নিউইয়র্ক ১২:২২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

আমেরিকার মহানুভবতায় কৃতজ্ঞ সরকার: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ০৯:৩১:৪৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২১ মার্চ ২০২২
  • / ২ বার পঠিত

বাংলাদেশ ডেস্ক : স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ‘আমেরিকা এই করোনার মধ্যে সবসময়ই বাংলাদেশের পাশে থেকেছে। কখনও তারা ভেন্টিলেটর পাঠিয়েছে, কখনও ভ্যাকসিন পাঠিয়েছে, কখনও অন্যান্য চিকিৎসা সামগ্রী দিয়েছে।’
আজ সোমবার (২১ মার্চ) রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে আমেরিকা সরকারের উপহার হিসেবে দেওয়া ফাইজার-মডার্নার টিকা কার্যক্রম সরেজমিন পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্বের অনেক দেশেই যখন করোনার টিকার জন্য হাহাকার অবস্থায় ছিল, সে সময় আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বাংলাদেশকে ৬ কোটি ১০ লাখ ডোজ ফাইজার ও মডার্নার মতো অত্যন্ত কার্যকর ভ্যাকসিন পাঠিয়েছেন। এতে বাংলাদেশের সঙ্গে আমেরিকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও শক্তিশালী হয়েছে। বাংলাদেশ সরকার আমেরিকার এই মহানুভবতায় কৃতজ্ঞ। বাংলাদেশ সরকার অনুষ্ঠানে উপস্থিত আমেরিকার আন্ডার সেক্রেটারির মিজ নুল্যান্ডের মাধ্যমে আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ও জনগণের কাছে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছে।’
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, আমেরিকা সরকারের আন্ডার সেক্রেটারি মিজ প্যাট্রিসিয়া নুল্যান্ড, বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব লোকমান হোসেন মিয়া, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক প্রফেসর এবিএম খুরশিদ আলম, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কবীরসহ অন্যান্য কর্মকর্তা।
বাংলাদেশের সঙ্গে আমেরিকার বিদ্যমান সুসম্পর্ককে আরও সম্প্রসারণ করতে আমেরিকা সোচ্চার রয়েছে বলে জানান আমেরিকার আন্ডার সেক্রেটারি মিজ নুল্যান্ড। আমেরিকার বিভিন্ন সংকটে বাংলাদেশ পাশে ছিল জানিয়ে বাংলাদেশের জনগণের প্রতি এ সময় তিনি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
হককথা/এমউএ

Tag :

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

আমেরিকার মহানুভবতায় কৃতজ্ঞ সরকার: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশের সময় : ০৯:৩১:৪৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২১ মার্চ ২০২২

বাংলাদেশ ডেস্ক : স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ‘আমেরিকা এই করোনার মধ্যে সবসময়ই বাংলাদেশের পাশে থেকেছে। কখনও তারা ভেন্টিলেটর পাঠিয়েছে, কখনও ভ্যাকসিন পাঠিয়েছে, কখনও অন্যান্য চিকিৎসা সামগ্রী দিয়েছে।’
আজ সোমবার (২১ মার্চ) রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে আমেরিকা সরকারের উপহার হিসেবে দেওয়া ফাইজার-মডার্নার টিকা কার্যক্রম সরেজমিন পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্বের অনেক দেশেই যখন করোনার টিকার জন্য হাহাকার অবস্থায় ছিল, সে সময় আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বাংলাদেশকে ৬ কোটি ১০ লাখ ডোজ ফাইজার ও মডার্নার মতো অত্যন্ত কার্যকর ভ্যাকসিন পাঠিয়েছেন। এতে বাংলাদেশের সঙ্গে আমেরিকার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও শক্তিশালী হয়েছে। বাংলাদেশ সরকার আমেরিকার এই মহানুভবতায় কৃতজ্ঞ। বাংলাদেশ সরকার অনুষ্ঠানে উপস্থিত আমেরিকার আন্ডার সেক্রেটারির মিজ নুল্যান্ডের মাধ্যমে আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ও জনগণের কাছে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছে।’
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, আমেরিকা সরকারের আন্ডার সেক্রেটারি মিজ প্যাট্রিসিয়া নুল্যান্ড, বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব লোকমান হোসেন মিয়া, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক প্রফেসর এবিএম খুরশিদ আলম, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কবীরসহ অন্যান্য কর্মকর্তা।
বাংলাদেশের সঙ্গে আমেরিকার বিদ্যমান সুসম্পর্ককে আরও সম্প্রসারণ করতে আমেরিকা সোচ্চার রয়েছে বলে জানান আমেরিকার আন্ডার সেক্রেটারি মিজ নুল্যান্ড। আমেরিকার বিভিন্ন সংকটে বাংলাদেশ পাশে ছিল জানিয়ে বাংলাদেশের জনগণের প্রতি এ সময় তিনি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
হককথা/এমউএ