এপ্রিল, ২০২০

 

করোনায় আরো এক বাংলাদেশী মৃত্যু

রাশিদা আহমেদ মুন। ছবি: নিহার সিদ্দিকী নিউইয়র্ক (ইউএনএ): নিউইয়র্কে বাংলাদেশী কমিউনিটির পরিচিত মুখ, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র সক্রিয় নেত্রী রাশিদা আহমেদ ‘মুন’ (৪৬) আর নেই। মরণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘ ২২দিন ধরে লং আইল্যান্ডের প্লেন ভিউ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) দুপুর ১২টার দিকে মৃত্যুবরণ করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজেউন)। তার দেশের বাড়ী পাবনা জেলায় শালগাড়ীয়া। তিনি নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে বসবাস করতেন। মুন ব্যক্তিগত জীবনে হাস্যজ্জল, বিনয়ী ও ভালো মনের মানুষ ছিলেন বলে প্রবাসীরা জানিয়েছেন। খবর ইউএনএ’র। উল্লেখ্য, বিভিন্ন সূত্রে পাওয়া তথ্য মতে যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দুই শতাধিক বাংলাদেশীবিস্তারিত পড়ুন


লকডাউনের কারণে বাড়বে অনিচ্ছাকৃত গর্ভধারণ

ছবি : প্রতিকী হককথা ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস (কেভিড-১৯) মহামারীর কবলে বিশ্ব। তাই এই ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে কার্যত লকডাউন সারাবিশ্ব। এতে করে ঘরবন্দি হয়ে পড়েছে সবাই। এই পরিস্থিতিতে অনিচ্ছাকৃত গর্ভধারণের হার বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের অঙ্গ সংগঠন পপুলেশান ফান্ড (ইএনএফপিএ) ও তার সহযোগী সংস্থাগুলো। এই গবেষণাটি পরিচালনা করতে ইএনএফপিএ’কে সহযোগিতা করেছে আমেরিকার জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়, অ্যাভেনির হেল্থ এবং অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া বিশ্ববিদ্যালয়। এমন খবর প্রকাশ করেছে ভারতের সংবাদমাধ্যম এই সময়। সংস্থাটির দাবি, বাজার থেকে হঠাৎ করেই উধাও হয়ে গিয়েছে অত্যাধুনিক মানের গর্ভনিরোধক (কন্ট্রাসেপ্টিভ পিল)। এতে করে অল্প ও মাঝারি আয়ের দেশগুলোরবিস্তারিত পড়ুন


আমাদের খসরু ভাই

টাইম টেলিভিশন ও বাংলা পত্রিকা অফিসের এক অনুষ্ঠানে জনাব আবু তাহের ও ষৈয়দ ইলিয়াস খসরু সহ অন্যান্যাদের মাঝে লেখক (মাঝে)। ছবি: সংগৃহীত তৌফিকুল ইসলাম পিয়াস: ২০১৪’র অক্টোবরের মাঝামাঝিতে আমেরিকায় আসার পর সর্বপ্রথম যে মানুষটির সঙ্গে আমার পরিচয় হয়েছিল তিনি নিউইয়র্ক থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা’র সম্পাদক একই সংগে বাংলা টেলিভিশন চ্যানেল ‘টাইম টিভি’র সিইও আবু তাহের ভাই। টাইম টিভি অফিসে যখনই যেতাম, তাহের ভাইয়ের সংগে সঙ্গে একজন সদাহাসি-খুশী মানুষকে দেখতাম। প্রথম দিনই তিনি আমার সংগে পরিচিত হলেন, জানলাম তার নাম সৈয়দ ইলিয়াস খসরু। সৈয়দ ইলিয়াম খসরু খুব দ্রæতই খসরু ভাইবিস্তারিত পড়ুন


খবরের কাগজ নিয়ে গবেষণায় উঠে আসা চমকপ্রদ তথ্য

ছবি : সংগৃহীত বাংলা পত্রিকা ডেস্ক: ভারতব্যাপী চলা লকডাউনের এই সময়ে মানুষ এখন যেটির ওপর সবচেয়ে বেশি নির্ভর করছে তা হচ্ছে খবরের কাগজ। এই কঠিন সময়ে নির্ভরযোগ্য, যাচাই করা তথ্যের প্রয়োজন আগের তুলনায় আরো বেশি বেড়েছে। ফলে মানুষ পত্রিকা পাঠে আরো বেশি সময় ব্যয় করছেন বলে গবেষণায় উঠে এসেছে। সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ায় প্রকাশিত বাজার গবেষণা সংস্থা অ্যাভান্স ফিল্ড এন্ড ব্রান্ড সলিউশানসের (Avance Field & Brand Solutions) জরিপে দেখা গেছে, মানুষ গড়ে প্রতিদিন সংবাদপত্রের পেছনে ২২ মিনিট বেশি সময় ব্যয় করছেন। তারা প্রায় এক ঘণ্টা ধরে কাগজটি পড়ছেন, লকডাউনের আগেবিস্তারিত পড়ুন


পহেলা মে ফ্লোরিডায় লকডাউন খুলে দেয়া হচ্ছে : মায়ামী পার্ক ব্যবহারে থাকবে সাবধানতা

এমদাদ চৌধুরী দীপু: বুধবার (পহেলা মে) খুলে দেয়া হচ্ছে ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের লকডাউন। এ ব্যাপারে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প-এর সাথে কথা হয়েছে ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের গভর্নর রন ডি সেন্টিস’র। তিনি ওয়াশিংটনে প্রেসিডেন্টের সাথে তার কার্যালয়ে দেখা করেন। এসময় একে অন্যকে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন। এদিকে অঙ্গরাজ্যের আকর্ষন মায়ামী কাউন্টির মিয়ামিডেড পার্কও খুলে দেয়া হচ্ছে। সব প্রস্ততি শেষ হয়েছে উদ্যান, মেরিনাস এবং গল্ফমাঠ সহ বিভিন্ন লোকেশন-র। রিপাবলিকান সমর্থিত গভর্নর গত সপ্তাহ থেকে তার রাজ্য লকডাউন মুক্ত করার প্রস্তুতি শুরু করেছেন বলে জানিয়েছে সিএনএন। মঙ্গলবার, কাউন্টি শ্রমিকরা পার্কে বাথরুম এবং ঝর্ণা স্যানিটাইজ করেছেন এবং সামাজিক দূরত্ব প্রয়োগবিস্তারিত পড়ুন


ঘরে ঘরে যাচ্ছে খাবার : ব্যতিক্রমী পরিবেশে রমজান-ইফতার : করোনায় বদলে গেছে লাইফ স্টাইল

নিউইয়র্ক: জ্যামাইকার হিলসাইড এভিনিউ। ছবি: ইউএনএ বিশেষ প্রতিনিধি: মরণঘাতি করোনাভাইরাসের আক্রমণে একের পর এক প্রাণহাণীর পাশাপাশি রাত-দিন সর্বক্ষণ অজানা এক আতঙ্ক বিরাজ করছে জনমনে। শুধু নিউইয়র্ক বা যুক্তরাষ্ট্র নয়, সমগ্র বিশ্ববাসী আজ পর্যদুস্ত করোনার আঘাতে। বেঁচে থাকার জন্য চলছে অজানা এক ঘাতকের সাথে বিশ্ববাসীর লড়াই-সংগ্রম। এতে চরমভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা, বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে ব্যক্তিগত আর পারিবারিক সুসম্পর্ক, বাড়ছে দূরত্ব, ভেঙ্গে পড়েছে অর্থনীতি, বন্ধ হয়ে গেছে অফিস-আদালত, স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়, প্রার্থনাস্থল মসজিদ, মন্দির, গীর্জা, প্যাগোডা। নিউইয়র্কসহ যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে চলছে জরুরী অবস্থা/লক ডাউন। সবমিলিয়ে করোনায় বদলে গেছে মানুষের লাইফ স্টাইল।বিস্তারিত পড়ুন


করোনায় প্রতিদিন যা দেখছি

কাজী আসাদ: করোনাকালীন এই সময়টাতে নিউইয়র্কে অবস্থান করায় প্রতিদিন এখানকার নিউজ চ্যানেলগুলো দেখছি। সবগুলো নিউজ চ্যানেলই গত প্রায় দুই মাস ধরে তাদের নিয়মিত গতানুগতিক প্রোগ্রামে পরিবর্তন এনে সারাক্ষণ মূলত: করোনাভাইরাস পেন্ডেমিক কাভার করে যাচ্ছে। বিভিন্ন পর্যায়ের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ছাড়াও এই সময়ের শীর্ষস্থানীয় বিজ্ঞানী, বিশেষজ্ঞ, ডাক্তারবৃন্দ সর্বক্ষণ তাদের ধারণা, মতামত, চিন্তাভাবনা ইত্যাদি শেয়ার করছেন। বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছেন। এই মুহূর্তে সারা বিশ্বের মোট মৃতের সংখ্যার এক চতুর্থাংশেরও বেশি শুধু আমেরিকাতেই, এ পর্যন্ত মৃত মোট ৫৬,০০০ আর আক্রান্ত প্রায় দশ লক্ষ। কিন্তু একটিবারের জন্য একজনকেও এটা নিয়ে হা হুতাশ করতে দেখলাম না।বিস্তারিত পড়ুন


করোনায় থাবায় বিপন্ন সংবাদপত্র

হাবিবুর রহমান: কোভিড-১৯ ভাইরাসটি সারা পৃথিবীর গণ মাধ্যমকে যে সংকটের মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছে তার ধাক্কা এসে লেগেছে নিউইয়র্কের সংবাদপত্র শিল্পেও। দু’টি বাদে নিউইয়র্কের সবকটি সংবাদপত্রের প্রিন্ট ভার্সন বন্ধ হয়ে গেছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবার পর তাদের ক’টি আবার আলোর মুখ দেখবে তা সত্যিই ভাবার বিষয়। সংবাদপত্রের আয়ের প্রধান উৎস বিজ্ঞাপন। লক ডাউনের কারণে বন্ধ হয়ে গেছে অফিস-আদালত সহ সব ধরনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে যাবার কারণে ট্রাভেল এজেন্সীগুলোও অস্তিত্ব সংকটে। রমজান মাসে প্রবাসের সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো মেতে উঠে ইফতার পার্টিতে। সংবাদপত্রগুলোর পাতায় পাতায় থাকে এসব অনুষ্ঠানের বিজ্ঞাপন। এবার আইনবিস্তারিত পড়ুন


জাতীয় অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী আর নেই

ঢাকা ডেস্ক: জাতীয় অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী আর নেই। সোমবার (২৭ এপ্রিল) ভোর রাতে তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। রোববার দিবাগত রাতে ধানমন্ডির বাসায় জামিলুর রেজা চৌধুরী ঘুমিয়ে ছিলেন। ভোরে সেহরির সময় তার স্ত্রী তাকে ডাক দেন। কোনো সাড়া না পাওয়ায় তাকে দ্রæতই স্কয়ার হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। চিকিৎসকরা জানান হাসপাতালে আনার আগেই তিনি মারা গেছেন। জামিলুর রেজা চৌধুরীর বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। সোমবার বাদ জোহর ধানমন্ডি ঈদগাহ মসজিদে নামাজে জানাজা শেষে তাকে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে পারিবারিকবিস্তারিত পড়ুন


কার্যকর ভ্যাকসিনের জন্য কেন এত অপেক্ষা?

সম্পাদকীয়: এই মুহূর্তে বিশ্বের ৩ শতাংশ জিডিপি খাইয়া ফালাইয়াছে করোনা ভাইরাস। ইহা বিশ্ব অর্থনীতির আরো কতখানি ক্ষতিসাধন করিবে তাহা এখনো কেহ বুঝিয়া উঠিতে পারিতেছে না। রহস্যময় করোনা ভাইরাসকে দমাইতে না পারিলে বিশ্বের অর্থনীতির পাশাপাশি বেশির ভাগ মানুষের জীবন-জীবিকার উপর নামিয়া আসিবে চরম অভিঘাত। সেই অভিঘাত হইতে রক্ষা পাইতে সারা বিশ্ব তাকাইয়া রহিয়াছে একটি কার্যকর ভ্যাকসিনের দিকে। বলা যায়, সারা বিশ্ব ঝাঁপাইয়া পড়িয়াছে করোনার টিকা আবিষ্কারে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও স্পষ্ট করিয়াই বলিয়া দিয়াছে, প্রতিষেধক ছাড়া করোনা হইতে মুক্তির পথ নাই। ইতিমধ্যে জানা গিয়াছে, আমেরিকায় একটি এবং চীনের দুইটি সংস্থা নাকি প্রতিষেধকেরবিস্তারিত পড়ুন