নিউইয়র্ক ০৭:১১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

বাংলাদেশ কনস্যুলেটে ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস পালন

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৬:৪১:৫২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯
  • / ২৩৭ বার পঠিত

নিউইয়র্ক: নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস-২০১৯’ উপলক্ষে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে কনস্যুলেট-এর ফেসবুক ও ওয়েব সাইটে বিশেষ পোস্ট আপলোড করা হয়েছে। ‘সত্য মিথ্যা যাচাই আগে, ইন্টারনেটে শেয়ার পরে’-এটি এ বছরের ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস-২০১৯’ এর প্রতিপাদ্য। উক্ত পোস্টে উল্লেখ করা হয় যে, দ্রুত পরিবর্তনশীল তথ্য প্রযুক্তি খাতে নতুন নতুন ক্ষেত্র সম্ভবনা সৃষ্টির পাশাপাশি এর নেতিবাচক প্রভাবও বৃদ্ধি পাচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আমাদের জীবনের অনুষঙ্গ। ফলে সাইবার স্পেসে সত্য মিথ্যা যাচাই না করে অনেকেই তথ্য আপলোড বা শেয়ার করে সমাজ ও রাষ্ট্র ব্যবস্থায় বিরুপ প্রভাব বিস্তারের অপচেষ্টা করছে। এ বাস্তবতায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের উদ্যোগে এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের সহযোগিতায় ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখ দেশব্যাপী তৃতীয় বারের মত ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস-২০১৯ উদযাপিত হচ্ছে। উল্লেখ্য, ডিজিটাল বাংলাদেশ এর চারটি ভিত্তি: (১) কানেকটিভিটি (২) আইসিটি ইন্ডাস্ট্রি প্রমোশন (৩) ই-গর্ভন্যান্স (৪) মানবসম্পদ উন্নয়ন।
এ বিষয়ে প্রবাসী বাংলাদেশীদের সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রতিপাদ্য সম্বলিত লিফলেট ও ডকুমেন্টারীও বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল-এর ফেসবুক ও ওয়েবসাইটে আপলোড করা হয়েছে।
প্রবাসী বাংলদেশীদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে অভিবাসন দিবস, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে বাংলাদেশ কনস্যুলেটে আয়োজিতব্য অনুষ্ঠানে এ বিষয়ক একটি ডকুমেন্টারী প্রদর্শিত হবে। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

 

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

About Author Information

বাংলাদেশ কনস্যুলেটে ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস পালন

প্রকাশের সময় : ০৬:৪১:৫২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯

নিউইয়র্ক: নিউইয়র্কস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস-২০১৯’ উপলক্ষে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে কনস্যুলেট-এর ফেসবুক ও ওয়েব সাইটে বিশেষ পোস্ট আপলোড করা হয়েছে। ‘সত্য মিথ্যা যাচাই আগে, ইন্টারনেটে শেয়ার পরে’-এটি এ বছরের ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস-২০১৯’ এর প্রতিপাদ্য। উক্ত পোস্টে উল্লেখ করা হয় যে, দ্রুত পরিবর্তনশীল তথ্য প্রযুক্তি খাতে নতুন নতুন ক্ষেত্র সম্ভবনা সৃষ্টির পাশাপাশি এর নেতিবাচক প্রভাবও বৃদ্ধি পাচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আমাদের জীবনের অনুষঙ্গ। ফলে সাইবার স্পেসে সত্য মিথ্যা যাচাই না করে অনেকেই তথ্য আপলোড বা শেয়ার করে সমাজ ও রাষ্ট্র ব্যবস্থায় বিরুপ প্রভাব বিস্তারের অপচেষ্টা করছে। এ বাস্তবতায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের উদ্যোগে এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের সহযোগিতায় ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখ দেশব্যাপী তৃতীয় বারের মত ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস-২০১৯ উদযাপিত হচ্ছে। উল্লেখ্য, ডিজিটাল বাংলাদেশ এর চারটি ভিত্তি: (১) কানেকটিভিটি (২) আইসিটি ইন্ডাস্ট্রি প্রমোশন (৩) ই-গর্ভন্যান্স (৪) মানবসম্পদ উন্নয়ন।
এ বিষয়ে প্রবাসী বাংলাদেশীদের সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রতিপাদ্য সম্বলিত লিফলেট ও ডকুমেন্টারীও বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল-এর ফেসবুক ও ওয়েবসাইটে আপলোড করা হয়েছে।
প্রবাসী বাংলদেশীদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে অভিবাসন দিবস, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে বাংলাদেশ কনস্যুলেটে আয়োজিতব্য অনুষ্ঠানে এ বিষয়ক একটি ডকুমেন্টারী প্রদর্শিত হবে। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি।