মঙ্গলবার, অক্টোবর ২৯, ২০১৯

 

সাকিবের মতো তথ্য না দেওয়ায় শাস্তি পেয়েছিলেন জয়াসুরিয়াও

সনাথ জয়াসুরিয়া হককথা ডেস্ক: জুয়াড়িদের কাছ থেকে ম্যাচ পাতানো কিংবা স্পট ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েও তা আইসিসির দুর্নীতি দমন বিভাগকে না জানানোয় শাস্তি হয়েছে বেশ কিছু ক্রিকেটারের। আইসিসির দুর্নীতি দমন বিভাগের আচরণবিধিতে বলা আছে, কোনো ক্রিকেটার অনৈতিক প্রস্তাব পেলে তা আকসুকে না জানিয়ে চেপে গেলে সেটি অপরাধ বলে গণ্য হবে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এমন কাজ করে শাস্তি পাওয়া ক্রিকেটার আছেন অনেকেই। উমর আকমলের কথাই ধরুন। গত বছর এক টিভি সাক্ষাৎকারে স্পট ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন বলে দাবি করেন পাকিস্তানের এ ব্যাটসম্যান। এরপরই নড়চড়ে বসে আইসিসি। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের তরফ থেকেও ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছিলবিস্তারিত পড়ুন


সাকিব দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ : দায় স্বীকার

সাকিব আল হাসান। ছবি-সংগৃহীত হককথা ডেস্ক: ম্যাচ পাতানোর প্রস্তাব গোপন করায় বাংলাদেশ টেস্ট ও টি-২০ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। আইসিসির দুর্নীতিবিরোধী কোডের তিনটি আইন লঙ্ঘনের অপরাধ সাকিব মেনে নেওয়ার পর এ শাস্তি দেওয়া হয়েছে তাকে। মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে আইসিসি। আইসিসি তাদের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে জানিয়েছে, শাস্তির ২ বছরের মধ্যে প্রথম এক বছর কোনো ধরণের ক্রিকেট ম্যাচ খেলতে পারবেন না সাকিব। শাস্তির প্রথম এক বছর আইসিসির কোনো আইন ভঙ্গ না করলে পরেরবিস্তারিত পড়ুন