সাংবাদিক মাহাথির ফারুকীর মাতৃবিয়োগ

নিউইয়র্ক (ইউএনএ): বিশিষ্ট সাংবাদিক, নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সদস্য মাহাথির ফারুকী’র মা এবং সিনথিয়া আলমগীর মাহাথীরের শাশুড়ী আনোয়ারা বেগম (৬০) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজেউন)। গত ৩০ ডিসেম্বর রোববার তিনি ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলা শহরের পূর্ব পাইকপাড়ায় নিজ বাসায় শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্বামী আব্দুল গণি খান, তিন পুত্র ও চার কন্যা এবং নাতি-নাতনী সহ বহু আতœীয়-স্বজন রেখে গেছেন। মরহুমার সন্তানদের মধ্যে এক পুত্র এক এক কন্যা যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী। খবর ইউএনএ’র।
নিউইয়র্কে বসবাসরত সাংবাদিক মাহাথির ফারুকী ইউএনএ প্রতিনিধি-কে জানান, ৩০ ডিসেম্বর রোববার রাতে পরিবারের সবার সাথে রাতের খাবার খেয়ে তার মা আনোয়ারা বেগম শুয়ে পড়েন। রাত ১২টার দিকে তিনি ঘুম থেকে জেগে পানি পান করতে চান। এসময় তার পাশে শুয়ে থাকা স্বামী, ব্রাক্ষণবাড়িয়া শহরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুল গণি খান তাকে পানি দেন। মধ্যরাতে মায়ের কথা শুনে তাদের বড় পুত্র আব্দুল করিম খান (পলাশ) তার কাছে আছেন। এসময় আনোয়ারা বেগম সবার মাথায় হাত বুলিয়ে দোয়া করতে বলতে এবং স্বামীর কাছ থেকে মাফ চেয়ে আবার শুয়ে পড়েন। কিছুক্ষণ পর আনোয়ারা বেগমের হাত-পা শক্ত হতে থাকে। সাথে সাথে ডাক্তার ডাকা হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
মরহুমা আনোয়ারা বেগমের নামাজে জানাজা পরদিন ৩১ ডিসেম্বর সোমবার বাদ আছর অনুষ্ঠিত হওয়ার পর ব্রাক্ষণবাড়িয়া শহরের শেরপুরে পারিবারিক কবর স্থানে তার মরদেহ দাফন করা হয়।
সাংবাদিক মাহাথির ফারুকী তার মায়ের বিদেহী আতœার মাগফেরাত কামনায় সবার দোয়া কামনা করেছেন।
শোক প্রকাশ: এদিকে সাংবাদিক মাহাথির ফারুকীর মায়ের ইন্তেকালে নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে ক্লাবের সভাপতি ও সাপ্তাহিক বাংলাদেশ সম্পাদক ডা. ওয়াজেদ এ খান এবং সাধারণ সম্পাদক ও টাইম টেলিভিশন-এর বার্তা সম্পাদক শিবলী চৌধুরী কায়েস। এক শোক বার্তায় তারা মরহুমার বিদেহী আতœার মাগফেরাত কামনা এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেন।
এছাড়াও সাপ্তাহিক বাংলা পত্রিকা ও টাইম টেলিভিশন পরিবারের পক্ষ থেকে সম্পাদক ও সিইও আবু তাহের সাংবাদিক মাহাথির ফারুকীর মাতা আনোয়ারা বেগমের ইন্তেকালে গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন। আরো শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন বাংলা পত্রিকা’র সম্পাদক হাবিবুর রহমান, বাফেলো বাংলা’র সম্পাদক নিয়াজ মাখদুম, টাইম টেলিভিশন-এর বার্তা প্রধান আবিদুর রহীম, নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবিএম সালাহউদ্দিন আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ মমিন মজুমদার, সাংগঠনিক সম্পাদক চৌধুরী মোহাম্মদ কাজল ও ইয়র্ক বাংলা সম্পাদক রশিদ আহমদ।






একই ধরনের খবর

  • পিআইবি’র মহাপরিচালক শাহ আলমগীরের ইন্তেকাল 
  • দৈনিক সময়ের আলো’র অনলাইন উদ্বোধন ও প্রতিনিধি সম্মেলন অনুষ্ঠিত
  • চকবাজার ট্র্যাজেডি : বিশ্ব মিডিয়ার চোখে বড় কারণ অব্যবস্থাপনা
  • প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে পাঠক, শুভানুধ্যায়ীদের ভালোবাসায় সিক্ত মানবজমিন
  • নিউইয়র্কের মিডিয়া কড়চা-৩
  • নিউইয়র্ক টাইমসের সম্পাদকীয় : শেখ হাসিনা এমন নির্বাচন না করলেও পারতেন
  • নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের শোক প্রকাশ
  • প্রবীণ সাংবাদিক আমানুল্লাহ কবীর আর নেই
  • Shares