিওলা তবু নির্বিকার, নিয়মিত ছোটাছুটি নেই, নেই নোটবইয়ে টুকে রাখার ব্যস্ততা। এই খেলোয়াড়দের আর কিছু শেখানোর নেই তাঁর! বিজয়ের আনন্দে গার্দিওলার কান্নাতেও হয়তো মিশে ছিল এই শূন্যতার অনুভূতি। ম্যাচ শেষে স্কাই স্পোর্টসকে বললেনও, ‘অসাধারণ তিনটি বছর কাটিয়েছি ক্লাবটিতে। এই খেলোয়াড়দের অনেক মনে পড়বে।’
গার্দিওলার মতো মোটেই ভালো যায়নি তাঁর সময়টা, তবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে সম্ভাব্য বিদায়ী ম্যাচটা এফএ কাপের শিরোপা উৎসবে রাঙিয়েছেন লুই ফন গালও। দুই বছরে ইউনাইটেডে এটিই ডাচ কোচের প্রথম শিরোপা। ক্রিস্টাল প্যালেসের সঙ্গে নির্ধারিত ৯০ মিনিট ১-১ গোলে সমতা, অতিরিক্ত সময়ে জেসি লিনগার্ডের গোলে নিশ্চিত হয় জয়। তবে রঙিন উৎসবটাও একটু বিবর্ণ হয়ে গেছে তাঁর বিদায়ের খবরে।
বিদায়ের কথা হচ্ছে, সেখানে ইব্রাহিমোভিচের কথা না এসে পারে! নিজের মতো করেই ইব্রাহিমোভিচ জানিয়েছিলেন, ‘কিংবদন্তি’র মতো পিএসজি ছাড়বেন। কথা রেখেছেন সুইডিশ স্ট্রাইকার, মার্শেইয়ের বিপক্ষে ক্যুপ দো ফ্রান্সের ফাইনালে পিএসজির ৪-২ গোলে জয়ে করেছেন জোড়া গোল।
এই তিন মহারথীর বিদায়ের আবহে একটু আড়ালে চলে গিয়েছিল ইতালিয়ান কাপ ফাইনাল। যদিও সেখানে নীরবে বাজছিল একটি ‘বিদায়ের’ সুর ছিল। এসি মিলানের বিপক্ষে অতিরিক্ত সময়ে গোল করে জুভেন্টাসকে জিতিয়েছেন আলভারো মোরাতা (১-০)। ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নদের জার্সিতে স্প্যানিশ স্ট্রাইকারের শেষ ম্যাচ হতে পারে এটি। যাওয়ার আগে ক্লাবকে ‘ইতালিয়ান ডাবল’ জিতিয়েই তিনি বিদায় নিলেন। ইএসপিএন।