বিপিএল ইউএসএ টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট-২০১৮

সিলেট সুলতান্স’র শিরোপা জয় ॥ ঢাকা স্বরপিয়ন্স রানার্স আপ

হককথা ডেস্ক: নিউইয়র্কে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত উৎসব গ্রুপ বাংলাদেশী প্রিমিয়ার লীগ-বিপিএল ইউএসএ-২০১৮ টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের শিরোপা জয় করেছে সিলেট সুলতান্স। প্রতিদ্বন্ডিতাপূর্ণ খেলায় টুনার্মেন্টের একমাত্র অপরাজিত দল ঢাকা স্বরপিয়ন্সকে তিন উইকেটে পরাজিত করে তারা। বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনায় শুরু হওয়া এই টুর্নামেন্ট প্রথম আসরের আনুষ্ঠানিক সমাপ্তিও হলো এর মাধ্যমে। যৌথভাবে এই টুর্নামেন্টের আয়োজক হচ্ছে নর্থ আমেরিকান ক্রিকেট প্লেয়ার্স এসোসিয়েশন ও এনওয়াইবিসিএল। টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা ও বিভাগের নামে ১৬টি দল অংশগ্রহণ করে। এই টুর্নামেন্টের গ্র্যান্ড স্পন্সর হচ্ছে ‘উৎসব গ্রুপ’ আর মিডিয়া পার্টনার হচ্ছে ‘টাইম টেলিভিশন ও বাংলা পত্রিকা’।
রোববার সকালে সকালে স্থানীয় রুজডেলের আইডলউল্ড ক্রিকেট মাঠে টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা শুরু হয়। নিউইয়র্কের স্থানীয় প্লেয়ারের সাথে সাথে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন স্টেট এবং বাংলাদেশের খেলোয়াররাও টুনামেন্টের ১৬ টি দলের হয়ে খেলায় অংশ নেয়।
আসরের চূড়ান্ত ম্যাচে টুর্নামেন্টের একমাত্র অপরাজিত থাকা দল ঢাকা স্কোরপিওন্স এবং সিলেট সৃুলতান্স এর মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়। সকালে টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিয়ের সিদ্ধান্ত নেয় সিলেট।
প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ঢাকার ব্যাটর্সম্যানদের দৃঢতায় নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৪২ রান সংগ্রহ করে। দলের নাজমুল সিদ্দিকী ৩২ এবং আহসান সিদ্দীকী ৫১ রান করেন। সিলেটের সালাহ উদ্দিন এবং ইমরান হাসিব ২ টি করে উইকেট নেন।
১৪২ রানের লক্ষ্যে বাট করতে নেমে শুরুতেই বিপর্যয়ে পড়ে সিলেট সুলতান্স। একের পর এক উইকেট হারাতে থাকে ঢাকার নিয়ন্ত্রিত বোলিয়ের সামনে। তবে দলের হাল ধরেন সাকের আহমেদ। ৯২ রান করে জয়ের ভিত সাকের’ই গড়ে দেন। এছাড়া একমাত্র সালেহ উদ্দীন দুই অংকের কোঠায় রান করতে পারে। আর সবাই ছিলো আসা যাওয়ার মধ্যে। এক বল হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌছে যায় সিলেট।
খেলায় মোস্ট ভেলুয়েবল প্লেয়ার হয় সাকের আহমেদ। মোস্ট ভেলুয়েবল প্লেয়ার অব দ্যা টুনামেন্টও হন তিনি। এছাড়ায় টুনামেন্টে সর্বাধিক উইকেট নেয় সৈয়দ রাসেল।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গ্র্যান্ড স্পন্সর উৎসব গ্রুপ-এর চেয়ারম্যান রায়হান জামান। সমাপনি অনুষ্ঠানে পরিচালনা করেন টুর্নামেন্ট আয়োজক কমিটির সভাপতি সুমন খান এবং মাসুম রহমান। এসময় বাংলা পত্রিকা’র সম্পাদক ও টাইম টেলিভিশন-এর সিইও আবু তাহের, উৎসব গ্রুপের মার্কেটিং ডিরেক্টর সৈয়দ এ আল আমীন ও বাংলাদেশ স্পোর্টস কাউন্সিল অব আমেরিকা’র কর্মকর্তা তৈয়বুর রহমান টনি অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুরষ্কার বিতরণ করেন।
টাইম টেলিভিশন খেলাটি সরাসরি সম্প্রচার করে।



(পরবর্তী খবর) »



একই ধরনের খবর

  • বিপিএল-২০১৯ : ঢাকা গ্লাডিয়েটর্স চ্যাম্পিয়ন : ঢাকা ভাইপার্স রানার্স আপ
  • উদ্বোধনী দিনে উৎসব গ্রুপ ও রেন্ডি বি সিগ্যালের মধ্যে প্রীতি ম্যাচ
  • বিপিএল ক্রিকেট আসরের উদ্বোধন ২৯ সেপ্টেম্বর
  • অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন যুব সংঘ
  • ফাইনাল ১ সেপ্টেম্বর ॥ মুখোমুখী যুব সংঘ (বি) ও সোনার বাংলা
  • যুব সংঘ (বি) অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন ব্রঙ্কস ইউনাইটেড রানার্স আপ : টুর্নামেন্টের সেমিফাইনাল ২৫ আগষ্ট
  • ব্রাদার্স ব্রঙ্কস ইউনাইটেড ও যুব (বি)’র পূর্ণ পয়েন্ট লাভ
  • যুব সংঘ সোনার বাংলা ও ব্রাদার্সের জয়লাভ ॥ তাজওয়ারের হ্যাট্রিক
  • Shares