নিউইয়র্ক ১১:১৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

কানাডায় লিবারেল এমপি প্রার্থী বাংলাদেশী মোহাম্মদ আলী বোখারী

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৯:৪৭:৪৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৫ জানুয়ারী ২০১৫
  • / ১৭৭১ বার পঠিত

টরন্টো (কানাডা): প্রথমবারের মতো কানাডার সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল লিবারেল পার্টির এমপি প্রার্থী হতে যাচ্ছেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত সাংবাদিক মোহাম্মদ আলী বোখারী। সেখানে তিনি অন্টারিও প্রদেশের টরন্টো সিটির স্কারবরো সাউথওয়েষ্ট নির্বাচনী এলাকা থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী। এ পর্যন্ত বাছাই পর্বে একমাত্র বাংলাদেশী প্রার্থী হিসেবে ওই দলটি তাকে গ্রীণ লাইট প্রদান করেছে। ফলে দলের অভ্যন্তরে মোট ৮ প্রার্থীর মাঝে বাছাইকৃত দুই প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে তাকে লড়তে হবে। গ্রীণ লাইট হচ্ছে কঠোর একটি কর্মপ্রক্রিয়া যার অধীনে লিবারেল পার্টির সংবিধান, দলের জাতীয় নির্বাচনী নীতিমালা এবং দেশটির কেন্দ্রীয় নির্বাচনী আইন পরিপূরণ সম্পন্ন যোগ্য কোনো প্রার্থী।
গত বছরের আগস্ট মাসে তিনি তা অর্জন করেছেন। এখন দলের আসন্ন মনোনয়ন সভায় তিনি দলীয় সদস্যদের সর্বোচ্চ ভোট অর্জনে সক্ষম হলে দুই দশকের উপরে লাগাতার লিবারেল পার্টি নিয়ন্ত্রাধীণ ওই নির্বাচনী এলাকায় তার বিজয়ের সম্ভাবণাটি অতুৎজ্জ্বল। তাতে তিনি কানাডায় বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত প্রথম এমপি হবার গৌরব অর্জন করবেন। সে সংবাদই কানাডার সর্বত্র আলোচিত হচ্ছে।
সে জন্য মোহাম্মদ আলী বোখারী নিজস্ব কমিউনিটিসহ অপরাপর কমিউনিটির সহযোগিতা কামনা করে নির্বাচনী মূলমন্ত্র  দিয়েছেন- ‘টুগেদার উই অ্যাস্পায়ার, টুগেদার উই এচিভ’ অর্থাৎ একত্রিত প্রত্যাশায়, একত্রিত অর্জনে। এ উপলক্ষে গত ৩০ ডিসেম্বর স্থানীয় আলাদীন সুইটস অ্যান্ড গ্রিল রেস্তোরায় এক জনাকীর্ণ নৈশ ভোজ সভার আয়োজন করা হয়। তাতে প্রধান অতিথি ছিলেন অন্টারিও সরকারের গবেষণা ও উদ্ভাবণ এবং প্রশিক্ষণ, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী রেজা মোরিদি। মন্ত্রী তার বক্তৃতায় ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, মোহাম্মদ আলী বোখারী একজন সৎ ও কর্মনিষ্ঠ সাংবাদিক এবং সবচেয়ে বড় কথা তিনি একজন অমায়িক ব্যক্তিত্ব, যার নির্বাচনী প্রতিযোগিতার চাইতেও লক্ষণীয় দিকটি হচ্ছে প্রতিপক্ষের প্রতি স্বাধীন ও সমতাপূর্ণ সন্মানবোধ, যা প্রকৃত অর্থেই লিবারেলিজমেরই প্রতিফলন। এছাড়াও মন্ত্রী অতীতে অন্টারিও পার্লামেন্টে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস সম্পর্কিত বিল উপস্থাপনকালে মোহাম্মদ আলী বোখারীর আন্তরিক সহযোগিতার কথা স্মরণ করেন।
ওই বক্তৃতা পর্বে অন্যদের মাঝে অংশ নেন প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণার সমন্বয়কারী মোহাম্মদ ফারুক হাসান, রোটারী আন্তর্জাতিকের সাবেক বাংলাদেশ রোটার‌্যাক্ট প্রধান আহমেদ এম ইলিয়াস, টরন্টো থেকে প্রকাশিত বাংলা মেইল ও বেঙ্গলী টাইমসের সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিন্টু, সাবেক স্কারবরো সাউথওয়েস্টের কাউন্সিলর প্রার্থী ও বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি আনোয়ারুল কবির, সাউথ এশিয়ান উইমেন্স রাইটস অর্গাাইজেশনের নির্বাহী পরিচালক সুলতানা জাহাঙ্গীর মনি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন ও চট্টগ্রাম অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোহাম্মদ ইলিয়াস, বাংলাদেশে রোটারী আন্তর্জাতিকের সাবেক সভাপতি মাসুদুল আলম, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মাহবুব রব চৌধুরী এবং প্রার্থীর প্রতিযোগী সিপিএ মিশেল সিরানো। তারা প্রত্যেকেই মোহাম্মদ আলী বোখারীর যোগ্যতার প্রসঙ্গটি অতীব গুরুত্বের সাথে তুলে ধরেন। বিশেষ করে বাংলাদেশী বক্তরা তার জন্য কমিউনিটির সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এগিয়ে আসার আহবান জানান। আর এ অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক সহ-সভাপতি একমাত্র বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত অনিক খান।
অনুষ্ঠানে মোহাম্মদ আলী বোখারী তার স্বাগত বক্তৃতায় কানাডার সাবেক প্রধানমন্ত্রী পিয়েরে ট্রুডো ও তার যোগ্য উত্তরসুরী বর্তমান লিবারেল পার্টি প্রধান জাস্টিন ট্রুডোর প্রেরণাপূর্ণ রাজনৈতিক চেতনাসহ নিজের অতীত কর্মোদ্যোগ বিবৃত করেন। তাতে রোটারী আন্তর্জাতিকের সাবেক নির্বাচিত বাংলাদেশ রোটার‌্যাক্ট প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন, বিনামূল্যে ১৪ হাজার মানুষের দৃষ্টিশক্তি প্রদান ও প্রায় এক শত মানুষের হৃদচিকিৎসায় পেসমেকার প্রতিস্থাপন, তিন দশকের উপরে সাংবাদিকতায় দায়িত্ব পালন, কানাডায় বহুজাতিকতার প্রতিভূ হিসেবে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা স্মৃতিসৌধের জন্য টরন্টোর ঐতিহাসিক কনফেডারেশন পার্কে জমির বরাদ্দ অর্জন, টরন্টো সিটি কর্তৃক জন পোপ পলের আগমনে ব্যয়িত ৭ মিলিয়ন ডলারের প্রেক্ষাপটে ক্ষিপ্ত অপরাপর খ্রিষ্টান সম্প্রদায়কে প্রশমিতকরণ, রিজেন্ট পার্ক এলাকায় পুলিশি নিরাপত্তা জোরদারকরণ, বাংলাদেশী অধ্যুষিত ডেনফোর্থে বিজনেস ডেভেলপমেন্ট এরিয়া প্রতিষ্ঠায় নিউক্লিয়াস গঠনে সহায়তা প্রদান, বাংলাদেশে সাইক্লোন সিডরে কানাডা সরকারের প্রতিশ্রুত ৪ দশমিক ২ মিলিয়ন ডলারের বরাদ্দ ত্বরান্বিতকরণ, ফিলিপাইনে টাইফুন হাইয়ানে ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য ত্রান সামগ্রী প্রেরণে গুসি পিস প্রাইজজয়ী বাংলাদেশী এএইচএম নোমানকে উৎসাহিতকরণ, চীনে ফেলুন ডাফা অনুসারীদের মানবাধিকার সংরক্ষণে সোচ্চার ভূমিকা পালন এবং ২০০৩ সালে আন্তর্জাতিক টাইম ম্যাগাজিনে মুদ্রিত প্রচ্ছদ কাহিনী ‘উড অ্যানিওয়ান নোটিশ ইফ কানাডা ডিসঅ্যাপিয়ার্ড’-এর বিরুদ্ধে গঠনমূলক প্রতিবাদ জ্ঞাপণ উলে¬খযোগ্য।

Tag :

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

About Author Information

কানাডায় লিবারেল এমপি প্রার্থী বাংলাদেশী মোহাম্মদ আলী বোখারী

প্রকাশের সময় : ০৯:৪৭:৪৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৫ জানুয়ারী ২০১৫

টরন্টো (কানাডা): প্রথমবারের মতো কানাডার সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল লিবারেল পার্টির এমপি প্রার্থী হতে যাচ্ছেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত সাংবাদিক মোহাম্মদ আলী বোখারী। সেখানে তিনি অন্টারিও প্রদেশের টরন্টো সিটির স্কারবরো সাউথওয়েষ্ট নির্বাচনী এলাকা থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী। এ পর্যন্ত বাছাই পর্বে একমাত্র বাংলাদেশী প্রার্থী হিসেবে ওই দলটি তাকে গ্রীণ লাইট প্রদান করেছে। ফলে দলের অভ্যন্তরে মোট ৮ প্রার্থীর মাঝে বাছাইকৃত দুই প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে তাকে লড়তে হবে। গ্রীণ লাইট হচ্ছে কঠোর একটি কর্মপ্রক্রিয়া যার অধীনে লিবারেল পার্টির সংবিধান, দলের জাতীয় নির্বাচনী নীতিমালা এবং দেশটির কেন্দ্রীয় নির্বাচনী আইন পরিপূরণ সম্পন্ন যোগ্য কোনো প্রার্থী।
গত বছরের আগস্ট মাসে তিনি তা অর্জন করেছেন। এখন দলের আসন্ন মনোনয়ন সভায় তিনি দলীয় সদস্যদের সর্বোচ্চ ভোট অর্জনে সক্ষম হলে দুই দশকের উপরে লাগাতার লিবারেল পার্টি নিয়ন্ত্রাধীণ ওই নির্বাচনী এলাকায় তার বিজয়ের সম্ভাবণাটি অতুৎজ্জ্বল। তাতে তিনি কানাডায় বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত প্রথম এমপি হবার গৌরব অর্জন করবেন। সে সংবাদই কানাডার সর্বত্র আলোচিত হচ্ছে।
সে জন্য মোহাম্মদ আলী বোখারী নিজস্ব কমিউনিটিসহ অপরাপর কমিউনিটির সহযোগিতা কামনা করে নির্বাচনী মূলমন্ত্র  দিয়েছেন- ‘টুগেদার উই অ্যাস্পায়ার, টুগেদার উই এচিভ’ অর্থাৎ একত্রিত প্রত্যাশায়, একত্রিত অর্জনে। এ উপলক্ষে গত ৩০ ডিসেম্বর স্থানীয় আলাদীন সুইটস অ্যান্ড গ্রিল রেস্তোরায় এক জনাকীর্ণ নৈশ ভোজ সভার আয়োজন করা হয়। তাতে প্রধান অতিথি ছিলেন অন্টারিও সরকারের গবেষণা ও উদ্ভাবণ এবং প্রশিক্ষণ, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী রেজা মোরিদি। মন্ত্রী তার বক্তৃতায় ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, মোহাম্মদ আলী বোখারী একজন সৎ ও কর্মনিষ্ঠ সাংবাদিক এবং সবচেয়ে বড় কথা তিনি একজন অমায়িক ব্যক্তিত্ব, যার নির্বাচনী প্রতিযোগিতার চাইতেও লক্ষণীয় দিকটি হচ্ছে প্রতিপক্ষের প্রতি স্বাধীন ও সমতাপূর্ণ সন্মানবোধ, যা প্রকৃত অর্থেই লিবারেলিজমেরই প্রতিফলন। এছাড়াও মন্ত্রী অতীতে অন্টারিও পার্লামেন্টে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস সম্পর্কিত বিল উপস্থাপনকালে মোহাম্মদ আলী বোখারীর আন্তরিক সহযোগিতার কথা স্মরণ করেন।
ওই বক্তৃতা পর্বে অন্যদের মাঝে অংশ নেন প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারণার সমন্বয়কারী মোহাম্মদ ফারুক হাসান, রোটারী আন্তর্জাতিকের সাবেক বাংলাদেশ রোটার‌্যাক্ট প্রধান আহমেদ এম ইলিয়াস, টরন্টো থেকে প্রকাশিত বাংলা মেইল ও বেঙ্গলী টাইমসের সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিন্টু, সাবেক স্কারবরো সাউথওয়েস্টের কাউন্সিলর প্রার্থী ও বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি আনোয়ারুল কবির, সাউথ এশিয়ান উইমেন্স রাইটস অর্গাাইজেশনের নির্বাহী পরিচালক সুলতানা জাহাঙ্গীর মনি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন ও চট্টগ্রাম অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোহাম্মদ ইলিয়াস, বাংলাদেশে রোটারী আন্তর্জাতিকের সাবেক সভাপতি মাসুদুল আলম, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মাহবুব রব চৌধুরী এবং প্রার্থীর প্রতিযোগী সিপিএ মিশেল সিরানো। তারা প্রত্যেকেই মোহাম্মদ আলী বোখারীর যোগ্যতার প্রসঙ্গটি অতীব গুরুত্বের সাথে তুলে ধরেন। বিশেষ করে বাংলাদেশী বক্তরা তার জন্য কমিউনিটির সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এগিয়ে আসার আহবান জানান। আর এ অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক সহ-সভাপতি একমাত্র বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত অনিক খান।
অনুষ্ঠানে মোহাম্মদ আলী বোখারী তার স্বাগত বক্তৃতায় কানাডার সাবেক প্রধানমন্ত্রী পিয়েরে ট্রুডো ও তার যোগ্য উত্তরসুরী বর্তমান লিবারেল পার্টি প্রধান জাস্টিন ট্রুডোর প্রেরণাপূর্ণ রাজনৈতিক চেতনাসহ নিজের অতীত কর্মোদ্যোগ বিবৃত করেন। তাতে রোটারী আন্তর্জাতিকের সাবেক নির্বাচিত বাংলাদেশ রোটার‌্যাক্ট প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন, বিনামূল্যে ১৪ হাজার মানুষের দৃষ্টিশক্তি প্রদান ও প্রায় এক শত মানুষের হৃদচিকিৎসায় পেসমেকার প্রতিস্থাপন, তিন দশকের উপরে সাংবাদিকতায় দায়িত্ব পালন, কানাডায় বহুজাতিকতার প্রতিভূ হিসেবে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা স্মৃতিসৌধের জন্য টরন্টোর ঐতিহাসিক কনফেডারেশন পার্কে জমির বরাদ্দ অর্জন, টরন্টো সিটি কর্তৃক জন পোপ পলের আগমনে ব্যয়িত ৭ মিলিয়ন ডলারের প্রেক্ষাপটে ক্ষিপ্ত অপরাপর খ্রিষ্টান সম্প্রদায়কে প্রশমিতকরণ, রিজেন্ট পার্ক এলাকায় পুলিশি নিরাপত্তা জোরদারকরণ, বাংলাদেশী অধ্যুষিত ডেনফোর্থে বিজনেস ডেভেলপমেন্ট এরিয়া প্রতিষ্ঠায় নিউক্লিয়াস গঠনে সহায়তা প্রদান, বাংলাদেশে সাইক্লোন সিডরে কানাডা সরকারের প্রতিশ্রুত ৪ দশমিক ২ মিলিয়ন ডলারের বরাদ্দ ত্বরান্বিতকরণ, ফিলিপাইনে টাইফুন হাইয়ানে ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য ত্রান সামগ্রী প্রেরণে গুসি পিস প্রাইজজয়ী বাংলাদেশী এএইচএম নোমানকে উৎসাহিতকরণ, চীনে ফেলুন ডাফা অনুসারীদের মানবাধিকার সংরক্ষণে সোচ্চার ভূমিকা পালন এবং ২০০৩ সালে আন্তর্জাতিক টাইম ম্যাগাজিনে মুদ্রিত প্রচ্ছদ কাহিনী ‘উড অ্যানিওয়ান নোটিশ ইফ কানাডা ডিসঅ্যাপিয়ার্ড’-এর বিরুদ্ধে গঠনমূলক প্রতিবাদ জ্ঞাপণ উলে¬খযোগ্য।