নিউইয়র্ক ১২:৪০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

ক্রিকেটের ইতিহাসের পাতায় মুস্তাাফিজ

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৪:২২:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জুন ২০১৫
  • / ৮৭৬ বার পঠিত

ঢাকা: বৃষ্টিতে খেলা থমকে ছিলো। অপেক্ষার প্রহর আর ফুরাতেই চায় না। বারবার মাঠে কাভার আসছে, যাচ্ছে। শেষ পর্যন্ত খেলা শুরু হলো। মুস্তাফিজুরের ১০ ওভারের কোটা পূরণ হতে একটা মাত্র বল বাকি ছিলো। অনেক প্রস্তুুতি নিয়ে সেই বল সামলানোর চেষ্টা করলেন রবীন্দ্র জাদেজা। কিন্তু দীর্ঘ এই বিরতি, দীর্ঘ প্রস্তুতি অর্থহীন করে দিলেন মুস্তাফিজ। আবারও গুঁড়িয়ে দিলেন স্টাম্প।
ভারতের বিপক্ষে এই সিরিজে এটাই সবচেয়ে নিয়মিত দৃশ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনেক ভেবে-চিন্তে মুস্তাফিজের বল খেলার চেষ্টা করবেন ব্যাটসম্যানরা, কিন্তু কিছুতেই এই রহস্যের ভেদ যেন করতেই পারবেন না! এই রহস্য দিয়ে প্রথম ম্যাচে ৫ উইকেট নেয়ার পর রোববার (২১ জুন) নিজের দ্বিতীয় ম্যাচে তুলে নিলেন ৪৩ রানে ৬ উইকেট। আর তাতে ইতিহাসে নাম লিখিয়ে ফেললেন ওয়ানডে ক্রিকেটে মাত্র দ্বিতীয় বোলার হিসেবে ক্যারিয়ারের প্রথম দুই ওয়ানডেতেই ৫ বা ততোধিক উইকেট নিলেন মুস্তাফিজুর।
রোববারের ৫ উইকেট নেয়ার ভেতর দিয়ে নানারূপে ইতিহাসে নাম লিখিয়ে ফেললেন মুস্তাফিজুর। সবচেয়ে বড় ইতিহাস হলো, বিশ্বের মাত্র দ্বিতীয় বোলার হিসেবে ক্যারিয়ারের প্রথম দুই ওয়ানডেতেই ৫ বা ততোধিক উইকেট নেয়া। মুস্তাফিজের আগে এই কীর্তি ছিলো কেবর জিম্বাবুয়ের ব্রায়ান ভিটোরির। ২০১১ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষেই করেছিলেন তিনি কাজটা।
আসলে ওয়ানডে ইতিহাসেই টানা দুই বা ততোধিক ম্যাচে ৫ বা ততোধিক উইকেট নেয়ার ঘটনা ঘটেছে ১২ বার। এর মধ্যে এক ওয়াকার ইউনুসই ৩ বার করেছেন কাজটা। ইউনুসের মাহাত্ম আরো বেশি এই কারণে যে, তিনি প্রথমবার যখন এই কীর্তি করেন, ততক্ষণ টানা তিন ম্যাচে ৫ উইকেট করে নিয়েছিলেন। বলাই বাহুল্য বাংলাদেশের ওয়ানডে ইতিহাসে এমন ঘটনা আর নেই। কাছাকাছি যেতে পেরেছিলেন কেবল আব্দুর রাজ্জাক। ২০১০ সালে জিস্বাবুয়ের বিপক্ষে টানা দুই ম্যাচে নিয়েছিলেন ৫ ও ৪ উইকেট।
শুধু এখানেই পাশাপাশি নন এই দুজন। বাংলাদেশের হয়ে ওয়ানডেতে একাধিকবার ৫ উইকেট পাওয়ার কীর্তি আছে কেবল রাজ্জাক আর মুস্তাফিজেরই। চারবার ৫ উইকেট পেয়েছেন রাজ্জাক, ২ বার নিলেন মুস্তাফিজ। একবার করে পেয়েছেন আরো ৭ বোলার। (দৈনিক ইত্তেফাক)

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

ক্রিকেটের ইতিহাসের পাতায় মুস্তাাফিজ

প্রকাশের সময় : ০৪:২২:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জুন ২০১৫

ঢাকা: বৃষ্টিতে খেলা থমকে ছিলো। অপেক্ষার প্রহর আর ফুরাতেই চায় না। বারবার মাঠে কাভার আসছে, যাচ্ছে। শেষ পর্যন্ত খেলা শুরু হলো। মুস্তাফিজুরের ১০ ওভারের কোটা পূরণ হতে একটা মাত্র বল বাকি ছিলো। অনেক প্রস্তুুতি নিয়ে সেই বল সামলানোর চেষ্টা করলেন রবীন্দ্র জাদেজা। কিন্তু দীর্ঘ এই বিরতি, দীর্ঘ প্রস্তুতি অর্থহীন করে দিলেন মুস্তাফিজ। আবারও গুঁড়িয়ে দিলেন স্টাম্প।
ভারতের বিপক্ষে এই সিরিজে এটাই সবচেয়ে নিয়মিত দৃশ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনেক ভেবে-চিন্তে মুস্তাফিজের বল খেলার চেষ্টা করবেন ব্যাটসম্যানরা, কিন্তু কিছুতেই এই রহস্যের ভেদ যেন করতেই পারবেন না! এই রহস্য দিয়ে প্রথম ম্যাচে ৫ উইকেট নেয়ার পর রোববার (২১ জুন) নিজের দ্বিতীয় ম্যাচে তুলে নিলেন ৪৩ রানে ৬ উইকেট। আর তাতে ইতিহাসে নাম লিখিয়ে ফেললেন ওয়ানডে ক্রিকেটে মাত্র দ্বিতীয় বোলার হিসেবে ক্যারিয়ারের প্রথম দুই ওয়ানডেতেই ৫ বা ততোধিক উইকেট নিলেন মুস্তাফিজুর।
রোববারের ৫ উইকেট নেয়ার ভেতর দিয়ে নানারূপে ইতিহাসে নাম লিখিয়ে ফেললেন মুস্তাফিজুর। সবচেয়ে বড় ইতিহাস হলো, বিশ্বের মাত্র দ্বিতীয় বোলার হিসেবে ক্যারিয়ারের প্রথম দুই ওয়ানডেতেই ৫ বা ততোধিক উইকেট নেয়া। মুস্তাফিজের আগে এই কীর্তি ছিলো কেবর জিম্বাবুয়ের ব্রায়ান ভিটোরির। ২০১১ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষেই করেছিলেন তিনি কাজটা।
আসলে ওয়ানডে ইতিহাসেই টানা দুই বা ততোধিক ম্যাচে ৫ বা ততোধিক উইকেট নেয়ার ঘটনা ঘটেছে ১২ বার। এর মধ্যে এক ওয়াকার ইউনুসই ৩ বার করেছেন কাজটা। ইউনুসের মাহাত্ম আরো বেশি এই কারণে যে, তিনি প্রথমবার যখন এই কীর্তি করেন, ততক্ষণ টানা তিন ম্যাচে ৫ উইকেট করে নিয়েছিলেন। বলাই বাহুল্য বাংলাদেশের ওয়ানডে ইতিহাসে এমন ঘটনা আর নেই। কাছাকাছি যেতে পেরেছিলেন কেবল আব্দুর রাজ্জাক। ২০১০ সালে জিস্বাবুয়ের বিপক্ষে টানা দুই ম্যাচে নিয়েছিলেন ৫ ও ৪ উইকেট।
শুধু এখানেই পাশাপাশি নন এই দুজন। বাংলাদেশের হয়ে ওয়ানডেতে একাধিকবার ৫ উইকেট পাওয়ার কীর্তি আছে কেবল রাজ্জাক আর মুস্তাফিজেরই। চারবার ৫ উইকেট পেয়েছেন রাজ্জাক, ২ বার নিলেন মুস্তাফিজ। একবার করে পেয়েছেন আরো ৭ বোলার। (দৈনিক ইত্তেফাক)