বাসদ নেতা মাহবুবুল হকের মরদেহ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় অটোয়ায় দাফন

নিউইয়র্ক: বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) আহ্বায়ক ও সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের অন্যতম পুরোধা  বীর মুক্তিযোদ্ধা, খ্যাতিমান রাজনীতিবিদ আ ফ ম মাহবুবুল হকের মরদেহ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় কানাডার অটোয়াতে দাফন করা হয়েছে। সেখানে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে কানাডায় নিযুক্ত হাই কমিশনার এইচ ই মিজানুর রহমান তাকে শ্রদ্ধা জানান এবং কানাডায় বসবাসরত মুক্তিযোদ্ধারা তাকে শেষ স্যালুট জানান বলে জানা গেছে। গত ১২ নভেম্বও শনিবার বাদ জোহর তার নামাজে জানাজা শেষে স্থানীয় কবর স্থানে তার মরদেহ দাফন করা হয়। জানাজায় কানাডার অটোয়া, টরন্টো এবং যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সহ উত্তর আমেরিকার বিভিন্ন স্থান থেকে বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী অংশ নেন। উল্লেখ্য, গত ১১ নভেম্বর শুক্রবার বাংলাদেশ সময় সকাল ১০.১৫টায় কানাডার অটোয়ার সিভিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক মেয়ে ও অসংখ্য গুনোগ্রাহী রেখে যান। গত ২৬ সেপ্টেম্বর কানাডার সময় সন্ধ্যায় ৭.৩০টায় সাবেক আপোষহীন ছাত্রনেতা কমরেড আ ফ ম মাহবুবুল হক ব্রেইন হেমারেজ হওয়ার পর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। খবর ইউএনএ’র।
আ ফ ম মাহবুবুল হক গত ২০০৪ সালের ২৫ অক্টোবর ঢাকায় অজ্ঞাত ঘাতকদ্বারা আঘাত প্রাপ্ত হওয়ায় তিনি দেশে চিকিৎসা শেষে সর্বশেষ কানাডায় চিকিৎসা নিচ্ছেন। তিনি ১৯৪৮ সালের ২৫ ডিসেম্বর নোয়াখালী জেলার চাটখিল উপজেলার মোহাম্মদপুর গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। তার পিতার মৃত ফজলুল হক, মাতা মরিয়ামেন নেছার ৬ মেয়ের মধ্যে ১ ছেলে আ ফ ম মাহবুবুল হক। এসএসসি ও এইচএসসিতে তিনি মেধার তালিকায় স্থান করে পাশ করেন। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতির ছাত্র ছিলেন।
বাসদ-এর আহবায়ক আ. ফ. ম. মাহবুবুল হকের মৃত্যু খবর পেয়ে নিউইয়র্ক প্রবাসী গাজী শামসু, লিলি, শাহাব উদ্দিন ও তাজুল ইসলাম তার প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানাতে শুক্রবার কানাডা যান এবং শনিবার মরহুমের জানাজায় অংশ নেন। আ. ফ. ম. মাহবুবুল হকের মরদেহ কানাডায় দাফন করা হয়েছে।
মুক্তিযোদ্ধা ও বিশিষ্ট রাজনীতিক আ. ফ. ম. মাহবুবুল হকের মৃত্যুতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশন ইউএসএ’র পক্ষ থেকে গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করা হয়েছে।






একই ধরনের খবর

  • নিউজার্সীতে ভাইয়ের নামে বিচারপতি সিনহার বাড়ি
  • নিউজার্সীর লিবার্টি বিমানবন্দরে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র ব্যাপক বিক্ষোভ
  • নতুন বই ‘এ ব্রোকেন ড্রিম: রুল অব ল, হিউম্যান রাইটস এন্ড ডেমোক্রেসী’ প্রকাশ : সরকারের চাপে দেশ ছাড়তে বাধ্য হয়েছি : সুরেন্দ্র সিনহা
  • নিউইয়র্কে অনুষ্ঠানের নামে ‘চাঁদাবাজি’
  • অটোয়ায় ৩২তম ফোবানা সম্মেলন অনুষ্ঠিত
  • এনএবিসি কনভেনশন ৩২তম না দশম?
  • নবাগত বাংলাদেশীদের কর্মসংস্থানের অঙ্গীকার
  • ‘মামা তোমার বাসর হবে জান্নাতুল ফিরদাউসে’
  • Shares