নিউইয়র্ক ০৬:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

বাসায় ফিরলেন সাবেক ছাত্রনেতা শাহাবুদ্দীন

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৩:৪৭:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল ২০২০
  • / ১০৭ বার পঠিত

নিউইয়র্ক (ইউএনএ): করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘ প্রায় দুই সপ্তাহ হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে বাসায় ফিরেছেন সাবেক ছাত্রনেতা ও কমিউনিটির পরিচিত মুখ শাহাব উদ্দীন। গত ৮ এপ্রিল, বুধবার তিনি হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেন এবং এখন পূর্ণ বিশ্রামে রয়েছেন। খবর ইউএনএ’র।
কেন্দ্রীয় বাসদ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, সিলেটের সন্তান শাহাব উদ্দীন ইউএনএ প্রতিনিধি-কে জানান, শারীরিক অসুস্থ্যতা জনিত তিনি গত ২৭ মার্চ শুক্রবার ম্যানহাটানের প্রেসবেটেরিয়ান হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে তার করনাভাইরাস চিকিৎসা চলে। দীর্ঘ ১২দিন হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে গত ৮ এপ্রিল বুধবার অনেকটা সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেন।
সাবেক ছাত্রনেতা শাহাব উদ্দীন হাসপাতাল থেকে বাসায় ফেরার পর তার ফেসবুতে প্রদত্ত ‘আল্লাহ সর্বশক্তি মান’ শিরোনামে এক স্ট্যাটাসে লিখেছেন-
‘নিউইয়র্ক সহ সারা বিশ্বের মহামারির মধ্যে দীর্ঘ ১২দিন পর, বাসায় আসলাম। তবে আরো দুই সপ্তাহ বাসায় কোয়ারেন্টাইমে থাকতে হবে। পরিবার, স্বজন, বন্ধু বান্ধব শুভাকাঙ্খী এফবি ফেসবুক) বন্ধু দেশ-বিদেশ সহ সারা বিশ্ব থেকে অসংখ্য অগনিত চেনা অচেনা মানুষ মুসলিম, হিন্দু বৌদ্ধ বিভিন্ন ধর্মের যার যার বিশ্বাস মতো কায়োমনা বাক্য প্রার্থনা করেছেন। বিশেষ করে মুসলিম ভাই-বোনেরা অনেকে নফল নামাজ রোজা, ছদকা দিয়ে যেভাবে আহাজারি করছেন- জানিনা কার হাত যেন রহমানুর রাহিমের পছন্দ হয়ে আমাকে এই মহা বিপদ থেকে রক্ষা করলেন, লাখো শুকরিয়া। আবারও প্রমাণিত হলো সম্মিলিত দোয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের ভূল যদি পাহাড় সমান হয়, আল্লাহর দয়া আকাশেরও উপরে। আমরা সবাই প্রার্থনা করি সারা দুনিয়াব্যাপী যে মহামারি দেখা দিয়েছে তা থেকে যেন মানব জাতি মুক্তি পাই। যারা রোগে কষ্ট করছেন, তারা যেন আরোগ্য লাভ করেন, যাদেরকে আমরা হারালাম প্রত্যেক পরিবারের জন্য অপূরনীয় ক্ষতি, তাদের চির শান্তি কামনা করি।
আমাকে বিভিন্নভাবে কল দিয়েছেন খবর নেওয়ার জন্য, কিন্তু শারীরিক অবস্থার কারণে আমি ফোন ধরতে পারনি। ক্ষমা সুন্দর মন নিয়ে দেখবেন। ফেসবুক খুলে দেখি ছয়লাব হয়ে গেছে। সবার কাছে আমি দায়বদ্ধ। আমি জানি এটা শুধিবার ক্ষমতা আমার নেই।
আপনারা যে যেখানে আছেন সবাইকে নিয়ে সুস্থ থাকুন, সকলের জন্য নিরন্তর শুভ কামনা।’

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

About Author Information

বাসায় ফিরলেন সাবেক ছাত্রনেতা শাহাবুদ্দীন

প্রকাশের সময় : ০৩:৪৭:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল ২০২০

নিউইয়র্ক (ইউএনএ): করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘ প্রায় দুই সপ্তাহ হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে বাসায় ফিরেছেন সাবেক ছাত্রনেতা ও কমিউনিটির পরিচিত মুখ শাহাব উদ্দীন। গত ৮ এপ্রিল, বুধবার তিনি হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেন এবং এখন পূর্ণ বিশ্রামে রয়েছেন। খবর ইউএনএ’র।
কেন্দ্রীয় বাসদ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, সিলেটের সন্তান শাহাব উদ্দীন ইউএনএ প্রতিনিধি-কে জানান, শারীরিক অসুস্থ্যতা জনিত তিনি গত ২৭ মার্চ শুক্রবার ম্যানহাটানের প্রেসবেটেরিয়ান হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে তার করনাভাইরাস চিকিৎসা চলে। দীর্ঘ ১২দিন হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে গত ৮ এপ্রিল বুধবার অনেকটা সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেন।
সাবেক ছাত্রনেতা শাহাব উদ্দীন হাসপাতাল থেকে বাসায় ফেরার পর তার ফেসবুতে প্রদত্ত ‘আল্লাহ সর্বশক্তি মান’ শিরোনামে এক স্ট্যাটাসে লিখেছেন-
‘নিউইয়র্ক সহ সারা বিশ্বের মহামারির মধ্যে দীর্ঘ ১২দিন পর, বাসায় আসলাম। তবে আরো দুই সপ্তাহ বাসায় কোয়ারেন্টাইমে থাকতে হবে। পরিবার, স্বজন, বন্ধু বান্ধব শুভাকাঙ্খী এফবি ফেসবুক) বন্ধু দেশ-বিদেশ সহ সারা বিশ্ব থেকে অসংখ্য অগনিত চেনা অচেনা মানুষ মুসলিম, হিন্দু বৌদ্ধ বিভিন্ন ধর্মের যার যার বিশ্বাস মতো কায়োমনা বাক্য প্রার্থনা করেছেন। বিশেষ করে মুসলিম ভাই-বোনেরা অনেকে নফল নামাজ রোজা, ছদকা দিয়ে যেভাবে আহাজারি করছেন- জানিনা কার হাত যেন রহমানুর রাহিমের পছন্দ হয়ে আমাকে এই মহা বিপদ থেকে রক্ষা করলেন, লাখো শুকরিয়া। আবারও প্রমাণিত হলো সম্মিলিত দোয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের ভূল যদি পাহাড় সমান হয়, আল্লাহর দয়া আকাশেরও উপরে। আমরা সবাই প্রার্থনা করি সারা দুনিয়াব্যাপী যে মহামারি দেখা দিয়েছে তা থেকে যেন মানব জাতি মুক্তি পাই। যারা রোগে কষ্ট করছেন, তারা যেন আরোগ্য লাভ করেন, যাদেরকে আমরা হারালাম প্রত্যেক পরিবারের জন্য অপূরনীয় ক্ষতি, তাদের চির শান্তি কামনা করি।
আমাকে বিভিন্নভাবে কল দিয়েছেন খবর নেওয়ার জন্য, কিন্তু শারীরিক অবস্থার কারণে আমি ফোন ধরতে পারনি। ক্ষমা সুন্দর মন নিয়ে দেখবেন। ফেসবুক খুলে দেখি ছয়লাব হয়ে গেছে। সবার কাছে আমি দায়বদ্ধ। আমি জানি এটা শুধিবার ক্ষমতা আমার নেই।
আপনারা যে যেখানে আছেন সবাইকে নিয়ে সুস্থ থাকুন, সকলের জন্য নিরন্তর শুভ কামনা।’