BD Society

 
 

বাংলাদেশ সোসাইটির বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ ৩১ ডিসেম্বর

দুই প্যানেলের ১০+৯জন কর্মকর্তা মুখোমুখী ॥ কমিউনিটিতে নানা প্রশ্ন নানা জল্পনা-কল্পনা

বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্ক নিউইয়র্ক। নিউইয়র্ক তথা যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাংলাদেশীদের ‘মাদার সংগঠন’। উত্তর আমেরিকায় বাংলাদেশীদের ‘মিনি পার্লামেন্ট’ হিসেবেও পরিচিত। দেশ স্বাধীনতার পর সত্তর দশকের মাঝামাঝি প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশ সোসাইটি নানা চড়াই-উৎড়াই পেরিয়ে তৎকালীন কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের ‘ড্রইং রুম’ থেকে আজ সিটির এলমহার্স্টস্থ নিজস্ব ভবনে আসন নিয়েছে। সোসাইটি নিয়ে কমিউনিটির চাওয়া-পাওয়ার শেষ নেই। শেষ নেই সামাজিক দায়-দায়িত্বের। সবদিক বিবেচনায় উত্তর আমেরিকা প্রবাসী বাংলাদেশীদের একটাই চাওয়া-পাওয়া সোসাইটিতে যোগ্য নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠা। সোসাইটিকে গণমুখী সামাজিক সংগঠনে পরিণত করা। মূলধারায় বাংলাদেশ আর প্রবাসী বাংলাদেশীদেরকে নেতৃত্ব দেয়ার যোগ্য সংগঠন হিসেবে গড়া। এই প্রেক্ষাপটে গত ২৬ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হলো সোসাইটিরবিস্তারিত পড়ুন


বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচনোত্তর সাংবাদিক সম্মেলনে ‘কামাল-সানী’ প্যানেল

সোসাইটিকে ‘কালো পাথর’ তথা ‘গড ফাদার’ মুক্ত করার জন্য নতুন কর্মকর্তদের প্রতি আহ্বান

বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্ক নিউইয়র্ক-এর নির্বাচনোত্তর সাংবাদিক সম্মেলনে ‘কামাল-সানী’ প্যানেল নির্বাচনকে ‘প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন’ হিসেবে উল্লেখ ও ভোটিং মেশিন ক্রুটিযুক্তসহ কতিপয় অনিয়মের অভিযোগ এবং সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যানেরকে ব্যর্থ বলে কমিউনিটির বৃহত্তর স্বার্থে আর সোসাইটিকে গতিশীল করতে নির্বাচনী ফলাফল মেনে নির্বাচিত সকল কর্মকর্তাকে অভিনন্দন জানানো হয়েছে। সেই সাথে বাংলাদেশ সোসাইটি থেকে নানা অন্যায়, অনিয়ম আর আবর্জনায় ঘেরা ‘কালো পাথর’ তথা ‘গড ফাদার’ মুক্ত করার জন্য সোসইটির নতুন কর্মকর্তদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। তবে প্যানেলটির নির্বাচনী বিশ্লেষনে এই ফল হচ্ছে ‘আউট অব অ্যাসপেক্টেশন, আউট আউট অব এস্টিমেশন এন্ডবিস্তারিত পড়ুন


বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন

‘কুনু-রহীম’র জয় আর ‘কামাল-সানী’র পরাজয়ের নেপথ্যে-

বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্্ক নিউইয়র্কের নির্বাচন পরবর্তী সময়ে কমিউনিটি মুখরিত। বিশেষ করে নির্বাচনে ‘কুনু-রহীম’-এর জয় আর ‘কামাল-সানী’র পরাজয়ের কারণ নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনা চলছে। নির্বাচনে ‘কুনু-রহীম’ প্যানেল সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদসহ সোসাইটির কার্যকরী পরিষদের ১৯টি পদের মধ্যে ১০টি এবং ‘কামাল-সানী’ প্যানেল সিনিয়র সহ সভাপতি পদসহ ৮টি পদে জয়লাভ করেন। কার্যকরী পরিষদের একটি পদে উভয় প্যানেলের দুই প্রার্থী সমান সংখ্যক ভোট পাওয়ায় ঐ পদের ব্যাপারে নির্বাচন কমিশন (ইসি) এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোন সিদ্ধান্ত জানায়নি। নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণার পর ‘কামাল-সানী’ প্যানেলের পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশন বরাবর ‘নির্বাচন প্রক্রিয়ায় অনিয়ম’-এর অভিযোগ এনে একটিবিস্তারিত পড়ুন


বিএনপি নেতা মাহিদের বিশেষ ভূমিকা

বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচনে ‘কুনু-রহীম’ বিজয়ের নেপথ্যে-

বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্্ক নিউইয়র্কের নির্বাচন পরবর্তী সময়ে কমিউনিটিতে নানা জল্পনা-কল্পনা চলছে। বিশ্লেষন চলছে ‘কুনু-রহীম’ প্যানেলের সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ আর ‘কামাল-সানী’র পরাজয়ের কারণ। নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণার পর নিজেদের পরাজয় জেনে ‘কামাল-সানী’ প্যানেলের পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশন বরাবর ‘নির্বাচন প্রক্রিয়ায় অনিয়ম’-এর অভিযোগ এনে একটি আপত্তি দেয়া হয়েছে। নির্বাচন কমিশন অভিযোগটি গ্রহণ করেছে। এদিকে ‘কামাল-সানী’ প্যানেলের নির্বাচন পরিচালনা কমিটি তাদের পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে ২৭ অক্টোবর সোমবার রাতে জ্যাকসন হাইটসে বৈঠকে মিলিত হন। বৈঠকে নির্বাচন, নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা, সর্বপরি নির্বাচনে পরাজয়ের কারণ তুলে চুলচেরা বিশ্লেষণ এবং পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তবে এই রিপোর্ট লেখাবিস্তারিত পড়ুন


ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা : ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়ায় ‘কামাল-সানী’ প্যানেলের আপত্তি : একটি পদে সমান ভোট

বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচনে ‘কুনু-রহীম’ প্যানেলের বিজয়ের চমক

বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্্ক নিউইয়র্কের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে (২০১৫-২০১৬) ‘কুনু-রহীম’ প্যানেল বিজয়ের চমক দেখিয়েছে। নির্বাচনে এই প্যানেল থেকে আজমল হোসেন কুনু সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে আব্দুর রহীম হাওলাদার পুন: নির্বাচত হয়েছেন। গত ২৬ অক্টোবর রোববার এই নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ‘কুনু-রহীম’ ও ‘কামাল-সানী’ প্যানেল সরাসরি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। নির্বাচন কমিশনের বেসরকারী ফলাফলে ‘কুনু-রহীম’ প্যানেলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদসহ ১০টি পদে অপরদিকে ‘কামাল-সানী’ প্যানেলের সিনিয়র সহ সভাপতি পদসহ ৮জন প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন। কার্যকরী পরিষদের একটি পদে উভয় প্যানেল থেকে একজন করে সমান সংখ্যক ভোট পাওয়ায় নির্বাচন কমিশন এই পদের ফল স্থগিতবিস্তারিত পড়ুন


বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন

কুইন্স কেন্দ্রের টুকিটাকি

নিউইয়র্ক তথা উত্তর আমেরিকায় প্রবাসী বাংলাদেশীদের ‘মাদার সামাজিক সংগঠন’ আর প্রবাসে বাংলাদেশী পার্লামেন্ট হিসেবে পরিচিত বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্্ক নিউইয়র্কের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন (২০১৫-২০১৬) অনুষ্ঠিত হলো ২৬ অক্টোবর রোববার। এই নির্বাচন ঘিরে কমিউনিটি ছিলো উৎসবমুখর। সোসাইটির নির্বাচনে কেন্দ্র ছিলো দু’টি। একটি কুইন্সে, অপরটি ব্রঙ্কসে। কুইন্স কেন্দ্রের নির্বাচনী টুকিটাকি নিয়ে ইউএনএ পরিবেশিত প্রতিবেদন। প্রথম ভোটার: কুইন্স কেন্দ্র সিটির উডসাইডস্থ গুলশান ট্যারেসে ভোট গ্রহণ শুরু হয় সকাল ৯টায়। সবকিছু ঠিকঠাক। এই কেন্দ্রে প্রথম ভোট দেন কমিউনিটির পরিচিত মুখ, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক দুলাল মিয়া (হাজী এনাম)। ব্যাপক প্রচারণা: সোসাইটির নির্বাচন ঘিরে ভোট কেন্দ্রেরবিস্তারিত পড়ুন


বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন’২০১৪

সভাপতি কুনু সাধারণ সম্পাদক পদে রহীম পুন:নির্বাচিত

বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্্ক নিউইয়র্কের দ্বি-বার্ষিক (২০১৫-২০১৬) নির্বাচনে আজমল হোসেন কুনু সভাপতি এবং আব্দুর রহীম হাওলাদার সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। সাধারণ সম্পাদক পদে আব্দুর রহীম হাওলাদার পুন:নির্বাচিত হলেন। গত ২৬ অক্টোবর রোববার কমিউনিটির বহুল আলোচিত এই নির্বাচনে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ‘কুনু-রহীম’ ও ‘কামাল-সানী’ প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। নির্বাচন কমিশনের বেসরকারী ফলাফলে ‘কুনু-রহীম’ প্যানেলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদসহ ১০টি পদে অপরদিকে ‘কামাল-সানী’ প্যানেলের সিনিয়র সহ সভাপতি পদসহ ৮জন প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন। কার্যকরী পরিষদের একটি পদে উভয় প্যানেল থেকে একজন করে সমান সংখ্যক ভোট পাওয়ায় নির্বাচন কমিশন এই পদের ফল স্থগিতবিস্তারিত পড়ুন