মঙ্গলবার, জুন ৫, ২০১৮

 

সাক্ষাৎকারে কলকাতার গীটার বাদক মার্কো

বাংলাদেশ আমার সেকেন্ড হোম

হককথা ডেস্ক: কলকাতার গীটার ও হারমোনিকা বাদক তাপস কুমার দত্ত। সঙ্গীত ভুবনে যিনি মার্কো নামেই পরিচিত। কলকাতায় জন্ম। সেই ১৯৭৭ সালে ৭/৮ বছর বয়সে শিশু শিল্পী হিসেবে অল ইন্ডিয়া রেডিও-তে যোগদান। এরপর ইলেক্ট্রনিক্স ও টেলিকমিউনিকেশন-এর উপর ডিপ্লোমাধারী। লেখাপড়ার জন্য মাঝে সঙ্গীত জগত থেকে দূরে থাকেন। পরবর্তীতে কিছুদিন চাকুরী করার পর আবার সঙ্গীত জগতে ফিরে আসা। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিশেন ইউএসএ’র আমন্ত্রণে এবারই প্রথম যুক্তরাষ্ট্র সফরে এসেছেন। গত ২৫-২৭ মে টেনেসি অঙ্গরাজ্যের ন্যাশভিল-এ আয়োজিত অনুষ্ঠানে যোগ দেন। গত ১ জুন শুক্রবার নিউইয়র্কে এই প্রতিনিধির সাথে আলাপকালে জানান তার সঙ্গীত ভুবনের কথা।বিস্তারিত পড়ুন


সাক্ষাৎকারে কলকাতার শিল্পী মহুয়া ব্যানার্জী

বাংলাদেশের মতো আতিথিয়তা আর কোথাও পাইনি

হককথা ডেস্ক: কলকাতার সঙ্গীত শিল্পী মহুয়া ব্যানার্জী। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিশেন ইউএসএ’র আমন্ত্রণে এবারই প্রথম যুক্তরাষ্ট্র সফরে এসেছেন। গত ২৫-২৭ মে টেনেসি অঙ্গরাজ্যের ন্যাশভিল-এ আয়োজিত অনুষ্ঠানে যোগ দেন। এই অনুষ্ঠানে গান করে খুব ভালো লেগেছে তার। যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য থেকে বিপুল সংখ্যক দর্শক-শ্রোতার সমাবেশ দেখে শিল্পীর আরো ভালো লাগে। সবাইকে নিজের লোক মনে হয়েছে। মনে হয়েছে আমি বা তারা প্রবাসে নয়, কলকাতাতেই রয়েছি। তাদের অনুরোধ ভালো লেগেছে, গান পরিবেশন করে খুব আনন্দ পেয়েছি। এক সাক্ষাৎকারে শিল্পী মহুয়া ব্যানাজী এমনই অনুভূতির কথা ব্যক্ত করেন। গত ১ জুন শুক্রবার নিউইয়র্কে এই প্রতিনিধিরবিস্তারিত পড়ুন


বৃহত্তর নোয়াখালী সোসাইটি’র প্রশংসনীয় উদ্যোগ

বিদায় হৃদয়-নাঈম ॥ ব্রুকলীনে জানাজায় মানুষের ঢল

শিবলী চৌধুরী কায়েস: স্বপ্নের দেশে পাড়ি জমাতে গিয়ে অসহায় মৃত্যুবরণকারী নাইমুল ইসলাম হৃদয়ের ও শাহাদাত হোসেন নাঈমকে নিউইয়র্ক থেকে শেষ বিদায় জানানো হয়েছে। রোববার ব্রুলীনের বাংলাদেশ-মুসলিম সেন্টারে ‘অকালে ঝরে যাওয়া এ দুই তরুণের নামাজের জানাজায় নামে মানুষের ঢল। যুক্তরাষ্ট্রের সীমান্তবর্তী নদীতে ভেসে উঠা ‘নাঈম-হৃদয়ের’ মরদেহ মাতৃভূমিতে পাঠানোর উদ্যোগ নিয়েছে প্রবাসের অন্যতম শীর্ষ আঞ্চলীক সংগঠন বৃহত্তর নোয়াখালী সোসাইটি ইউএসএ ইনক। স্বপ্ন পূরণের রথে-চড়া এ দুই বাংলাদেশীর অপ্রত্যাশিত মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন-প্রবাসীরা। তাদের দাবী, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এ ধরণের জীবন-ঝুঁকির পথ যাতে আরো কেউ বেছে না নেয়। স্বপ্নের দেশ আমেরিকায় পাড়িবিস্তারিত পড়ুন