সর্বত্রই করোনাভাইরাসের আতঙ্ক ॥ নিউইয়র্কের ব্যবসা-বাণিজ্যে বিরূপ প্রভাব

যুক্তরাষ্ট্র আ.লীগের মুজিব বর্ষের কর্মসূচী সহ বিভিন্ন সংগঠনের অনুষ্ঠান স্থগিত

নিউইয়র্ক (ইউএনএ): প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস নিউইয়র্কবাসী সহ যুক্তরাষ্ট্রবাসী তথা বিশ্ববাসীকে আতংকিত করে তুলেছে। নিউইয়র্কের গভর্ণর ইতিমধ্যেই ষ্টেটে জরুরী অবস্থা ঘোষণা করেছে। এছাড়াও ক্যালিফোনিয়া, নিউজার্সী ও ফ্লোরিডা সহ যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি অঙ্গরাজ্যে করোনাভাইরাসের আতঙ্কে জরুরী অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। এদিকে করোনা আতঙ্কে নিউইয়র্কে ব্যবসা-বাণিজ্যে বিরূপ প্রভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে। মানুষের মধ্যে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কেনার হিরিক পড়ে গেছে। ট্রাভেল ব্যবসায় ধ্বস নেমেছে। অপরদিকে উদ্ভুত পরিস্থিতিতে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ‘জাতির জনক’ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকীর অনুষ্ঠান বাতিল করা হয়েছে। খবর ইউএনএ’র।
যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভাপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ গত রোববার (৮ মার্চ) জানান, করোনাভাইরাসের কারণে নিউইয়র্কে জরুরী অবস্থা ঘোষণা করায় এবং উদ্ভুত পরিস্থিতিতে ম্যানহাটানের ঐতিহাসিক টাইম স্কয়ারে অনুষ্ঠিতব্য মুজিব বর্ষের অনুষ্ঠান স্থগিত/বাতিল করা হয়েছে। তাছাড়া ঢাকায় যেহেতু কেন্দ্রীয় অনুষ্ঠান বাতিল করে স্বল্প পরিসরে মুজিব বর্ষ পালনের সিদ্ধান্ত হয়েছে সেইভাবে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগও সীমিত পরিসরে মুজিব বর্ষের অনুষ্ঠান পালন করবে এবং পরবর্তীতে নতুন করে কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে।
এছাড়াও বিভিন্ন সংগঠন তাদের কর্মসূচী বাতিল বা স্থগিত করেছে। সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তি দাবীতে ওয়াশিংটন ডিসিতে হোয়াইট হাউজের সামনে যুক্তরাষ্ট্র যুবদল আয়োজিত ‘নিউইয়র্ক টু ওয়াশিংটন ডিসি রোড মার্চ’ ও বিক্ষোভ সমাবেশ করোনা ভাইরাস জনিত উদ্ভূত সঙ্কজনক পরিস্থিতির কারণে বাতিল করা হয়েছে। গত ৯ মার্চ এই সমাবেশ হওয়ার কথা ছিলো। যুবদলের সভাপতি জাকির এইচ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক আবু সাইদ আহমদ ইউএনএ প্রতিনিধি-কে এই তথ্য জানান।
বিপা’র এ্যানী ফেরদৌস জানিয়েছেন, করোনা ভাইরাস জনিত উদ্ভূত সঙ্কজনক পরিস্থিতির কারণে আগামী ১৪ ও ১৫ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য বঙ্গবন্ধু শিশুকিশোর উৎসবে অংগ্রহণকারী শিশুকিশোর ও বয়োজ্যেষ্ঠ অভিভাবকদের স্বাস্থ্যগত নিরাপত্তা জনিত কারণে, উৎসব কমিটি বঙ্গবন্ধু শিশুকিশোর উৎসব-২০২০ সাময়িকভাবে স্থগিত ঘোষণা করেছে। পরিস্থিতির উন্নতি সাপেক্ষে উৎসবের নতুন তারিখ জানানো হবে। গত তিন মাস যাবত উৎসব প্রস্ততির সার্বিক কমকান্ডে একাত্ম হয়ে কাজ করবার জন্য, উৎসব কমিটি সকল শিল্পী, অভিভাবক ও কলাকুশলীদের প্রতি কৃতজ্ঞ।
বাফলা’র পাবলিক রিলেশন সেক্রেটারী আব্দুস সামাদ জানান, বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে লস এঞ্জেলেসে বাফলা আয়োজিত বাংলাদেশ ডে প্যারেড এন্ড ফেস্টিভ্যাল স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। করোনা ভাইরাসের প্রভাবে গত মঙ্গলবার (১০ মার্চ) রাতে বাংলাদেশ ইউনিটি ফেডারেশন অব লস এঞ্জেলেস (বাফলা) কার্যালয়ে এক জরুরী বৈঠকে সর্ব সম্মতিক্রমে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সভায় বলা হয়, করোনা ভাইরাসের কারণে বিশ্বব্যাপী একটি আতংক ও উদ্বেগ সৃষ্টি হয়েছে। এই প্রেক্ষিতে অনেকেই এই অবস্থায় প্যারেড স্থগিতের পরামর্শ দেন তাই সভায় প্যারেড স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
সভায় বাফলা প্রেসিডেন্ট শিপার চৌধুরী বলেন, এবারের প্যারেডে বেশ কিছু নতুন উদ্যোগ ছিল। কিন্ত এমন গুরুতর পরিস্থিতে প্যারেডটি স্থগিত করতে হলো। তিনি এবারের প্যারেডের সকল স্পন্সর এবং বিভিন্নভাবে যারা সহযোগিতা করেছেন সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। সভা শেষে কমিউনিটির বিভিন্ন অসুস্থ ব্যক্তি এবং অনেকের স্বজন মৃত্যু বরণ করেছেন তাদের জন্য বিশেষ মোনাজাত করা হয়। উল্লেখ্য, আগামী ২৮ ও ২৯ মার্চ, শনি ও রোববার বাফলার প্যারেড অনুষ্ঠানের কথা ছিল।
এদিকে করোনাভাইরাসের কারণে নিইয়র্কের ৫ বরোর বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করে জানা গেছে সকল স্থানেই মানুষের মধ্যে ভীতি কাজ করছে। বিশেষ করে ষ্টেট ইমারজের্ন্সী ঘোষণার পর এই আতঙ্ক আরো ব্যাপকভাবে লক্ষ্য করা যাচ্ছে। অপরদিকে বিভিন্ন সুপার মার্কেট সহ গ্রোসারী স্টোরগুলোতে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী কেনা-বেচায় ধুম লেগেছে। ফলে অনেক স্থানে সংকট দেখা দিয়েছে। বেড়ে গেছে দ্রব্য মূল্য। বিশেষ করে ট্রাভেল ব্যবসায় ধ্বস নেমেছে। অনেকেই ভ্রমণ বন্ধ করে দিয়েছেন। জেএফকে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের বহি:র্গমন এলাকা ফাঁকা দেখা যাচ্ছে।সাবওয়ে (পাতাল ট্রেন) সহ সিটির গুরুত্বস্থান পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা হচ্ছে।
এদিকে পবিত্র ওমরাহ হজ পালনে আগ্রহীরা তাদের কর্মসূচী বাতিল করেছেন। ফলে সংশ্লিষ্টদের নিয়ে ট্রাভেল প্রতিষ্ঠানগুলো বিপাকে পড়েছেন। তারা টিকেটের অর্থ ফেরৎ প্রদানের জন্য সংশ্লিস্ট এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষের সাথে দেন-দরবার করে চলেছেন।
এব্যাপারে জ্যাকসন হাটইটসের রাহমানিয়া ট্রাভেল সার্ভিসেস-এর প্রেসিডেন্ট ও সিইও মওলানা এম কে রহমান বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে সবার মাঝেই আতঙ্ক বিরাজ করছে- এটা স্বাভাবিক। তাছাড়া যুক্তরাষ্ট্র ও সৌদীআরব সহ বিভিন্ন দেশে নেয়া সরকারী সিদ্ধান্তের কারণে স্বাভাবিকভাবেই ট্রাভেল ব্যবসা পড়ে গেছে। বিশেষ করে যারা পবিত্র ওমরাহ হজ্জ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তাদের নিয়ে অনেকেই সমস্যায় পড়েছেন। তবে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন যে, এই সঙ্কট কেটে যাবে এবং যথা সময়েই ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ পবিত্র হজ পালন করতে পারবেন।

 






একই ধরনের খবর

  • এবার নিউইয়র্কে করোনায় আক্রান্ত বাঘ
  • আজাদ বাকেরও চলে গেলেন
  • কামাল আহমেদের ইন্তেকালে রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমার শোক
  • বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমেদ-এর ইন্তেকাল
  • টাঙ্গাইল জেলা সমিতি ইউএসএ’র সাবেক কর্মকর্তা রাজেসের ভ্রাতৃবিয়োগ
  • নিউইয়র্কে করোনায় মারা গেলেন মৌলভীবাজারের সাবেক এমপি
  • বাংলাদেশ সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমেদ আর নেই
  • সাংবাদিক স্বপন হাই আর নেই
  • Shares