নিউইয়র্ক ০৬:৫২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞাপন :
মঙ্গলবারের পত্রিকা সাপ্তাহিক হককথা ও হককথা.কম এ আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন +1 (347) 848-3834

মিষ্টি আলু চাষী জয়া আহসান

হককথা ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : ০৬:০৪:০৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ জুলাই ২০২৪
  • / ২৯ বার পঠিত

দুই বাংলাতেই জনপ্রিয় জয়া আহসান। নতুন নতুন সিনেমায় দেখা যায় তাকে। দুই দেশের ছবিতে সমান তালে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। মাঝেমধ্যে ব্যক্তিগত অনেক কিছুই শেয়ার করেন।

বিশেষ করে তার ছাদ বাগানের কৃষি কাজের ছবি ও ঘরে তোলা ফসল দেখে চমকে যান অনেকেই।

যেমন আজ তিনি তুলেছেন মিষ্টি আলু। চাষকৃত আলুর ছবি সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ করতেই বিস্ময় প্রকাশ করছেন। সবাই বলছেন বারান্দায় মিষতি আলু? এটা কিভাবে সম্ভব? এতো অল্প জায়গায় মিষ্টি আলু কিভাবে হবে?

শেয়ার করা ছবিতে দেখা যায়, জলপাই সবুজ রঙের শাড়ি পরে বারান্দায় ডালা হাতে মিষ্টি আলু নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন।

ক্যাপশনে এ অভিনেত্রী লিখেছেন, ‘মাটি খনন করে মিষ্টি আলু তোলা সবসময় একটি দুঃসাহসিক কাজ। আমার ছোট্ট বারান্দার চাষ করা মিষ্টি আলু।’ এখানে ছবিতে আরও দেখা যায়, বারান্দায় বাহারী রকমের সবজির গাছ রয়েছে পাশাপাশি ফুল গাছও। এ যেন একখণ্ড সবুজের মেলা ।

শাড়িতে জয়াকে বেশ মানিয়েছে। বাঁধা চুলে হালকা মেকআপ আর মিষ্টি হাসি যেন অনুরাগীদের মন ছুঁয়ে যায়। সকাল সকাল বেশ হাসিখুশি মেজাকে ভক্তদের মাঝে ধরা দিলেন তিনি।

এক ভক্ত এ পোস্টের কমেন্টে লিখেছেন, ‘আপনার বারান্দার বাগানের ভয়ে আছি! এটা অবিশ্বাস্য যে আপনি এত অল্প জায়গায় মিষ্টি আলু চাষ করতে পেরেছেন। আপনি আমাদের সকলের জন্য একটি অনুপ্রেরণা।

আরেক ভাষ্য, ‘অনেকদিন পর মিষ্টি আলু দেখলাম, মিষ্টি আলু মাটির চুলায় পুড়িয়ে খেতে অনেক মজা। আপনি চাইলে পুড়িয়ে খেতে পারেন। আর আমাদের দাওয়াত করতে পারেন।’ অনেকে জয়ার এ ছবি দেখে ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জির সঙ্গে তুলনা করেছেন।

জয়ার চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় ২০০৪ সালে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ব্যাচেলর চলচ্চিত্রের মাধ্যমে। পরে দীর্ঘ ৬ বছর পর নুরুল আলম আতিক পরিচালিত ডুবসাঁতার চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। অভিনয়ের স্বীকৃতি হিসেবে তিনি পাঁচটি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, সাতটি মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার ও তিনটি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পূর্বসহ অসংখ্য পুরস্কার অর্জন করেছেন। সূত্র: কালের কন্ঠ।

Tag :

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

মিষ্টি আলু চাষী জয়া আহসান

প্রকাশের সময় : ০৬:০৪:০৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ জুলাই ২০২৪

দুই বাংলাতেই জনপ্রিয় জয়া আহসান। নতুন নতুন সিনেমায় দেখা যায় তাকে। দুই দেশের ছবিতে সমান তালে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। মাঝেমধ্যে ব্যক্তিগত অনেক কিছুই শেয়ার করেন।

বিশেষ করে তার ছাদ বাগানের কৃষি কাজের ছবি ও ঘরে তোলা ফসল দেখে চমকে যান অনেকেই।

যেমন আজ তিনি তুলেছেন মিষ্টি আলু। চাষকৃত আলুর ছবি সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ করতেই বিস্ময় প্রকাশ করছেন। সবাই বলছেন বারান্দায় মিষতি আলু? এটা কিভাবে সম্ভব? এতো অল্প জায়গায় মিষ্টি আলু কিভাবে হবে?

শেয়ার করা ছবিতে দেখা যায়, জলপাই সবুজ রঙের শাড়ি পরে বারান্দায় ডালা হাতে মিষ্টি আলু নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন।

ক্যাপশনে এ অভিনেত্রী লিখেছেন, ‘মাটি খনন করে মিষ্টি আলু তোলা সবসময় একটি দুঃসাহসিক কাজ। আমার ছোট্ট বারান্দার চাষ করা মিষ্টি আলু।’ এখানে ছবিতে আরও দেখা যায়, বারান্দায় বাহারী রকমের সবজির গাছ রয়েছে পাশাপাশি ফুল গাছও। এ যেন একখণ্ড সবুজের মেলা ।

শাড়িতে জয়াকে বেশ মানিয়েছে। বাঁধা চুলে হালকা মেকআপ আর মিষ্টি হাসি যেন অনুরাগীদের মন ছুঁয়ে যায়। সকাল সকাল বেশ হাসিখুশি মেজাকে ভক্তদের মাঝে ধরা দিলেন তিনি।

এক ভক্ত এ পোস্টের কমেন্টে লিখেছেন, ‘আপনার বারান্দার বাগানের ভয়ে আছি! এটা অবিশ্বাস্য যে আপনি এত অল্প জায়গায় মিষ্টি আলু চাষ করতে পেরেছেন। আপনি আমাদের সকলের জন্য একটি অনুপ্রেরণা।

আরেক ভাষ্য, ‘অনেকদিন পর মিষ্টি আলু দেখলাম, মিষ্টি আলু মাটির চুলায় পুড়িয়ে খেতে অনেক মজা। আপনি চাইলে পুড়িয়ে খেতে পারেন। আর আমাদের দাওয়াত করতে পারেন।’ অনেকে জয়ার এ ছবি দেখে ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জির সঙ্গে তুলনা করেছেন।

জয়ার চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় ২০০৪ সালে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ব্যাচেলর চলচ্চিত্রের মাধ্যমে। পরে দীর্ঘ ৬ বছর পর নুরুল আলম আতিক পরিচালিত ডুবসাঁতার চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। অভিনয়ের স্বীকৃতি হিসেবে তিনি পাঁচটি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, সাতটি মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার ও তিনটি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পূর্বসহ অসংখ্য পুরস্কার অর্জন করেছেন। সূত্র: কালের কন্ঠ।