নিউইয়র্ক ১১:০৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

পাঁচ সপ্তাহ পর পুনরায় খেলা শুরু : মাঠে হাতাহাতি : ব্রঙ্কস স্টারের প্রথম পরাজয় : বাবলুর হ্যাট্রিক

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৯:৩০:১২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১ অগাস্ট ২০১৫
  • / ৮৩৪ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশ স্পোর্টস কাউন্সিল অব আমেরিকা আয়োজিত চলতি বছরের ফুটবল লীগের খেলা পুনরায় শুরু হয়েছে। পবিত্র রমজান মাস ও ঈদুল ফিতরের জন্য পঞ্চম সপ্তাহ বন্ধ থাকার পর ২৬ জুলাই রোববার অনুষ্ঠিত লীগের খেলা খেলায় আইসাব, যুব সংঘ, ব্রঙ্কস ইউনাইটেড ও ওজনপার্ক এফসি জয়লাভ করে পূর্ণ পয়েন্ট অর্জন করেছে। এদিকে চলতি লীগে এই প্রথম পরাজিত হয়েছে ব্রঙ্কস স্টার। সিটির কুইন্স বরোর নিউ টাউন অ্যাথলেটিক মাঠে এদিন বিকেলে লীগের চারটি খেলা অনুষ্ঠিত হয়। অপরদিকে যুব সংঘ ও ব্রঙ্কস ওরিয়র-এর মধ্যকার খেলায় অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। মাঠে অখেলোয়ারী সুলভ আচরণের জন্য উভয় দলের দুই খেলোয়ারকে লাল কার্ড পেতে হয়। খবর ইউএনএ’র।
দিনের প্রথম খেলায় প্রথম খেলায় আইসাব ২-১ গোলে সোনার বাংলা-কে পরাজিত করে। গোল তিনটি হয় খেলার প্রথমার্ধেই। খেলা শুরু হতে না হতেই সংঘবন্ধ আক্রমণ থকে ২ মিনিটের মাথায় আইসাব-এর পক্ষে মিলাদ প্রথম গোল করেন (১-০)। এরপর এই অর্ধের ৭ মিনিটের মাথায় পাল্টা আক্রমণ থেকে সোনার পক্ষে তৌহিদ পরিশোধ করে খেলায় সমতা আনেন (১-১)। প্রথমার্ধের ১০ মিনিটের সময় আইসাব-এর সাগর গোল করে দলকে এগিয়ে নিয়ে যান (২-১)। শেষ পর্যন্ত আর গোন গোল না হওয়ায় আইসাব ২-১ গোলে জয়ী হয়ে পূর্ণ পয়েন্ট অর্জন করে।
দিনের দ্বিতীয় খেলায় যুব সংঘ ৭-০ গোলে ব্রঙ্কস ওরিয়রকে পরাজিত করে। এই খেলায় যুব সংঘের ধারে-কাছেই ভীড়তে পারেনি ব্রঙ্কস ওয়ারিয়র। একচেটিয়া প্রাধান্য বিস্তার করে খেলে যুব সংঘ গোলের বন্যা বয়ে দেয়। বিজয়ী দলের পক্ষে খেলার প্রথমার্ধের ৬ মিনিটের সময় সোহেল, ১০ মিনিটের সময় বাবলু, ১৬ মিনিটের সময় আশরাফ ও ১৮ মিনিটের সময় বাবলু করেন। এরপর দ্বিতীয়ার্ধের ৩০ মিনিটের সময় ফারহান, ৩২ মিনিটের সময় বাবুল এবং ৩৫ মিনিটের সময় ফারহান গোল করেন। এই খেলায় যুব সংঘের বাবলু হ্যাট্রিক করার গৌরব অর্জন করেন। এদিকে খেলা শেষ হওয়ার কয়েক মিনিট আগে একটি ফাউলকে কেন্দ্র করে মাঠে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। পরে স্পোর্টস কাউন্সিলের কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রিত হয় এবং পুনরায় খেলা শুরু ও শেষ হয়। খেলায় অখেলোয়ারী সুলভ আচরণের জন্য যুব সংঘের আশরাফ ও ব্রঙ্কস ওয়ারিয়র-এর সুমনকে লালকার্ড প্রদর্শণ করা হয়।
দিনের তৃতীয় খেলায় ব্রঙ্কস ইউনাইড ১-০ গোলে সন্দ্বীপ ম্পোটিং ক্লাবকে পরাজিত করে। বিজয়ী দলের পক্ষে খেলার শুরুতেই অর্থাৎ ২ মিনিটের সময় জয় সূচক গোলটি করেন জামাল। তবে খেলায় আক্রমন-পাল্টা আক্রমন থাকলেও উভয় দল একাধিক গোলের সুযোগ নষ্ট করে।
দিনের চতুর্থ খেলায় ওজন পার্ক এফসি ১-০ গোলে ব্রঙ্কস স্টারকে পরাজিত করে। খেলার ৭ মিনিটের সময় একটি ফাউল থেকে পেনাল্টি শটের সুযোগ পায় ওজনপার্ক এফসি। দলের পক্ষে জামান শট নিয়ে জয় সূচক গোলটি করেন। এরপর আক্রমন-পাল্টা আক্রমনের মধ্য দিয়ে খেলাটি এগিয়ে চললেও শেষ পর্যন্ত আর কোন গোল হয়নি। ফলে ১-০ গোলেই জিতে পূর্ণ পয়েন্ট অর্জন করে ওজনপার্ক এফসি। খেলাটি ছিলো উপভোগ্য। এবারের লীগে ব্রঙ্কস স্টারের এটি ছিলো প্রথম হার।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

পাঁচ সপ্তাহ পর পুনরায় খেলা শুরু : মাঠে হাতাহাতি : ব্রঙ্কস স্টারের প্রথম পরাজয় : বাবলুর হ্যাট্রিক

প্রকাশের সময় : ০৯:৩০:১২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১ অগাস্ট ২০১৫

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশ স্পোর্টস কাউন্সিল অব আমেরিকা আয়োজিত চলতি বছরের ফুটবল লীগের খেলা পুনরায় শুরু হয়েছে। পবিত্র রমজান মাস ও ঈদুল ফিতরের জন্য পঞ্চম সপ্তাহ বন্ধ থাকার পর ২৬ জুলাই রোববার অনুষ্ঠিত লীগের খেলা খেলায় আইসাব, যুব সংঘ, ব্রঙ্কস ইউনাইটেড ও ওজনপার্ক এফসি জয়লাভ করে পূর্ণ পয়েন্ট অর্জন করেছে। এদিকে চলতি লীগে এই প্রথম পরাজিত হয়েছে ব্রঙ্কস স্টার। সিটির কুইন্স বরোর নিউ টাউন অ্যাথলেটিক মাঠে এদিন বিকেলে লীগের চারটি খেলা অনুষ্ঠিত হয়। অপরদিকে যুব সংঘ ও ব্রঙ্কস ওরিয়র-এর মধ্যকার খেলায় অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। মাঠে অখেলোয়ারী সুলভ আচরণের জন্য উভয় দলের দুই খেলোয়ারকে লাল কার্ড পেতে হয়। খবর ইউএনএ’র।
দিনের প্রথম খেলায় প্রথম খেলায় আইসাব ২-১ গোলে সোনার বাংলা-কে পরাজিত করে। গোল তিনটি হয় খেলার প্রথমার্ধেই। খেলা শুরু হতে না হতেই সংঘবন্ধ আক্রমণ থকে ২ মিনিটের মাথায় আইসাব-এর পক্ষে মিলাদ প্রথম গোল করেন (১-০)। এরপর এই অর্ধের ৭ মিনিটের মাথায় পাল্টা আক্রমণ থেকে সোনার পক্ষে তৌহিদ পরিশোধ করে খেলায় সমতা আনেন (১-১)। প্রথমার্ধের ১০ মিনিটের সময় আইসাব-এর সাগর গোল করে দলকে এগিয়ে নিয়ে যান (২-১)। শেষ পর্যন্ত আর গোন গোল না হওয়ায় আইসাব ২-১ গোলে জয়ী হয়ে পূর্ণ পয়েন্ট অর্জন করে।
দিনের দ্বিতীয় খেলায় যুব সংঘ ৭-০ গোলে ব্রঙ্কস ওরিয়রকে পরাজিত করে। এই খেলায় যুব সংঘের ধারে-কাছেই ভীড়তে পারেনি ব্রঙ্কস ওয়ারিয়র। একচেটিয়া প্রাধান্য বিস্তার করে খেলে যুব সংঘ গোলের বন্যা বয়ে দেয়। বিজয়ী দলের পক্ষে খেলার প্রথমার্ধের ৬ মিনিটের সময় সোহেল, ১০ মিনিটের সময় বাবলু, ১৬ মিনিটের সময় আশরাফ ও ১৮ মিনিটের সময় বাবলু করেন। এরপর দ্বিতীয়ার্ধের ৩০ মিনিটের সময় ফারহান, ৩২ মিনিটের সময় বাবুল এবং ৩৫ মিনিটের সময় ফারহান গোল করেন। এই খেলায় যুব সংঘের বাবলু হ্যাট্রিক করার গৌরব অর্জন করেন। এদিকে খেলা শেষ হওয়ার কয়েক মিনিট আগে একটি ফাউলকে কেন্দ্র করে মাঠে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। পরে স্পোর্টস কাউন্সিলের কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রিত হয় এবং পুনরায় খেলা শুরু ও শেষ হয়। খেলায় অখেলোয়ারী সুলভ আচরণের জন্য যুব সংঘের আশরাফ ও ব্রঙ্কস ওয়ারিয়র-এর সুমনকে লালকার্ড প্রদর্শণ করা হয়।
দিনের তৃতীয় খেলায় ব্রঙ্কস ইউনাইড ১-০ গোলে সন্দ্বীপ ম্পোটিং ক্লাবকে পরাজিত করে। বিজয়ী দলের পক্ষে খেলার শুরুতেই অর্থাৎ ২ মিনিটের সময় জয় সূচক গোলটি করেন জামাল। তবে খেলায় আক্রমন-পাল্টা আক্রমন থাকলেও উভয় দল একাধিক গোলের সুযোগ নষ্ট করে।
দিনের চতুর্থ খেলায় ওজন পার্ক এফসি ১-০ গোলে ব্রঙ্কস স্টারকে পরাজিত করে। খেলার ৭ মিনিটের সময় একটি ফাউল থেকে পেনাল্টি শটের সুযোগ পায় ওজনপার্ক এফসি। দলের পক্ষে জামান শট নিয়ে জয় সূচক গোলটি করেন। এরপর আক্রমন-পাল্টা আক্রমনের মধ্য দিয়ে খেলাটি এগিয়ে চললেও শেষ পর্যন্ত আর কোন গোল হয়নি। ফলে ১-০ গোলেই জিতে পূর্ণ পয়েন্ট অর্জন করে ওজনপার্ক এফসি। খেলাটি ছিলো উপভোগ্য। এবারের লীগে ব্রঙ্কস স্টারের এটি ছিলো প্রথম হার।