বিশ্বকাপ ক্রিকেটের জঁমকালো উদ্বোধন

মেলবোনে (অস্ট্রেলিয়া): অষ্ট্রেলিয়ার মেলবোনে জাঁকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পর্দা উঠল একাদশতম আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের। ১২ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার মেলবোর্নে আতসবাজির মধ্যদিয়ে শুরু হয় মনোমুগ্ধকর এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। একই সময়ে বিশ্বকাপের সহ আয়োজক নিউজিল্যান্ডেও শুরু হয় বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।
মেলবোর্ন ও ক্রাইস্টচার্চে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ক্রিকেটপ্রেমীদের মাঝে মহারণের আবহ তৈরি করে। ২৩ বছর পর দুই পড়শি অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে ফিরল বিশ্বকাপ। ক্রাইস্টচার্চের দর্শকরা ২০১৫ বিশ্বকাপকে স্বাগত জানাল রঙে-রূপে-রসে টইটম্বুর অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে। চোখ ধাঁধানো আতশবাজির প্রদর্শনীর মধ্যদিয়ে শেষ হয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। চার বছর আগে এক ফেব্রুয়ারীতে যে শহর কেঁপে উঠেছিল ভূমিকম্পে, সেই ক্রাস্টচার্চ আরেক ফেব্রুয়ারীতে বিশ্বকে আহ্বান জানাল ক্রিকেটযজ্ঞে শামিল হওয়ার জন্য। মেয়র লিয়ান্নে ড্যালজিয়েল বললেন, ‘ক্রাইস্টচার্চ যখন ২০১১ রাগবি বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য প্রস্তত হচ্ছে, তখনই আঘাত হানে ভূমিকম্প।’ তিনি দর্শকদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমরা ফিরে এসেছি।’ নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জন কি’র কণ্ঠেও একই কথা অনুরণিত হয়।
মেলবোর্নেও বর্ণিল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নাচ-গানের কমতি ছিল না। সেখানে পারফরমারদের সঙ্গে যোগ দেন অস্ট্রেলিয়ার লিজেন্ড ক্রিকেটাররা। বাংলাদেশ দল এদিন ব্রিসবেনে তাদের শেষ প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে। ম্যাচ শেষে বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা উড়ে যান মেলবোর্নে। সেখানে মাইয়ার মিউজিক বৌলে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন তিনি।
এদিকে ‘চলো বাংলাদেশ… বিশ্ব উঠোনে চলো’- হাবিবের এই জিঙ্গেলে পারফর্ম করলেন বাংলাদেশের ১৫ ছেলে-মেয়ে। তাদের মধ্যে দু’জন একসময়ের ঢাকার মাঠ মাতানো ফুটবলার বাদল রায় ও কায়সার হামিদের মেয়ে। ১৩ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার মেলবোর্নে ২০১৫ ক্রিকেট বিশ্বকাপের জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ‘এক টুকরো বাংলাদেশ’ উপস্থাপন করেন বাদল রায়ের মেয়ে গঙ্গোত্রি রায় বৃষ্টি ও কায়সার তনয়া কারিনা কায়সার এবং তনয় মোস্তফা হামিদ। বিশ্বকাপে অংশ নিতে যাওয়া ১৪ দেশ তাদের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি তুলে ধরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে। অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন ও নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে আলাদা আলাদাভাবে আয়োজন করা হয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের। ১৪ ফেব্রুয়ারী থেকে শুরু হচ্ছে ক্রিকেট বিশ্বকাপ। মেলবোর্নের অনুষ্ঠানে ইংরেজী আদ্যক্ষর অনুসারে আফগানিস্তানের পর বাংলাদেশের ছেলে-মেয়েরা পারফর্ম করেন। যারা অস্ট্রেলিয়া গেছেন পড়াশোনা করতে। বৃষ্টি কোরিওগ্রাফিতে গানের তালে তালে নৃত্য দর্শকদের প্রচুর আনন্দ দিয়েছে।






একই ধরনের খবর

  • সাকিবের মতো তথ্য না দেওয়ায় শাস্তি পেয়েছিলেন জয়াসুরিয়াও
  • সাকিব দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ : দায় স্বীকার
  • বিপিএল-২০১৯ : ঢাকা গ্লাডিয়েটর্স চ্যাম্পিয়ন : ঢাকা ভাইপার্স রানার্স আপ
  • উদ্বোধনী দিনে উৎসব গ্রুপ ও রেন্ডি বি সিগ্যালের মধ্যে প্রীতি ম্যাচ
  • বিপিএল ক্রিকেট আসরের উদ্বোধন ২৯ সেপ্টেম্বর
  • অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন যুব সংঘ
  • ফাইনাল ১ সেপ্টেম্বর ॥ মুখোমুখী যুব সংঘ (বি) ও সোনার বাংলা
  • যুব সংঘ (বি) অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন ব্রঙ্কস ইউনাইটেড রানার্স আপ : টুর্নামেন্টের সেমিফাইনাল ২৫ আগষ্ট
  • Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked as *

    *

    Shares