নিউইয়র্ক ১১:০৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

ভারতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বেতন কত

হককথা ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : ০৩:২৪:৪৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪
  • / ৩৬ বার পঠিত

জনসাধারণের মনে অনেক সময়ই একটি প্রশ্ন জাগে, কোনো দেশের প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রীর বেতন কত? আর কী কী সুযোগ-সুবিধা ভোগ করে থাকেন তারা। মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের আগে চলুন জেনে নেয়া যাক ভারতের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বেতন-ভাতাসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধাগুলো:

রাষ্ট্রপতি
২০১৮ সালে ভারতের রাষ্ট্রপতির ও তিন সশস্ত্র বাহিনীর সর্বোচ্চ কমান্ডারের বেতন প্রতি মাসে দেড় লাখ ভারতীয় রুপি থেকে মাসে পাঁচ লাখ রুপিতে সংশোধন করা হয়। সাবেক অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বাজেট বক্তৃতায় এই মূল্যবৃদ্ধির ঘোষণা করেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ভারতীয় রাষ্ট্রপতির সর্বশেষ সংশোধিত সম্মানী ২০০৬ সালের জানুয়ারি থেকে কার্যকর হয়েছিল।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি বিবৃতি অনুসারে তিনি যে সুবিধাগুলো পাবেন- রাষ্ট্রপতি বিমান, রেল বা স্টিমারের মাধ্যমে দেশের যেকোনো জায়গায় বিনা মূল্যে ভ্রমণ করতে পারেন। সেই সঙ্গে তিনি একজন ব্যক্তিকেও সঙ্গে নিতে পারেন, যার খরচও বহন করা হবে। এ ছাড়া রাষ্ট্রপতি বিনা মূল্যে চিকিৎসাসেবা পাবেন।

তার জন্য থাকবে একটি সজ্জিত ভাড়ামুক্ত বাড়ি, দুটি বিনা মূল্যের ল্যান্ডলাইন (একটি ইন্টারনেট সংযোগের জন্য), একটি মোবাইল ফোন, পাঁচজন ব্যক্তিগত কর্মী। বাড়ির রক্ষণাবেক্ষণের ব্যয়ও বহন করা হবে।

এ ছাড়া যদি রাষ্ট্রপতি তার পদে থাকার সময় মারা যান, তাহলে তার স্বামী বা স্ত্রীকে অবসরপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতির জন্য গ্রহণযোগ্য পেনশনের পঞ্চাশ শতাংশ হারে পারিবারিক পেনশন প্রদান করা হবে, বাকি জীবনের জন্য। রাষ্ট্রপতির জীবনসঙ্গীও বিনা মূল্যে চিকিৎসাসেবা পাবেন।

উপরাষ্ট্রপতি

একই বাজেট বক্তৃতায় জেটলি ভারতের উপরাষ্ট্রপতির বেতন প্রতি মাসে সোয়া এক লাখ রুপি থেকে চার লাখ রুপিতে বৃদ্ধির ঘোষণা করেছিলেন। এ ছাড়া উপরাষ্ট্রপতি বিনা মূল্যে বাসস্থান, ব্যক্তিগত নিরাপত্তা, চিকিৎসাসেবা, ট্রেন ও বিমান ভ্রমণ, একটি ল্যান্ডলাইন সংযোগ, মোবাইল ফোন পরিষেবা ও কর্মী পাবেন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অনুসারে, অবসর গ্রহণের পর উপরাষ্ট্রপতি একজন ব্যক্তিগত সচিব, একজন অতিরিক্ত ব্যক্তিগত সচিব, একজন ব্যক্তিগত সহকারী এবং দুইজন পিয়ন সমন্বিত সেক্রেটারি স্টাফ পাওয়ার অধিকারী হবেন। পাশাপাশি এই ধরনের সেক্রেটারিয়াল স্টাফদের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য তার মাধ্যমে প্রকৃত খরচ প্রদান করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী

ভারতের প্রধানমন্ত্রী প্রতি মাসে এক লাখ ৬৬ হাজার রুপি পান বলে জানা গেছে। তাকে দেওয়া সুবিধাগুলোর মধ্যে রয়েছে একটি পার্সোনাল স্টাফ স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপ (এসপিজি), যা তার নিরাপত্তার জন্য দায়ী থাকবে। এ ছাড়া তার সরকারি সফরের জন্য একটি বিশেষ বিমানের ব্যবস্থা থাকবে, যারত কল সাইন এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান। পাশাপাশি ৭, রেসকোর্স রোডে সরকারি বাসভবন পাবেন তিনি। সূত্র: ইত্তেফাক।

Tag :

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

ভারতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বেতন কত

প্রকাশের সময় : ০৩:২৪:৪৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪

জনসাধারণের মনে অনেক সময়ই একটি প্রশ্ন জাগে, কোনো দেশের প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রীর বেতন কত? আর কী কী সুযোগ-সুবিধা ভোগ করে থাকেন তারা। মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের আগে চলুন জেনে নেয়া যাক ভারতের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বেতন-ভাতাসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধাগুলো:

রাষ্ট্রপতি
২০১৮ সালে ভারতের রাষ্ট্রপতির ও তিন সশস্ত্র বাহিনীর সর্বোচ্চ কমান্ডারের বেতন প্রতি মাসে দেড় লাখ ভারতীয় রুপি থেকে মাসে পাঁচ লাখ রুপিতে সংশোধন করা হয়। সাবেক অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বাজেট বক্তৃতায় এই মূল্যবৃদ্ধির ঘোষণা করেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ভারতীয় রাষ্ট্রপতির সর্বশেষ সংশোধিত সম্মানী ২০০৬ সালের জানুয়ারি থেকে কার্যকর হয়েছিল।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি বিবৃতি অনুসারে তিনি যে সুবিধাগুলো পাবেন- রাষ্ট্রপতি বিমান, রেল বা স্টিমারের মাধ্যমে দেশের যেকোনো জায়গায় বিনা মূল্যে ভ্রমণ করতে পারেন। সেই সঙ্গে তিনি একজন ব্যক্তিকেও সঙ্গে নিতে পারেন, যার খরচও বহন করা হবে। এ ছাড়া রাষ্ট্রপতি বিনা মূল্যে চিকিৎসাসেবা পাবেন।

তার জন্য থাকবে একটি সজ্জিত ভাড়ামুক্ত বাড়ি, দুটি বিনা মূল্যের ল্যান্ডলাইন (একটি ইন্টারনেট সংযোগের জন্য), একটি মোবাইল ফোন, পাঁচজন ব্যক্তিগত কর্মী। বাড়ির রক্ষণাবেক্ষণের ব্যয়ও বহন করা হবে।

এ ছাড়া যদি রাষ্ট্রপতি তার পদে থাকার সময় মারা যান, তাহলে তার স্বামী বা স্ত্রীকে অবসরপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতির জন্য গ্রহণযোগ্য পেনশনের পঞ্চাশ শতাংশ হারে পারিবারিক পেনশন প্রদান করা হবে, বাকি জীবনের জন্য। রাষ্ট্রপতির জীবনসঙ্গীও বিনা মূল্যে চিকিৎসাসেবা পাবেন।

উপরাষ্ট্রপতি

একই বাজেট বক্তৃতায় জেটলি ভারতের উপরাষ্ট্রপতির বেতন প্রতি মাসে সোয়া এক লাখ রুপি থেকে চার লাখ রুপিতে বৃদ্ধির ঘোষণা করেছিলেন। এ ছাড়া উপরাষ্ট্রপতি বিনা মূল্যে বাসস্থান, ব্যক্তিগত নিরাপত্তা, চিকিৎসাসেবা, ট্রেন ও বিমান ভ্রমণ, একটি ল্যান্ডলাইন সংযোগ, মোবাইল ফোন পরিষেবা ও কর্মী পাবেন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অনুসারে, অবসর গ্রহণের পর উপরাষ্ট্রপতি একজন ব্যক্তিগত সচিব, একজন অতিরিক্ত ব্যক্তিগত সচিব, একজন ব্যক্তিগত সহকারী এবং দুইজন পিয়ন সমন্বিত সেক্রেটারি স্টাফ পাওয়ার অধিকারী হবেন। পাশাপাশি এই ধরনের সেক্রেটারিয়াল স্টাফদের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য তার মাধ্যমে প্রকৃত খরচ প্রদান করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী

ভারতের প্রধানমন্ত্রী প্রতি মাসে এক লাখ ৬৬ হাজার রুপি পান বলে জানা গেছে। তাকে দেওয়া সুবিধাগুলোর মধ্যে রয়েছে একটি পার্সোনাল স্টাফ স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপ (এসপিজি), যা তার নিরাপত্তার জন্য দায়ী থাকবে। এ ছাড়া তার সরকারি সফরের জন্য একটি বিশেষ বিমানের ব্যবস্থা থাকবে, যারত কল সাইন এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান। পাশাপাশি ৭, রেসকোর্স রোডে সরকারি বাসভবন পাবেন তিনি। সূত্র: ইত্তেফাক।