নিউইয়র্কে জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন

ভিনদেশী সাংবাদিকেরা বাংলাদেশকে নিয়ে নেতিবাচক সংবাদ প্রকাশ করছেন

নিউইয়র্ক: আমেরিকা বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের (এবিপিসি) এক মতবিনিময় সভায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন বলেছেন, ভিনদেশী সাংবাদিকেরা বাংলাদেশকে নিয়ে নেতিবাচক সংবাদ প্রকাশ করছেন। বাংলাদেশ অনেক ক্ষেত্রেই উন্নয়নের মডেলে পরিণত হয়েছে, সেটি তারা বাইরে থেকে দেখার সুযোগ পান না। অনেক সময় বিশেষ মহলও বিদেশি মিডিয়াকে রাজনৈতিক কারণে বিভ্রান্ত করে। এ অবস্থার অবসানে প্রবাসে কর্মরত বাংলাদেশী সাংবাদিকদের ভূমিকা অপরিসীম।
নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসের খাবার বাড়ি মিলানায়তনে গত ২৯ মার্চ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় উপরোক্ত মন্তব্য করেন ফরিদা ইয়াসমিন। এবিপিসি’র সভাপতি লাবলু আনসারের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম ও সদস্য পপি চৌধুরীর সঞ্চালনায় প্রেসক্লাবের সদস্য ছাড়াও নিউইয়র্কে কর্মরত সাংবাদিক ও সুধীজনেরা অংশ নেন।
সভায় এক প্রশ্নের জবাবে ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনি হত্যার বিচারের দাবিতে সাংবাদিকদের কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে। তবে অবশ্যই এই হত্যাকান্ডের বিচার হতে হবে বলে। আরেক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, বাংলাদেশে নারীরা এগিয়ে চলেছেন। নানান প্রতিবন্ধকতা সত্ত্বেও নারীরা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখছে।
বাংলাদেশে পুরুষের দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন হয়েছে প্রসঙ্গ টেনে ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, জাতীয় প্রেসক্লাবের নির্বাচনে পুরুষ সদস্যদের ভোটেই তিনি সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। তবে একজন নারীকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করতে ৬৩ বছর লেগেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
প্রেসক্লাবের সদস্যদের জাতীয় প্রেসক্লাব পরিদর্শনের আমন্ত্রণ জানিয়ে ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত সাংবাদিকদের সঙ্গে ঢাকায় কর্মরত সাংবাদিকদের ‘খোলামেলা মতবিনিময়’ হওয়া দরকার। সভায় আরো বক্তব্য রাখেন আমেরিকা বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি মীর ওয়াজিদ শিবলী, বাংলাদেশী-আমেরিকান ডেমোক্রেটিক লীগের সভাপতি ও চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের আজীবন সদস্য খোরশেদ খন্দকার, ইমাম কাজী কায়্যুম, কমিউনিটি বোর্ড সদস্য নাঈমা সুলতানা এবং সাংবাদিক মাহফুজুর রহমান।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন আমেরিকা বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সদস্য ও যুক্তরাষ্ট্র সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের সভাপতি রাশেদ আহমেদ, চ্যানেল আই ইউকে’র অনুষ্ঠান উপস্থাপক ও ইমিগ্রেশন আইনজীবী শেখ সালেহ আহমেদ হামিদী, আমেরিকা বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের নির্বাহী সদস্য নিহার সিদ্দিকী ও কানু দত্ত, প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ফারহানা চৌধুরী ও আমজাদ হোসেন, সদস্য জাহেদ শরীফ, মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, তপন চৌধুরী ও মোহাম্মদ হামিদ, সাপ্তাহিক সন্ধান সম্পাদক সনজীবন কুমার সরকার, এনটিভি ইউএসএ’র বার্তা প্রযোজক আবীর আলমগীর ও বার্তা প্রধান পুলক মাহমুদ, সাপ্তাহিক আওয়াজ বিডির সম্পাদক শাহ তাজ ও প্রকাশক মাজহারুল ইসলাম জনি প্রমুখ।
সভা শেষে এবিপিসি’র সহ-সভাপতি মীর ওয়াজিদ শিবলী ও প্রতিষ্ঠাতা সদস্য শারমিন রেজা ইভার রোগমুক্তি কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন প্রেসক্লাবের সদস্য মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি।



« (পূর্ববর্তী খবর)



একই ধরনের খবর

  • নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত
  • প্রতিশোধ নেয়ার ভয়ে বাংলাদেশের সম্পাদকরা অনেক রিপোর্ট প্রকাশ করেন না : অ্যামনেস্টির সাদ হাম্মাদি 
  • সাংবাদিকতায় তাঁদের আদর্শ অনুকরণীয়, অনুস্মরণীয়
  • আমরা শোকাহত, মর্মাহত
  • বাংলাদেশে যুবতীর জোরপূর্বক বিয়ে এবং ব্রুকলীনে দুঃসহ জীবন
  • নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সভা : ১৩ মে ইফতার মাহফিল
  • বাংলাদেশের শহীদুল আলম ‘ইনফিনিটি অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন
  • দৈনিক সময়ের আলো হবে গণমানুষের কন্ঠস্বর ও সরকারের উন্নয়নের সহযোগী
  • Shares