নিউইয়র্ক ০৫:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

খবরের কাগজ নিয়ে গবেষণায় উঠে আসা চমকপ্রদ তথ্য

রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : ১০:৫২:৫৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২০
  • / ৮৭ বার পঠিত

ছবি : সংগৃহীত
বাংলা পত্রিকা ডেস্ক: ভারতব্যাপী চলা লকডাউনের এই সময়ে মানুষ এখন যেটির ওপর সবচেয়ে বেশি নির্ভর করছে তা হচ্ছে খবরের কাগজ। এই কঠিন সময়ে নির্ভরযোগ্য, যাচাই করা তথ্যের প্রয়োজন আগের তুলনায় আরো বেশি বেড়েছে। ফলে মানুষ পত্রিকা পাঠে আরো বেশি সময় ব্যয় করছেন বলে গবেষণায় উঠে এসেছে। সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ায় প্রকাশিত বাজার গবেষণা সংস্থা অ্যাভান্স ফিল্ড এন্ড ব্রান্ড সলিউশানসের (Avance Field & Brand Solutions) জরিপে দেখা গেছে, মানুষ গড়ে প্রতিদিন সংবাদপত্রের পেছনে ২২ মিনিট বেশি সময় ব্যয় করছেন। তারা প্রায় এক ঘণ্টা ধরে কাগজটি পড়ছেন, লকডাউনের আগে যে পড়ার সময় ছিলো মাত্র ৩৮ মিনিট।
জরিপে জড়িতদের প্রায় ৪০ শতাংশ বলেছেন তারা এখন এক ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে খবরের কাগজ পড়ে থাকেন। এর আগে তারা অর্ধেকেরও কম, মাত্র ১৬ শতাংশ সময় ব্যয় করতেন পত্রিকা পড়ার পেছনে।
লকডাউন চলাকালে ৩০ মিনিটেরও বেশি সময় ধরে খবরের কাগজ পড়া পাঠকদের সংখ্যাও ৪২ শতাংশ থেকে বেড়ে ৭২ শতাংশ পর্যন্ত হয়েছে।
লকডাউনের আগে পত্রিকার পেছনে ১৫ মিনিটেরও কম সময় ব্যয় করা মানুষের সংখ্যা ছিলো ১৪ শতাংশ। এখন তা নেমে এসেছে মাত্র ৩ শতাংশ এ। অর্থাৎ বেশি সংখ্যক মানুষ এখন খবরের কাগজের পেছনে সময় ব্যয় করছে। এছাড়াও দেখা গেছে, অনেকেই একবারের পরিবর্তে ৪২ শতাংশ বেশি সময় ব্যয় করে একাধিকবার কাগজ পড়ছেন।
স্পষ্টতই, জরিপের ফলাফলগুলো দেখে এটা বুঝতে কষ্ট হচ্ছে না যে, এই কঠিন সময়ে পাঠক এবং সংবাদপত্রগুলোর মধ্যে সম্পর্ক গভীর ও প্রশস্ত হয়েছে। জরিপ বলছে, ‘সংবাদপত্রগুলো সত্যিই একটি গুরুত্বপূর্ণ সেবামাধ্যম এবং তথ্যের সবচেয়ে বিশ্বাসযোগ্য উৎস হিসেবে অবারিত রয়েছে।’ (কাগজ অনলাইন)

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

About Author Information

খবরের কাগজ নিয়ে গবেষণায় উঠে আসা চমকপ্রদ তথ্য

প্রকাশের সময় : ১০:৫২:৫৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২০

ছবি : সংগৃহীত
বাংলা পত্রিকা ডেস্ক: ভারতব্যাপী চলা লকডাউনের এই সময়ে মানুষ এখন যেটির ওপর সবচেয়ে বেশি নির্ভর করছে তা হচ্ছে খবরের কাগজ। এই কঠিন সময়ে নির্ভরযোগ্য, যাচাই করা তথ্যের প্রয়োজন আগের তুলনায় আরো বেশি বেড়েছে। ফলে মানুষ পত্রিকা পাঠে আরো বেশি সময় ব্যয় করছেন বলে গবেষণায় উঠে এসেছে। সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ায় প্রকাশিত বাজার গবেষণা সংস্থা অ্যাভান্স ফিল্ড এন্ড ব্রান্ড সলিউশানসের (Avance Field & Brand Solutions) জরিপে দেখা গেছে, মানুষ গড়ে প্রতিদিন সংবাদপত্রের পেছনে ২২ মিনিট বেশি সময় ব্যয় করছেন। তারা প্রায় এক ঘণ্টা ধরে কাগজটি পড়ছেন, লকডাউনের আগে যে পড়ার সময় ছিলো মাত্র ৩৮ মিনিট।
জরিপে জড়িতদের প্রায় ৪০ শতাংশ বলেছেন তারা এখন এক ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে খবরের কাগজ পড়ে থাকেন। এর আগে তারা অর্ধেকেরও কম, মাত্র ১৬ শতাংশ সময় ব্যয় করতেন পত্রিকা পড়ার পেছনে।
লকডাউন চলাকালে ৩০ মিনিটেরও বেশি সময় ধরে খবরের কাগজ পড়া পাঠকদের সংখ্যাও ৪২ শতাংশ থেকে বেড়ে ৭২ শতাংশ পর্যন্ত হয়েছে।
লকডাউনের আগে পত্রিকার পেছনে ১৫ মিনিটেরও কম সময় ব্যয় করা মানুষের সংখ্যা ছিলো ১৪ শতাংশ। এখন তা নেমে এসেছে মাত্র ৩ শতাংশ এ। অর্থাৎ বেশি সংখ্যক মানুষ এখন খবরের কাগজের পেছনে সময় ব্যয় করছে। এছাড়াও দেখা গেছে, অনেকেই একবারের পরিবর্তে ৪২ শতাংশ বেশি সময় ব্যয় করে একাধিকবার কাগজ পড়ছেন।
স্পষ্টতই, জরিপের ফলাফলগুলো দেখে এটা বুঝতে কষ্ট হচ্ছে না যে, এই কঠিন সময়ে পাঠক এবং সংবাদপত্রগুলোর মধ্যে সম্পর্ক গভীর ও প্রশস্ত হয়েছে। জরিপ বলছে, ‘সংবাদপত্রগুলো সত্যিই একটি গুরুত্বপূর্ণ সেবামাধ্যম এবং তথ্যের সবচেয়ে বিশ্বাসযোগ্য উৎস হিসেবে অবারিত রয়েছে।’ (কাগজ অনলাইন)